Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

জর্জিয়া স্যোসাল এন্ড কালচারাল অর্গানাইজেশনের উদ্যোগে বৈশাখী মেলা ১৪২৪ অনুষ্ঠিত

বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : জর্জিয়া থেকে : পহেলা বৈশাখ বাঙ্গালী জাতির প্রাণের বাঙ্গালী তার নিজস্ব জাতি সত্ত্বার অস্তিত্বকে টিকিয়ে রাখার জন্য যতগুলো উৎসব পালন করে তার মধ্যে বৈশাখ বরণ অন্যতম । বৈশাখ বরণের সাথে যে অনুষ্ঠানটি অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত তা হল বাঙ্গালীর ঐতিহ্যবাহী বৈশাখী মেলা।  

alt
জর্জিয়ায় এইরকম এক জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজন দেখা গেলো গত ১৬ এপ্রিল রোববার জর্জিয়ার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন জর্জিয়া সোস্যাল এন্ড কালচারাল অর্গানেইজেশনের আয়োজনে  জর্জিয়ায়  অনুষ্ঠিত হল এ যাবত কালের বিশাল বৈশাখী মেলার ।

alt

গত ১৬ এপ্রিল রবিবার হঠাৎ করে কেউ যদি জর্জিয়ার বার্কমার হাই স্কুলে প্রবেশ করতেন, নিশ্চিত একটা ধাঁধায় পরে যেতেন। ভুল করে বাংলাদেশে চলে এসেছি নাকি! । হাজারো প্রবাসী বাংলাদেশীদের আনন্দচ্ছোল পদচারনা আর আনন্দ উৎসবের মধ্য দিয়ে গতবারের মতো এবছরও আটলান্টার বার্কমার হাই স্কুল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হল বিশাল বৈশাখী মেলার ।

alt
বাংলার সংস্কৃতি প্রবাসীদের ঘরে পৌঁছে দিবার একটি ছোট্ট প্রয়াস এই বৈশাখী মেলাটি একটি বৃহৎ আকার ধারণ করে উৎসব আকারে পরিণত হতে সক্ষম হয়েছে ৷৷

alt
সবার জন্য উন্মুক্ত এ মেলায় আটলান্টার বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসরত বাংলাদেশিদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহন করতে দেখা যায়।দূর দূরান্ত থেকে প্রবাসীরা ছুটে আসেন এই একটি দিনের আনন্দে শরীক হতে ৷ বিভিন্ন শহর থেকে গাড়ি ভর্তি হয়ে লোকজন এসেছিল ।

alt

কেউ কেউ পরিবার নিয়ে এসেছেন শুধু মাত্র মেলা উপভোগ করার জন্য।মিলন মেলা খ্যাত এই ফেস্টিভ্যাল কে ঘিরে বাংলাদেশ কমিউনিটিতে অন্য রকম বর্ষবরন উৎসবের আমেজ ছিল।এ উৎসবটি উৎযাপন করার জন্য বিপুল সংখ্যক বাঙ্গালী মুখিয়ে ছিল।

alt

 শিশুদের রঙিন সাজ, ছোট ছোট শিশুরা বৈশাখী শাড়ী, মাথায় টিকলী পড়ে হাজির হয় বৈশাখী উৎসবে। আর মেতে ওঠে বৈশাখী আনন্দে।

alt

রঙ্গিন শাড়ী হাতভর্তি চুড়ি, কপালে টিপ, শাড়ি পরিহিতা বাঙালি ললনারা,

alt

পাঞ্জাবি কিংবা ফতুয়া পরা পুরুষ, শিশু-কিশোর, ছেলেরা পায়জামা পাঞ্জাবি পরে আনন্দে মেতেছিলেন দিনমান। এত মানুষ, এত কোলাহল  আর অন্য কোনো সময় একসঙ্গে দেখা যায় না এই প্রবাসে।

alt
এই মেলাকে আকর্ষণীয় করে তুলতে মেলা কামিটির সবাই প্রাণান্ত পরিশ্রম করেন তাদের মধ্যে - নেহাল মাহমুদ , মোহন জাব্বার , উত্তম দে , জামিল ইমরান,শেখ জামাল,আবু নাসের মিলন , মিনহাজুল ইসলাম বাদল , নুরুল তালুকদার ( নাহিদ ), আবুল হাসেম, ইলিয়াস হাসান, কাইদুজামান,সুহেল হাসান, ভাস্কর চন্দ্র, হাসান খান , আবুল হাসান সহ আরও অনেকে ।

alt

মেলা উপলক্ষ্যে আমন্ত্রিত অতিথি হয়ে আসেন দেশবরেন্য বাক্তি বর্গ লেখক-সাংবাদিক ও সম্পাদকগন ৷

alt

অনুষ্ঠানটিতে পরিচিত মুখের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে -  এদের মধ্যে মুজিব সেনা নিউজের সম্পাদক মণ্ডলির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী হোসেন , ডাঃ রশিদ মালেক , জর্জিয়া বি এন পির সভাপতি নাহিদুল খান শাহেল, DNC মেম্বার শেখ রহমান , গিয়াস উদ্দিন ভুইয়া , দিদারুল আলম গাজী , সলিমুল্লাহ সলি , লিয়াকত হোসেন আবু , মাইনুজাম্মান ঝনটু , নাহিদুল খান শাহেল , ডিউক হাসান , আজাদুর রহমান , মিয়াঁ পিকুল , শুকুর মিন্টু , হান্নান চৌধুরী, ডাঃ আওয়াল – ডি - খান , জেসমিন খান মিলি,  মাইদুর রহমান পারভেজ , জামিল ইমরান , আরিফ আহামেদ , জসিমুদ্দিন, আঃ হক,কামাল আহামেদ , মোঃ আলি সজল, পারভেজ আহামেদ , ডাঃ  শ্যামল আহামেদ , মারুফ ভুইয়া , নবায়েত মজলিশ সহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

alt
দুপুর থেকে শুরু হওয়া  মেলায় সঙ্গীত পরিবেশন করেন বাংলাদেশ থেকে আগতদেশবরেণ্য কন্ঠশিল্পী রুমানা মোর্শেদ কনকচাঁপা ।বরাবরের মত এবারও তিনি প্রবাসীদেরকে মাতিয়ে রাখেন জনপ্রীয় সঙ্গীত দিয়ে।

alt

এ সময় দর্শক শ্রোতারা মুমুহূর্ত করতালি দিয়ে শিল্পীকে অভিনন্দন জানান। পুরো অনুষ্ঠানটি ছিল উৎসবমুখর। এ ছাড়াও স্থানীয় শিল্পী, সাহিত্যিকদের কবিতা আবৃতি, নাচ , গান , কৌতুক সহ নানাবিধ আয়োজন ছিল ।

alt
ঐতিহ্যবাহী এই “বৈশাখী মেলা” প্রাঙ্গণে চারিদিক ঘিরে ছিল বাঙালী খাবার ও দেশীয় পোশাকের নানাবিধ স্টল।

alt

খাবারের স্টলগুলিতে ছিল নানা ধরনের মুখরোচক দেশীয় খাবার , হালিম, ঝালমুড়ি, চানাচুর, পেয়াজু, কাবাব, চা, পান সহ নানান ধরনের দেশীয় খাবার এ স্টলগুলোতে স্থান পায়।

alt

হরেকরকম বাঙালি খাবারের পসরা-যেন এক টুকরো বাংলাদেশ!  সবাই মিলে উৎসবে  খাওয়ার আনন্দ অনেকদিন পর প্রবাসে বাংলার গ্রামীণ সংস্কৃতির কথা উপস্থিত সবাইকে মনে করিয়ে দেয়।

alt

শাড়ি-চুড়ি মনোহরি দ্রব্যের ষ্টল,আর তৈরি পোশাকের স্টল গুলিতে ছিল সালোয়ার কামিজ, জামদানি ও অন্যান্য তাঁতের শাড়ির বিপুল সমাহার।

alt

বৈশাখী মেলা মানে বন্ধুদের সাথে দেখা সাক্ষাৎ, দেশী খাবারের স্বাদ গ্রহন, বছর ধরে জমে থাকা ক্লান্তি অবসানের সমাপ্তি  আর তাইত রাত হয়ে আসে তবু যেন বাড়ি  ফেরার  কোন তাড়া ছিলনা কারো মাঝে।

alt

মেলা ভাঙ্গা থেকে বাংলাদেশকে বুকে নিয়ে বহুদিন পর দেখা কোন প্রিয়জনের কাছ থেকে বিদায় নেন বুকে সুখ স্মৃতি নিয়ে।


Add comment


Security code
Refresh