Slideshows

http://bostonbanglanews.com/index.php/templates/gk_twn/images/images/banners/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/605744Finding_Immigrant____SaKiL___0.jpg

কুইন্স ফ্যামিলি কোর্টে অভিবাসী

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দ্যা ইন্টারফেইস সেন্টার অব নিউইয়র্ক ও আইনী সহায়তা সংগঠন নিউইয়র্ক এর উদ্যোগে গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ৯ See details

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে জেমস বন্ডের নায়িকা

সোমবার, ২৯ জানুয়ারী ২০১৮

বাপ্ নিউজ : ১৯৯৭ সালে মুক্তি পাওয়া জেমস বন্ড সিনেমা ‘টুমোরো নেভার ডাই’-তে অভিনয় করেন মিশেল ইয়ো। এছাড়াও মিয়ানমার নেত্রী অং সান সু চি’র বায়োপিকে অভিনয় করে বিশেষ খ্যাতি অর্জন করেন মালয়েশিয়ান বংশোদ্ভূত হলিউড অভিনেত্রী। তিনি এখন অবস্থান করছেন বাংলাদেশে। তার কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে শিশুদের সঙ্গে সময় কাটানোর ছবি ও সংবাদ প্রকাশিত হল ‘দ্য স্টার অনলাইন’ সংবাদমাধ্যমে।

মালয়েশিয়ার চিফ অব ডিফেন্স ফোর্সেস রাজা মোহাম্মদ আফানদি বিন মোহাম্মদ নুরের নেতৃত্বে ৪৯ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন। সে দলের অন্যতম সদস্য মিশেল ইয়ো। তিনি জাতিসংঘে নিযুক্ত মালয়েশিয়ান রাষ্ট্রদূত হয়েও কাজ করছেন। গতকাল শনিবার ২৭ জানুয়ারি বাংলাদেশের কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন মিশেল। সেই সঙ্গে ত্রাণ এবং শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন তিনি।

Picture

বিকেলে কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। এসময় ক্যাম্পে অবস্থানরত মালয়েশিয়া সরকারের দেওয়া হাসপাতাল, ত্রাণকেন্দ্র ও বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন মিশেল।

এসময় মিশেলে ইয়ো বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন পৈশাচিক, বর্বর ও অমানবিক। তাদের পাশে বাংলাদেশের মতো সবাইকে এগিয়ে আসা দরকার। রোহিঙ্গাদের ওপর চলা নির্যাতনের বিচারে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে বিশ্বকে সোচ্চার হওয়া দরকার।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের এখানে আসাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। বিশ্ব প্রতিনিধিরা যত বেশি আসবেন, তারা দেখতে পারবেন কী পরিমাণ বিপর্যয় ঘটে গেছে, রোহিঙ্গাদের অসহায়ত্ব তারা দেখতে পারবেন। রোহিঙ্গাদের নিয়ে যা হয়েছে তা কখনোই গ্রহণযোগ্য নয়। প্রতিটি রোহিঙ্গার মানবিক অধিকার আছে, যা তাদের প্রাপ্য।’


Add comment


Security code
Refresh