logo

১৮ বছর বয়সে ব্রিটেনের কাউন্সিলর হলেন বাংলাদেশি শরিফাহ

সোমবার, ২৭ নভেম্বর ২০১৭

Picture

তার এ বিজয়ে উৎফুল্ল সেখানকার বাঙালি কমিউনিটির লোকজন।শরিফাহ’র পৈত্রিক বাড়ি সুনামগঞ্জের বরমরা গ্রামে। জীবিকার তাগিদে বাবা লোকমান খান ব্রিটেনে পাড়ি জমিয়ে ছিলেন অনেক  আগেই। শরিফাহ’র জন্মও ব্রিটেনের ডালিংটন শহরে। বেড়ে ওঠাও সেখানে। সাত ভাইবোনের মধ্যে শরিফাহ সবার ছোট।

alt

৪৪ দশমিক ৮ শতাংশ ভোট পেয়ে রেড হল এবং লিংফিলড ওয়ার্ড নির্বাচিত হন তিনি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী টোরি পার্টির জোনাথন ডালস্টন। অন্য প্রতিদ্বন্দ্বীরা হলেন- লিবারেল ডেমোক্রেটস দলের হ্যারি লংমুর (১১ ভোট), গ্রিন পার্টির মাইকেল ম্যাকটিমনি (২০ ভোট) এবং সাবেক ইউকিপ কর্মী স্বতন্ত্র প্রার্থী কেভিন ব্রা পেয়েছেন (৪৬ ভোট)।

alt

নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর সবচেয়ে কমবয়সী এই কাউন্সিলরকে অভিনন্দন জানিয়েছেন স্থানীয় এমপি জেনি চাপম্যান ও এন্ড্রু গাইন। ব্রিটেনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রথম এমপি রোশনারা আলীর অভিনন্দন ও  প্রশংসায়ও ভেসেছেন শরিফাহ।মাত্র কয়েক মাস আগে শরিফাহ রহমান ‘এ’ লেভেল পরীক্ষায় ঈর্ষণীয় সাফল্য দেখিয়ে উর্ত্তীণ হন। এই সাফল্যের কয়েক মাসের মধ্যেই তিনি নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে আরেক চমক দেখালেন।


Copyright © 2010 Boston Bangla Newspaper.