Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

ফ্লোরিডায় জিনপিং-ট্রাম্প প্রথম মুখোমুখি হচ্ছেন ৬ এপ্রিল

রবিবার, ০২ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : সব কিছু ঠিক থাকলে আসছে ৬ ও ৭ এপ্রিল চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং যুক্তরাষ্ট্র সফর করবেন বলে চীন কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। স্থানীয় সময় গত বৃহম্পতিবার চীনা পররাষ্ট্র দফতর জানায়, তবে ট্রাম্পের সঙ্গে শি’র বৈঠক হোয়াইট হাউসে হচ্ছে না। দু’নেতার মধ্যকার এ বৈঠক হবে ফ্লোরিডায়। ট্রাম্পের মালিকানাধীন বিলাসবহুল গলফ রিসোর্ট মার-এ-লাগোতে। চীনা প্রেসিডেন্টের যুক্তরাষ্ট্র সফরের বিষয়ে এটাই প্রথম আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। তবে তাদের এ হাইপ্রোফাইল বৈঠকের এজেন্ডা নিয়ে কিছুই বলেননি চীনা পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র লু কাং। এর আগে গত ৯ ফেব্রæয়ারি রাতে শিকে ফোন দেন ট্রাম্প। ট্রাম্পের ক্ষমতা নেয়ার পরে এটাই ছিল দুনেতার প্রথম কথোপকথন। এসময় ট্রাম্প এক চীন নীতি সমর্থনে রাজি থাকার কথা শিকে জানান। শুভেচ্ছা জানান চীনা নববর্ষের। দুনেতাই পরস্পরকে নিজ নিজ দেশ ভ্রমণে আমন্ত্রণ জানান। এরপর মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন চীন সফরে যান। এসময় তিনি চীনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। মনে করা হয়, এ সাক্ষাতে তিনি ট্রাম্পের পক্ষে শিকে আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্তরাষ্ট্র সফরের আমন্ত্রণ পৌঁছে দেন। সেসময়ই জানা যায়, শিগগিরই দুনেতার বৈঠক আয়োজনের বিষয়ে কাজ করছে চীন ও যুক্তরাষ্ট্র। প্রসঙ্গত, নির্বাচনী প্রচারের সময় থেকেই চীনের সঙ্গে বিরোধে জড়ান ট্রাম্প। প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরে এ বিরোধ মাত্রা ছাড়ায়।
তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ট্রাম্পের ফোনালাপ, বাণিজ্য যুদ্ধ, দক্ষিণ চীন সাগরে মার্কিন সামরিক উপস্থিতি, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ মিত্রতা, উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক ও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিসহ নানা ইস্যুতে দুদেশের মধ্যে বিরোধ চলছে। এর প্রেক্ষিতে ট্রাম্প-শির আসন্ন বৈঠক বিশ্বরাজনীতিতে বেশ গুরুত্ব পাচ্ছে। এর আগে এক খবরে বলা হয়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ক্ষমতা গ্রহণের পরে ইতোমধ্যেই বেশ কয়েকজন বিশ্বনেতার সঙ্গে দেখা করেছেন। কিন্তু এ তালিকায় ছিলেন না চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। দেশটির সঙ্গে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বরফ যেন কিছুতেই গলছিল না। তাই রাজনীতি সচেতনরা এ দুনেতার সাক্ষাতের বিষয়ে অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছিলেন। কিন্তু তারপরও এ বিষয়ে উভয় পক্ষই ছিল নিশ্চুপ। অবশেষে অপেক্ষার পালা ঘুচল। বরফও গলল। চীনের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে দুনেতার বৈঠকের দিনক্ষণ জানানো হল। বিবিসি, সিএনবিসি।