Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

নিউইয়র্কে প্রথম শহীদ মিনারের নির্মাতা শিল্পী খুরশীদ আলম সেলিম

বুধবার, ০১ মার্চ ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,বাপসনিউজ : বর্তমানে প্রবাসে একুশে উপলক্ষে একাধিক শহীদ মিনার র্নির্মিত হলেও নিউইয়র্কে প্রথম শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়েছিল ১৯৮৮ সালে। সে সময় নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড সিটির মাঝে পার্কে বাংলাদেশ লীগ অব আমেরিকার উদ্যোগে এই শহীদ মিনারটি নির্মিত হয়। এটি নির্মাণ করেছিলেন বর্তমানে নিউইয়র্কে বসবাসরত আন্তজার্তিক খ্যাতি সম্পন্ন শিল্পী খুরশীদ আলম সেলিম। যিনি গত বছর নিউইয়র্ক সিটিতে একুশে উপলক্ষে অস্থায়ীভাবে নির্মিত একুশের ভাস্কর্যটির মূল নকশা তৈরী করেন। তারই নকশায় বাংলাদেশ থেকে ভাস্কর্যটি নির্মিত হয়। এখানে এনে অস্থায়ীভাবে স্থাপন করা হয়েছিল।

Picture

এ বছরও বাংলাদেশ সোসাইটি আয়োজিত একুশের অনুষ্ঠানের জন্য নির্মিত শহীদ মিনারটি তিনিই নির্মাণ করেছেন। যা ২০ ফেব্রুয়ারী সোমবার দিবাগত রাতে গুলশান ট্যারেস (সাবেক ঢাকা ক্লাবে) স্থাপন করা হয়েছিল। এ ব্যাপারে শিল্পী খুরশীদ আলম সেলিম বলেন, ‘আমার খুব ভাল লাগছে যে, নিউইয়র্কের প্রথম শহীদ মিনার আমার হাতেই ১৯৮৮ সালে নির্মিত হয়। গত বছর ম্যানহাটনে মুক্তধারার ব্যবস্থাপনায় একুশে উপলক্ষে যে ভাস্কর্যটি স্থাপন করা হয়েছিল সেটির নকশাও আমিই করেছিলাম। পরে তা নানা কারণে ঢাকা থেকে তৈরী করে আনা হয়।

alt
এবার বাংলাদেশ সোসাইটির অনুষ্ঠানে শহীদ মিনারটি স্থাপন করা হয়েছিল সেটিও একুশের মূল শহীদ মিনারকে উপজীব্য রেখে নির্মাণ করা হচ্ছে। আশা করি সেটাও সকলের ভাল লেগেছিল।শিল্পী খুরশীদ আলম সেলিম বলেন, ১৯৮৮ সালে লীগ অব আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ছিলেন লাকী ইনাম এবং সেক্রেটারী ছিলেন  সাপ্তাহিক ঠিকানার সাবেক সম্পাদক এম এম শাহীন।

alt

তাদেরই অনুরোধে শহীদ মিনারটি মারো পার্কে নির্মিত হয় এবং প্রচন্ড ঠান্ডা উপেক্ষা করে অমরা সকলেই ‘প্রভাত ফেরী’তে অংশ নেই। সে সময় শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করা হয় ভোরবেলায়। রাতের প্রথম প্রহরে নয়। সেই অনুষ্ঠানে অনেকের মাঝে আরও উপস্থিত ছিলেন মরহুম ডাঃ আলমগীর, বর্তমান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, বেদারুল ইসলাম বাবলা, রানী কবির, কৌশিক আহমেদসহ আরও অনেকে।লীগ অব আমেরিকার সাবেক সভাপতি বেদারুল ইসলাম বলেন, আমিও সেই প্রভাত ফেরীতে অংশ নিয়েছিলাম। আমার মনে আছে, প্রচন্ড ঠান্ডা উপেক্ষা করেও আমরা প্রভাত ফেরীতে অংশ নেই। আর সেটাই নিউইয়র্ক সিটিতে প্রথম শহীদ মিনার এবং প্রভাত ফেরী।


Add comment


Security code
Refresh