Slideshows

http://bostonbanglanews.com/index.php/templates/system/css/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/605744Finding_Immigrant____SaKiL___0.jpg

কুইন্স ফ্যামিলি কোর্টে অভিবাসী

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দ্যা ইন্টারফেইস সেন্টার অব নিউইয়র্ক ও আইনী সহায়তা সংগঠন নিউইয়র্ক এর উদ্যোগে গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ৯ See details

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

যুক্তরাষ্ট্রের খবর

আইটিভি ইউএসএ’র মাসব্যাপী সিরাত আয়োজন মহানবীর (সাঃ) আদর্শে নতুন প্রজন্ম

শনিবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিউজ: মহানবীর সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর আদর্শে নতুন প্রজন্ম শ্লোগান সামনে নিয়ে পবিত্র রবিউল আউয়াল মাসে শুরু হয়েছে আইটিভি ইউএসএ সিরাত উৎসব। চলবে ডিসেম্বর ২০ পর্যন্ত। গত মঙ্গলবার ফ্লাশিং এর মুসলিম সেন্টার জুনিয়র হাই স্কুলে এবং বুধবার জ্যাকসন হাইটস্থ আন-নূর কালচারাল সেন্টারে দিনব্যাপী চলে সিরাতুন্নবী (সাঃ) আয়োজন। এ আয়োজনে নতুন প্রজন্মের শিশু-কিশোরদের কাছে মহানবীর (সাঃ) আদর্শ, জীবন-নীতি, অনুসরণীয় বলে তুলে ধরা হয়েছে। এই আয়োজনের উপস্থাপনায় ছিলেন আন্তর্জাতিক নাশিদ শিল্পী আইটিভি ইউএসএ কালচারাল পিস এডভাইজর ইকবাল এইচ জে। প্রি-কে থেকে ৮ গ্রেড এর শিক্ষার্থীরা অংশ নেন এ আয়োজনে।
ইকবাল এইচ জে এর প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্কুল প্রিন্সিপাল নাহিদ ফারুকী, কোমলমতি শিশু কিশোররা অংশ নেয় কুরআন তেলোওয়াত, নাশিদ, হামদ্, নাত, মুখস্থ হাদীস উপস্থাপন, রাসুল বিষয়ক বক্তব্য, কুইজ প্রতিযোগিতা, কথোপকথন, গ্রুপ ইসলামিক সঙ্গীত পরিবেশনা।


স্বাগত বক্তব্যে প্রিন্সিপাল ফারুকী শিক্ষকদের বন্ধুসুলভ আচরণ এবং নীতি নৈতিক শিক্ষার বিষয় তুলে ধরেন। তিনি মুসলিম সেন্টার জুনিয়র হাই স্কুলকে একটি মডেল প্রতিষ্ঠানে এগিয়ে নেয়ার জন্য প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।স্কুল ডাইরেক্টর আব্দুল গণি আইটিভিকে ধন্যবাদ জানিয়ে উপস্থাপকের প্রশংসা করেন। তিনি মহানবীর (সাঃ) জীবনী শিক্ষার্থীদের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার জন্য এ আয়োজনে সংশ্লিষ্ট সবাইকে কৃতজ্ঞতা জানান।
আইটিভি ইউএসএ এর প্রধান নির্বাহী মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ নতুন প্রজন্মকে মহানবী (সাঃ) আদর্শে গড়ে তুলতে এ ধরনের উদ্যোগের প্রয়োজনের জোর তাগিদ দেন। কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় একটি সফল অনুষ্ঠানের জন্য সকলকে ধন্যবাদ জানান।
আন-নূর কালচারাল সেন্টারের প্রিন্সিপাল মুফতি ঈসমাইল বলেন, নতুন প্রজন্মের কাছে মহানবীর (সাঃ) আদর্শ যথাযথভাবে তুলে ধরা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। আন-নূর কালচারাল সেন্টার উত্তর আমেরিকা থেকে আদর্শ সুনাগরিক গড়ে তোলার প্রচেষ্টারত রয়েছে।


নিউইয়র্কে কিশোরগঞ্জ ডিস্ট্রিক্ট এসোসিয়েশনের অভিষেক

শনিবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৭

Picture

বাপ্ নিউজ :নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে : প্রবাসের বৃহত্তম জনপ্রিয় সংগঠন কিশোরগঞ্জ ডিস্ট্রিক্ট এসোসিয়েশনের ২০১৮-২০১৯ কার্য বছরের নির্বাচিত কমিটির অভিষেক ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান গত ২৩শে নভেম্বর বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের স্বণামধন্য তাজমহল পার্টি সেন্টারে জাকজমকভাবে অনুষ্ঠিত হয়। দুই পর্বে বিভক্ত অনুষ্ঠানে নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতি জনাব মো: আনোয়ার উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অভিষেক অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য

রাখেন সংগঠনের সাবেক উপদেষ্টা ও সাবেক সাংসদ জনাব আনিসুজ্জামান খোকন, বক্তব্য রাখেন সাবেক সভাপতি, উপদেষ্টা ও ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য ফার্মাসিস্ট আবদুল আউয়াল সিদ্দিকী, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও স্ট্রাস্টি বোর্ড সদস্য ইঞ্জিনিয়ার একেএম আশরাফুল হক, সাবেক সভাপতি ও উপদেষ্টা ও ট্রাস্টিবোর্ড সদস্য হাবিব রহমান হারুন, সাবেক উপদেষ্টা ও ট্রাষ্টিবোর্ড সদস্য জাইদুল কবীর খান সারোয়ার, সাবেক সভাপতি সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা ও অভিষেক উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক হেলাল উদ্দিন আহমেদ, উপদেষ্টা মো: আবদুর রাজ্জাক, উপদেষ্টা তারকচন্দ্র পন্ডিত, উপদেষ্টা শহীদুল হাসান, উপদেষ্টা শাহীনুর করীম খান, সহ সভাপতি হুমায়ুন কবীর, সহ সভাপতি ইমরুল হাসান, সহ সভাপতি আলী আহসান আকন্দ শামীম, সহ সাধারণ সম্পাদক জাবির হোসেন তাকবীর, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: আলাউদ্দিন, কোষাধ্যক্ষ বদরুল ইসলাম,সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো: গোলাম হায়দার শামীম, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক খালেদা আক্তার কিরন, সদস্য অধ্যাপক মো: আলী আকবর, সদস্য মো: সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।

 প্রথম পর্বের অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সংগঠনের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মোঃ এনামুল হক। অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরান তেলোয়াত করেন নোভা এনাম, গীতা পাঠ করেন জয়¯্রী শর্মা। অনুষ্ঠানের সভাপতি ও নবনির্বাচিত সভাপতি জনাব আনোয়ার বলেন, আমরা সাতশত ত্রিশ দিনের জন্য দায়িত্ব পেয়েছি। আমাদের সাথে প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে পরীক্ষিত সমাজ কর্মীরা আছেন। এবারই গঠনতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত কমিটি গঠিত হয়েছে। আমরা সবার সহযোগিতা নিয়ে বিগত উনিশ বছরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে আমরা আগামী দুই বছরে সংগঠনকে আরো গতিশীল করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

প্রায় তিনশতাধিক প্রবাসী কিশোরগঞ্জবাসীর উপস্থিতিতে দ্বিতীয় পর্বে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন নবনির্বাচিত সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো: গোলাম হায়দার শামীম। প্রথমেই দৃষ্টিনন্দন নৃত্য পরিবেশনা করেন জ্যোতিশর্মা। আবৃত্তি করেন নিটল। সংগীত পরিবেশনা করেন প্রবাসের প্রিয় শিল্পী তানভীর শাহীন, সুগায়ক মো: কামরুজ্জামান, ক্লোজআপ ওয়ান তারকা শশী।

কিশোরগঞ্জ ডিস্ট্রিক্ট এসোসিয়েশনের অভিষিক্ত তিন কমিটির (২০১৮-২০১৯) কর্মকর্তারা হলেন : মো: আনোয়ার উদ্দীনসভাপতি, জয়ন্ত শর্মা বিশ্ব-সহ-সভাপতি, হুমায়ুন কবীর- সহ-সভাপতি, মো: ইমরুল হাসান-সহ-সভাপতি, মীনা ইসলাম-সহ-সভাপতি, কাজী হাসিব হাসান (এডওয়ার্ড)-সহ-সভাপতি, আলী আহসান আকন্দ (শামীম)-সহ-সভাপতি, মো: এনামুল হক -সাধারণ সম্পাদক, মো: জাবির হোসেন (তাকবীর)সহ-সাধারণ সম্পাদক, মহিবুর রশিদ (সুজন)- সহ-সাধারণ সম্পাদক, মো: আলাউদ্দীন-সাংগঠনিক সম্পাদক, বদরুল ইসলাম-কোষাধ্যক্ষ, মো: আ: আলীম-সমাজকল্যাণ সম্পাদক, ফয়সাল কবীর-প্রচার সম্পাদক, জাহাঙ্গীর জামিল (দীপু)-ক্রীড়া সম্পাদক, মো: গোলাম হায়দার (শামীম)- সাংস্কৃতিক সম্পাদক, তানভীর রায়হান (মিঠু)-শিক্ষা সম্পাদক, খালেদা আক্তার (কিরন)-মহিলা বিষয়ক সম্পাদক, তপন বিশ্বাস-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, ফয়সাল উদ্দীন খান-সহ: ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, হাবিবুর রহমান (জুয়েল)- দপ্তর সম্পাদক, রাফাত বিন মোক্তার রিমিক-আইন বিষয়ক সম্পাদক, মো: মেসবাহ উদ্দীন মুকুল-কার্যকরী সদস্য, আশরাফুল আলম হিমেলকার্যকরী সদস্য, মো: নজরুল ইসলামকার্যকরী সদস্য, রাফিউল করিম খান সাজ্জাদ কার্যকরী সদস্য, মো: আছির উদ্দীন-কার্যকরী সদস্য, অধ্যাপক মো: আলী আকবরকার্যকরী সদস্য, কারার মিজানকার্যকরী সদস্য, হাবিবুর রহমান (কামাল)-কার্যকরী সদস্য, সাইফুল ইসলাম-কার্যকরী সদস্য

বোর্ড অফ ট্রাষ্টি :ফার্মাসিস্ট আ: আউয়াল সিদ্দিকী-সদস্য, ইঞ্জিনিয়ার এ.কে.এম আশরাফুল হক-সদস্য, হাবিব রহমান হারুন-সদস্য, মো: জাইদুল কবীর খান (সারোয়ার)-সদস্য উপদেষ্টা মন্ডলী :হেলাল উদ্দিন আহমেদ, অধ্যক্ষ মোক্তার হোসেন, মো: আ: রাজ্জাক, তারক চন্দ্র পন্ডিত, শহীদুল হাসান, এ.কে.এমরফিকুল ইসলাম ডালিম, শাহীনুর করিম খান শাহীন।


আপাতত যুক্তরাষ্ট্রে থাকতে পারবেন রিয়াজ

শনিবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ : বাধ্যতামূলক বিতাড়নের মুখ থেকে ছয় মাসের জন্য অব্যাহতি পেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের বাসিন্দা বাংলাদেশি রিয়াজ তালুকদার। সোমবার সকালে নিউইয়র্কের ইমিগ্রেশন পুলিশের দপ্তরে হাজির হয়ে মানবিক কারণে তাঁর ডিপোর্টেশন অর্ডার (বিতাড়ন আদেশ) স্থগিত করার আবেদন জানানো হলে অনেকটা অপ্রত্যাশিতভাবেই কর্মকর্তারা সেটি গ্রহণ করেন।

এই বাড়তি ছয় মাসে রিয়াজ তালুকদারকে যুক্তরাষ্ট্রে বৈধভাবে থাকতে প্রয়োজনীয় আইনি কাগজপত্র দেখাতে হবে। অন্যথায় নিজ দায়িত্বে তাঁকে দেশে ফেরত যেতে হবে বলে নির্দেশনা দিয়েছে ইমিগ্রেশন দপ্তর। ৩৭ বছর ধরে এই দেশে বসবাস করা রিয়াজ তালুকদারের বিতাড়ন আদেশ নিয়ে বেশ সরব ছিল নিউইয়র্কের স্থানীয় গণমাধ্যম ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো।

রিয়াজ তালুকদারের সঙ্গে তাঁর আইনজীবী ও দোভাষী হিসেবে কাজ করা মানবাধিকারকর্মী কাজী ফৌজিয়া এবং আরও প্রায় ৪০ জন প্রতিবাদকারী ম্যানহাটনের ফেডারেল প্লাজায় ইমিগ্রেশন পুলিশ দপ্তরের শুনানিতে ঢুকতে চেষ্টা করেন। পুলিশ তাঁর আইনজীবী এডওয়ার্ড কুসিয়া ও দোভাষী কাজী ফৌজিয়াকে ভেতরে ঢুকতে দেয়। তাঁরা মানবিক কারণ দেখিয়ে যুক্তি দেন, আগামী সপ্তাহে সবাই যেখানে পরিবার আর বাচ্চাদের নিয়ে থ্যাংকস গিভিংয়ের ছুটি উপভোগ করতে যাচ্ছে, সেখানে দুটি আমেরিকান পাসপোর্টধারী বাচ্চার বাবা, ক্যানসার আক্রান্ত মা পারিবারিক বিচ্ছেদের মধ্যে পড়বে। এটা অমানবিক এবং থ্যাংকস গিভিংয়ের ধারণার পরিপন্থী।

Picture

৩৭ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছিলেন রিয়াজ তালুকদার। কিন্তু বৈধভাবে থাকার অনুমতিপত্র না থাকায় ২০১০ সালে তাঁকে দেশে ফিরে যাওয়ার নির্দেশনা দেয় মার্কিন সরকার। আইনজীবীর ভুলে সেই আদেশের বিপরীতে পরবর্তী ব্যবস্থা না নিয়েই বসবাস এবং অন্য কাজকর্ম করতে থাকেন তিনি। এই দেশে তাঁর দুটি সন্তান জন্ম নেয়। জন্মসূত্রে তারা যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। বড় ছেলে রাফি তালুকদারের বয়স এখন ১৫ বছর এবং হিসাব অনুযায়ী তার বয়স ২১ বছর হলেই বাবার জন্য গ্রিন কার্ডের আবেদন করার যোগ্যতা অর্জন করবে সে। সে ভরসাতেই ছিলেন রিয়াজ তালুকদার।

ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর বিতাড়ন আদেশ আছে এমন সবাইকে বাধ্যতামূলক দেশে ফেরত পাঠাতে কঠোর নির্বাহী আদেশ জারি করেন। তারই ধারাবাহিকতায় হাজারো মানুষকে দেশে ফেরত পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। মাস দুয়েক আগে এমন ১১ জন বাংলাদেশিকে বাধ্যতামূলক দেশে ফেরত পাঠিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। ২০ নভেম্বর রিয়াজ তালুকদারকে দেশে ফেরত পাঠানোর জন্যই ডেকেছিল ইমিগ্রেশন পুলিশ দপ্তর। এমনকি দপ্তরে হাজির হওয়ার সময় বিমানের টিকিট আর পাসপোর্ট নিয়ে যেতেও বলেছিল।

উপায় না দেখে গণমাধ্যম ডেকে তাদের কাছে সহায়তা চেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন রিয়াজ তালুকদার, তাঁর ক্যানসার আক্রান্ত স্ত্রী আর দু্ই সন্তান। সেই খবর ফলাও করে প্রচারিত হয়েছে মূলধারার গণমাধ্যমে। তবে শেষ রক্ষা হবে বলে কেউই আশাবাদী ছিলেন না। কেননা সাম্প্রতিক সময়ে ডিপোর্টেশন আদেশ আছে এমন কাউকেই বিতাড়ন থেকে রেহাই দেওয়া হয়নি। ব্যতিক্রম ঘটল রিয়াজ তালুকদারের ক্ষেত্রে। তাই বিচারিক কাজ শেষে তিনি যখন ফেডারেল প্লাজার বাইরে অপেক্ষমাণ প্রতিবাদকারী আর গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে ফিরে এলেন, তখন তিনি খুশিতে আত্মহারা। বললেন, ‘আমি অসম্ভব খুশি। আমার আসলেই অনেক ভালো লাগছে। আরও অন্তত ছয় মাস আমি আমার বাচ্চাদের সঙ্গে থাকতে পারব। আরও ছয় মাস আমি আমার স্ত্রীকে দেখাশোনা করতে পারব। আমি আসলেই সবার কাছে অনেক কৃতজ্ঞ।’

রিয়াজ তালুকদারের বড় ছেলে রাফি তালুকাদার বলছিলেন, ‘আমরা তো ভেবেছিলাম বাবাকে ছাড়াই কাটবে আমাদের থ্যাংকস গিভিংয়ের ছুটি। এখন আমি অনেক খুশি। আমরা তো ভেবেছিলাম বাবাকে আজই বিদায় জানাতে হবে, সেটি হয়নি। আমি অনেক কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।’

বিতাড়নের মুখ থেকে আপাতত রক্ষা পেলেও শেষ রক্ষা হবে কিনা—এই প্রশ্ন করা হয়েছিল রিয়াজের পক্ষে লড়াই করা মানবাধিকার সংগঠনগুলোর একটি ডেসিস রাইজিং আপ অ্যান্ড মুভিংয়ের (ড্রাম) বাংলাদেশি সংগঠক কাজী ফৌজিয়াকে। তিনি বলেন, ‘আপাতত এটি একটি প্রাথমিক জয়। এখন রিয়াজের পক্ষ থেকে কয়েক দিন আগে তার কেসটি পুনরায় পর্যালোচনা করার আবেদন করা হয়েছে আপিল বোর্ডে, সেটির জবাবের অপেক্ষায় আছি আমরা। আপিল বিভাগ তাঁর রায়টি ইতিবাচকভাবে দেখবে বলেই আমরা বিশ্বাস করছি। যদিও তাদের যেকোনো পর্যবেক্ষণ আমাদের মেনে নিতে হবে। তবে ৩৭ বছর এই দেশে থাকার পরও একজন মানুষ এই দেশে বসবাসের স্থায়ী অনুমতি পাবেন না, এমন ঘটনাও বিরল। সে ক্ষেত্রে আমরা আশা করছি রিয়াজ তালুকদারের আজকের হাসিটি ছয় মাসের জন্য, বরং চিরদিনের জন্য হবে। তবে আমাদের অপেক্ষা করতে হবে চূড়ান্তভাবে রাষ্ট্র কী সিদ্ধান্ত নেয় সেটির ওপর।’


ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে নতুন আতঙ্কে মার্কিন অভিবাসীরা

শনিবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ : ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর মার্কিন অভিবাসী সমাজে এক অজানা আতঙ্ক বিরাজ করছে। অভিবাসীদের আশঙ্কা, ট্রাম্প দায়িত্ব গ্রহণের পর নির্বাহী আদেশে চলমান ইমিগ্রেশন সিস্টেমে পরিবর্তন আনতে পারেন। এমনকি স্থাগিতাদেশও জারি করতে পারেন তিনি। পরবর্তীতে প্রেসিডেন্টের এসব আদেশ কোনো কারণে অকার্যকর হলেও ইমিগ্রেশন ব্যবস্থায় দেখা দিতে পারে ভয়াবহ জট।

ট্রাম্পকে নিয়ে আতঙ্ক আরো জোরালো হচ্ছে তখনই, যখন আইনজীবীরা ট্রাম্পের দায়িত্ব গ্রহণের আগেই যারা অভিবাসনের জন্য উপযুক্ত তাদের এখনই স্ট্যাটাস আপডেট করার পরামর্শ দিচ্ছেন।ট্রাম্পের ক্ষমতায় আসাকে কেন্দ্র করে নয়, বরং মার্কিন অভিবাসন নীতি দিনে দিনে কঠোর করার কথা ভাবছে দেশটির সরকার। ইতিমধ্যে ইমিগ্রেশনের সকল আবেদন ফি মাত্রাতিরিক্ত পরিমাণে বাড়ানো হয়েছে। ইতিমধ্যে তা কার্যকরও হয়েছে। বাংলাদেশি কমিউনিটিতে কাজ করেন বেশ কয়েকজন এটর্নি এবং প্যারালিগ্যাল। তাদের প্রত্যেকেই ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন ইমিগ্রেশন আবেদনের প্রসেস নিয়ে।
 নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাংলাদেশি একজন প্যারালিগ্যাল জানান, এখন যারা আবেদন করবেন প্রেসিডেন্টের নির্বাহী আদেশের পরও তাদের ক্ষতি হবার আশঙ্কা কম থাকবে। ব্রিটেনের মতো অবৈধদের গ্রেপ্তারে অভিযান শুরু হলে যারা প্রক্রিয়ার মধ্যে রয়েছেন তারা বাড়তি কোনো ঝামেলায় না পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ ব্যাপারে কোনো গাফিলতি না করাই ভাল।

Picture


স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের বাংলাদেশি অধ্যুষিত জ্যাকসন হাইটসে আয়োজিত এক মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে এটর্নি জেরাল্ড ক্যারিকারি বলেছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার আগেই সকল প্রকার ইমিগ্রেশন আবেদন ফি বাড়ানো হয়েছে। যদিও এই ফি বাড়ানোর সঙ্গে ট্রাম্পের ক্ষমতায় আসার কোনো সম্পর্ক নেই। তবে তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হিসাবে শপথ নেওয়ার পর নির্বাহী আদেশে ইমিগ্রেশন সিস্টেমে ব্যাপক পরিবর্তন আনতে পারেন। এর ফলে অনেক কিছুই কঠিন হয়ে পড়তে পারে। এ কারণে যারা উপযুক্ত হওয়ার পরও তাদের ইমিগ্রেশন স্ট্যাটাস আপডেট করছেন না তারা সমস্যায় পড়তে পারেন। তিনি বলেন, অনেকেই নাগরিকত্ব আবেদনের জন্য উপযুক্ত হলেও এখনো আবেদন করছেন না। আবার অনেকে স্ত্রী, বাবা-মা, সন্তান এবং ভাই-বোনদের জন্য আবেদন করেননি। ভবিষ্যতে এসব ব্যাপারে কড়াকড়ি আরোপ করা হতে পারে বলে মনে করছেন তিনি।
 alt
এটর্নি জেরাল্ড ক্যারিকারি আরো বলেন, আইন করে ইমিগ্রেশন সিস্টেমে পরিবর্তন আসা সময়সাপেক্ষ ব্যাপার হলেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাহী আদেশে অনেক কিছুই করতে পারেন। পরবর্তীতে সেই আদেশের কী হবে তা সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। ফলে প্রেসিডেন্টের নির্বাহী আদেশে ইমিগ্রেশন সিস্টেমে পরিবর্তন আসলে তা অভিবাসীদের বেকায়দায় ফেলতে পারে।
 সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এটর্নি জেরাল্ড ক্যারিকারি বলেন, যারা হেইট ক্রাইমের শিকার হচ্ছেন, তারা বৈধ কাগজপত্র না থাকলেও আইনের আশ্রয় নিতে পারেন। তবে অভিজ্ঞ এটর্নিদের পরামর্শ নিয়েই আবেদন করা জরুরি বলে তিনি মনে করেন।
 মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে এটর্নি জেরাল্ড ক্যারিকেরির সহযোগী প্যারালিগ্যাল হিসাবে কাজ করছেন বাংলাদেশি কমিউনিটি লিডার আবদুন নূর বড় ভূঁইয়া। সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, বর্তমান জটিল পরিস্থিতিতে প্রবাসী বাংলাদেশী কমিউনিটিকে সচেতন করতেই আমাদের এই মিট দ্য প্রেসের আয়োজন। তবে আগামী মাসে সাধারণ মানুষদের নিয়ে আইনি সহযোগিতার জন্যে আমরা একটি সেমিনার বা সিম্পোজিয়াম করার পরিকল্পনা করছি।মিট দ্য প্রেস মঞ্চে আরো উপবিষ্ট ছিলেন বিশিষ্ট কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট মাহবুব আলী বুলু।


পেনসিলভেনিয়া ষ্টেট বি.এন.পি উদ্যোগে জাতীয় সংহতি ও জন্মদিন পালিত

শনিবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৭

এম এ কালাম শরীফ: বাপ্ নিউজ : গত ১৮ নভেম্বর, শনিবার পেনসিলভেনিয়া বি.এন.পি এর উদ্যোগে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস, দেশনায়ক তারেক জিয়ার জন্মদিন এবং ল্যান্সডেল সিটি ও হার্টফিল সিটির নবগঠিত কমিটির অভিষেক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।এতে সভাপতিত্ব করেন, পেনসিলভেনিয়া ষ্টেট বি এন পি এর সভাপতি রফিকুল আমিন ভূঁইয়া (রুহেল)। প্রধান অতিথি ছিলেন, বি এন পির কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক যুগ্ম সম্পাদিকা ও কোকিল কণ্ঠি শিল্পী বেবি নাজনিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন, ল্যান্সডেল সিটি মেয়র গ্যারী হারবার্ড। কাউন্সিলম্যান লিয়ন এঞ্জিলিচিয়, মেলবোর্ন ব্যুরো কাউন্সিলম্যান মনসুর আলী মিঠু, প্রাক্তন ছাত্রদল নেতা মাহতাব উদ্দিন মিথু, বি.এন.পি নেতা আলাউদ্দিন লিটন, ল্যান্সডেলের স্থানীয় ডেমোক্রেট নেতা আব্দুর রাজ্জাক, বি কে এস পি এর সভাপতি শায়েখুল ইসলাম, সেক্রেটারি আলতামাস বাবুল এবং ল্যান্সডেল বি.এন.পি এর নেতা হাফিজুর রহমান বুলবুল। প্রধান বক্তা ছিলেন, আব্দুর রহমান শাহিন।


উক্ত অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- ল্যান্সডেল সিটি বি.এন.পি এর সভাপতি আলাউদ্দিন ব্যাপারী, সাধারন সম্পাদক রাশেদুল আলম রাশেদ, জামশেদ আলম, সহ-সভাপতি নুরুন্নবী সরকার, বোরহান উদ্দিন আহমেদ, সালেহ আহমেদ বাবলু, শাহিনুর ইসলাম শাহীন, আনোয়ার হোসেন বাবুল, শাহাব উদ্দিন হামিদি, সাইফুল ইসলাম মামুন, সাফায়েত হোসেন, শাহেদ আলী এবং হার্টফিল সিটি বি এন পি এর সভাপতি মোখলেসুর রহমান, সাধারন সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফিক।


সভাপতি ও প্রধান অতিথি তাদের বক্তব্যে বলেন, ৭ নভেম্বর বাংলাদেশের জনগণ ও সৈনিকরা এক অভূতপূর্ব অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে পুনরায় জনগণের শাসন প্রতিষ্ঠা করবার উদ্যোগ নিয়েছিল এবং সফল হয়েছিল। এই দিবসটিকে এজন্য সারাদেশবাসী জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস হিসেবে আখ্যায়িত করেছিল। ৭ নভেম্বর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও স্বাধীনতার যে চেতনা তাকে সুসংহত করা হয়েছিল। এর নেতৃত্বে ছিলেন জনগণ ও সৈনিকেরা,তারা সেদিন জিয়াউর রহমানকে সেই বিপ্লবের মধ্য দিয়ে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্বে নিয়ে এসেছিলেন।


“আজকে এমন একটা একদলীয় শাসন ব্যবস্থার মধ্যে আমরা পড়েছি,যে শাসন ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব আবার বিপন্ন হতে চলেছে, দেশের গণতন্ত্র ইতিমধ্যে ধ্বংস হয়ে গেছে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকেও নস্যাৎ করে ফেলা হয়েছে। আমরা দেখছি দেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থাকে ভিন্নভাবে আবার এখানে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।”পেনসিলভেনিয়া ষ্টেট বি.এন.পি সভাপতি ল্যান্সডেল এবং হার্টফিল এর অভিষেক অনুষ্ঠানকে স্বাগত জানান এবং দেশনায়ক তারেক জিয়ার সাথে হাতে হাত রেখে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান। সভাপতি এবং প্রধান অতিথি দেশনায়ক তারেক জিয়ার ৫৩ তম জন্মবার্ষিকীর শুভেছা কেক কাটেন। তাতে আরও ব্যাবস্থা ছিলমনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও প্রীতিভোজেরও আয়োজন ছিল।


আমেরিকাস্হ শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী

শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭

Picture

হাকিকুল ইসলাম খোকন, বাপসনিঊজ:শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় Alumni Association USA - এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে গত ১৮ নভেম্বর  আমেরিকার বিভিন্ন ষ্টেটে বসবাসরত কৃষিবিদদের এক মহা-সমাগম ঘটেছে নিউ ইর্য়কস্হ জ্যাকসন হাইট্সের মেজবান রেষ্টুরেন্টের পার্টি হলে। সংগঠনের সভাপতি কৃষিবিদসৈয়দ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাধারন সম্পাদক কৃষিবিদ আসাদুজ্জামান কিরন।

alt

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন  বিএডিসির প্রাক্তন প্রকল্প পরিচালক কৃষিবিদ আসাদুল বাকী। বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলের পক্ষ থেকে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন  কাউন্সিলর ও হেড অব চেন্সরি চৌধুরী সুলতানা পারভীন , বাংলাদেশ সুগার বোডের্র প্রাক্তন পরিচালক কৃষিবিদ সুলতান শাহরিয়র এবং বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এলুমনি এসোসিয়েশন ইউ এস এর সহসভাপতি কৃষিবিদ আবদুস সবুর।

alt
আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে বক্তব্যে রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলুমনি এসোসিয়েশন ইউ এস এর সভাপতি আবুল কালাম  আজাদ তালুকদার, কৃষিবিদ আবদুল্লাহ জাহিদ, অপটিমিষ্ট এর কমকত্রা শামীম আহমদ, বাংলাদেশ সোসাইটির শিক্ষা সম্পাদক আহসান হাবীব।

alt
প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথি তাদের বক্তৃতায় সংগঠনের বর্তমান কার্যকলাপের ভূয়ষি প্রশংসা করেন। পাশাপাশি বাংলাদেশে কৃষি ও শিক্ষাখাতে সংগঠনের কার্যকারিতা সম্প্রসারনের ব্যপারে পরামর্শ দেন। সংগঠনের নিবেদিত প্রাণ নিউইয়র্ক সিটি হাউজিং-এ কর্মরত  সভাপতি কৃষিবিদ সৈয়দ মিজানুর রহমান বক্তৃতায় বলেন আমেরিকাস্হ প্রাতিষ্ঠানিক সংগঠনগুলোর মধ্যে শেকৃবি একমাত্র সংগঠন যার ৯০% সদস্য ইউ এস এর সরকারী বিভিন্ন বিভাগে কর্মরত আছেন। তিনি নতুন কৃষিবিদ ও চাকুরি অনুসন্ধানী কৃষিবিদের কিভাবে চাকুরি খুজতে এবং স্বল্প ভাড়ায় বাসা পেতে সাহায্য করেন এবং করবেন এবং কিভাবে সংগঠনের কার্যকারিতা বাংলাদেশ পর্যন্ত সম্প্রসারন করা যায় সেই ব্যাপারে আলোচনা করেন। সংগঠনের প্রতিষ্ঠা বাষিকীর প্রেক্ষাপট, শেকৃবির ছাত্র জীবন ও এলামনাইয়ের মাধ্যমে পারস্পরিক সম্প্রীতি ও কৃষিবিদদের ঐক্যের সফলতা নিয়ে কথা বলেন সংগঠনের সহসভাপতি কৃষিবিদ মনোয়ারুল  ইসলাম, কৃষিবিদ সেকেন্দার আলী, কৃষিবিদ আবদুর রউফ মোল্লা, কৃষিবিদ রেজাউল করিম রেজা, কৃষিবিদ শওকত আহমদক প্রমুখ৷

alt
আলোচনা শেষে নিজ কর্মক্ষেত্রে সফলতার জন্য সদ্য প্রমোশন প্রাপ্ত  কৃষিবিদ মনোয়ারুল  ইসলাম (NYC DEP) ও কৃষিবিদ শাহাদত হোসেনকে (NYPD) ফুলের তোড়া দিয়ে সম্মানিত করা হয়। পরিচয় করিয়ে দেয়া হয় একমাত্র কৃষিবিদ পরিবার মামুনুর রশিদ ও কৃষিবিদ শায়লা তিথিকে যারা  এক সাথে কাজ করেন ফেডারল গভমেন্টের (HOMELAND) কাস্টমস এন্ড ইমিগ্রেসন বিভাগে। আরো পরিচয় করিয়ে দেয়া হয় New York City তে কর্মরত কাপল কৃষিবিদ বিধান পাল (MTA) ও চম্পা পালকে (NYPD)।

alt
ছোটমনি অয়ন্তি পালের নৃত্য পরিবেশনায় দিয়ে ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক শওকত আহমেদের পরিচালনায় শুরু হয় জাক-জমকপূর্ন এক মনকাড়া সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার। নিউইর্য়কস্হ বাংলাদেশী কমিউনিটির অতি পরিচিত মুখ বিপার ছাত্রী এবং সকলের আদরের জেরিন মাইশার গানের মুর্ছনায় মুগ্ধ থাকে হল ভর্তি দর্শক। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানকে আরও আর্কষনীয় করে তোলে শেকৃবি সদস্য শিল্পী কৃষিবিদ বিপ্লব গুপ্ত এবং সুদুর দেলোয়ার ষ্টেট থেকে আগত কৃষিবিদ অন্জু বিশ্বাস ও তার  ভাই তাপস বিশ্বাস এর পরিবেশনা।

alt

নিউইয়র্কের গানের পরিচিত মুখ বিশিষ্ট শিল্পী আফজাল হোসেনের গানে মুগ্ধ থাকে হল ভর্তি দর্শক।পুরানো দিনের গানের মাধ্যমে মঞ্চকে প্রানবন্ত করে রাখেন বিপার সভানেত্রী নিলুফার জাহান এবং বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী ও বিপার শিক্ষক সেলিমা আসরাফ।বিপার কর্নধার এ্যনি ফেরদৌস সহ তাঁদেরকে সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।নতুন আগত কৃষিবিদ মেজবাহ কুদ্দুস, কৃষিবিদ প্রভাস বোস, কৃষিবিদ মাহফুজা সুখী, কৃষিবিদ ফাতেমা আকতার ও কৃষিবিদ শুভময়কে স্বাগত জানানো হয়।অনুষ্ঠানের সফলতার জন্য কৃষিবিদ শওকত আহমদ, কৃষিবিদ আনিসুল হক সোহেল, কৃষিবিদ আবদুর রশিদ, কৃষিবিদ এম এ মামুন, কৃষিবিদ মইনুল হোসেন,কৃষিবিদ শামীমা বেগম, কৃষিবিদ মোহাম্মদ মিজান সহ শেকৃবি পরিবারের সদস্য এবং আগত অতিথিদের ধন্যবাদ জানানো হয়।রাতের খাবার পরিবেশনা, ইয়ার ভিক্তিক সেলফি ও কৃষিবিদ ফটোসেশনের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করেন সংগঠনের সভাপতি সৈয়দ মিজানুর রহমান।


নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী পরিষদের সিদ্ধান্ত

শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:গত ২০ নভেম্বর, সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় টক অফ দি টাউন রেষ্টুরেন্টে নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগ এর কার্যকরী পরিষদের এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সর্বসম্মত ক্রমে গৃহীত সিদ্ধান্ত সমুহঃ


১. নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগ এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকারিয়া চৌধুরীকে ভারমুক্ত ঘোষনা করে পূর্ণ সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালনের সিদ্ধান্ত সর্ব সম্মতক্রমে গৃহীত  হয় এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান কর্তৃক ইতিপূর্বে জাকারিয়া চৌধুরীকে ভারমুক্ত হয়ে পূর্ণ দায়িত্ব পালনের ঘোষনাকে স্বাগত জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করা হয়।খবর বাপসনিঊজ।
২. দীর্ঘ্য ১১ মাস যাবৎ বাংলাদেশে অবস্থানরত সভাপতি কমান্ডার নূর নবী কর্তৃক কার্যকরী পরিষদকে পাস কাটিয়ে অবৈধ ভাবে দলে পদোন্নতি ও সংযোজনের নামে দলকে দ্বীধাভিবক্ত করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়।
৩.মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে সহ সভাপতি মাসুদ হোসেন সিরাজীকে আহ্বায়ক, সহ সভাপতি মোর্শেদা জামানকে প্রধান সমন্বয়কারী ও যুগ্ম সম্পাদক শিমুল হাসানকে সদস্য সচিব করে বিজয় দিবস উদযাপন কমিটি ঘোষনা করা হয়।

৪.সহ সভাপতি সাকুর খান মাখন মিশিগানে চলে যাওয়ার প্রেক্ষিতে তার স্থলে  আবুল হোসেনকে সহ সভাপতি পদে পদায়ন করা হয়। খন্দকার হাবীবউল্লা বাহার যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগে অন্তভ’ক্ত হওয়ার প্রেক্তিতে তার স্থলে মোর্শেদা জামানকে সহ সভাপতি পদে পদায়ন করা হয়। হুমায়ুন কবির বাংলাদেশে চলে যাওয়ার প্রেক্তিতে তার স্থলে আব্দুল কাদের মিঞাকে সহ সভাপতি পদে পদায়ন করা হয়। দলীয় কার্যক্রমে সম্পূর্ণ অনুপস্থিত থাকায় সহ সভাপতি রফিকুর রহমান এর স্থলে  এম উদ্দিন আলমগীরকে সহ সভাপতি পদে পদায়ন করা হয়। দলীয় কার্যক্রমে সম্পূর্ণ অনুপস্থিত থাকায় যুগ্ম সম্পাদক আইয়ুব আলীর স্থলে শিমুল হাসানকে যুগ্ম সম্পাদকে পদায়ন করা হয়। মুল ধারার রাজনীতিক ও দলীয় কর্মকান্ডে সক্রিয় ভ’মিকা রাখায় খায়রুল ইসলাম খোকন ও সুব্রত তালুকদারকে যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে পদায়ন করা হয়। সাংগঠনিক সম্পাদক শিমুল হাসানের স্থলে  নান্টু মিয়া, মাহফুজুল হক হায়দার ও  সুমন মাহমুদকে সাংগঠনিক সম্পাদকে পদায়ন করা হয়। এছাড়া শূণ্য পদে রাজ চৌধুরীকে অর্থ ও গবেষনা সম্পাদক, রাজিব খানকে বন ও পরিবেশ সম্পাদক, রানা আহম্মদকে আইন সম্পাদক পদে পদায়ন করা হয়। কার্যকরী সদস্য হিসেবে আব্দুল কুদ্দুস টিটু, শওকত হোসেন খান, নাজিমউদ্দিন, আরবাব সিমন, রায়হানুর রহমান, ইয়াসির শারাফত তুহিন, যুবায়ের আল হাসান, রায়হান কবির বনী, উজ্জল মাহমুদ, রবিউল হোসেন রুবেল, মোসা আহম্মেদ,  রুহুল আমিন,  রুহুল আমিন,  নূরুল আমিন, অমিত হাসান সাজু,  ফয়সাল আহমেদ রুবেল, সোহাগ চৌধুরী,  আবদুল হক, মোঃ হাবিব, হারুন মান্নান, লোটাস ধর, মোঃ জিয়উল হক, মোহাম্মদ ওমর ফারুক, এম. ফয়সাল আহমেদ ও মোহাম্মদ সাজ্জাদ।


নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের ‘আনন্দ-সমাবেশ’

শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭

বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে :‘৭ মার্চকে বাঙালি জাতির হাজার বছরের শৃঙ্খল মুক্তির দিক-নির্দেশনা দিবস’ হিসেবে ঘোষণার দাবি উঠেছে নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের ‘আনন্দ সমাবেশ’ থেকে। একাত্তরের ৭ মার্চে সোহরাওয়ার্দি উদ্যানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের অবিস্মরণীয় ভাষণকে ইউনেস্কো কর্তৃক ‘ডক্যুমেন্টারি হেরিটেজ’ হিসেবে ‘মেমরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টার’-এ যুক্ত করায় ২১ নভেম্বর মঙ্গলবার রাতে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে ‘নিউ মেহজবান পার্টি’ হলে। নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাকারিয়া চৌধুরীর সভাপতিত্বে এ সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান। ড. সিদ্দিক বলেন, ‘বাঙালি জাতির ঐতিহ্যকে মহিমান্বিত করতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের অবদান ক্রমান্বয়ে উদ্ভাসিত হচ্ছে। জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু চিক্ষণতাপূর্ণ নেতৃত্ব-গুণের কথা এখন গোটাবিশ্ব অবলিলায় স্মরণ করছে। বাঙালি হিসেবে এসব কর্মকান্ড আমাদেরকেও গৌরবান্বিত করবে সারাটি জীবন।’ ড. সিদ্দিক বলেন, ‘আমাদের সৌভাগ্য যে, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন সারাবিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে সক্ষম হয়েছে। উন্নয়ন-অগ্রগতির ক্ষেত্রে বিশ্বে অনন্য উদাহরণে পরিণত হয়েছে।’

Picture

হোস্ট সংগঠনের সভাপতি জাকারিয়া চৌধুরী বলেন, ‘সামনে নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের বিজয়ের ক্ষেত্রে প্রতিটি প্রবাসীকে কাজ করতে হবে। এলাকার লোকজনকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে নৌকা মার্কায় ভোট দানের জন্যে।’জাকারিয়া উল্লেখ করেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে চলমান উন্নয়নের বিরুদ্ধে এই প্রবাসেও সংঘবদ্ধ অপপ্রচারনা চালানো হচ্ছে। এহেন অপপ্রচারের বিরুদ্ধে দাতভাঙ্গা জবাব দিতে হবে। আন্তর্জাতিক মিত্র তথা মার্কিন কংগ্রেসের সাথে সম্পর্ক জোরদারের জন্যে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে।’এ সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাহবুবুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মহিউদ্দিন দেওয়ান ও আব্দুল হাসিব মামুন, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মোজাহিদুল ইসলাম, শিল্প সম্পাদক মিসবাহ আহমেদ, উপ-প্রচার সম্পাদক তৈয়বুর রহমান টনি, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. আব্দুল কাদের মিয়া, আবুল হুসেন এবং মাসুদ হুসেন সিরাজি প্রমুখ। মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নূরল আমিন বাবু এবং যুগ্ম সম্পাদক সুব্রত চৌধুরীর যৌথ পরিচালনায় ৭ মার্চের প্রেক্ষাপট উপস্থাপন করেন সাংগঠনিক সম্পাদক শিবলী সাদিক শিবলু। নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরো ছিলেন মিসবাহ আবদীন, নান্টু মিয়া, জাফর আহমেদ, যুবলীগের সেবুল মিয়া প্রমুখ।


নিউইয়র্কে তারেক রহমানের জন্মদিন উদযাপন করলো যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি

শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,ক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজু : বাপসনিঊজ: গতকাল ১৯ নভেম্বর রোববার রাতে নিউইয়র্কের বাঙালী অধ্যুষিত এলাকা জ্যাকসন হাইটসের হাট বাজার পার্টি হলে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির আয়োজনে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৩তম জন্মদিনের উদযাপন করা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সাবেক উপদেষ্টা জনাব জাহিদ এফ সরদার সাদী, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক বেবী নাজনীন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সাবেক ডেপুটি প্রেস সচিব জনাব আশিক ইসলাম ছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা: মুজিবুর রহমান মজুমদার ,যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান জিল্লু, সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রফেসর দেলোয়ার হোসেন, সহ-সভাপতি গিয়াস আহমেদ, সাবেক সহ-সভাপতি সোলেমান ভূইয়া, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল পাশা বাবুল, মোহাম্মদ বসিরসহ যুবদল, ছাত্রদল, সেচ্ছাসেবক দল, জাসাস সহ সকল অঙ্গসংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী।

alt

অনুষ্ঠানে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, তারেক রহমান তথা জিয়াপরিবারের সকল সদস্যের সুস্বাস্থ এবং মঙ্গলময় জীবন কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সহ সম্পাদিকা, বিশিষ্ট শিল্পী বেবী নাজনীন অনুষ্ঠানের মধ্যমনি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। জ্যাকসন হাইটের অনুষ্ঠানের এর কিছুক্ষন পর নিউইয়র্কের বাংলাদেশী অধ্যুষিত অন্যতম এলাকা ব্রুকলিনেও ২য় একটি অনুষ্ঠানে তারেক রহমানের জন্মদিনের কেক কাটেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সংগ্রামী নেতৃবৃন্দ।এই যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতৃবৃন্দের সরব উপস্থিতি ছিল প্রানবন্তকর। জন্মদিনের মুহুর্মুহুর শ্লোগানে জ্যাকসন হাইটস এবং ব্রুকলীনের অনুষ্ঠান স্থল দুটি যেন আনন্দ ও মিলন মেলায় পরিনত হয়েছিল।


জেএসডি যুক্তরাষ্ট্র শাখার শোক - সাবেক সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জেএসডি নেতা আতাউর রহমান আর নেই

শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ: গত ২১ নভেম্বর ভোরে সাবেক সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জেএসডি কেন্দ্রীয় কার্যকরী সদস্য, সিরাজগঞ্জের তারাশ-রায়পুর অঞ্চলের জনপ্রিয় নেতা আতাউর রহমান (৬৭) মৃত্যুবরণ করেন ( ইন্না লিল্লাহি...................রাজেউন)। তিনি দীর্ঘ দিন যাবত নানাবিধ জটিল রোগে ভূগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি তাঁর বিধবা স্ত্রী ও ছেলে-মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। আজ বাদ জোহর তারাশ উপজেলার বৈদ্যনাথপুর গ্রামে নামাজে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়।খবর বাপসনিঊজ।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- জেএসডি জএসডি যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি হাজী আনোয়ার হোসেন লিটন এবং সাধারন সম্পাদক সামসুউদ্দিন আহমেদ শামীম এক বিবৃতিতে তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক ও পরিবার পরিজনের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করে বলেন, আতাউর রহমান ছিলেন একজন নির্মোহ ও নিবেদিতপ্রান রাজনীতিবিদ। এলাকার জনগণের সাথে তাঁর সম্পর্ক ছিল আত্মিক।
#

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- জেএসডি যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি হাজী আনোয়ার হোসেন লিটন এবং সাধারন সম্পাদক সামসুউদ্দিন আহমেদ শামীমঅপর এক বিবৃতিতে ভারতের বিশিষ্ট নেতা প্রিয় রঞ্জন দাস মুন্সির মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে বলেন,আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে তার সাহায্যের ভূমিকা স্বরণীয় হয়ে থাকবে।


ওয়াশিংটনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে ৪৬তম সশস্ত্র বাহিনী দিবস উদযাপিত

শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭

শিব্বীর আহমেদ,বাপ্ নিউজ :ওয়াশিংটন: যথাযথ মর্যাদা ও উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ২১ নভেম্বর মঙ্গলবার ওয়াশিংটনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে ৪৬তম সশস্ত্র বাহিনী দিবস পালিত হয়। ১৯৭১ সালের ২১শে নভেম্বর বাংলাদেশের গৌরবোজ্জ্বল স্বাধীনতা সংগ্রামে সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনী যৌথভাবে পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে আক্রমণ পরিচালনা করে। এ দিনটির স্মরণে প্রতিবছর বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী দিবস হিসেবে পালন করে থাকে।

Picture

এ উপলক্ষে বাংলাদেশ দূতাবাস বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জয়েন্ট গ্লোবাল পলিসি এন্ড পার্টনারশীপস এর ডেপুটি ডাইরেক্টর যুক্তরাষ্ট্র বিমান বাহিনির ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হুবি সি হেগভেট। অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন এবং প্রতিরক্ষা অ্যাটাচি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ শামসুজ্জামান, এনডব্লিউসি, পিএসসি, আগত আমন্ত্রিত অতিথিদের উদ্দেশ্যে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ।

alt

অনুষ্ঠানের শুরুতেই বাংলাদেশ ও আমেরিকার জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়। যুক্তরাষ্ট্র বিমান বাহিনির ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হুবি সি হেগভেট তার শুভেচ্ছা বক্তব্যে বাংলাদেশ আমেরিকা বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশের মধ্যে বন্ধুত্বপুর্ণ সম্পর্ক বৃদ্ধি দিনে দিনে বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশেষ করে অপারেশন ডেজার্টে বাংলাদেশ সেনাবাহিনির অংশগ্রহন এই সম্পর্ককে আরো গভীরতম করেছে। তিনি বলেন, দুর্যোগ মোকাবেলায় আমেরিকা বাংলাদেশ যৌথ সামরিক মহড়া সহ বিভিন্ন পর্য্যায়ে দুই দেশ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের মধ্য দিয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। জাতিসংঘ শান্তি বাহিনিতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনির সদস্যদের অংশগ্রহন এবং হারিক্যান ক্যাটরিনার সময় বাংলাদেশ সরকার ও বাংলাদেশ সামরিক বাহিনির সদস্যদের সহযোগিতার কথা উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, আমেরিকা ও বাংলাদেশের মধ্যে সামরিক ক্ষেত্রেই নয়, দুই দেশের জনগনের মধ্যেও সুসম্পর্ক বজায় আছে যা দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

alt

রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন তাঁর স্বাগত বক্তব্যে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যসহ বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে যারা শহীদ হয়েছেন তাঁদের সকলের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। সদ্য স্বাধীনতাপ্রাপ্ত বাংলাদেশে একটি আধুনিক সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে অবিস্মরণীয় অবদানের জন্য তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা, অবকাঠামোগত উন্নয়ন, রোহিঙ্গাদের রেজিস্ট্রেশন, ভোটার রেজিস্ট্রেশন এবং কম্পিউটারাইজড জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরিতে বিশেষ ভূমিকা পালন করেছে। তিনি আরও উল্লেখ করেন বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যগণ জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অগ্রণী ভূমিকা পালনের মাধ্যমে বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বহুলাংশে উজ্জ্বল করেছে।

alt

স্বাগত ও শুভেচ্ছা বক্তব্য শেষে ৪৫তম সশস্ত্র বাহিনি দিবস উপলক্ষে কেক কাটা হয়। এছাড়া বাংলাদেশের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দীন ও মিসেস জিয়াউদ্দীন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হুবি সি হেগভেট এবং তার স্ত্রীকে উপহার প্রদান করেন। পরে অনুষ্ঠানে আগত অতিথিদের মধ্যে বাংলাদেশী রাতের খাবার পরিবেশন করা হয়।অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, প্রতিরক্ষা অ্যাটাচী, মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর ও পেন্টাগনের উচ্চ পদস্থকর্মকর্তা, মিডিয়া প্রতিনিধি, বিভিন্ন দূতাবাসের সামরিক অ্যাটাসে, কর্মকর্তাবৃন্দ, যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত অফিসার, প্রবাসী বাংলাদেশি এবং বাংলাদেশ দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা কর্মচারিসহ অনেক অতিথি উপস্থিত ছিলেন।