Slideshows

http://bostonbanglanews.com/index.php/images/stories/2015/April/00/00/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/605744Finding_Immigrant____SaKiL___0.jpg

কুইন্স ফ্যামিলি কোর্টে অভিবাসী

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দ্যা ইন্টারফেইস সেন্টার অব নিউইয়র্ক ও আইনী সহায়তা সংগঠন নিউইয়র্ক এর উদ্যোগে গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ৯ See details

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

বিনোদন

কান উৎসবে শাড়িতে ঝলক ছড়ালেন সোনম

সোমবার, ২২ মে ২০১৭

alt="">

বাপ্ নিউজ : ফ্রান্সের কান চলচ্চিত্র উৎসবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তারকাদের গাউন পরিহিত দেখা গেলেও সবাইকে বিস্মিত করে শাড়ি পরে সরব উপস্থিতি দেখা গেলো বলিউড তারকা সোনম কাপুরের।নরব্ল্যাক নরহোয়াইট লেবেলের প্রিসম্যাটিক শাড়িতে তাকে লাগে গর্জিয়াস আর প্রাণবন্ত। বিশেষ ধরনের শাড়িটি ডিজাইন করেছেন কানাডায় জন্ম নেওয়া ডিজাইনার ম্রিগা ক্যাপাডিয়া ও আম্রিত কুমার।

২০১৭ সালের এ কান উৎসবে গত শনিবার তাকে মিডিয়ার সামনে আসতে দেখা যায়। এ সময় বিভিন্ন স্টাইলে ক্যামেরাবন্দি হন সোনম। এরই কিছু ছবি সোনমের বোন স্টাইলিস্ট ও প্রযোজক রেহা কাপুর তার ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন।

 

 
 
alt
অনলাইন ডেস্ক
ফ্রান্সের কান চলচ্চিত্র উৎসবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তারকাদের গাউন পরিহিত দেখা গেলেও সবাইকে বিস্মিত করে শাড়ি পরে সরব উপস্থিতি দেখা গেলো বলিউড তারকা সোনম কাপুরের।
 
কান উৎসবে শাড়িতে ঝলক ছড়ালেন সোনম
 
নরব্ল্যাক নরহোয়াইট লেবেলের প্রিসম্যাটিক শাড়িতে তাকে লাগে গর্জিয়াস আর প্রাণবন্ত। বিশেষ ধরনের শাড়িটি ডিজাইন করেছেন কানাডায় জন্ম নেওয়া ডিজাইনার ম্রিগা ক্যাপাডিয়া ও আম্রিত কুমার।
 
কান উৎসবে শাড়িতে ঝলক ছড়ালেন সোনম
 
২০১৭ সালের এ কান উৎসবে গত শনিবার তাকে মিডিয়ার সামনে আসতে দেখা যায়। এ সময় বিভিন্ন স্টাইলে ক্যামেরাবন্দি হন সোনম।
 
কান উৎসবে শাড়িতে ঝলক ছড়ালেন সোনম
 
এরই কিছু ছবি সোনমের বোন স্টাইলিস্ট ও প্রযোজক রেহা কাপুর তার ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন।
- See more at: http://bangla.samakal.net/2017/05/21/294387#sthash.InYEcYh8.dpuf

সাদা সুন্দরীদের ঘোল খাইয়ে মিস যুক্তরাষ্ট্র 'কৃষ্ণকলি'

সোমবার, ১৫ মে ২০১৭

বাপ্ নিউজ : ডজনকে ডজন সাদা সুন্দরীকে ঘোল খাইয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সেরা সুন্দরী হলেন আফ্রিকান-আমেরিকান শ্যামাঙ্গিনী কারা মেকালখ। নেভাদার লাস ভেগাসে গতকাল রবিবার অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় ২৫ বছর বয়সী রসায়নবিদ মেকালখকে মিস যুক্তরাষ্ট্র ঘোষণা করা হয়। তিনি এবারের মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিত্ব করবেন বলে জানা গেছে। এই শ্যামা সুন্দরী যুক্তরাষ্ট্রের নিউক্লিয়ার রেগুলেটরি কমিশনে রসায়নবিদ হিসেবে কর্মরত আছেন।

Picture

কারার জন্ম ইতালিতে। এরপর তিনি পরিবারের সঙ্গে জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া ও হাওয়াইতে বাস করেছেন। সাদা সুন্দরীদের পেছনে ফেলে শিরোপা জেতা এই কৃষ্ণকলি বেড়ে উঠেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ায়। প্রতিযোগিতার মঞ্চে তিনি বলেন, ‘আমরা পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ন্ত্রণ করি। এ ছাড়া শিশুদের জন্য ব্যক্তিগত উদ্যোগে কমিউনিটিভিত্তিক বিজ্ঞানচর্চার সঙ্গে আমি যুক্ত। ’ মিস যুক্তরাষ্ট্র হিসেবে তিনি শিশু ও নারীদের বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, প্রকৌশল ও গণিতশাস্ত্রের মতো ক্ষেত্রগুলোতে যুক্ত হওয়ার ব্যাপারে সাহস ও অনুপ্রেরণা জোগাতে চান।

এবারের প্রতিযোগিতায় বৈচিত্র্য ও বহুত্ববাদের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়। এর প্রকাশ দেখা গেছে বিজয়ী নির্বাচনেও। প্রথম রানারআপ হয়েছেন ছবি ভার্গ। তার জন্ম ভারতে। তিনি ইংরেজির পাশাপাশি হিন্দি ও স্প্যানিশ ভাষায় কথা বলতে পারেন।


টরন্টোতে ছায়ানটের ব্যতিক্রমী বর্ষবরণ অনুষ্ঠান

শনিবার, ০৬ মে ২০১৭

বাপ্ নিউজ : টরন্টো (কানাডা) থেকে : কানাডার টরন্টোতে ছায়ানট সংগীত বিদ্যায়তন ২০০৩ সাল থেকে নিয়মিত বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে প্রতি বছরই ভিন্ন থিম, পোশাক, মঞ্চসজ্জা এবং  নতুন নতুন গানের সমাহার নিয়ে উপস্থিত হন শিল্পীরা। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। গত ১৫ এপ্রিল শনিবার টরন্টো বাংলা বর্ষবরণের আয়োজন করা হয়।

Picture

পঞ্চ কবির গান, স্বদেশ আর বাউল অঙ্গের গানের মিশ্রণ ছিল এবারের অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ। শিল্পীরা  চমৎকার পরিবেশনা মুগ্ধ করেছে দর্শকদের। অনুষ্ঠানে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের নাতি অনির্বান কাজীকে ছায়ানট টরন্টো ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। অনুষ্ঠানে বিরতির সময় দর্শকদের ভীড় ছিল বাহারি স্টলগুলোতে। যেখানে  শাড়ি-চুড়ি আর সুস্বাদু দেশি খাবারের পসরা সাজিয়ে বসেন বিক্রেতারা। সব মিলিয়ে দেশি আমেজে বৈশাখ পালন করেছে প্রবাসীরা।


অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ শাকিব খান

রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে আর কাজ করবেন না ঢালিউডের পরিচালকরা। তাঁর সঙ্গে কোনো চলচ্চিত্রের শুটিং ও ডাবিংয়ের কাজেও অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিসহ সংশ্লিষ্টরা।

শনিবার রাজধানীর এফডিসির চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম খোকন লিখিত বক্তব্যে বলেন, ‘অদ্য ২৯-৪-২০১৭ তারিখে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সকল কুশলীদের সংগঠনসমূহের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের নিয়ে এক যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয় যে, যেহেতু চিত্রনায়ক শাকিব খান দেশের সমগ্র চলচ্চিত্র পরিচালকদের অসম্মান ও হেয়প্রতিপন্ন করে জাতীয় দৈনিকসহ মিডিয়াতে বক্তব্য দিয়েছেন এবং বর্তমানেও একই ধরনের বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন সেহেতু চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট কুশলীরা মনে করেন, প্রকারান্তরে তিনি দেশের চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সকল কুশলীকে অপমান এবং তুচ্ছজ্ঞান করছেন। কারণ পরিচালকই হলেন ‘ক্যাপ্টেন অব দ্য শিপ’। তাঁদের অপমান করা মানে কুশলীদের অপমান করা। তাই আজ থেকে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সকল সংগঠনের সদস্যরা অনির্দিষ্টকালের জন্য শাকিব খানের সঙ্গে কোনো চলচ্চিত্রের শুটিং ও ডাবিংয়ের কাজে অংশগ্রহণ করবেন না। উল্লিখিত বিষয়টি সকলকে অবগত করা হলো।’

সমিতির নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে শাকিব খানের সঙ্গে চলচ্চিত্রের কাজ করায় রংবাজ চলচ্চিত্রের পরিচালক শামীম আহমেদ রনীর সদস্য পদ বাতিল ঘোষণা করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, শিল্পী সমিতি ও প্রযোজক সমিতি ছাড়া সবাই পরিচালক সমিতির সিদ্ধান্তে একাত্মতা ঘোষণা করেছে।

চলচ্চিত্র পরিচালক বদিউল আলম খোকন বলেন, ‘শাকিব খান বলেছেন, অ্যাসোসিয়েশন কী বলল না বলল তাতে আমার কিছু আসে-যায় না। শাকিব যদি স্বীকার করেন, আমার দেশের টেকনিশিয়ানরা ভালো কাজ করেন। তবেই আমরা তাঁর সঙ্গে কাজ করব। শাকিব বলছেন, আমিই (মহাসচিব) নাকি সব করেছি। এখানে পরিচালক সমিতির মহাসচিব আমি। এখানে আমাকে সব কিছুতে সাইন করতে হবে। এটা আমার সাংবিধানিক দায়িত্ব। আমি ছাড়া ১৭ জন আছেন। সবাই এই সিদ্ধান্তে একমত হয়েছেন। আমার ব্যক্তিগত কিছু হলে তাঁরা একমত হতেন না।’

সংবাদ সম্মেলনে একাধিক পরিচালক শাকিব খানের বিরুদ্ধে শিডিউল ঘোরানো এবং তাঁদের আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ‘শাকিব খানের নিয়ন্ত্রণে আসা দরকার। এতে তিনি নিজেও ভালো থাকবেন, আমরাও ভালো থাকব। তাঁর থেকে অনেক বড় হিট নায়ক ছিলেন রিয়াজ। কিন্তু শাকিব খানকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। তিনি সেটার মূল্যায়ন করেননি। এখন তিনি দেশের টেকনিশিয়ানদের মূল্যায়ন করছেন না। তিনি সীমার বাইরে চলে গেছেন। বলেন, দেশের এ ড্যান্স ডিরেক্টর নেব না, ইন্ডিয়ার ড্যান্স ডিরেক্টর নেব। এই এডিটর নেব না, ইন্ডিয়ার নেব। শাকিব খানকে ইন্ডিয়া তৈরি করে নাই। আমরা তৈরি করছি। তিনি কাফনের কাপড় পইরা, আমাদের নিয়া পুলিশের লাঠিপেটা খাওয়াইলেন। অথচ নিজে। আমরা তার সুস্থ চিন্তা আশা করি।’

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, পরিচালক এফ আই মানিক তিন কোটি টাকা খরচ করে ছবি বানান। সেই ছবিটা শাকিব খান পাঁচ বছরে শেষ করেন। এফ আই মানিকের পথে বসার অবস্থা। শাকিব খান অনেক এফ আই মানিককে পথে বসিয়েছেন। আর কত এফ আই মানিককে পথে বসাবেন?

সংবাদ সম্মেলনে পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার বলেন, ‘শাকিব খান কলকাতার সিনেমার ছবিতে কাজ করুক, হলিউডে করুক, বলিউডে করুক আমাদের আপত্তি নাই। আপনি ওইখানে কাজ করার জন্য আমাদের অবজ্ঞা করবেন এটা হতে পারে না।’

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, শাকিব খান যে পত্রিকায় বক্তব্য দিয়েছেন সেখানে ক্ষমা চেয়ে বক্তব্য দিক, আমাদের কাছে এসে ক্ষমা চাইতে হবে। সন্তান ক্ষমা করলে বাবা-মা তো ক্ষমা করে দেন।

Picture

মাথা পেতে নেব না, শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত প্রতিবাদ করব: শাকিব খান

শনিবার সন্ধ্যায় চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সমিতি চিত্রনায়ক শাকিব খানকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন। শাকিব বর্তমানে রয়েছেন পাবনায় শামীম আহমেদ রনির ‘রংবাজ’-এর সেটে। সেখান থেকে ফোনে কথা বলেন তিনি।
আপনাকে বয়কট করার বিষয়ে বিভিন্ন সংগঠনের আহ্বানের আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়ায় কী বলবেন?
পরিচালক সমিতির মহাসচিব তার ক্ষমতা দেখাচ্ছেন। বদিউল আলম খোকন একজন অশ্লীল ছবির পরিচালক ছিলেন, তার নামে মামলা হয়েছিল। নিয়মিত হাজিরা দিতেন সে মামলায়, নিষিদ্ধ পরিচালক ছিলেন তিনি। সেখান থেকে তাকে শাকিব খানই বদিউল আলম খোকন বানিয়েছে। বাপ্পারাজ তার সাক্ষাৎকারে সে কথাই বলেছেন। আজ বাপ্পারাজসহ নায়ক ফারুক, বাপ্পি, পরিচালক কাজী হায়াত প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। সমস্ত শিল্পী সমাজ প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। সত্য কখনো গোপন থাকে না। আমার বিরুদ্ধে বিরাট চক্রান্ত হচ্ছে। আজ যদি ভেঙ্কটেশ ফোন করে বলেন, যা শুটিং হয়েছে ওখানে সব ফেলে দিয়ে এখানে শুটিং কর এখানকার ক্রু দিয়ে, সেটা কি ভাল হবে? এটা কি বাংলাদেশের জন্য লজ্জার হবে না? আমি দুইশ টেকনিশিয়ান নিয়েছি এখানকার। সেটা করলে তাদের পরিবারের রুটি-রুজিতে আঘাত করা হবে না?
আপনি তো শিল্পী সমিতির সভাপতি, আপনার সমিতির তরফ থেকে কোন আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ হবে কি?সমস্ত শিল্পী সমাজ প্রতিবাদ করছেন। যাদেরই মানবতা আছে তারা সবাই প্রতিবাদ করছেন। তারা নায়ক ফারুকের কথা শুনছেন না। বাপ্পারাজ সত্য কথা বলেছেন, তাকে কি ব্যান করা হবে?
সংবাদ সম্মেলন করবেন কি?
অবশ্যই করব। আমাকে অনেক দিক থেকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে – আইন-প্রশাসন সবকিছু দিয়ে। বিরাট চক্র তাদের সাথে কাজ করছে। আমি এ মাটিরই সন্তান, দেহে শেষ রক্ত বিন্দু থাকা পর্যন্ত অন্যায়ের প্রতিবাদ করেই যাবো, মাথা পেতে নেব না।
কারা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে হয়রানির চেষ্টা করছে, তাদের কারো নাম বলবেন কি?
আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে তারা কোন না কোন ভাবে আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করবে।
উকিল নোটিশের জবাব কি দিয়েছেন?
উকিল নোটিশ নোটিশের মত যাবে। আমার ব্যারিস্টার সিদ্ধান্ত নেবেন তাদের বিরুদ্ধে মামলা করবেন কিনা।
কোন ব্যারিস্টার কাজ করছেন আপনার পক্ষে?
আমি তার নাম পরে জানাবো।
পরিচালক সমিতির মহাসচিব না হয় আপনার বিরুদ্ধে ছিলেন, কিন্তু বাকিরা?
সমিতির সভাপতি গুলজার আমাকে বলেছেন, শুটিং করতে, উনি সবকিছু ঠিক করে দিচ্ছেন। কিন্তু কি হল?
শিল্পী সমিতির নির্বাচনে অংশ নেওয়া কাউকে কি এ ঘটনায় দায়ী করবেন?
আমি কিছুই বলবো না। কিন্তু গত শুক্রবার সমিতির মিটিংয়ের জন্য আমি এফডিসিতে গেলে প্রচুর ডিবি পুলিশ ছিল। এটা সিনিয়র শিল্পীরা ভাল চোখে দেখেননি।
সর্বশেষ আপনি কী বলতে চান?
পূর্ণিমা ‘মনের মাঝে তুমি’ করে সব জায়গায় পরিচিতি পেয়েছেন। আমি এক ছবি করেছি। কলকাতায় অনেকেই ছবি করেছে, কে এত জনপ্রিয় হয়েছে? সালমান শাহ চলে গেছেন, আমি চলে গেলে ইন্ডাস্ট্রির খুব বেশি কি লাভ হবে? তাদের কাজ কি যারাই স্টার হবে তাদেরকে ব্যান করা? মেধাবী ও ভাল পরিচালক যারাই কাজ করবে তাদের ব্যান করা?


বিয়ে অভিনেত্রীর জন্য দিল্লির লাড্ডু

রবিবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৭

শেষ থেকেই শুরু করা যাক। বর্তমানে সব থেকে আলোচিত বিষয় শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের বিয়ে। তাদের প্রেমের বিয়ে। ২০০৬ সালে তারা জুটি হয়ে প্রথম অভিনয় করেন ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে। পর পর একাধিক চলচ্চিত্রে একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে ভালো বন্ধু হয়ে যান একে অপরের। ধীরে ধীরে সম্পর্কটা রূপ নেয় প্রেমে। অতঃপর ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল গোপনেই বিয়ে করেন শাকিব-অপু। গোপন বিয়ে ফাঁস হয়ে গেলেও অপু বিশ্বাস নেই চলচ্চিত্রে। তিনি কবে অভিনয়ে ফিরবেন অন্য কেউতো দূরের কথা অপুর নিজেরও জানা নেই। তবে মজার বিষয় হচ্ছে শাকিব খান ঠিকই অভিনয় চালিয়ে যাচ্ছেন। তাহলে বিয়ে তো অপুর জন্য ‘দিল্লির লাড্ডু’ হয়েই গেল।
এবার আসি শাবনূর প্রসঙ্গে। বাংলা সিনেমায় দীর্ঘ সময় একক কর্তৃত্ব করেছেন এই নায়িকা। কিন্তু বিয়ের পর তিনি কোথায়? সর্বশেষ ২০১৩ সালে মুক্তি পায় শাবনূর অভিনীত ‘কিছু আশা কিছু ভালবাসা’। এরপর নতুন কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হননি তিনি। ২০১৫ সালের ১ আগস্ট ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেও ছবিটি ছিল তিন চার বছর আগের। যার অসমাপ্ত কাজ শেষ করতেই ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান তিনি। তবে ভবিষ্যতে নতুন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। ফলে এক হিসেবে বিয়েটা তার জন্যও ‘দিল্লির লাড্ডু’।

Picture
একই অবস্থা পূর্ণিমার। বিয়ের পর স্বামী সংসার নিয়েই তার ব্যস্ততা। মাঝে মধ্যে কিছু নাটকে তাকে দেখা গেলেও নেই চলচ্চিত্রে। যদিও অনেক সময়ই তিনি বলেন, ভালো গল্প পেলে চলচ্চিত্রে ফিরবেন। কিন্তু সেটা হয়ে ওঠে না। বিয়ের পর নিজের নামটাও চলচ্চিত্র থেকে মুছে ফেলেছেন মৃদুলা আহমেদ রেসী। ২০১২ সালের ২২ জুন চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী পান্থ শাহরিয়ারের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। স্বামী তার ব্যবসার কাজ চালিয়ে গেলেও অভিনয়ে ফিরতে পারছেন না রেসি। বিয়ের পর অভিনয় থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন সম্ভাবনাময়ী অভিনেত্রী শ্রাবস্তী দত্ত তিন্নি। অভিনেতা হিল্লোলকে ভালবেসে বিয়ে করেছিলেন তিনি। এরপর হিল্লোলের সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে গেলে কন্যা সন্তানকে নিয়ে একাকী জীবনে অভ্যস্ত হয়ে পড়েন। আর এই সময়ে আস্তে আস্তে মিডিয়া থেকে দূরে সরে যান তিনি। বিয়ের পর আর অভিনয় করবেন না বলে ঘোষণা দিয়েই মিডিয়া থেকে দূরে চলে যান লাক্স তারকা আফসান আরা বিন্দু।
বিয়ে করে শুধু অভিনয় নয় দেশই ছেড়েছেন মোজেজা আশরাফ মোনালিসা। কিন্তু হঠাৎ হঠাৎ নাটকে দেখা যায় তাকে। তবে সেটা দর্শকের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে ব্যর্থ। মিডিয়ায় এসেই দর্শক নজর কাড়েন সারিকা সাবরিন। জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় হঠাৎ করেই নিজের ব্যক্তিগত বিতর্কের কারণে মিডিয়া থেকে ছিটকে পড়েন এই অভিনেত্রী। যতটা অভিনয়ে ফেরার সম্ভাবনা ছিল তাও শেষ হয়ে যায় বিয়ের পর। বিবাহ বিচ্ছেদের পর তিনি এখন মাঝে মধ্যে টিভি নাটকে অভিনয় করছেন। তবে সেটা আয়নায় মুখ দেখানোর মতো। এই তালিকায় নাম চলে আসে বিপাশা হায়াত, অপি করিম, প্রিয়া ডায়েস, বিজরী বরকতউল্লাহ, তানভীন সুইটি ও নাদিয়ার।
দেখা যাচ্ছে, বিয়ে করে শুধু নায়িকারাই অভিনয় ছেড়ে দিচ্ছেন। কিংবা দিতে বাধ্য হচ্ছেন। তাহলে বিয়েটা অভিনেত্রীদের জন্য দিল্লির লাড্ডু হয়ে থাকছে। এটা না খেয়েও তারা পস্তাচ্ছেন আর খেয়ে তো পস্তাচ্ছেনই।


আর-না-ফেরার দেশে বাংলা গানের বরপুত্র কালজয়ী শিল্পী লাকী আখান্দ

শনিবার, ২২ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : ‘আবার এলো যে সন্ধ্যা’, ‘এই নীল মণিহার’, ‘আমায় ডেকো না’, ‘আগে যদি জানতাম’এ রকম অসংখ্য জনপ্রিয় গানের শিল্পী লাকী আখান্দ আর নেই। বাংলা গানের দুনিয়াজোড়া লাখো কোটি ভক্ত হৃদয় শূন্য করে দিয়ে তিনি ফিরে গেছেন চির না ফেরার দেশে।
 
আজ শুক্রবার বিকালে রাজধানীর আরমানিটোলায় নিজের বাসায় অসুস্থ বোধ করায় দ্রুত তাকে মিটফোর্ড হাসপাতালে নেয়া হয়। কিছুক্ষণ পর সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বাংলা গানের ভুবনের কালজয়ী এ শিল্পী। তার বয়স হয়েছিল ৬৪ বছর।
 
শিল্পী লাকী আখান্দের মরদেহ আজ রাতে বারডেম মরচুয়ারিতে রাখা হবে। আগামীকাল সকাল ১০ টায় আরমানিটোলা মাঠে তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর রাষ্ট্রীয় গার্ড অব অনার প্রদান এবং সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য তাকে নেয়া হবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদে দ্বিতীয় জানাজার পর মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাকে দাফন করা হবে।
 
ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে লাকী আখান্দ টানা আড়াইমাস চিকিৎসাধীন ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে। গত ৭ এপ্রিল চিকিৎসকদের পরামর্শেই হাসপাতাল ছেড়ে বাসায় ফেরেন তিনি। বাসায় ফিরে যথারীতি সময় দিচ্ছিলেন গানে।

Picture
 
গুরুতর অসুস্থ হয়ে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হলে ফুসফুসে ক্যান্সার ধরা পড়ে লাকী আখান্দের। এরপর থাইল্যান্ডের একটি হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নেন কিছুদিন। সেখান থেকে ঢাকায় ফেরার পর তাকে কেমোথেরাপি দেওয়া হয়। স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের মুক্তিযোদ্ধা এই শিল্পীর চিকিৎসায় প্রধানমন্ত্রীর তহবিল, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়, শিল্পীর পাশে ফাউন্ডেশনসহ দেশবিদেশের অসংখ্য গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ীদের কাছ থেকেও থেকেও সহায়তা করা হয়।
 
আশির দশকের তুমুল জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী লাকী আখান্দ একাধারে সঙ্গীত পরিচালক, সুরকার ও গীতিকার। ১৯৮৪ সালে সারগামের ব্যানারে প্রথমবারের মতো একক অ্যালবাম বের করেন লাকী আখান্দ। ওই অ্যালবামের ‘এই নীল মণিহার’, ‘আমায় ডেকো না’, ‘রীতিনীতি জানি না’, ‘মা মনিয়া’, ‘আগে যদি জানতাম’ গানগুলো শ্রোতাদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলে। ১৯৮৭ সালে ছোট ভাই হ্যাপী আখান্দের মৃত্যুর পর সঙ্গীতাঙ্গন থেকে অনেকটাই স্বেচ্ছা নির্বাসন নেন এই গুণী শিল্পী।
 
মাঝখানে প্রায় এক দশক নীরব থেকে ১৯৯৮-এ ‘পরিচয় কবে হবে’ ও ‘বিতৃষ্ণা জীবনে আমার’ অ্যালবাম দুটি নিয়ে আবারও শ্রোতাদের মাঝে ফিরে আসেন লাকী আখান্দ।


সালমান শাহ’র স্ত্রী এখন তিন সন্তানের মা

মঙ্গলবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৭
 

বাপ্ নিউজ : ঢাকা থেকে : বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে নব্বইয়ের দশকের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ও সুদর্শন নায়কের নাম সালমান শাহ। মাত্র চার বছরের চলচ্চিত্র জীবন তার। করেছিলেন ২৭টি ছবি। মৃত্যুর আগে ও পরে সবগুলো ছবিই সুপারহিট। আজও কাঁদে সালমান ভক্তের প্রাণ। আজও স্মৃতি হাতরে বেড়ান সালমান যুুগের মানুষরা, চলচ্চিত্রের কথা বলতে গিয়ে। নিয়তির পরিহাস! রহস্যজনক এক মৃত্যুর মধ্য দিয়ে পতন হলো সালমান নামের ধূমকেতুর। তবে একটুও ম্লান হয়নি তার আলোর। আজও ঢাকাই ছবিতে রোমান্টিক, সফল নায়কদের উদাহরণ সালমান। আজও যুবকরা সালমানের ভঙ্গিতে প্রিয়ার উদ্দেেশ্যে গেয়ে ওঠেন রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহর গান- ‌‘ভালো আছি ভালো থেকো, আকাশের ঠিকানায় চিঠি লিখো....’।

Picture

সালমান শাহ নেই ২০ বছর হয়ে গেছে। গঙ্গার অনেক জল গড়িয়েছে স্মৃতির মহাকাল ছুঁয়ে। সালমান ভক্তদের আগ্রহের শেষ নেই তার জীবনী ও তার সঙ্গে জড়িত প্রতিটি বিষয়ের প্রতি। আরও মজার ব্যাপার, সালমান যুগের না হয়েও এ প্রজন্মের সিনেমাপ্রেমীরাও সালমানকে মানেন নায়কের আদর্শ হিসেবে। দেশের বিভিন্ন হলে সালমানের পুরনো ছবিগুলো মুক্তি পেলে দর্শক উপস্থিতি তারই প্রমাণ দেয়।

Salman Shah 1

সালমান শাহ’র জীবনের গুরুত্বপূর্ণ এক অধ্যায় তার স্ত্রী সামিরা। রহস্যময়ী এই নারীও সালমানের মতোই গেঁথে আছেন বাংলাদেশি সিনেমাপ্রেমীদের মনে; ভালো-মন্দ অনুভূতির মিশ্রণে।

অনেকেই জানতে চান কী করেন, কেমন আছেন সালমানের স্ত্রী সামিরা? ফেসবুকে চলচ্চিত্র বিষয়ক আইডি ও পেজে সালমান ভক্তরা সালমান ও সামিরাকে নিয়ে নানা স্ট্যাটাস ও ছবি পোস্ট করেন। সেসব পোস্টে দাবি করা হয়, ঢালিউডের শাহরুখ-গৌরী হতে পারতেন সালমান-সামিরা। কেউ কেউ সামিরার প্রতি ক্ষোভও প্রকাশ করেন।

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সালমান শাহ’র স্ত্রী সামিরা হক এখন থাইল্যান্ড প্রবাসী। সালমানের মৃত্যুর কয়েক বছর পরই তিনি বিয়ে করেছিলেন মুস্তাক ওয়াইজ নামে এক ব্যবসায়ীকে। তাকে নিয়ে থাইল্যান্ডে পেতেছেন নতুন সংসার। বেশ সুখেই আছেন তিনি জৌলুসের জীবন নিয়ে। সেই সংসারে তিন সন্তানের জননী সামিরা। বড় ছেলে ও ছোট দুই মেয়ে।

Salman Shah 3

সেখানে সামিরার ছোট দুই বোন ফাহরিয়া হক ও হুনায়জা শেখ তাদের স্বামী সন্তান নিয়ে বাস করেন। জানা গেছে, বাংলাদেশে খুব একটা আসেন না। আসলেও এড়িয়ে চলেন মিডিয়া বা কোলাহল। একান্তই নিকটাত্মীয়দের সঙ্গে দেখা করেন। সালমানের মৃত্যুর পর থেকেই নিজেকে সবকিছুর আড়ালে নিয়ে যান তিনি।

গেল বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর সামিরার বাবা শফিকুল হক হীরা বেশ কিছু গণমাধ্যমে জানিয়েছিলেন, ‘সালমানের মৃত্যুতে আর সবার মতোই আঘাত পেয়েছিল সামিরা। সবাই নায়ক হারানোর ব্যথায় কেঁদেছিল। আর আমার মেয়ে কেঁদেছিল বিধবা হওয়ার যন্ত্রণায়। সেই কষ্ট কেউ বোঝার আগেই তাকে নিয়ে নানা রকম অপবাদ ছড়ানো হলো। যাক, সবার দোয়ায় সামিরা এখন ভালো আছে। স্বামী-সন্তান নিয়ে তার সুখের সংসার।’

সেই মন্তব্যে সামিরার বাবা আরও জানিয়েছেন চমকপ্রদ এক তথ্য। সালমানের মৃত্যুদিনে নাকি কারও সঙ্গেই কোনো কথা বলেন না সামিরা। নিজের মতো করে চুপাচাপ থাকেন। সালমানের মৃত্যু তিনিও মেনে নিতে পারেননি। মানতে পারেন না ‘সালমানের সাবেক স্ত্রী’ শব্দটিও।

Salman Shah

এদিকে সালমানের মা নীলা চৌধুরী সালমানের মৃত্যুর জন্য সামিরাকে দায়ী করে একটি হত্যা মামলা করেছিলেন। তাই সালমানের পরিবারের সঙ্গে কোনো রকম যোগাযোগ করেন না সামিরা।সোহানুর রহমান সোহানের হাত ধরে ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে চলচ্চিত্র জগতে পদার্পণ করা সালমান শাহ মাত্র ২১ বছর বয়সে তার মা নীলা চৌধুরীর ঘনিষ্ঠ বান্ধবীর মেয়ে সামিরাকে বিয়ে করেন। সেই সময় আলোচিত দম্পতি ছিলেন সালমান-সামিরা।

Salman Shah 4

সামিরার বাবা জাতীয় দলের সাবেক উইকেটকিপার-অধিনায়ক শফিকুল হক হীরা এবং মা থাইল্যান্ডের নাগরিক চট্টগ্রামের বিউটিপার্লার ব্যবসায়ী লুসি।


অবশেষে বিয়ে ও সন্তানের কথা স্বীকার করলেন শাকিব খান

মঙ্গলবার, ১১ এপ্রিল ২০১৭

Picture

বাপ্ নিউজ : চিত্র নায়িকা অপু বিশ্বাসকে বিয়ে ও তাদের যে একমাত্র সন্তান আব্রাহাম খান জয় আছে সে কথা নিজ মুখে স্বীকার করে নিলেন চিত্র নায়ক শাকিব খান। আজ সোমবার বিকেলে একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে অপু বিশ্বাস নিজেদের বিয়ে ও সন্তানের কথা প্রকাশ করার পর পরই শাকিব খান এমন মন্তব্য করেন।

২০০৮ সালেই বিয়ে হয়েছিল শাকিব-অপুর

alt

২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন শাকিব-অপু। দীর্ঘদিনের ঘর-সংসারও তাদের। বিয়ের বয়স এখন প্রায় ৯ বছর। তবে কোন কাজী অফিসে বিয়ে হয় তা জানান নি। গুলশানে শাকিবের বাসাতেই বিয়ে পড়ানো হয়। ওই বিয়েতে উকিল বাবা ছিলেন একজন প্রযোজক। আর শাকিবের এক চাচাতো ভাই ছিলেন সাক্ষী। অপুর পক্ষে কোনো সাক্ষী ছিল না। সূত্র জানায়, মুসলিম রীতি অনুযায়ী সম্পন্ন হওয়া বিয়েতে হিন্দু ধর্মাবলম্বী অবন্তী বিশ্বাস অপুর নাম কাবিননামায় ‘অপু ইসলাম খান’ নামে লিপিবদ্ধ করা হয়। বিয়ের কাবিননামার একটি কপি অপুর কাছেই ছিল। কিন্তু এ বছরের শুরুর দিকে দুজনের মনোমালিন্য চরমে পৌঁছলে শাকিব জোর করে অপুর কাছ থেকে কাবিননামা নিয়ে যান।

ছেলেকে যেন না ঠকান শাকিব, অনুরোধ অপুর

 নিজের ঔরসজাত সন্তানকে শাকিব খান যেন না ঠকান কাঁদতে কাঁদতে সেই অনুরোধ করেছেন অপু বিশ্বাস।১০ এপ্রিল সোমবার দেশের একটি বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেলে লাইভে এসে নিজের বিয়ে ও সন্তান জন্মের কথা জানান অপু বিশ্বাস।এ সময় তিনি বলেন, ‘শাকিব যদি এই অনুষ্ঠান দেখে থাকে তবে ওর (শাকিবের) দায়িত্ব হবে দূর থেকে ওকে (ছেলেকে) আদর করে দেওয়া। বাবা হয়ে আমার ছেলেকে যেন না ঠকায়।’

দীর্ঘদিন নিজেকে আড়াল করে রাখার কথা উল্লেখ করে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘পাঁচ মাস হয় ঢাকায় এসেছি। দীর্ঘ নয় মাস আমি কলকাতা, ব্যাংকক ও সিঙ্গাপুরে ছিলাম।’

অপু আরও বলেন, ‘তাদের আশপাশে তো অনেক লোক আছে, তারাও তো বাবা। তারাও তো তাদের সন্তানদের আদর করে। আমি কী অন্যায় করেছি যার জন্য এত শাস্তি পেতে হলো?’তিনি জানান, প্রেম থেকেই ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল গুলশানে শাকিব খানের বাসায় বিয়ে হয় তাদের। এসময় তাদের পরিবারের সদস্য ছাড়াও এক প্রযোজক উপস্থিত ছিলেন। ফরিদপুরের ভাঙ্গা থেকে শাকিব খানের আনা এক কাজি তাদের বিয়ে নিবন্ধন করেন। মুসলিম রীতিতে বিয়ে হওয়ায় অপু বিশ্বাসের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় অপু ইসলাম খান।

অপু বিশ্বাস জানান, শাকিব খানের ইচ্ছাতেই বিয়ের বিষয়টি এতদিন গোপন রাখা হয়েছিল।তিনি বলেন, ‘ওর (শাকিব) কারণেই আমি সব গোপন রেখেছি। অামি অনেক ছাড় দিয়েছি, বিনিময়ে কিছুই পাইনি।’

নিজেকে ঠকালেও নিজের সন্তানকে ঠকাতে পারছেন না অপু। তিনি বলেন, ‘সম্পর্কের কথা গোপন রেখে আমি নিজেকে ঠকালেও আমার সন্তানকে ঠকাতে চাই না’।

শাকিব খান-অপু বিশ্বাসের অন্তরালের গল্পকথা

মাত্র এক মাস আগেই এক টেলিফোন সাক্ষাত্কারে অপু বিশ্বাস বলেছিলেন, আমি অন্তরালে থাকলে কি হবে; হঠাত্ করেই এমন খবর হয়ে আসবো যে, সব মিডিয়ায় তোলপাড় শুরু হয়ে যাবে।’ ঠিক তাই করলেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। তবে এভাবে হঠাত্ টিভি লাইভে এসে সবাইকে হকচকিয়ে দেবেন তা মোটেই প্রত্যাশিত ছিল না। দীর্ঘদিন অন্তরালে থাকার পর সশরীরে সামনে এলেন অপু বিশ্বাস। জানালেন শাকিবের সঙ্গে তার বিয়ের খবর। গতকাল ইত্তেফাককে অপু বলেন, ‘২০০৮ সালে ১৮ এপ্রিল আমাদের বিয়ে হয়েছে। শাকিবের ঢাকার বাসায় এই বিয়ে হয়। পরিবারের কাছের লোকজন সেই বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন। বিয়ের সময় আমার নাম হয় অপু ইসলাম খান। শাকিবের ইচ্ছাতেই এতদিন বিয়ের বিষয়টি গোপন রাখা হয়েছে। অপু বলেন, শাকিবের ভালো চিন্তা করে এতদিন চুপ করেছিলাম। অনেক ছাড় দিয়েছি। ধৈর্য ধরতে ধরতে শেষ সীমানায় পৌঁছে গেছি। কারণ, সে আমাকে সবসময় ছোট করেছে। অনেক লাঞ্ছনা সহ্য করেছি। কিন্তু আর সইতে পারলাম না। তাই টিভি লাইভের মাধ্যমেই সারাদেশকে জানিয়ে দিলাম। কারণ এ সত্য প্রকাশটা আমার জন্য নয়, আমার সন্তানের ভবিষ্যতের জন্য।’ অপু বিশ্বাস বলেন, ‘অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর শাকিব আমাকে বলেছিল নিজেকে লুকিয়ে রাখতে। তাই লুকিয়েছিলাম। কিন্তু সন্তান হওয়ার সময় শাকিব আমার পাশে ছিল না। তবে ঢাকায় আসার পর সন্তানকে দেখতে আসে। সন্তানের সব খরচও দেয়। সর্বশেষ ৮ এপ্রিল রাতেও সে আমার সাথে দেখা করেছে। বাচ্চাকে আদর করেছে। এতদিন এসব খবর আড়াল রাখার প্রসঙ্গে অপু বলেন, শাকিবের ক্যারিয়ার এখন তুঙ্গে। সে আমার স্বামী। এসব কথা জানাজানি হয়ে গেলে তার সম্মানহানি হবে, ক্যারিয়ারের ক্ষতি হবে, তাই চুপ করে ছিলাম। কিন্তু সে এখন যেটা করছে সেটা অন্যায়। আমাকে আমার যোগ্য সম্মানটা দিচ্ছে না। একটা মেয়ের জীবনে এর চেয়ে অপমানের আর কী হতে পারে? রেজিস্ট্রি করে বিয়ে করানো হয়। বিয়ের আট বছরের মাথায় অপু বিশ্বাসের কোল জুড়ে আসে ফুটফুটে এক পূত্র সন্তান। গত বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতার এক ক্লিনিকে জন্ম হয় শাকিব ও অপুর সন্তানের। এ সন্তানের নাম রাখা হয় আব্রাহাম খান জয়। সন্তান জন্মের সময় ছবির শুটিংয়ের ব্যস্ততা থাকায় পাশে থাকতে পারেননি শাকিব। এছাড়া এক বছর শাকিবের সঙ্গে তার কথা হয়নি বলেও জানিয়েছেন লাইভে। অপু বলেন, সম্প্রতি আমাকে ও সন্তানকে  এড়িয়ে চলতে শুরু করেন শাকিব। আর সহ্য করতে না পেরে মুখ খুলতে বাধ্য হলাম।

শাকিব খানের কোনো ক্ষতি চান না উল্লেখ করে অপু বিশ্বাস বলেন, তিনি চান শাকিব খান যেন তার ক্যারিয়ারে আরো উন্নতি করেন। পাশাপাশি তার সন্তান যেন পিতার স্নেহ থেকে বঞ্চিত না হয় সে বিষয়েও আকুতি জানান অপু বিশ্বাস। শাকিব খানের হাত ধরে নতুন নায়িকা বুবলীকে কখনো নিজের প্রতিদ্বন্দ্ব্বী ভাবেন না বলে জানান তিনি। অপু বিশ্বাস দাবি করেন, তার ছেড়ে যাওয়া সিনেমাতেই মূলত কাজ করার সুযোগ পায় বুবলি।  বুবলী কাজ করছে, করুক মন্তব্য করে তার জন্য শুভকামনা জানান অপু। শিগগিরই কাজে ফেরার প্রত্যয় ব্যক্ত করে তিনি বলেন,‘কি কি সিনেমা অসমাপ্ত  রেখেছিলাম, মনে আছে। সেগুলোর শুটিং শেষ করব শিগগিরই।

শাকিবের বক্তব্য

শাকিব খান বলেছেন, ‘দেখুন সন্তান আমার। আমি বাবা হয়ে কেন সন্তানকে অস্বীকার করবো। আর এটা সবাই জানেন যে, শো-বিজ ইন্ডাস্ট্রিতে কোটি কোটি টাকা লগ্নি হয়ে আছে আমার একাধিক ছবি নিয়ে। তাই বিষয়টি আমরা সমঝোতার মাধ্যমেই পার করছিলাম। সন্তানের দায়িত্ব আমার সারাজীবনের; কিন্তু অপু বিশ্বাস তার মা হয়ে যে কাজটি করলো, সেটি ঠিক করেনি। কারণ অপু তো নিজেও এই ইন্ডাস্ট্রির অংশীদার। সুতরাং ইন্ডাস্ট্রির লাভ-ক্ষতিও ওর বিবেচনা করা উচিত ছিল। হলিউড-বলিউডে এটা হরহামেশা ঘটে। অনেক বছর পর তারা সাংসারিক খবর জানায়; কিন্তু আজ এই অবস্থায় টাকার বিনিময়ে লাইভে গিয়ে যে কথাগুলো বললো সেটি সামাজিকভাবে শুধু আমাকে হেয় নয়, গোটা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে ছোট করলো। আমি শুনেছি প্রায় অর্ধ কোটি টাকার বিনিময়ে লাইভ শোতে সে হাজির হয়েছে; কিন্তু এভাবে আমার সন্তানকে নিয়ে কেন? কারণ আমি সবসময়ই হয়তো অপুর ব্যাপারে লুকোচুরি করেছি ঠিকই; কিন্তু সরাসরি না বলিনি। কারণ আমার কাঁধে এখন একটি নয়, ঢালিউড-টালিউড দুইটি ইন্ডাস্ট্রির দায়ভার। মাত্র কদিন আগেই কথা হলো। মাঝে এ করাতেই কি এমন ঘটে গেলো যে আমার বিরুদ্ধে এমন করতে হবে? এর পেছনে অন্য অনেকের কু-পরামর্শ রয়েছে। আমার বিরুদ্ধে কঠিন ষড়যন্ত্র চলছে।

বিষয়টি প্রকাশ করার পর শাকিবের সাথে অপুর কথা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে অপু বলেন, ‘না কোনো কথা হয়নি। তবে আমি এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। কারণ এতদিন নানা মিথ্যে কথা দিয়ে ভুলিয়ে রেখেছিল আমাকে শাকিব। সেই আমি তো এখন অকপটে সত্যটা বলা শুরু করেছি। তাই আমি আমার ক্যারিয়ার ও আমার দৈনন্দিন জীবন নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’

তবে কোনো আইনি মামলায় যাবেন কি-না জানতে চাইলে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘আমি তো স্ত্রী হিসাবে আমার এবং আমার সন্তানের মর্যাদা ফিরে চাইতে আবেদন জানিয়েছি। এখন এ অধিকার স্বীকার না করলে সমাজ বা আমার অভিভাবকেরা যা বলবেন, আপনারা যা বলবেন আমি তাই করবো। কখন একটি মেয়ে এভাবে নিজের ব্যক্তিগত কষ্টের কথা মিডিয়াতে বলতে আসে– আপনারাই বলুন?

শাকিব খানকে তার সিদ্ধান্ত কি হবে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘আমার সন্তানের দায়িত্ব আমি বাবা হয়ে সবসময়ই নিয়েছি, এখনো নেবো; কিন্তু স্ত্রী হিসেবে অপু আমার সম্মান রাখেনি। অপু আমার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। এই শো-বিজ ইন্ডাস্ট্রির সাথেও বেইমানি করেছে। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের পারস্পরিক শ্রদ্ধা তো সে নিজেই নষ্ট করলো! এখন দেখা যাক অপুর আর কি কি নাটক বাকি আছে। কারণ আমার এসব কিছু ছাপিয়ে ৬টি ছবির কাজও ঠিক সময়ে শেষ করতে হবে। ইন্ডাস্ট্রি আজ অপুকে ‘অপু বিশ্বাস বানিয়েছে, আমাকে শাকিব খান বানিয়েছে। তাই আমি এর সাথে বেইমানি করতে পারি না।’


যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মোনালিসা ফিরছেন

রবিবার, ০৯ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : ঢাকা থেকে : দেশে নয়, পর্দায় ফিরছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী মোনালিসা। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এই শিল্পীর নতুন একটি টেলিছবি প্রচার হবে টিভিতে। ৮ মাস আগে এর কাজ করেছিলেন তিনি। তখন যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরে টেলিছবির কাজটি করেছিলেন মোনালিসা। এর পরপরই দেশ ছাড়েন ফের। ‘আমি, তুমি ও সে’ নাটকে মোনালিসার সহশিল্পী সজল।মীর সামীর লেখা টেলিছবিটি পরিচালনা করেছেন নাহিদ বাবু।

Picture

গল্পটি এমন— নাসিরের সঙ্গে বিজলীর পরিচয় সুমির মাধ্যমে। সুমি নাসিরের স্কুল জীবনের বন্ধু। একদিন সুমি এসে নাসিরকে বলে এই যে এই হলো বিজলী। ওর জন্য একটা মাইগ্রেশন ফরম এনে দে। ও মাইগ্রেশন করবে। ব্যস, এই টুকু পরিচয়। কয়েকদিন গেলো এভাবে । এক রাতে অনেক সাহস নিয়ে নাসির ফোন দিলো। বিজলী ফোন ধরলো। নাসির কথা না বলে কেটে দেয়। এরপর কাহিনি অন্যদিকে মোড় নেয়। এতে আরও অভিনয় করেছেন নীপা খান, শান্ত, নাজমুল নয়ন, রাজেস, শাওন, জাকিব প্রমুখ। ‘আমি, তুমি ও সে’ টেলিছবিটির মাধ্যমে দীর্ঘদিন পর পর্দায় পাওয়া যাবে মোনালিসাকে।

নাটকের দৃশ্যে মোনালিসা ও সজল

২০১২ সালের জুনে আমেরিকা প্রবাসী ফাইয়াজ শরীফের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন মোনালিসা। একই বছর ম্যাজিক ডে ১২.১২.১২ তে ঢাকার একটি রেস্টুরেন্টে মোনালিসা ও ফাইয়াজের বিবাবহোত্তর সংবর্ধনা হয়। কিছু দিন যেতে না যেতেই বিয়ে বিচ্ছেদেরও খবর বের হয়। এরপর থেকে আমেরিকায় একাই অবস্থান করছেন মোনালিসা। সব মিলিয়ে অভিনয়-মডেলিং-নৃত্য সবখানে তার অনুপস্থিতি বাড়তে থাকে। ভক্তদের প্রত্যাশা, প্রিয় এই অভিনেত্রী কাজে আবার নিয়মিত হবেন।


শো-টাইম মিউজিক’র ঢালিউড ফিল্ম এন্ড মিউজিক এ্যাওয়ার্ড ৯ এপ্রিল

শনিবার, ০১ এপ্রিল ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন, আয়েশ আক্তার রুবি,বাপসনিঊজ:: উত্তর আমেরিকার খ্যাতনামা বিনোদন প্রমোটিং প্রতিষ্ঠান শো-টাইম মিউজিকের উদ্যোগে ১৬ তম ঢালিউড ফিল্ম এন্ড মিউজিক এ্যাওয়ার্ড ২০১৭ অনুষ্ঠিত হবে ৯ এপ্রিল রোববার। নিউইয়র্ক জ্যামাইকার ইয়র্ক কলেজ অডিটোরিয়ামে এই আয়োজন শুরু হবে সন্ধ্যা ৭টায়।

শো-টাইম মিউজিকের কর্ণধার আলমগীর খান আলম জানান, এবারের এওয়ার্ড অনুষ্ঠান হবে অত্যন্ত আকর্ষণীয়। খবর বাপসনিউজ।


তিনি জানান, এ বছরের অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের তারকাদের মধ্যে অংশ নেবেন শাকিব খান, জায়েদ খান, নুসরাত ফারিয়া, মিশা সওদাগর, ইমন, বুবলী, তমা, সারিকা, রনি, শিরিন শীলা, সোহাগ, মডেল তারকা শখ,অভিনেতা সজল,দেবাশীষ, সারিকা,প্রভাব, সজল, সুজানা, জলি এবং বাঁধনসহ সঙ্গীত তারকাদের মাঝে থাকছেন রিজিয়া পারভীন,তাহসান,সেলিম চৌধূরী,কনকচাঁপা ও মিরাক্কেল চ্যাম্পিয়ন রনিসহ আরো অনেকে।


বাক্স তুলতে গিয়ে বেসামাল তোয়ালে…তারপর?

মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ ২০১৭

বাপ্ নিউজ : অভিনেত্রীরা তাদের শরীরী প্রদর্শনের পর্ব কাটিয়ে ফেলেছেন কয়েক দশক আগেই। এই নিরিখে সাহসী বা বোল্ড হওয়া আজ আর বড় কোনো ঘটনা নয়। ওজন ঝরিয়ে ফেলে জনপ্রিয় ব্যক্তিত্বরা নিজেরাই তাঁদের টোনড বডির ছবি শেয়ার করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিন্তু এমন সাহসী সময়েও জনপ্রিয় টেলিভিশন ব্যক্তিত্বকে বেজায় বিপাকে ফেলল একখানা তোয়ালে। একটি বাক্স তুলতে গিয়ে তোয়ালে বেসামাল হতেই বেশ লজ্জায় পড়লেন ক্লো ফেরি।

alt

টেলিভিশনের পর্দায় পরিচিত মুখ ক্লো। তাছাড়া নেটদুনিয়াতেও তাঁর খ্যাতি কম নয়। বিভিন্ন সময়ে নানা কাজে নেটিজেনদের মনযোগ কাড়েন তিনি। যেমন কখনও নয়া হেয়ার স্টাইল দেখানো ছবি পোস্টে তাঁর ক্লিভেজ চোখে পড়া নিয়ে সরগরম হয় নেটদুনিয়া। কখনও আবার স্কুলপালানোর অভিজ্ঞতা কিংবা লেসবিয়ান প্রেম নিয়ে তাঁর কথাবার্তা নিয়েও জমে ওঠে আলোচনা-সমালোচনা। এহেন আদ্যন্ত স্মার্ট ক্লো-কেই বিপাকে ফেলে দিল এক তোয়ালে।

alt

মাথায় জড়ানো ছিল গোলাপি এক তোয়ালে। শরীর ঢেকেছিলেন আর এক তোয়ালেতেই। সেই অবস্থাতেই একটি বাক্স হাতে গাড়ির থেকে নেমে হাঁটছিলেন ক্লো। আচমকাই ছন্দপতন। হাতে ধরা বাক্সটি পড়ল মাটিতে। বাক্সে থাকা সমস্ত ক্যাসেট ছড়িয়ে পড়ল মাটিতে। নিশ্চয়ই তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কিছু।

Picture

আর তাই তোলার জন্য কাউকে না ডেকে তড়িঘড়ি নিজেই গেলেন কুড়োতে। আর যেখানে বাঘের ভয় সেখানেই সন্ধ্যা হয়। ক্যাসেট কুড়োনোর জন্য নিচে ঝুঁকতেই আলগা হল তোয়ালের বাঁধন। এতটাই বেসামাল হল তা যে লজ্জায় পড়ে গেলেন খোদ ক্লো। শেষমেশ কোনোরকমে হাতে শরীর ঢেকে উঠে দাঁড়ান। তারপর গাড়ির সামনে গিয়ে তবেই ঠিকঠাক করেন তোয়ালে। ঠিক সেই মুহূর্তের ছবি ক্যামেরাবন্দি হয়ে এখন ভাইরাল নেটদুনিয়ায়।

alt

তবে কেউ কেউ বলছেন, এ ঘটনা নাকি নেহাতই দুর্ঘটনা নয়। সম্প্রতি বেশ কয়েক কেজি মেদ ঝরিয়ে ঝরঝরে হয়েছেন ক্লো। সে কথা জানিয়ে তিনি পোস্টও করেছিলেন। আর তাতে ফ্যানরা বেশ উচ্ছ্বসিত প্রশংসাও করেছিলেন। তাহলে কি এটা সেই প্রশংসারই রেশ। ক্লো কি ঘুরিয়ে ফিরিয়ে দেখিয়ে দিলেন তিনি কতটা রোগা হয়েছেন। ভাইরাল ছবির সঙ্গে সঙ্গেই ঘুরছে এ প্রশ্নও।