logo

সুফিয়ান আহমদ চৌধুরী’র একগুচ্ছ ছড়া

রবিবার, ১৫ এপ্রিল ২০১৮

আমার গাঁয়ে =

আমার গাঁয়েনকশী কাঁথা
শাপলা ফুলের মেলা
দোয়েল পাখি গাঁয়ের গাছে
শিশুরা করে যে খেলা।

ধানের খেতে দুলছেধান
চাষির মুখে যে হাসি
গাঁয়ের বধূ কলসি কাঁখে
রাখাল বাজায় বাঁশি।

গাঁয়ের লোকে সরল মনে
বসত করে যে গাঁয়
সকল মিলে সুখেই থাকে
এমনি রোজ যে যায়।

ভোরের আলো সবার মনে
সুখ যে নিয়েআসে
কাজের মাঝে মেতে যে দিন
গাঁয়েতে বারো মাসে।

বেকার

বেকারঘুরেরাস্তাঘাটে
কাজ নেইহাতে
স্বভাবহলোবাহাদুরি
দিনআররাতে।

লটারিকরেফলাফল
জিরোহয়ওই
সোনালিদিনআসবেনা
হাসি গেলো কই?

বেকারহয়েযায় রোজ
শান্তি নেইআজ
ভাবনাবাড়েকী যে তার
পাবে কোনোকাজ।

কিভাবেযাবেদিনবলো
ঘরেবসেরয়
বেকারহয়েকতদিন
বাড়েআহাভয়।


শালা


শালাআসেখুশিমুখে
দুলাভাইহাসে
চকচকে নোট দেয়
খুব ভালোবাসে।

মিষ্টিখায়একসাথে
রসেভরামিষ্টি
রঙ্গেঢঙ্গেবলেকথা
বিনিময়দিষ্টি।

দুলাভাইযায়ঢাকা
শালাযায় সাথে
শিশুপার্কে ঘুরেসুখে
আনন্দেতে মাতে।

বিদেশেরজামাগায়
ফুর্তি মনেচলে
দূর্ঘটনানাশেকী যে
চোখভরেজলে।

পরকীয়া

পরকীয়াযাতাকলে
পাপআরপাপ
হাসি নেয়পরকীয়া
চারদিকে সাপ।

হালচালভয়াবহ
কী যে রূপআজ
এইভাবেআরকতো
হায় এ কিলাজ।

শান্তিচাইসবেচাই
সবঘরেচাই
হাসিচাইঘরেঘরে
আজকালতাই ।

পরকীয়াজীবনটা
ভালোনয়ভালো
আলোচাইআলোঘরে
দুর হোককালো।


Copyright © 2010 Boston Bangla Newspaper.