Slideshows

http://bostonbanglanews.com/index.php/components/com_jcomments/js/images/images/stories/2015/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/605744Finding_Immigrant____SaKiL___0.jpg

কুইন্স ফ্যামিলি কোর্টে অভিবাসী

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দ্যা ইন্টারফেইস সেন্টার অব নিউইয়র্ক ও আইনী সহায়তা সংগঠন নিউইয়র্ক এর উদ্যোগে গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ৯ See details

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

যুক্তরাষ্ট্রের খবর

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ সেলিমের সাথে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক এম এ সালামের সাক্ষাত

রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮

Picture

হাকিকুল ইসলাম খোকন, বাপসনিঊজ:যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও আমেরিকা-বাংলাদেশ এলাইন্সের প্রেসিডেন্ট এমএ সালাম বৃহস্পতিবার দুপুরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি'র সাথে তার ঢাকা বনানী বাস ভবনে সাক্ষাত করেন।

alt

তিনি এর আগে আওয়ামী লীগ নেতা এম এ করিমের সঙ্গে একটি হোটেলে মতবিনিময় করেন ।

alt

এই সময় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা আতাউর রহমান শামীম,জসিম মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

alt

শেষে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ এমপি'র সাথে তার কাওরান বাজার অফিসে সাক্ষাত করেন। এই সময় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা আতাউর রহমান শামীম,জসিম মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।


বিয়ানীবাজার সমিতির অভিষেক ৪ ফেব্রুয়ারী

রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:প্রবাসের অন্যতম আঞ্চলিক সংগঠন বাংলাদেশ বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতি ইউএসএ-এর নব নির্বাচিত কার্য্যকরি পরিষদের অভিষেক অনুষ্ঠান আগামী ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮  রবিবার বাদ সন্ধ্যা উড হেভেনস্থ জয়া পার্টি হলে (সাবেক মৌরিয়া) অনুষ্ঠিত হবে।
বিয়ানীবাজার সমিতির নব নির্বাচিত কার্য্যকরি পরিষদের অভিষেক উপলক্ষে স্মরনিকা প্রকাশের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রকাশিতব্য স্মরনিকার জন্য বিয়ানীবাজার এর মুক্তিযুদ্ধ, ইতিহাস, ঐতিহ্য ও তত্ত্ব সমৃদ্ধ বিষয় ভিত্তিক লেখা প্রদানের জন্য বিয়ানীবাজার বাসীর কাছে লেখা আহ্বান করা যাচ্ছে।
আগ্রহী লেখকগণ আগামী ২১ জানুয়ারী  তারিখের মধ্যে নি¤œ ঠিকানায় যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানানো যাচ্ছে। যোগাযোগ: আব্দুল কাদির, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক, ফোন নং: ৯১৭-৩৪৫-৩৫৯১, ইমেইল: এই ইমেইল ঠিকানা স্পামবট থেকে রক্ষা করা হচ্ছে।এটি দেখতে হলে আপনাকে JavaScript সক্রিয় করতে হবে। . মাসুদুল হক ছানু, সভাপতি, ফোন:৩৪৭-৮৭৯-৩৯৩৭


বাপার সভাপতি সুজাত এবং সম্পাদক হুমায়ুন

রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ আমেরিকান পুলিশ এসোসিয়েশেনের (বাপা) নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন লুটানেন্ট সুজাত খান এবং সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন পুলিশ অফিসার হুমায়ুন কবির।গত ৭ জানুয়ারী রোববার সন্ধ্যা ৬টায় কুইন্সের গুলশান টেরেস পার্টি হলে নতুন কমিটির অভিষেক ও বর্ষবরণ অনুষ্ঠিত হয়।

Picture

অনুষ্ঠানে শতাধিক পুলিশ অফিসার ও তাদের পরিবারবর্গের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠানটি প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে।অনুষ্ঠানের প্রথমে প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সার্জেন্ট সুমন সাঈদ, প্রাত্তন সভাপতি লুটানেন্ট শামসুল হক ও নবনির্বাচিত সভাপতি লুটানেন্ট সুজাত খান একই মঞ্চে বসে তাদের অভিমত ব্যক্ত করেন। তারা ‘বাপা’কে শাক্তিশালী করার জন্য সর্বপ্রকার সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন।

alt
দ্বিতীয় পর্বে নবনির্বাচিত কমিটিদের পরিচয় পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতি লুটানেন্ট সুজাত খান, প্রথম সহ সভাপতি সার্জেন্ট তারিক চৌধুরী, দ্বিতীয় সহ সভাপতি ট্রাফিক এজেন্ট আবদুল জলিল, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির (পুলিশ অফিসার), কোষাধ্যক্ষ সার্জেন্ট এম ডি রহমান, সহকারী কোষাধ্যক্ষ পুলিশ অফিসার শওকত হাফিজ, ইভেন্ট কর্ডিনেটর লুটনেন্ট কারাম চৌধুরী, সার্জেন্ট এট আর্মস্ পুলিশ অফিসার ফুয়াদ হোসেন, মিডিয়া সমন্বয়কারী ডিটেটিভ জামিল সরোয়ার, কমিউনিটি সমন্বয়কারী পুলিশ অফিসার শেখ আহম্মদ, সহ সাধারণ সম্পাদক ম্যানেজার মো: রহমান।
সভাপতি সুজাত খান তার বক্তব্যে তাকে নির্বাচিত করে এই মহান আসনে অধিষ্ঠিত করার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন বাংলাদেশ আমেরিকান পুলিশ এসোসিয়েশন কোন ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠান নয়। এটা আপনার আমার এবং আমাদের সংগঠন। এক এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য আমাদের সবার একযোগে কাজ করে যেতে হবে। আমি সভাপতি হিসাবে নয় আমি আপনাদের একজন সেবক হিসাবে কাজ করবো।
অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে ছিল নৈশভোজ, সঙ্গীতানুষ্ঠান, সঙ্গীতনুষ্ঠানে প্রবাসের জনপ্রিয় শিল্পীরা ও বাংলাদেশের পুরস্কার প্রাপ্ত শিল্পীরা গান পরিবেশন করেন। সঙ্গীতানুষ্ঠানে বাপার নবনির্বাচিত ও প্রাত্তন সদস্যবৃন্দ এবং অনুষ্ঠানে আগত অতিথিবৃন্দরা নেচে গেয়ে অনুষ্ঠানটি প্রান্তবন্ত করে তোলে।


যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগ কার্যনির্বাহী কমিটির সভা ২৮শে জানুয়ারী

রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ: যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগ-এর কার্যনির্বাহী কমিটির সভা আগামী ২৮শে জানুয়ারী ২০১৮ রবিবার বিকেল ৪:০০ টায় হোটেল হোম-২ (ঐড়ঃবষ ঐড়সব-২, ঈড়হভবৎবহপব জড়ড়স, ৩৯-০৬ ৩০ঃয ঝঃৎববঃ, খওঈ, অংঃড়ৎরধ, ঘবি ণড়ৎশ) সুইটে অনুষ্ঠিত হবে । উক্ত সভায় সকলের উপস্থিতি একান্তভাবে কামনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগ-এর সভাপতি ড.সিদ্দিকুর রহমান
ও উপদপ্তর সম্পাদক আব্দুল মালেক। আসন্ন জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে এবং নিজেদের অভ্যন্তরীন যে কোন বিষয় নিয়ে খোলাখুলি আলোচনার জন্যই মূলত: এই সভা আহবান করা হচ্ছে । প্রতিটি সদস্য তাদের যুক্তিসঙ্গত বক্তব্য উপস্থাপনের মাধ্যমে সভাকে প্রানবন্ত করবেন বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস ।
নিন্মে মূল কয়েকটি এজেন্ডা উল্লেখ করা হলো :
১) প্রথমেই সভাপতি সূচনা বক্তব্য রাখবেন । যে বক্তব্যে কার্যনির্বাহী কমিটির সভা ডাকার প্রেক্ষাপট সবিস্তার বর্ননা করবেন ।
২) গত কার্যনির্বাহী কমিটির সভা যেখানে মূলতবী হয়েছিল সেখান থেকেই আবার শুরু করা হবে ।
৩) আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সুফল ঘরে তুলতে আমাদের করনীয় সম্পর্কে সকলের মতামত নেওয়া হবে ।
৪) শুন্য পদ গুলো পুর্ন করার ব্যাপার আলোচনা।
৫) যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগের সন্মেলনের ব্যপারে উপস্থিত সকলের মতামতের উপর ভিত্তি করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে ।
৬) বিবিধ ।
বি.দ্র. সকল সন্মানিত সদস্যদের প্রতি আমার সনির্বন্ধ অনুরোধ আসুন আমরা সবাই মিলে আসন্ন সভাটিকে সর্বাত্বক ভাবে সফল করতে একাত্ব হয়ে কাজ করি । নির্বাচনের এই বছরটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আমাদের জন্য এবং সেক্ষেত্রে ঐক্যবদ্ধতার কোন বিকল্প নেই, একথাটি ঘুণাক্ষরেও যেন আমরা ভুলে না যাই । সভা চলাকালীন সময়ে আমরা সবাই শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখবো, একে অপরের কথা শুনবো এবং একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকবেন বল এ আহবান জানান সভাপতি ড.সিদ্দিকুর রহমান ও উপদপ্তর সম্পাদক আব্দুল মালেক।


গজনফর আলী চৌধুরী ও মাহবুবুর রহমান প্রবাসীদের ভালবাসা আর ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হলেন

রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮

হাকিকুল ইসলাম খোকন, বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক: প্রবাস তথা বাংলাদেশের রাজনীতি ও সাংবাদিকতা জগতের দুই দিকপাল ও অনুকরণীয় দুই ব্যক্তিত্ব গজনফর আলী চৌধুরী ও মাহবুবুর রহমান প্রবাসীদের আন্তরিক ভালবাসা আর রং বে রং-এর ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হলেন। তাদের সম্মানে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, তারা বাংলাদেশী কমিউনিটির অভিভাবক, নীতি-আদর্শের প্রতীক, আলোকিত মানুষ। তাদের নীতি, আদর্শ অনুসরণযোগ্য, অনুকরণীয়। তারা তাদের জীবদ্ধশায় যে আদর্শের দৃষ্টান্ত রেখে গেলেন তার জন্যই তারা মানুষের মনে অমর হয়ে থাকবেন।
নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত অধুনালুপ্ত সাপ্তাহিক সংবাদ-এর সম্পাদক ও বিশিষ্ট রাজনীতিক গজনফর আলী চৌধুরী এবং সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা ও অধুনালুপ্ত সাপ্তাহিক নিউইয়র্ক-এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক মাহবুবুর রহমান-এর সম্মানে প্রবাসী বাংলাদেশীদের উদ্যোগে সংবর্ধনা সভার আয়োজন করা হয়। খবরবাপসনিঊজ’র।
সিটির জ্যাকসন হাইটসের বাংলাদেশ প্লাজা মিলনায়তনে গত ৮ জানুয়ারী রোববার সন্ধ্যায় আয়োজিত ব্যতিক্রমী এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট চিকিৎসা বিজ্ঞানী ডা. সাদ উজ জামান। যৌথভাবে অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন  লেখক ও যুক্তরাষ্ট্র উদীচী শিল্পী গোষ্ঠির সংগঠক সুব্রত বিশ্বাস এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক নেতা  শাহাব উদ্দীন। অনুষ্ঠানে আয়োজকদের পক্ষ থেকে সম্বর্ধিত অতিথিদ্বয়কে ক্রেস্ট ও উপহার প্রদান ছাড়াও প্রথম আলো উত্তর আমেরিকা’র পক্ষ থেকে উপহার প্রদান করা হয়। এছাড়াও সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা ও টাইম টেলিভিশন, মৌলভীবাজার জেলাবাসীর পক্ষ থেকে উভয়কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে তাদেরকে বই উপহার দেন আলোকচিত্রী ওবায়দুল্লাহ মামুন। অপরদিকে গজনফর আলী চৌধুরীকে উত্তরীয় পরিয়ে দেন সুব্রত বিশ্বাস এবং মাহবুবুর রহমানকে উত্তরীয় পরিয়ে দেন সাংবাদিক আবু তাহের।
অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথি গজনফর আলী চৌধুরী প্রবাসীদের পক্ষ থেকে তাকে সম্মাননা জানানোর জন্য আয়োজক ও উপস্থিত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এবং তার জীবনের বিভিন্ন দিক সহ নানা স্মৃতির কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, আমি আমার সারাটি জীবনই সাধারণ মানুষের কল্যাণে নিবেদনের চেষ্টা করেছি। জেল-জুলুম কোন কিছুই আমাকে নিরস্ত্র করতে পারেনি। অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ও স্বোচ্চার থেকে কৃষক শ্রমিক মেহনতি মানুষের পক্ষে সংগ্রাম করেছি। আজীবন এই সংগ্রাম চালিয়ে যাবো। alt
গজনফর আলী চৌধুরী বলেন, মৌলভীবাজারে কমিউনিস্ট পার্টি করতে গিয়ে আমি পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছিলাম। গৃহহীন হয়েছি। তারপরও প্রগতির সংগ্রাম ছাড়িনি। এক পর্যায়ে লেখাপড়া চালাতে দৈনিক সংবাদে চাকুরী করতে বাধ্য হয়েছি। তিনি বলেন, আদর্শের সংগ্রামে সব সময়ই বাধা আসবে। কিন্তু তাতে দমে গেলে চলবে না। সমাজে পরিবর্তন আনতে হলে কাউকে না কাউকে ত্যাগ ও বিসর্জনের দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হয়। এজন্য আমার জীবনে যা কিছু করেছি তাতে কারো প্রতি আমার কোন ক্ষোভ বা অভিমান নেই। যা সত্য মনে করেছি তার উপর অবিচল থাকার চেষ্টা করেছি। এটাই আমার জীবনের সব চাইতে বড় শান্তনা।
তিনি বলেন, আমার শারিরীকি অবস্থা ভাল নেই। চিকিৎসকরা হার্ট ট্রান্সপ্লান্ট করার কথা বলেছিলেন। কিন্তু এখন বলছেন এই বয়সে এটা সম্ভব নয়। এজন্য হার্টের বাল্বের উপর আমি নির্ভরশীল। এটা যখনই বন্ধ হয়ে যাবে তখন আমারও হয়তো চলে যেতে হবে। বাকী সবই আল্লাহর ইচ্ছা। তিনি তার জন্য দোয়া করতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানের অপর সংবর্ধিত ব্যক্তি, প্রবীণ সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান নিজের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে বলেন, আমি সাংবাদিকতায় নৈতিকতার শিক্ষা নিয়েছিলাম সিলেটের যুগভেরী পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা আমিনুর রশীদ চৌধুরীর কাছ থেকে। তিনি বলেছিলেন, একাজে জেল-জুলুম নিত্যসঙ্গী। কিন্তু সত্যের সাথে আপোষ করা যাবে না। আমি সেখান থেকেই অন্যায়ের সাথে আপোষ না করার শিক্ষা নিয়েছিলাম। তিনি বলেন, প্রবাস জীবনে অনেকের সাথে কাজ করেছি। এটাও আমার জীবনের অভিজ্ঞতাকে আরো পোক্ত করেছে। তিনি বলেন, আমি ছোটবেলা থেকেই প্রগতিশীলতার পক্ষে ছিলাম। আমার মরহুম মা আমাকে এই শিক্ষা দিয়েছিলেন। যার ফলে সারাটি জীবনই এর প্রভাব কাজ করেছে আমি চিন্তা ও চেতনায়।
সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান বলেন, সাহিত্য সংস্কৃতি সহ জ্ঞানে বিজ্ঞানে সিলেটিরা এগিয়ে থাকলেও সেলসম্যানশীপের অভাবে সিলেট কিছুটা পিছিয়ে পড়েছে। সিলেটে একদিকে যেমন ছিলেন, হযরত শাহজালাল অন্যদিকে ছিলেন রাধা রমন, সৈয়দ মুজতবা আলী সহ আরো অনেকে। এদের মেধা, সৃজনশীলতাকে কাজে লাগাতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।
মাহবুবুর রহমান বলেন, আমি শারিরীকভাবে একটু অসুস্থ্য। তারপরও আবার লেখালেখি শুরু করছি। আশা করি নিজের অভিজ্ঞতার কথা সবার সাথে শেয়ার করতে পারবো। অনুষ্ঠানের শুরুতে দুই অতিথির সংক্ষিপ্ত জীবনী পড়ে শুনান মোহাম্মদ আলীম উদ্দীন ও ওবায়দুল্লাহ মামুন। এরপর সাংবাদিক মাহবুবুর রহমানের জীবনীর উপর আলোচনা করেন প্রথম আলো উত্তর আমেরিকা’র ব্যুরো প্রধান ইব্রাহিম চৌধুরী খোকন এবং গজনফর আলী চৌধুরীর জীবনীর উপর আলোচনা করেন তার ঘনিষ্ট বন্ধু ও অধ্যাপক সৈয়দ মুজিবুর রহমান।

alt
অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাপ্তাহিক ঠিকানা’র সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি, সাবেক সংসদ সদস্য এম এম শাহীন, মূলধারার রাজনীতিক মোর্শেদ আলম,সাপ্তাহিক ঠিকানা’র প্রধান সম্পাদক মুহাম্মদ ফজলুর রহমান, সাপ্তাহিক জন্মভূমি সম্পাদক রতন তালুকদার, নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদ এ খান, সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা’র সম্পাদক আবু তাহের, অধ্যাপক নবেন্দু দত্ত, সাংবাদিক-লেখক শিতাংশু গুহ, বিশিষ্ট রাজনীতিক আব্দুর মোসাব্বির, কমিউনিটি নেতা ফখরুল আলম, সালেহ আহমদ চৌধুরী, সালেহ আহমদ, এমাদ চৌধুরী, নুরে আলম জিকু, এডভোকেট মুজিবুর রহমান, কাশেম আলী, মুক্তিযোদ্ধা ড. আব্দুল বাতেন, মুক্তিযোদ্ধা শরাফ সরকার, এডভোকেট নাসির উদ্দীন, তোফায়েল আহমদ চৌধুরী, দেওয়ান শাহেদ চৌধুরী, মিহনাহজ আহমদ সাম্মু, সৈয়দ সিদ্দিকুল হাসান, আনসার হোসেন চৌধুরী, নজরুল ইসলাম চৌধুরী, রাফায়েত চৌধুরী, সোহান আহমদ টুটুল প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, গজনফর আলী চৌধুরী আর মাহবুবুর রহমান আমাদের কমিউনিটির সম্মানিত ব্যক্তিত্ব, আদর্শবাদী মানুষ। তারা আমাদের অভিভাবক। আদর্শের কোন মৃত্যু নেই। তাদের মেধা, কর্ম আর যোগ্যতা দিয়ে আমৃত্যু বেঁচে থাকবেন। তারা আদর্শবাদী মানুষ বলেই আমরা সবাই মিলে তাদের সংবর্ধনা দিতে পারছি। আর সম্মানিত ব্যক্তিকে সম্মান জানানো আমাদের দায়িত্ব-কর্তব্য। তারা সম্মানিত হলে আমরাও সম্মানিত হবো। বক্তারা তাদের সুস্থ জীবন ও দীর্ঘায়্যু কামনা করেন।


১১মার্চ যুক্তরাষ্ট্র জাসদের সম্মেলন : মাসব্যাপী সাংগঠনিক কর্মীসভা ও মতবিনিময় কর্মসূচী ঘোষনা

রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮

হাকিকুল ইসলাম খোকন, বাপসনিঊজ:আগামী ১১মার্চ ২০১৮ রোববার যুক্তরাষ্ট্র জাসদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। যুক্তরাষ্ট্র জাসদ'র সম্মেলন সফল করার লক্ষে মাসব্যাপী পৃথক পৃথক সাংগঠনিক কর্মসূচী গ্রহন করা হয়েছে। গত ১২ জানুয়ারী শুক্রবার রাত ৮টায়, জ্যাকসন হাইটসে অনুষ্ঠিত সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির এক জরুরী সভায় ওই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্ঠা মণ্ডলীর সদস্য ও যুক্তরাষ্ট্র জাসদ সভাপতি এবং সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক দেওয়ান শাহেদ চৌধুরী সভায় সভাপতিত্ব করেন।

সভা থেকে মাসব্যাপী সাংগঠনিক কর্মসূচীতে অংশগ্রহণের জন্য যুক্তরাষ্ট্র জাসদের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের প্রতি উদাত্ত্ব আহবান জানানো হয়। কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনা অনুসরণ করে, সম্মেলন সফল করে তোলতে জাসদের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের সহযোগীতা কামনা করেন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির নেতৃবৃন্দ। এবং সম্মেলনে অতিথি হিসেবে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকার সদয় সম্মতি রয়েছে বলে, সভায় জানানো হয়।

সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সভায়, জাসদের সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদারের মাধ্যমে সংগঠনকে শক্তিশালী ও সম্মেলন সফল করার লক্ষে ২১ জানুয়ারী থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মাসব্যাপী একাধিক সাংগঠনিক কর্মসূচী গ্রহনের প্রস্তাব গ্রহন করা হয়েছে। একই সাথে নিউ জার্সি রাজ্যে বসবাসরত জাসদের নেতা-কর্মীদের রাজনৈতিক সাংগঠনিক কার্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করতে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র জাসদ নেতৃবৃন্দ আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি নিউ জার্সি রাজ্যে বসবাসরত জাসদের নেতা-কর্মীদের নিয়ে কর্মীসভায় মিলিত হবেন।

যুক্তরাষ্ট্র জাসদ নেতৃবৃন্দ নিউ ইয়র্ক সিটির জামাইকা, ব্রঞ্চস, ব্রুকলিন, ওজনপার্ক, অ্যাষ্টোরিয়া, লং-অ্যাইল্যান্ড, জ্যাকসন হাইটসে পৃথক পৃথক কর্মীসভা ও মতবিনিময় সভা করবেন। এসব পৃথক পৃথক কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে, জাসদের প্রবীন ও দলের নিষ্কৃয় নেতার সাথে মতবিনিময়, জাসদের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের নিয়ে কর্মীসভা ও মতবিনিময়, জাসদের শুভাকাঙ্ক্ষী সাবেক নিষ্কৃয় নেতা-কর্মী ও বিভিন্ন পেশাজীবী নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করা হবে।

এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে আগামী ২১ জানুয়ারী রোববার অ্যাস্টোরিয়া, ২৯ জানুয়ারী ব্রঞ্চস, ২রা ফেব্রুয়ারি শুক্রবার জামাইকা, ১২ ফেব্রুয়ারি নিউ জার্সি, ১৮ ফেব্রুয়ারি জ্যাকসন হাইটস ও
ব্রুকলিন, ওজনপার্কে আরো দুটি কর্মীসভা অনুষ্ঠিত হবে।

অাগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি রোববার সন্ধা ৬টায়, জ্যাকসন হাইটসে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ সভায় মাসব্যাপী সাংগঠনিক কার্যক্রমের মূল্যায়ন, পর্যালচনা ও সম্মেলন সফলের লক্ষ্যে সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হবে। সভায় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্যসহ জাসদের সকল স্থরের নেতা-কর্মীদের উপস্থিত থাকার জন্য আহবান জানিয়েছেন, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্ঠা মণ্ডলীর সদস্য ও যুক্তরাষ্ট্র জাসদ সভাপতি এবং সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক দেওয়ান শাহেদ চৌধুরী।

সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সভায়, সম্মেলন সফল করার লক্ষে মতামত ব্যক্ত করেন, দেওয়ান শাহেদ চৌধুরী, নুরে আলম জিকু, শাহ নেওয়াজ চৌধুরী কবির, ওমর অারিফ শিমন, মনসুর আহমদ চৌধুরী, শাহনুর কোরেশী, শহিদুল ইসলাম, জ্যোতির্ময় দত্ত নিশু, আবুল ফজল লিটন, আমিনুর রহমান পাপ্পু, তারিকুল ইসলাম, তারেক আহমদ, শরিফুল হক প্রমুখ।


মাহবুব সভাপতি এবং সুলতান সাধারণ সম্পাদক টাঙ্গাইল সোসাইটি’র নতুন কমিটি গঠিত

রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮

হাকিকুল ইসলাম খোকন,হেলাল মাহমুদ, বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক: যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসীদের সামাজিক সংগঠন ‘টাঙ্গাইল সোসাইটি ইউএসএ ’র নতুন কমিটি গঠিত হয়েছে। ২০১৮-২০১৯ এই দুই বছরের জন্য গঠিত কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মনোনীত হয়েছেন যথাক্রমে খন্দকার মাহবুব হোসেন ও সুলতান মাহমুদ খান। সোসাইটির সাধারণ সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক নতুন কমিটি গঠন করা হবে বলে সংশ্লিস্ট সূত্রে জানা গেছে।সিটির জ্যামাইকার হিলসাইড এভিনিউস্থ স্টার কাবাব রেষ্টুরেন্টে গত ৭ জানুয়ারী রোববার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন সোসাটির বিদায়ী সভাপতি দেওয়ান আমিনুর রহমান। সভা পরিচালনা করেন বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম। খবর বাপসনিঊজ ’র।
 
সভার প্রথম পর্বে উপস্থিত প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসী সভার শুরুতেই ইংরেজী নতুন বছরের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এবং সকলের মধ্যকার সৌহার্দ্য-সম্প্রীতি আরো জোরদার করার উপর গুরুত্বারোপ করেন। এরপর সভায় সোসাইটির বিগত দুই বছরের (২০১৬-২০১৭) আয়-ব্যয় হিসাব পেশের পর তা গৃহীত হলে এবং বিদায়ী কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়।
 
পরবর্তীতে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় পর্ব তথা কমিটি গঠন সভায় সভাপতিত্ব করেন আব্দুর রহমান মন্টু। এই পর্ব পরিচালনা করেন শামসুজ্জামান খান। এই পর্বে স্বাগত বক্তব্যে সোলায়মান খান নতুন কমিটি গঠনের উপর গুরুত্তারোপ করেন। সভায় কমিটি গঠনকল্পে গঠিত নির্বাচকমন্ডলীর সদস্য যথাক্রমে আব্দুস সালাম খান, হারুন অর রশীদ বাবলু, মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, কাওসার আহমদ, আব্দুর রাজ্জাক, আশরাফুল আলম জঙ্গী ও জাহাঙ্গীর আলম সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন।আলোচনা শেষে উপস্থিত প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসীদের সমর্থনে বিচারকমন্ডলী নতুন কমিটির সভাপতি হিসেবে খন্দকার মাহবুব হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সুলতান মাহমুদকে মনোনীত করেন। সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক পরবর্তীতে আলোচনার ভিত্তিতে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হবে।


বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পেনসিলভেনিয়ার শপথ গ্রহণ

রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮

এম এ কালাম শরীফ :বাপ্ নিউজ : গত ১৪ রবিবার ফিলাডেলফিয়া সেন্টার সিটির স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পেনসিলভেনিয়ার নব নির্মিত কমিটি শপথ গ্রহন করেন। নব-নির্বাচিত সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ, সাধারন সম্পাদক ইসমাইল ভুঁইয়া সহ সর্বমোট ২৩ জনের কমিটি শপথ গ্রহন করেন। শপথ বাক্য পাঠ করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার সৈয়দ সিরাজ। এতে উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিশনার মোঃ হাজী মুসা ও মাহাবুব আলম।
গত কমিটির সভাপতি মোঃ হারিছ এবং সাধারন সম্পাদক মাহতাব উদ্দিন মিথু নবনির্বাচিত সভাপতি এবং সাধারন সম্পাদকের হাতে পূর্বের কমিটির সকল লেন-দেন, নথি পত্র এবং প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নতুন সভাপতি এবং সাধারন সম্পাদকের নিকট বুঝিয়ে দেন। নবনির্বাচিত সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ তাঁর শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন-তিনি নির্বাচন কমিশনারকে ধন্যবাদ দেন এবং বিদায়ী কমিটির যেকোন ভুল-ভ্রান্তির জন্য তিনি সকলের কাছে হাত জোড় করে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। তিনি সকলের সহযোগিতার জন্য উদারভাবে আহ্বান জানান। তিনি সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম নুরুল কবির এবং মরহুম আলী হোসেন সাহেবকে শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করেন। গঠনতন্ত্রকে কমিটির স্বার্থে সকলের মতের সমন্বয় রেখে নতুন ভাবে সাজানো হবে। তিনি আশ্বাস দেন- বাংলাদেশের সাথে মিল রেখে পিঠা উৎসব, বাৎসরিক বনভোজন, পিকনিক, মেলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এছাড়াও বাংলাদেশের জাতীয় দিবস গুলো নতুন প্রজন্মের কাছে সঠিকভাবে তুলে ধরার অঙ্গীকার করেন।
এতে আরও বক্তব্য রাখেন- সৈয়দ সিরাজ, মাঈনুদ্দিন, জাহিদ চৌধুরী, আলী জাকের, মির হোসেন, আবুল কাসেম, আলাউদ্দিন লিটন, রফিকুল ইসলাম ভুঁইয়া জজ, মাহতাব উদ্দিন মিথু এবং  পিয়ার আহমেদ। বিভিন্ন বক্তাদের মধ্য থেকে নতুন কমিটির জন্য উল্লেখযোগ্য কয়েকটি মতামত হচ্ছে- “প্রয়োজনে নতুন কমিটি যেন উপকমিটি বানিয়ে সমস্যার দ্রুত সমাধান করতে পারে”, গঠনতন্ত্রের প্রতি যাতে সবাই আস্থা রাখে এবং প্রয়োজনীয় পরিবর্তন ও পরিমার্জন যাতে করা হয়”, “স্থায়ী ভাবে নিজস্ব একটি অফিস করার আহ্বান করেন”, “এই প্রতিষ্ঠানকে লাভজনক থেকে বের হয়ে এসে অলাভজনক প্রতিষ্ঠান করার তাগিদ জানানো হয়,” এই সংগঠন ফিলাডেলফিয়া সহ নিউজার্সি, ডেলোয়ার, বালটিমোর, মেরিল্যান্ড সহ সকল প্রবাসী বাংলাদেশী যেন এই সোসাইটির সদসসভুক্ত হতে পারে সেজন্য উন্মুক্ত করে দেবার আহ্বান জানান। নতুন প্রজন্মকে রাষ্ট্রীয় দিনগুলো যেন জানতে পারে সেজন্য তাগিদ দেন। সংগঠন সম্পর্কিত যেকোন বিষয় নিয়ে ক্যান্সারের মত রোগ না ছড়িয়ে আলোচনার মাধ্যমে সংগঠনকে আরও সুসমৃদ্ধ করার আহ্বান জানান।
নতুন কমিটির সদস্য ও উপদেষ্টা বৃন্দ হলেনঃ
১- আবদুল ওয়াদুদ (সভাপতি)
২- আলী জাকের (সহ-সভাপতি)
৩- জাহিদ চৌধুরী (সহ-সভাপতি)
৪- মঈন ঊদ্দিন (সহ-সভাপতি)
৫- ইসমাইল ভুঁইয়া (সাধারন সম্পাদক)
৬- আলাউদ্দিন লিটন (সহ-সাধারন সম্পাদক)
৭- হাশেম নেওয়াজ (কোষাধ্যক্ষ)
৮- রফিকুল ইসলাম (সহ-কোষাধ্যক্ষ)
৯- রফিকুল ইসলাম পলাশ (সাংগঠনিক সম্পাদক)
১০- এম এ তৈয়ব (সহ সাংগঠনিক সম্পাদক)
১১- নূর হোসেন (প্রচার সম্পাদক)  
১২- জাহের উদ্দিন বিটু (আপ্যায়ন সম্পাদক)
১৩- মোঃ নবী সেলিম (সাংস্কৃতিক সম্পাদক)
১৪- কাজী মনসুর খৈয়াম (সহ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক)
১৫- জান্নাতুল ফেরদৌস (মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা)
১৬- সাইফুল আলম (সদস্য সচিব)
১৭- আব্দুর রউফ বাদল (সদস্য সচিব)
১৮- সিরাজুল ইসলাম ভুঁইয়া (সদস্য সচিব)
১৯- এম ডি গিয়াস উদ্দিন (সদস্য সচিব)
২০- রফিকুল ইসলাম জজ (সদস্য সচিব)
২১- মোঃ সেলিম (সদস্য সচিব)
২২- খলিলুর রহমান (সদস্য সচিব)
২৩- সেকান্দর মির্জা  (সদস্য সচিব)

উপদেষ্টা মণ্ডলীরা হলেন-

১- কাজী এম রহমান
২- মোঃ কাজল
৩- মোঃ হারিস
৪- মির হোসেন
৫- মোঃ হাজী মুসা
৬- হাজী শামসুল আলম
৭- মাহতাব উদ্দিন মিথু
৮- কাজী মাঈন উদ্দিন
৯- আবুল কাসেম
১০- মাহবুবুল আলম
১১- কামরুল ইসলাম
১২- পেয়ার আহমেদ
১৩- আ জ ম মাহবুবুর রহমান (সেন্টু)
১৪- সৈয়দ সিরাজ


বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শাহ নেওয়াজ সভাপতি টুকু সা. সম্পাদক

রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮

হাকিকুল ইসলাম খোকন,হেলাল মাহমুদ, বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক: প্রবাসী বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের সর্ববৃহৎ সংগঠন জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশী বিজনেস এসোসিয়েশন (জেবিবিএ) নিউইয়র্ক’র দ্বি-বার্ষিক (২০১৮-২০১৯) নির্বাচনে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী লায়ন শাহ নেওয়াজ সভাপতি ও মাহবুবুর রহমান টুকু সাধারণ সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে জেবিবিএ’র কার্যকরী পরিষদের ১৫ সদস্যের সকল কর্মকর্তাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন বলে শনিবার (৬ জানুয়ারী) নির্বাচন কমিশন (ইসি) ঘোষণা দেন। উল্লেখ্য, নবনির্বাচিত সভাপতি শাহ নেওয়াজ জেবিবিএ’র বিদায়ী কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি ছিলেন এবং তিনি নিউইয়র্ক ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী এবং বেঙ্গল হোম কেয়ারের প্রেসিডেন্ট। অপরদিকে নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক স্মৃতি ফ্যাশন-এর স্বত্তাধিকারী। তিনি জেবিবিএ’র বিগত নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী ছিলেন। খবর বাপসনিঊজ ’র।

alt
 ইসি ঘোষিত বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত জেবিবিএ’র কর্মকর্তারা হলেন: সভাপতি- শাহ নেওয়াজ, সহ সভাপতি- মাকসুদুর রহমান ও মোল্লা এম এ মাসুদ, সাধারণ সম্পাদক-মাহবুবুর রহমান টুকু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক- এস এম হাসান, কোষাধ্যক্ষ- মোহাম্মদ মুনীর হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক- ভিক্টর লিয়াকত এলাহী, দপ্তর সম্পাদক- শাহরিয়ার আরিফ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক- বেলাল আহমেদ, সংস্কৃতি ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক- শেখ আলী এবং কার্যকরী পরিষদ সদস্য যথাক্রমে- জাহাঙ্গীর আলম, আব্দুল কাইয়ুম খান, খালেদ আক্তার, মফিজুর রহমান ও মোহাম্মদ এস হোসেন। সিটির জ্যাকসন হাইটসের নিউ মেজবান রেষ্টুরেন্টে গত ৬ জানুয়ারী শনিবার সন্ধ্যায় আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার পারভেজ কাজী নতুন কমিটি ঘোষণা দেন। এর আগে উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইসি সদস্য আব্দুল লতিফ ভূঁইয়া। এছাড়াও প্রধান নির্বাচন কমিশনার সহ বক্তব্য রাখেন ইসি সদস্য রেজা রশীদ ও মাহবুবুর রহমান। উল্লেখ্য, শারীরিক অসুস্থতার কারণে ইসি কমিটির অপর সদস্য নাজিম উদ্দিন আহমেদ সাংবাদিক সম্মেলনে অনুপস্থিত ছিলেন।এসময় তারা বলেন, আমরা সাধ্যমতো চেষ্টা করেছি ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে। কিন্তু একটি পক্ষ আসেননি। তাদের একটি দাবী ছাড়া সকল দাবীই আমরা মেনে নিতে চেয়েছিলাম। প্রয়োজনে নির্বাচনী তফসিল স্থগিত করে সকল সদস্য/ভোটার নিয়ে বসতেও চেয়েছিলাম। এক গ্রুপের নেতা আবুল ফজল দিদারুল ইসলাম সহ জেবিবিএ’র উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সহ সংশ্লিষ্ট অনেকের সাথেই আমরা ইসি’র পক্ষ থেকে এবং ব্যক্তিগতভাবেও কথা বলেছি, একসাথে নির্বাচন করার আহ্বান জানিয়েছি। কিন্তু ইসি’র কোন আহবানেই তারা সাড়া দেননি। ফলে বাধ্য হয়ে আমরা নির্বাচনী তফসিল মোতাবেক কর্মকান্ড পরিচালনা করতে বাধ্য হয়েছি। ইসি’র কর্মকর্তারা বলেন, জেবিবিএ’র ১৫ সদস্যের কার্যকরী পরিষদে ১৫ জন ব্যবসায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার পর তাদের মনোনয়নপত্র যাছাই-বাছাই করার পর মনোনয়নপত্রগুলো বৈধ বলে বিবেচিত হয় এবং তাদের বিপরীতে কোন প্রতিদ্বন্দ্বি না থাকায় ১৫জনকেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হলো। পরে তারা উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। এক প্রশ্নের উত্তরে ইসি’র কর্মকর্তারা বলেন, জেবিবিএ’র নির্বাচন স্থগিত করার বিষয়ে আদালতের কোন নির্দেশ বা কপি অফিসিয়ালী আমরা পাইনি। তাই বিষয়টি নিয়ে আমাদের কোন বক্তব্য নেই। এদিকে ইসি কর্তৃক জেবিবিএ’র নতুন কমিটি ঘোষণার পর সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত নবনির্বাচিত কর্মকর্তা ও তাদের সমর্থকরা উল্লাসে মেতে উঠেন এবং মিষ্টিমুখ করেন। আরো উল্লেখ্য, আগামী ২১ জানুয়ারী রোববার জেবিবিএ নিউইয়র্ক-এর নির্বাচনে ভোট গ্রহণের কথা ছিলো। বিদায়ী কমিটি কর্র্তৃক ইসি’র কাছে দাখিলকৃত লিস্ট মোতাবেক এবার জেবিবিএ’র সদস্য/ভোটার হচ্ছে ২০৮জন। ‘জিকো-তারেক’ নেতৃত্বাধীন জেবিবিএ’র বিদায়ী কমিটি কর্র্তৃক উপদেষ্টা পরিষদ বাতিল/বিলুপ্ত করে নতুন উপদেষ্টা পরিষদ, নির্বাচন কমিশন পুন:গঠন এবং ইসি’র ক্ষমতা তিন মাস বৃদ্ধি এবং উপদেষ্টা পরিষদকে জেবিবিএ’র গঠনতন্ত্র মোতাবেক ‘এডহক’ কমিটি ঘোষণার ঘটনায় জেবিবিএ নতুন সঙ্কটে পড়েছে। এরই মধ্যে ইসি নতুন কমিটি ঘোষণা দেয় এবং জেবিবিএ’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল ফজল দিদারুল ইসলাম ও এডহক কমিটি জেবিবিএ’র নির্বাচনী কার্যক্রম স্থগিত করতে নিউইয়র্ক সুপ্রীম কোর্টে একটি মামলা দায়ের করলে মাননীয় আদালত ২০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারী করেছে। গত ৫ জানুয়ারী শুক্রবার এই মামলা দায়ের করা হয়। মামলার ডকেট নম্বর ৯১/২০৮।


সাবেক প্রধান বিচারপতি সিনহা এখন যুক্তরাষ্ট্রে!

রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮

বাপ্ নিউজ : সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা প্রায় ২ মাস টরেন্টোতে থাকার পর অবশেষে কানাডা ত্যাগ করলেন। স্থানীয় সময় গত রবিবার এয়ার কানাডার একটি বিমানে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছেন বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে।

ধারণা করা হচ্ছিল, টরেন্টোতে সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বসবাস দীর্ঘ হতে পারে। তবে তার কানাডা ত্যাগের মাধ্যমে সেই সম্ভাবনা এখন নেই এবং গত মাসেও তিনি নিউইয়র্ক ঘুরে গেছেন। কিন্তু এবার ফেরা সম্ভাবনা নেই বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। অবশ্য তার ছোট মেয়ে আশা সিনহা ম্যানিটোবাতেই আছেন।

বিচারপতি সিনহা গত বছরের ১০ নভেম্বর সিঙ্গাপুর থেকে টরেন্টো এসে পৌঁছান। ডাউনটাউনে ভাড়া করা একটি বাসায় তিনি এতদিন ছিলেন। দীর্ঘ ২ মাসে তিনি কাছের মানুষ ছাড়া আর কারো সাথে দেখা করতে চাননি। তবে যাবার প্রাক্কালে টরেন্টোর সংবাদমাধ্যমের সম্পাদকদের সাথে অনানুষ্ঠানিক সাক্ষাৎ করলেও তাকে নিয়ে সংবাদ পরিবেশন করতে অস্বীকৃতি জানান।

উল্লেখ্য, কথা প্রসঙ্গে সাবেক এই প্রধান বিচারপতি জানান, তিনি এখন স্মৃতিকথা লেখার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। স্মৃতিকথা অনুলিখনের জন্য এক প্রবাসী বাঙালির সহায়তা নেবেন বলেও জানান। তিনি আরো জানান। পরিবেশ অনুকূলে এলে দেশে ফিরবেন।


কুইন্সে পবিত্র ফাতেহায়ে ইয়াজদহম পালন

শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী ২০১৮

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ : গত ২৮ শে ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার নিউইয়র্ক কুইন্সের সানিসাইডে গাউসুল আজম ইমাম আব্দুল কাদের জিলানী (রাঃ) এর পবিত্র ওফাত উপলক্ষে “পবিত্র ফাতেহায়ে ইয়াজদহম মাহফিল” অনুষ্ঠিত হয়। বিশিষ্ট সমাজ সেবক মুহাম্মদ নাদের এর কুইন্স সানিসাইডস্থ বাসস্থানে আল্লামা সৈয়দ জুবায়ের আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাহফিলে প্রধান মেহমান হিসাবে তকরীর করেন আর্ন্তজাতিক খ্যাতিসম্পন্ন আলেমে দ্বীন আল্লামা শায়েখ মুহাম্মদ আবু সুফিয়ান খাঁন আবেদী আলকাদেরী ।বাদ মাগরিবে মাহফিলের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন হাফেজ মাওলানা ওয়াসিম সিদ্দিকী, না’ত শরীফ পেশ করেন মুহাম্মদ ওমর ফারুক ও শামীম তালুকদার । আগত সবাইকে স্বাগত জানান মুহাম্মদ নাদের। মাহফিলে তকরীর করেন  মুফতি সৈয়দ আনসারুল করিম, মাওলানা আতাউর রহমান, হাফেজ মাওলানা আব্দুর রহিম মাহমুদ ও মাওলানা মুস্তফা কামাল প্রমুখ।

Picture

প্রধান মেহমান আল্লামা শায়েখ আবু সুফিয়ান আল কাদেরী বলেন ওলীপ্রেম হল নবীপ্রেমের অসিলা আর নবীপ্রেম হল ঈমানের পূর্বশর্ত। কতিপয় ইসলাম নামধারী বাতেল ফেরকা ওলিদের অনুসরনের বিরূদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে সরলপ্রাণ মুুসলমানদের ঈমান হরণ করে চলেছে। আল্লামা শায়েখ আবু সুফিয়ান আল কাদেরী আরো বলেন যে, প্রিয়নবী (দঃ) এর প্রেম ও তাঁর প্রদত্ত আদর্শ থেকে দূরে থাকার কারনেই মুসলিম সমাজে আজ নবীদ্রোহী জঙ্গিবাদী বাতেল ফেরকা সমূহের আবির্ভাব হয়েছে যারা মুসলমানদের ঈমান, ধর্ম ও অস্তিত্বের প্রতি হুমকি সৃষ্টি করে চলেছে। এহেন পরিস্থিতিতে দোজাহানের প্রকৃত মুক্তি ও সফলতার জন্য রাসুলে পাক (দঃ) এর প্রেমে ওলিদের অনুসরনে ইসলাম ধর্মের মূলধারা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের আক্বিদা ও আদর্শে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দ্বীনের মুল পরিচয়কে স্বীয় জীবনে পরিবারে ও সমাজে ফিরিয়ে আনা আমাদের সবার ঈমানী দায়িত্ব । আল্লামা শায়েখ আবু সুফিয়ান আল কাদেরী আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সবাইকে স্বীয় ঈমান রক্ষা ও ধর্মের মূলধারায় থেকে দ্বীন ও মিল্লাতের খেদমত করার আহ্বান জানান। সালাতু সালাম তথা মিলাদ-ক্বিয়াম-দরূদ পাঠান্তে বিশেষ মুনাজাত ও তবারুক বিতরণের মাধ্যমে মাহফিল সমাপ্ত হয়।