Slideshows

http://bostonbanglanews.com/index.php/media/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/605744Finding_Immigrant____SaKiL___0.jpg

কুইন্স ফ্যামিলি কোর্টে অভিবাসী

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দ্যা ইন্টারফেইস সেন্টার অব নিউইয়র্ক ও আইনী সহায়তা সংগঠন নিউইয়র্ক এর উদ্যোগে গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ৯ See details

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রত্যাশিত সংস্কারের জন্য পরিষদের কর্মকান্ডে অধিকতর মানবিক সম্পৃক্ততা প্রয়োজন - জাতিসংঘে রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন

মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ :জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রত্যাশিত সংস্কারের জন্য পরিষদের কর্মকান্ডে অধিকতর মানবিক সম্পৃক্ততা প্রয়োজন বলে নিরাপত্তা পরিষদের কার্যপদ্ধতির উপর এক উন্মুক্ত আলোচনায় মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন। তাঁর বক্তব্যে তিনি রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতনের অভিজ্ঞতা বর্ণনা ও তাদের বক্তব্য তুলে ধরার জন্য  নিরাপত্তা পরিষদে রোহিঙ্গা প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানানোর তাগিদ দিয়েছেন। পরিষদের সভাপতি হিসেবে কুয়েত আজকের এ উন্মুক্ত আলোচনার আয়োজন করে।
স্থায়ী প্রতিনিধি তাঁর বক্তব্যে জাতিসংঘ সনদের ৯৯ ধারা অনুযায়ী গত সেপ্টেম্বরে নিরাপত্তা পরিষদে রোহিঙ্গাদের মানবিক বিপর্যয়ের উপর জাতিসংঘ মহাসচিবের প্রেরিত চিঠির কথা উল্লেখ করে মহাসচিবকে যে কোন জরুরী মানবিক প্রয়োজনে এ ধরনের আরো উদ্যোগ নেবার আহ্বান জানান। তিনি নিরাপত্তা পরিষদকে বেসামরিক মানুষের উপর নিপীড়ন ও নৃশংসতা বন্ধে ও হত্যাযজ্ঞের ক্ষেত্রে ‘ভেটো’ ক্ষমতা ব্যবহার না করারও অনুরোধ জানান।
রোহিঙ্গাদের উপর গত ২৫ আগস্টের পর সংঘটিত অপরাধের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার উপর জোর দিয়ে স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বলেন, “এটা রোহিঙ্গাদের নিরাপদ, স্বেচ্ছায় ও সম্মানজনক প্রত্যাবসনের ক্ষেত্রে তাদের আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনবে”।

Picture
রাষ্ট্রদূত মাসুদ রোহিঙ্গাদের মানবিক বিপর্যয়ের প্রেক্ষিতে গত বছর গৃহীত নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির বক্তব্য কে ভিত্তি ধরে একটি রেজুলেশন পাস করার আহ্বান জানান। পাশাপাশি নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদেরকে শীঘ্রই বাংলাদেশ ও মিয়ানমারে সফর করে রোহিঙ্গাদের বর্তমান অবস্থা সরজমিনে প্রত্যক্ষ করা এবং তাদের প্রত্যাবাসনের বিষয়টি নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।
নিরাপত্তা পরিষদের কার্যপদ্ধতির উপর আজকের আলোচনায় ৬০টিরও বেশী দেশ অংশ নিয়ে বিভিন্ন ধরনের প্রস্তাবনা পেশ করে। এর মধ্যে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী অধিকাংশ দেশই নিরাপত্তা পরিষদ ও তাদের মধ্যে শান্তিরক্ষা বিষয়ে আরো গভীর মতবিনিময়ের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

Security Council reform should be aimed at enhancing its human face - Bangladesh Ambassador to the UN

alt
The much anticipated reform of the Security Council should be aimed at further enhancing its human face and interactions, said Ambassador Masud Bin Momen of Bangladesh at a Security Council Open Debate on its working methods today. The Bangladesh Ambassador urged the Council to invite Rohingya representatives to share their narratives with the Council and thus amplify their voice.
The Open Debate was organised by the delegation of Kuwait in its capacity as Council President for the month of February 2018. The Bangladesh Ambassador recalled the Secretary General’s letter to the Council about the Rohingya humanitarian crisis in September 2017 under Article 99 of the Charter, and recommended that the Secretary General consider using this provision more often in case of similar humanitarian exigencies.

alt
Ambassador Masud joined many other delegations in calling for avoiding the use of veto in the Security Council in case of mass atrocity crimes committed against civilians.
He underscored the importance of ensuring accountability for the serious crimes committed against the Rohingya since 25 August 2017. “This would be critical for restoring their confidence in their safe, dignified and voluntary return to Myanmar”, he added.
The Bangladesh Ambassador urged the Council members to demonstrate unity and pragmatism towards adopting a Resolution in response to the Rohingya humanitarian crisis, building on the Presidential Statement adopted last year.
He stressed the usefulness of the Council’s visits to the field and recommended an early visit to Bangladesh and Myanmar for the Council members to witness the current situation with the possible repatriation of the Rohingya to Myanmar.
Nearly 60 Member States took part in the Open Debate and made a range of recommendations on further improving and democratizing the working methods of the Council.
A large number of troop and police contributing countries to UN peacekeeping operations emphasized the need for in-depth consultations between the Council and the concerned delegations.


Add comment


Security code
Refresh