Editors

Slideshows

http://bostonbanglanews.com/index.php/images/stories/2015/April/05/03/images/banners/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/605744Finding_Immigrant____SaKiL___0.jpg

কুইন্স ফ্যামিলি কোর্টে অভিবাসী

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দ্যা ইন্টারফেইস সেন্টার অব নিউইয়র্ক ও আইনী সহায়তা সংগঠন নিউইয়র্ক এর উদ্যোগে গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ৯ See details

http://bostonbanglanews.com/index.php/images/stories/2015/April/05/03/images/banners/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/455188Hasina__Bangla_BimaN___SaKiL.jpg

দাবি পূরণের আশ্বাস প্রধানমন্ত্

বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দাবি-দাওয়া বাস্তবায়নে আলোচনা না করে আন্দোলন করার জন্য পাইলটরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে দুঃখ প্রকাশ করে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন। পাইলটদের আন্দোলনের কারণে ফ্লাইটসূচিতে জটিলতা দেখা দেয়ায় যাত্রীদের কাছে দুঃখ See details

http://bostonbanglanews.com/index.php/images/stories/2015/April/05/03/images/banners/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/701424image_Luseana___sakil___0.jpg

লুইজিয়ানায় আকাশলীনা‘র বাৎসরিক

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ লুইজিয়ানা থেকে ঃ গত ৩০শে অক্টোবর শনিবার সনধ্যায় লুইজিয়ানা স্টেট ইউনিভার্সিটির ইণ্টারন্যাশনাল কালচারাল সেণ্টারে উদযাপিত হলো আকাশলীনা-র বাৎসরিক বাংলা সাহিত্য ও See details

http://bostonbanglanews.com/index.php/images/stories/2015/April/05/03/images/banners/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/156699hansen_Clac__.jpg

ইতিহাসের নায়ক মিশিগান থেকে বিজ

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ ইতিহাস সৃষ্টিকারী নির্বাচনে ডেমক্র্যাটরা হাউজের আধিপত্য ধরে রাখতে সক্ষম হলো না। সিনেটে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ অক্ষুন্ন রাখতে সক্ষম হলেও আসন হারিয়েছে কয়েকটি। See details

http://bostonbanglanews.com/index.php/images/stories/2015/April/05/03/images/banners/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/266829B_N_P___NY___SaKil.jpg

বিএনপি চেয়ারপারসনের অফিসে পুলি

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ নভেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটস্থ আলাউদ্দিন রেষ্টুরেন্টের সামনে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি তাৎক্ষণিক এক বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। এই See details

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

যুক্তরাষ্ট্রের খবর

অগ্নিঝরা মার্চের আলোকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা এবং বঙ্গবন্ধু শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ

শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭

Picture

হাকিকুল ইসলাম খোকন,হেলাল মাহমুদ, বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক থেকে :২৩শে মার্চ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের আয়োজনে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটস এর পালকি পার্টি সেন্টারে  অগ্নিঝরা মার্চের আলোকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা এবং বঙ্গবন্ধু শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।

alt

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি নুরুজ্জামান সরদার এবং অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সাধারন সম্পাদক সুবল দেবনাথ। উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের  প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকী এম পি।

alt
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ বসারত আলী, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আবদুস সামাদ আজাদ , বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সহ সম্পাদক সাখাওয়াত বিশ্বাস .নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শাহীন আজমল . অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি আশরাফ উদ্দিন .দুরুদ মিয়া রনেল .কবির আলী .এবাদুল হক . মাহবুবুর রহমান . জাহিদ মিয়া . অতুল প্রসাদ রায় . যুগ্ম সাধারন সম্পাদক নাফিকুর রহমান তুরান .এইচ এম ইকবাল . গোলাম কিবরিয়া . আনিসুজ্জামান সবুজ . সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল কোতয়ালী . সুমন আহমেদ .প্রচার সম্পাদক সাইফুল আলম . দপ্তর সম্পাদক এম. জি মুস্তফা, সহ প্রচার সম্পাদ সাদিক রহমান .শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সাগর এম সানু . মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রত্না ইসলাম, ত্রান ও দুর্যোগ সম্পাদক আলমগীর মোল্লা, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আলামিন হোসেন, গন সংযোগ সম্পাদক কামাল হোসেন .পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক উত্তম পাল . সমাজ কল্যান বিষয়ক সম্পাদক  বিপু রহমান সজল . কার্যকরী সদস্য রফিক আহমেদ মিলু , সালাউদ্দিন বিপ্লব, যুক্তরাষ্ট্র মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী  অধ্যাপিকা মমতাজ শাহনাজ . জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি কাজী আজিজুল হক খোকন সহ সভাপতি  মুঞ্জুর চৌধুরী, খাঁন শওখত, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের আহবায়ক তরিকুল হাইদার ঢৌধুরী .যুগ্ম আহবায়ক জামাল হোসেন .যুগ্ম আহবায়ক হুমায়ুন চৌধুরী, ইফজাল আহমেদ চৌধুরী, সদস্য মিজানুর রহমান শিমুল , বাবু।


যুক্তরাষ্ট্রে নিহত তিন বাংলাদেশিকে স্মরণ করলেন কংগ্রেসওম্যান গ্রেস মেং

শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,হেলাল মাহমুদ, বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক থেকে :বাংলাদেশিসহ দক্ষিণ এশীয়দের ওপর ধর্মীয় বিদ্বেষমূলক হামলার ব্যাপারে মার্কিন কংগ্রেসে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন কংগ্রেসওম্যান গ্রেস মেং। গত বৃহস্পতিবার ইউএস ক্যাপিটাল হিলে কংগ্রেসে শুনানীর আয়োজন করে মানবাধিকার সংস্থা ‘সাউথ এশিয়ান-আমেরিকান লিডিং টুগেদার’ (সল্ট)। সেখানেই আমেরিকার পররাষ্ট্র সম্পর্কিত কমিটির প্রভাবশালী সদস্য এবং কংগ্রেসনাল বাংলাদেশ ককাসের সদস্য মেং তার উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

Picture
গত বছরের নভেম্বরে আমেরিকায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সিটিতে বাংলাদেশিসহ দক্ষিণ এশীয়রা ধর্মীয় ও জাতিগত বিদ্বেষমূলক হামলার শিকার হচ্ছেন। সে আলোকেই ‘ক্ষমতা, যন্ত্রণা এবং সম্ভাবনা’ শীর্ষক এ আলোচনার আয়োজন করা হয়।
ডেমক্র্যাটিক পার্টির কংগ্রেসওম্যান গ্রেস মেং বলেন, অভিবাসী, মুসলিম, আরব, শিখ, হিন্দু এবং দক্ষিণ এশীয় আমেরিকানরা প্রতিনিয়ত ধর্মীয় বিদ্বেষমূলক হামলার শিকার হচ্ছে। গোটা সম্পদায়ে সন্ত্রস্ত অবস্থা বিরাজ করছে। রাজনৈতিক সভা-সমাবেশের বক্তব্য থেকেই এমন বিদ্বেষের বিস্তার ঘটেছে।
কংগ্রেসওম্যান ওং বলেন, গত বছর নিউইয়র্ক সিটিতে এক ইমাম, এক মুয়াজ্জিন এবং কর্মজীবী এক নারী দুর্বৃত্তদের হামলায় প্রাণ হারান। এ তিনজনই বাংলাদেশি। সম্প্রতি দুই ভারতীয় খুন হয়েছেন। কমপক্ষে পাঁচজনকে আহত করা হয়েছে ধমীয় ও জাতিগত বিদ্বেষের কারণে।


নারী অধিকার রক্ষা ও নারীর ক্ষমতায়নই আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তার আবশ্যিক পূর্বশর্ত - জাতিসংঘে মাসুদ বিন মোমেন

শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খাকন,বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক,“জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য হিসেবে ২০০০ সালে বাংলাদেশের গৃহীত প্রাথমিক পদক্ষেপের ফসল হিসেবেই নারীর শান্তি ও নিরাপত্তা বিষয়ে জাতিসংঘের ল্যান্ডমার্ক রেজুলেশন ১৩২৫ গৃহীত হয়। বাংলাদেশ বিশ্বাস করে নারী অধিকার রক্ষা ও নারীর ক্ষমতায়নই আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তার আবশ্যিক পূর্বশর্ত” – গত ২৪ মাচ জাতিসংঘ সদর দপ্তরে কমিশন অন দ্যা স্টাটাস অফ উইমেন (সিএসডব্লিউ) এর চলতি ৬১তম সেশনের শেষদিনে ‘খবাবৎধমরহম ডড়সবহ’ং চড়ঃবহঃরধষ ভড়ৎ ঝঁংঃধরহরহম চবধপব’ বিষয়ক এক সাইড ইভেন্টে একথা বলেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন। টেকসই শান্তি বিনির্মাণে নারীর ভূমিকা নিয়ে প্রথমবারের মত আয়োজিত এই সাইড ইভেন্টে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের সাথে সহ-আয়োজক ছিল কানাডা মিশন। আর এতে সহযোগিতা প্রদান করে ইউএন উইমেন ও জাতিসংঘের পিস বিল্ডিং সাপোর্ট অফিস।খবর বাপসনিঊজ:


স্থায়ী প্রতিনিধি তাঁর বক্তব্যে বলেন, “আমরা দেশের সকল স্তরের নারীদের জন্য এমন একটি পরিবেশ তৈরি করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, যেখানে নারীরা স্বাধীনভাবে কাজ করবে, সমাজে অবদান রাখবে এবং স্থায়ী শান্তির পথে যে সকল বাধা রয়েছে তা দূর করে জাতীয় জীবনে শান্তির সংস্কৃতি ও অহিংসাকে আরও বেগবান করবে। একথা নি:সন্দেহে বলা যায় যে ৪৫ বছর আগের সদ্য স্বাধীন, যুদ্ধবিধ্বস্থ ও ভঙ্গুর অর্থনীতির বাংলাদেশকে আমরা এ পর্যায়ে আনতে পেরেছি জাতি গঠন ও জাতীয় উন্নয়নে নারীর কৌশলী ভূমিকার কারণে। সমাজে নারীর ক্রম অগ্রগতির ক্ষেত্রে গৃহীত প্রতিটি আন্তর্জাতিক উদ্যোগে বাংলাদেশ সবসময়ই সামনের সারিতে থেকে লিঙ্গসমতা ও নারীর ক্ষমতায়ন প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যাচ্ছে যা আজ প্রমাণিত”।
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বদাই নারীদের মা, শিক্ষক, সেবাদানকারী, সামজকর্মী, জন প্রতিনিধি, উদ্যোক্তা ও কর্মী এবং সমাজ পরিবর্তনের প্রতিনিধি হিসেবে বহুমূখী ভূমিকা রাখতে আহ্বান জানিয়ে যাচ্ছেন মর্মে রাষ্ট্রদূত তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন।
জাতিসংঘের সাবেক আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল ও বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি আনোয়ারুল করিম চৌধুরী, কানাডা মিশনের চার্জ দ্য আফেয়ার্স রাষ্ট্রদূত মিখায়েল ডগলাস গ্রান্ট (গরপযধবষ উড়ঁমষধং এৎধহঃ), পিস বিল্ডিং সার্পোট অফিসের উপ-পরিচালক মিজ্ মারি ইয়ামাসিতা (গং. গধৎর ণধসধংযরঃধ), ইউএন এন ইউমেন এর প্রতিনিধি মিজ্ ম্যারি ওকুমু (গং. গধৎু ঙশঁসঁ) এবং এডুকেয়ার লাইবেরিয়া’র নির্বাহী পরিচালক মিজ্ ডেওলা ফ্যামাক(গং. উবড়ষধ ঋধসধশ) এই সাইড ইভেন্টে প্যানেলিস্ট হিসেবে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন।


নিউইয়র্ক প্রবাসী বীর মুক্তিযাদ্ধা বশির আর নেই

শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭

বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে : মরণব্যাধি ক্যান্সারের সাথে লড়াই করে অগ্নিঝরা মার্চে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে নিলেন নিউইয়র্কে স্থায়ীভাবে বসবাসকারী বীর মুক্তিযাদ্ধা বশিরুল আলম (৬২)। শুক্রবার সকাল ১১:৩৪ মিনিট জ্যামাইকার নিজ এপার্টমেন্টে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন মুক্তিযাদ্ধা বশিরুল আলম। শনিবার ২৫ মার্চ বাদ জোহর জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে মরহুমের জানাজার শেষে নং আইসল্যান্ড ওয়াশিংটন মেমোরিয়াল গ্রেভ ইয়ার্ডে তাকে সমাহিত করা হবে।

Picture

একাত্তরের মার্চে বঙ্গবন্ধুর ডাকে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিতে ভারতের ত্রিপুরার মেলাগডে ক্র্যাক প্লাটুনে যোগ দেন বশিরুল আলম।বাংলাদেশ লিবারেশন ফোর্স (বিএলএফ) এর সদস্য হয়ে মুক্তিযুদ্ধে গৌরবজনক অংশ নেয়া মুক্তিযাদ্ধা বশিরুল আলম ২০০৮ সালে আমেরিকায় তলে আসেন সপরিবারে ফ্যানিলি ভিসায়।মৃতুযরালে তিনি স্ত্রী ফরিদা বেগম ও পুত্র রিদউয়ান আলম (২১), ব্যাচেলর করছেন ।

দুবছর আগে ব্লাডার ক্যান্সার ধরা পরলে ম্যানহাটনে লিংকন হসপিটালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেয়া শুরু করেন তিনি। চিকিতসা চলছিল। কিন্তু দুসপ্তাহ আগে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ভর্তি হন নং আইসল্যান্ড দুইশ হসপিটালে। ১২ দিন চিকিতসা চলার ডাক্তাররা আশা ছেড়ে দেন। একদিন আগে তাকে বাসায় পাঠিয়ে দেন চিকিৎসকরা।


যুক্তরাষ্ট্রে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে থাকছেন লেয়ার লেভিন

শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭

বাপ্ নিউজ : বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে ‘মুক্তধারা ফাউন্ডেশন’ আয়োজিত অনুষ্ঠানে থাকবেন ‘মুক্তির গান’ প্রামাণ্যচিত্রের চিত্রগ্রাহক মার্কিন সহ-মুক্তিযোদ্ধা লেয়ার লেভিন।২৬ মার্চ রোববার জ্যাকসন হাইটসের ডাইভার্সিটি প্লাজায় দুপুর ১২টা থেকে শুরু হবে স্বাধীনতা দিবসের মূল অনুষ্ঠান।অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন কাদেরীয়া বাহিনীর অন্যতম বীর মুক্তিযোদ্ধা ও নিউ জার্সির কাউন্সিলম্যান নূরন নবী। অনুষ্ঠানে এ বছর আমেরিকায় বসবাসরত পাঁচজন প্রবীণ মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মাননা দেওয়া হবে বলে জানান আহ্বায়ক তাজুল ইমাম। বাংলাদেশের পতাকা দিয়ে বানানো উত্তরীয় পরিয়ে সম্মান জানানো হবে এই মুক্তিযোদ্ধাদের ।

alt

মুক্তিযুদ্ধে গৌরবোজ্বল অবদানের জন্য বীর বিক্রম খেতাবপ্রাপ্ত  নিউ ইয়র্কের ব্রুকলিনে বসবাসরত মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মালেক, বীর প্রতিক উপাধিপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন সায়ীদ মোহাম্মদ ও নিউ ইয়র্কের লং আইল্যান্ডে বসবাসরত বীরপ্রতীক মমতাজ হাসান উপস্থিত থাকবেন বলে জানায় আয়োজকরা।

এছাড়া আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অসাধারণ বীরত্বের জন্য দুই মহিলা মুক্তিযোদ্ধা, বীরপ্রতিক খেতাব অর্জন করা মিশিগান প্রবাসী ক্যাপ্টেন সিতারা রহমান। অসুস্থতার কারণে তিনি যোগ দিতে না পারলেও স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উৎসবকে সামনে রেখে গত দুই বছর ধরে নিউ ইয়র্কে এই প্রস্তুতি কর্মসূচিকে স্বাগত জানিয়ে অভিনন্দন জানিয়েছেন উদযাপন পরিষদকে।

এছাড়া আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে কথা সাহিত্যিক আনিসুল হক ও শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাকে।

‘উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী’, ‘সুর ও ছন্দ’ এবং ‘সঙ্গীত পরিষদ’ দলগতভাবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেবে মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের এ অনুষ্ঠানে। একক সঙ্গীত পরিবেশন করবেন শিল্পী শহীদ হাসান, কাবেরী দাস, শাহরীন সুলতানা, জিনাত রেহানা, তাহমিনা শহীদ ও শাহ মাহবুব।

অনুষ্ঠানে ৪৬ জন কবি পড়বেন ৪৬টি স্বাধীনতার কবিতা। দুপুর ১টায় শিশু-কিশোরদের চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগিতা শুরু হবে ইত্যাদি রেস্টুরেন্টের দোতলায়। বিকেল ৫টায় শুরু হবে প্যারেড।

নিউ ইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্র ক্যুমো এবং নিউ ইয়র্ক সিটির মেয়র বিল ডি ব্লাসিও পৃথক পৃথক বার্তায় বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস পালন করার জন্য মুক্তধারা ফাউন্ডেশন ও প্রবাসী বাংলাদেশিদের অভিনন্দন জানিয়েছেন।


যুক্তরাষ্ট্রস্থ জেনোসাইড ’৭১ ফাউণ্ডেশন ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবসে শহীদদের স্মরণ

শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খাকন,বাপসনিঊজঃ জেনোসাইড ’৭১ ফাউণ্ডেশন, ইউএসএ এবং মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের বিভিন্ন সংগঠনের সহযোগিতায় আগামী ২৫ শে মার্চ শনিবার দিবাগত রাত ৭টা থেকে ১২-০১ মিনিট পর্যন্ত পচিশে মার্চ গণহত্যায় শহীদদের স্মরণ, একাওুরে বাংলাদেশে সংঘটিত গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি ও ২৬ মার্চ প্রথম প্রহরে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহন করা হয়েছে। কর্মসূচীর মধ্যে বিশেষভাবে-

• একাওুরে বাংলাদেশের গণহত্যা শীর্ষক সেমিনার ও আলোচনা

• ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি আদায়ে জেনোসাইড ’৭১ 

ফাউণ্ডেশনের এ যাবৎ গৃহীত কর্মসূচীর উপর রিপোট পেশ 

* গনসঙ্গীত ও কবিতা আবৃত্তি

• ১২-০১ মিনিটে গণহত্যায় শহীদদের স্মরণে প্রজ্জলিত

• ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসের প্রথম প্রহরে বঙ্গবন্ধুর

প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ ও

• সম্মিলিত কণ্ঠে জাতীয় সংঙ্গীত পরিববেশনা

আপনারা সাদর আমন্তিত।

স্থানঃ বাংলাদেশ প্লাজা বিল্ডিং এর কনফারেন্স রুম (ল্যোয়ার লেভেল), 

৩৭-১৫, ৭৩ ষ্ট্র্র্রিট, জ্যাকসন হাইস্টস্, নিউইয়ক।


জাতিসংঘের কমিশন অব দ্যা স্ট্যাটাস অব উইম্যান সাইড ইভেন্টে ডাক্তার জাকিয়া জাহান

শনিবার, ২৫ মার্চ ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খাকন,বাপসনিঊজঃজাতিসংঘ: (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে : জাতিসংঘের কমিশন অব দ্যা স্ট্যাটাস অব উইম্যান এর ৬১তম অধিবেশনের সাইড ইভেন্টে বাংলাদেশী আমেরিকানদের পক্ষে ফেম-এর প্রতিনিধি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন ডাক্তার জাকিয়া জাহান। নিউইয়র্কে জাতিসংঘে এ অধিবশেনটি চলবে ১৩ থেকে ২৪ মার্চ। ডাক্তার জাকিয়া জাহান অধিবেশনে বাংলাদেশের নারীদের সম্পর্কে বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর উপলক্ষে ভিশন ২০২১ নামক উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ সরকার। জয়িতা এর মধ্যে অন্যতম সফল প্রকল্প। গ্রামের ছাত্রীদের বৃত্তি প্রদান ও অবৈতনিক শিক্ষা নিশ্চিত করছে বর্তমান সরকার। একটি বাড়ি,একটি খামার’ প্রকল্প সফলতা লাভ করেছে। বাংলাদেশে গত দুই দশকে ৬৬% মাতৃমৃত্যু হার হ্রাস পেয়েছে । এইসব সাফল্যগাঁথার জন্য আমি বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি।

Picture

তিনি আরো বলেন বাংলাদেশের নারীর স্বাস্থ্য এবং সন্তান ধারণ ক্ষমতা সম্পর্কে উপলব্ধি না করে নারী পুরুষ সমতা ও নারীর ক্ষমতায়ন সম্ভব নয়। প্রজনন স্বাথ্যসহ নারীর সার্বিক স্বাস্থ্য সচেতনতা তাঁদের ক্ষমতায়নের ব্যাপারে খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে আমি মনে করি। আমি একজন বাংলাদেশী আমেরিকান হিসেবে বলতে চাই বাংলাদেশের দৈনন্দিন জীবনের অভিজ্ঞতা থেকে বিশ্ববাসীর অনেক কিছু শেখার আছে। সমাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহন অপরিহার্য। কৃষি থেকে শুরু করে রাজনীতিসহ সবক্ষেত্রে নারীর পদচারণা জাতীয় উন্নতিতে বিশাল প্রভাব বিস্তার করবে বলে আমার বিশ্বাস। বর্তমান সরকার এসডিজি অব জেন্ডার ইকোয়ালিটি নারী পুরুষ সাম্য ও নারীর ক্ষমতায়নের জন্য সিইডিএডাবলিও এবং বেইজিং প্লাটফর্ম এর প্রয়োগ ও বাস্তবায়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। নারীর স্বাস্থ্য এবং সন্তান ধারণ ক্ষমতা সম্পর্কে উপলব্ধি না করে নারী পুরুষ সমতা ও নারীর ক্ষমতায়ন সম্ভব নয়। প্রজনন স্বাথ্যসহ নারীর সার্বিক স্বাস্থ্য সচেতনতা তাঁদের ক্ষমতায়নের ব্যাপারে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আর্থসামাজিক উন্নতি এবং জনজীবন তথা রাজনৈতিক জীবনে তাদের অংশগ্রহণ ও নেতৃত্ব প্রদান ব্যতীত দারিদ্র্য ও নারী পুরুষ বৈষম্য দূর করা সংকটপূর্ণ হয়ে দাঁড়াবে। জাতিসংঘের স্থায়ী পর্যবেক্ষক মান্যবর বার্নারডিতো আঝুয়া,মডারেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

ওয়াল্ড ইয়ুথ এ্যালায়েন্সের সিইও এ্যানা হ্যাল্পাইন এসডিজি নিয়ে বক্তব্য রাখেন। এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা: ডেনিয়েল্যাে কয়েষ্টনার, ফেম মেডিক্যাল রেসিডেন্ট নিরা লপেটেগুই এবং ওম্ব ইন্টারন্যাশনাল এর প্রতিনিধি এ্যানি ক্যাথরিন।


সভাপতি দর্পণ, সম্পাদক রচি আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের নতুন কমিটির কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর

শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০১৭

Picture

১৯ মার্চ ক্লাবের সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন ক্লাবের বিদায়ী কমিটির সভাপতি নাজমুল আহসান এবং সভা পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক দর্পণ কবীর। সভায় বিদায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক দর্পণ কবীর বিগত দিনের কার্যক্রম তুলে ধরেন এবং উপস্থিত সদস্যদের জানান-কতিপয় সদস্য ক্লাব বিরোধী কর্মকান্ডে লিপ্ত রয়েছে। তার এই বক্তব্যের পর সাধারণ সদস্যরা ঐ সকল সদস্যদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। এ ছাড়া গঠনতন্ত্রের কিছু ধারা-উপধারা পরিবর্ধন-সংশোধন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।
সভায় আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে আজকাল-এর প্রধান সম্পাদক জাকারিয়া মাসুদ, প্রবাস পত্রিকার সম্পাদক মোহাম্মদ সাঈদ ও উপদেষ্টা সম্পাদক সৈয়দ উয়ালী-উল আলম।

alt

জাকারিয়া মাসুদ জিকো বলেন-নির্বাচন কমিশনের স্বেচ্ছাচারী কর্মকান্ডের কারণে এই প্রেসক্লাবের বিভক্তির সৃষ্টি হয়েছে। আমরা আগামী দিনে সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব।
মোহাম্মদ সাঈদ বলেন-যারা আমাকে সভাপতি হিসাবে নির্বাচিত করেছিলেন, তাদের প্রতি আমার গভীর কৃতজ্ঞতা। ব্যক্তিগত নানা অসুবিধার কারণে আমি এই পদে থাকতে পারছি না। যে কোন সমস্যা মোকাবেলায় ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক দর্পণ কবীর লড়াকু ভূমিকা পালন করে আসছেন। ক্লাবের মধ্যে সংকট তৈরি হয়েছে। এই সংকট মোকাবেলায় দর্পণ কবীরের নেতৃত্বে বর্তমান কমিটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন বলে আমি বিশ্বাস করি।
সৈয়দ ওয়ালী উল আলম বলেন-আমি আশা করি, নতুন কমিটি ক্লাবকে গতিশীল নেতৃত্ব দেবে। তাদের কর্ম দক্ষতায় ক্লাবের মর্যাদা আরো বৃদ্ধি পাবে।
সভাপতির ভাষণে নাজমুল আহসান বলেন-আমি সব সময় ক্লাবের গঠনতন্ত্র মেনে চলার চেষ্টা করেছি। অন্যায় কোন সিদ্ধান্ত আমি নিইনি। যারা অন্যায় কাজ করতে চেয়েছেন, বাধা দিয়েছি। ক্ষমতার লোভী যারা, তারাই ক্লাবের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে ষড়যন্ত্র করেছে। তবে আমরা সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে অবিচল আছি।
সাধারণ সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন সহ-সম্পাদক মনজুরুল হক (টিবিএন-২৪ টিভি). কোষাধ্যক্ষ মশিউর রহমান মজুমদার (সাপ্তাহিক বর্ণমালা) এবং নির্বাহী সদস্য এবিএম সিদ্দিক (আজকাল), মিলা হোসেন (আজকাল), শিহাব উদ্দিন সাগর (প্রথম আলো), সামসুন্নাহার নিম্মি (প্রথম আলো), শামসুল আলম লিটন (আজকাল)এস.এম. সারোয়ার (প্রবাস), তোফাজ্জল লিটন (রাইজিং বিডি নিউজ), স্যামুয়েল স্টিফেন পিনারু (প্রবাস), আলামগীর হোসেন (বাংলা পত্রিকা), পাপিয়া বেগম (প্রবাস), অভিজিৎ রায় কাব্য (প্রবাস), মল্লিকা খান মুনা (অন নিউজ-২৪) প্রমুখ।  


আমরা এমন সোনার বাংলা গড়ে তুলবো যেখানে নারী সমাজ জীবনের সকল ক্ষেত্রে পাবে সমান সুযোগ ও অধিকার------ - জাতিসংঘে প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ এমপি

শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:“আমরা এমন সোনার বাংলা গড়ে তুলতে চাই, যেখানে পরিবার, সম্প্রদায় ও সমাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে নারী পাবে সমান সুযোগ ও অধিকার” - ২২ মার্চ বুধবার জাতিসংঘ সদর দপ্তরে কমিশন অন দ্যা স্টাটাস অফ উইমেন (সিএসডব্লিউ) এর চলতি ৬১তম সেশন উপলক্ষে আয়োজিত ‘এনহ্যান্স স্যোসাল প্রটেকশন ফর পোভার্টি রিডাকশন এন্ড ওমেন্স ইমপাওয়ারমেন্ট’ শীর্ষক সাইড ইভেন্ট একথা বলেছেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ এমপি। বাংলাদেশ ও কানাডা সরকার ইভেন্টটির যৌথ আয়োজক এবং এতে সহযোগিতা করে ফাও (ঋঅঙ) ও ডব্লিউএফপি (ডঋচ)।খবর বাপসনিঊজ।
প্রতিমন্ত্রী তাঁর কী-নোট স্টেটমেন্টে বাংলাদেশে নারীদের জন্য, নারীর ক্ষমতায়নের জন্য এবং সার্বিকভাবে দারিদ্র্য বিমোচনের জন্য সামাজিক সুরক্ষামূলক যে সকল কর্মসূচি বাস্তবায়ন ও পদ্ধতি অনুশীলন করা হয়েছে তা তুলে ধরে বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে আমরা নারীর সামগ্রিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের সরকার দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য ১৪২ টি বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে যেখানে রয়েছে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নারী। আমরা জাতীয় নারী উন্নয়ন নীতি ২০১১ ও জেন্ডার সংবেদনশীল বাজেট প্রণয়ন করাসহ ৭ম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায় নারী অধিকারকে সংরক্ষণ করেছি। ব্যবসায় নারীদের দক্ষতা বাড়াতে আমাদের সরকার বিভিন্ন কর্মসূচির পাশাপাশি এসএমই সেক্টরের উন্নয়নে একটি ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছে। এছাড়া, সরকার নারীর ক্ষমতায়নে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কর্মসূচি গ্রহণ, মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা প্রদান, কর্মজীবি নারীদের জন্য হোস্টেল ও তাদের সন্তানদের জন্য ডে কেয়ার সেন্টার স্থাপনসহ বিভিন্নমূখী কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে”।

Picture

বিশ্বব্যাংকের হিসাব মোতাবেক বাংলাদেশে দারিদ্র্যের হার ২৩.২ ভাগে এবং অতি দারিদ্র্যের হার ১২.৯ ভাগে নেমে এসেছে বলে প্রতিমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন। প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, “দারিদ্র্য বিমোচন ও নারীর ক্ষমতায়নের মাধ্যমে আমরা এমডিজি বাস্তবায়নে সফল হয়েছি। আমরা বিশ্বাস করি, এমডিজি বাস্তবায়নের এই অভিজ্ঞতা আমাদেরকে ২০৩০ সালের আগেই এসডিজি’র লক্ষ্যসমূহ অর্জনে সাহায্য করবে।
মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাসিমা বেগম এনডিসি ইভেন্টিতে আলোচনা পর্বে অংশ নেন এবং জাতিসংঘে নিযুক্ত ডেনমার্কের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত আইবি পিটারসন ও কানাডা মিশনের চ্যার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স রাষ্ট্রদূত মাইকেল ডগলাস দারিদ্র্য বিমোচন ও লিঙ্গসমতার ক্ষেত্রে সামাজিক সুরক্ষার প্রভাব নিয়ে আলোকপাত করেন।
ইন্টারন্যাশনাল ফুড পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউট এর প্রতিনিধি ড. শালিনি রায় সামাজিক নিরাপত্তা বিষয়ে এবং ফাও এর প্রতিনিধি মিজ্ কারলা মুকাভি নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন বিষয়ে আলাদা আলাদা প্রেজেন্টেশন করেন।
ইভেন্টটির সঞ্চালনা করেন ডব্লিউএফপি’র মিজ্ ম্যানন হাওয়ার্ড। অনুষ্ঠানের শুরুতে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীন ‘মাল্টি সেক্টোরাল প্রোগ্রাম অন ভায়োলেন্ট এগেনিস্ট উইমেন’ প্রকল্পের পরিচালক ড. আবুল হোসেন সামাজিক সুরক্ষা ও নারীর ক্ষমতায়ন বিষয়ে একটি পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন করেন।
উল্লেখ্য প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ এমপি সিএসডব্লিউ’¬র ৬১তম সেশনে বাংলাদেশ ডেলিগেশনের প্রতিনিধিত্ব করছেন। এছাড়া মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাসিমা বেগম এনডিসি এবং পরিকল্পনা মন্ত্রনালয়ের সচিব জিয়াউল ইসলামসহ ৯ সদস্যের একটি বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল সিএসডব্লিউএর ৬১তম সেশনে অংশগ্রহণ করছেন। গত ১৩ মার্চ শুরু হওয়া এই সেশন আগামী ২৪ মার্চ পর্যন্ত চলবে।
সিএসডব্লিউ’র এই ইভেন্টে অংশ নেওয়ার আগে প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশ মিশনের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে মিশনের কর্মকর্তা ও তাঁর ডেলিগেশন সদস্যের সাথে এক মতবিনিময় সভায় যোগ দেন।

alt

We look forward to create Sonar Bangla where the women will get equal rights and opportunity in every sphere of life - State Minister Meher Afroze MP at UN.

Hakikul Islam Khokan,Bapsnews:New York, 22 March 2017: “We look forward to create ‘Sonar Bangla’ where the women will get equal opportunity for rights and entitlements in the family, community and in the society” says Meher Afroze MP, State Minister, Ministry of Women and Children Affairs, Bangladesh at a side event on ‘Enhance Social Protection for Poverty reduction and women’s empowerment’ under the ongoing 61st session of the Commission on the Status of Women (CSW). The event was co-hosted by the Government of Bangladesh and Government of Canada, supported by FAO and WFP.
In her key note statement, the State Minister enumerated the various measures and best practices taken place in Bangladesh with regard to social protection programme for women for empowering them and eradication of poverty as a whole. She stated, “Under the leadership of Prime Minister Sheikh Hasina we are working for the inclusive development of women. Our government has adopted 142 special programmes for social protection of the poor community of where a significant number are women. We have enacted National Women Development Policy 2011, ensured Gender Responsive Budget and reserved the women’s right in Seventh Five Year Plan (2016-2020). To develop women’s business skills, our government has established a foundation to develop the SME sector and launched programs for women”. Moreover, Bangladesh government has taken huge project Including better health care, various training programme, hostels for working women, daycares for the children of working women to empower the women – the State Minister said.
The State Minister said, “According to World Bank Study the level of poverty has gone down to 23.2% and extreme poverty to 12.9% particularly from 2009 to 2016”.
“Bangladesh made significant progress in achieving the MDG by reducing poverty, and women empowerment. We believe, the experiences of implementation of the MDGs will help us to achieve the targets of the SDGs before 2030” the State Minister said.

alt

Ms. Nasima Begum NDC, Secretary, Ministry of Women and Children Affairs of Bangladesh joined the discussion and Permanent Representative of Denmark, Ambassador IB Peterson, Chargé D' Affaires of Mission of Canada, Ambassador Michael Douglas Grant made remarks on the impact of social protection in eradicating poverty and bringing gender parity.
Representative of International Food Policy Research Institute, Dr. Shalini Roy and Representative of FAO Ms. Carla Mucavi made presentation on ‘social safety net and ‘economic empowerment’ respectively.
 The event was moderated by Ms. Shannon Howard from WFP. Dr. Abul Hossain, Project Director, Multi-Sectoral Programme on Violent Against Women, Ministry of Women and Children Affairs presents a Power Point on Social Protection and women empowerment in Bangladesh.
State Minister Meher Afroze MP is leading the Bangladesh delegation to the 61st CSW session. Ms Nasima Begum NDC, secretary, Ministry of women and children affairs, Md. Ziaul Islam, Secretary, Ministry of Planning and six others government official are attended the session as members of the delegation.
Before the CSW side event the State Minister attended an interactive meeting with the officers of Permanent Mission of Bangladesh and members of her delegation.

 

 

 #


“নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)” সংগঠনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার অভিষেক অনুষ্ঠিত হল

শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন:আয়েশা আকতার রুবী,বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক থেকে :একটি দুর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না, পথ যেন হয় শান্তির মৃত্যুর নয়  - এই স্লোগানগুলিকে সামনে রেখে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ১৯৯৩ সালে চিত্র নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের নেতৃত্বে বাংলাদেশে গড়ে উঠা “নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)” সংগঠনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার অভিষেক অনুষ্ঠিত হল গত ২০শে মার্চ সোমবার নিউইয়র্কের জ্যামাইকায় স্টার কাবাব রেস্টুরেন্টে। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন নিসচা সংগঠনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার আহ্বায়ক ইসমাইল হোসেন স্বপন এবং প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কনসুলেটের মাননীয় কনসাল জেনারেল মোঃ শামীম আহসান। অভিষেক অনুষ্ঠানের শুরুতেই এই স্বাধীনতার মাসে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এর পর বক্তারা বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে নিসচা সংগঠনের সামাজিক আন্দোলনের ভূয়সী প্রশংসা করে বক্তব্য রাখেন। বক্তারা বলেন বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতিদিন নিরীহ সাধারণ মানুষের মৃত্যু হচ্ছে কিন্তু খবরের কাগজে শুধু ঠাই হয় নামী দামী কেউ দুর্ঘটনার স্বীকার হলে।

Picture

দুর্ঘটনার পর চালকেরও আইনগত ভাবে তেমন কোন শাস্তি হয়না। এতে মনে হয় বাংলাদেশে সাধারণ মানুষের জীবনের কোন মূল্য নেই। যেহেতু আমাদের পরিবার পরিজন বা আত্মীয়স্বজন বাংলাদেশে আছেন আমাদের সবার কর্তব্য প্রবাস থেকেও নিসচা সংগঠনের সামাজিক আন্দোলনকে সমর্থন জানানো। বক্তারা আরও বলেন শিশুদের পাঠ্যপুস্তকে সড়ক নিরাপত্তা বিষয় অন্তর্ভুক্ত করা, চালকদের নুন্যতম শিক্ষা ও বয়স নির্ধারণ, চালকদের প্রশিক্ষণ, সড়ক নির্মাণে বৈজ্ঞানিক গবেষণা, সাধারণ জনগণের সচেতনতা মূলক প্রচার, এই সব কিছু নিয়ে একটি জাতীয় নীতিমালা করলে বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনা কমিয়ে আনা সম্ভব। তারা সড়ক দুর্ঘটনার পাশাপাশি নৌপথের দুর্ঘটনার উপরেও গুরুত্ব আরোপ করেন।

alt

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কনসাল জেনারেল শামীম আহসান বলেন দুর্ঘটনায় অনেক সময় অনেকের পঙ্গুত্ব বরণ করতে হয়, যা মৃত্যুর চেয়েও কম নয়। একটি দুর্ঘটনা একটি পরিবারকে দুঃসহ পরিস্থিতির দিকে ঠেলে দিতে পারে, যদি দুর্ঘটনা কবলিত ব্যক্তিটি পরিবারের উপার্জনের একমাত্র উৎস হয়। তিনি বলেন এই নিউইয়র্ক শহরে দুর্ঘটনা রোধে সড়কের গতি ৩০ থেকে কমিয়ে ২৫ করা হয়েছে, বড় সড়কে সাইকেলের জন্য আলাদা লেন করা হয়েছে এই সব কিছুই এই শহরের জনগণের সামাজিক আন্দোলনের ফসল। তাই বাংলাদেশে নিরাপদ সড়ক চাই সংগঠনের যে আন্দোলন সেই আন্দোলনের প্রয়োজনীয়তা অনেক বেশী। বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সংগঠনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার যেকোনো লিখিত পরামর্শ তিনি বাংলাদেশ সরকারের কাছে পৌঁছে দেওয়ার আশ্বাস দেন।নিসচার সদস্য সচিব স্বীকৃতি বড়ুয়ার সঞ্চালনায় ও যুগ্ম আহ্বায়ক খোন্দকার রেজাউল করিমের সহযোগিতায় অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে আহ্বায়ক ইসমাইল হোসেন স্বপন বলেন সড়ক দুর্ঘটনা মূলত চারটি কারণে ঘটতে পারে - চালক, যাত্রী, পথচারী এবং পরিবহন মালিকের কারণে। চালকরা ব্যাপারোয়া গাড়ী চালান, যাত্রীরা চালককে দ্রুত গতিতে গাড়ী চালানোর জন্য উৎসাহিত করেন, পথচারী নিয়ম না মেনে রাস্তা পারাপার করেন এবং পরিবহন মালিকার গাড়ীর যথাযথ রক্ষাবেক্ষন করেন না। তিনি বলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, আইন মন্ত্রণালয়, যোগাযোগ মন্ত্রণালয় এবং অর্থ মন্ত্রণালয় সমন্বয়ের মাধ্যমে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে যদি জাতীয় আইন প্রণয়ন করেন, তাহলেই বাংলাদেশে সড়ক ও নৌপথে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা অনেকাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব।

alt

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সংগঠনের উপদেষ্টা যথাক্রমে এ বি এম ওসমান গনি, শাহ নেওয়াজ, ওয়াজেদ আলী খান বাচ্চু, মনির হোসেন, মোহাম্মদ আলী, ডাঃ শাহ আলম, আমিনুল হোসেন, আতিকুর রহমান সুজন, বিশেষ অথিতি যথাক্রমে ছদরুন নুর, লেখক ও সাংবাদিক ফাহিম রেজা নুর, রোকেয়া আক্তার, রুবাইয়া রহমান, সদস্য যতাক্রমে আহনাফ আলম, লেখিকা কামরুনাহার ডলি, এডভোকেট কামরুজ্জামান বাবু, এডভোকেট মুকতাসিম বিল্লাহ লোটাস, সুলতান, প্রমুখ। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সদস্য যথাক্রমে আব্দুল গাফফার বাবু, মির্জা সাইফুল্লাহ, রুদ্র মোহাম্মদ মাসুদ, নজরুল ইসলাম, শোভন রায় এবং অথিতি যথাক্রমে আব্দুল বারি মৃদা, নুরুল মোস্তফা রইসী, শিরিন কামাল, শাহ গোলাপ রহিম শ্যামল, ডালিয়া চৌধুরী, উৎপল চৌধুরী, রুমানা জেসমিন, সালমা ফেরদৌস, প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে মাননীয় কনসাল জেনারেল আহ্বায়ক কমিটির নেতৃবিন্দের গলায় কেন্দ্রীয় কমিটি কতৃক প্রেরিত নিসচার পরিচয় পত্র পরিয়ে দেন।


Video Link: https://www.facebook.com/ahnaf.alam.14/videos/1442506282449363/


নিউইয়র্কে এরশাদ এর ৮৭তম জন্মবার্ষিকী উদ্যাপন করলো যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় পার্টি

শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে : জ্যাকসন হাইটস্থ ইত্যাদি গার্ডেন মিলনায়তনে গত ২০ শে মার্চ সোমবার সন্ধ্যা ৭ ঘটিকার সময় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি পল্লীবন্ধু হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদ এর ৮৭তম জন্মবার্ষিকী কেক কেটে উদ্যাপন করলো জাতীয় পার্টি যুক্তরাষ্ট্র শাখা।

Picture

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির উপদেষ্টা সৈয়দ শওকত আলী। আরো উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য হাজী আব্দুর রহমান, যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য আবু তালেব চৌধুরী চান্দু, যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় পার্টির সহ সভাপতি তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় সদস্য লুৎফুর রহমান, জাতীয় যুব সংহতির যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি ওয়াহিদ ফেরদৌস ও মহিলা সম্পাদিকা সেবু রহমান। ছোট মনি আশিকুর রহমান এর মাধ্যমে কেক কেটে অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয়। উপস্থিত সকলে চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি, পল্লীবন্ধু হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদ’র দীর্ঘায়ু ও সুস্থতা কামনা করা হয় যাতে আগামী দিনে জাতীয় পার্টি ও ১৭ কোটি জনগণের কল্যানে কাজ করার সমর্থ হন।