Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

ইউকে ম্যানচেস্টারের ঈদ পুনর্মিলনী ও ঘুড়ি উৎসব

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

ফারুক যোশী: বাপ্ নিউজ : যুক্তরাজ্য থেকে :আবহমান বাঙালি সংস্কৃতি আমাদের উত্তরাধিকার। ঐতিহ্যের এই সংস্কৃতিকে বাংলাদেশের বাইরে নতুনদের মাঝে পরিচয় করিয়ে দিতে, ব্রিটেনে বেড়ে ওঠা শিশু-কিশোরদের মাঝে বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে জনপ্রিয় করে তুলতে চেতনা ইউকে ম্যানচেস্টারের চলমান উদ্যোগ একেকটা মাইলস্টোন হিসেবেই কাজ করছে। এ কথাগুলো উচ্চারিত হয়েছে চেতনা ইউকে ম্যানচেস্টারের ঈদ পুনর্মিলনী ও ঘুড়ি উৎসবে।এ উৎসবটি হয়ে গেল গত ৩ সেপ্টেম্বর রোববার।

Picture

দুপুর বারোটায় এ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ব্রিটিশ পার্লামেন্টের এমপি আফজাল খান ও ম্যানচেস্টার সিটি কাউন্সিলের স্কুল-আর্ট অ্যান্ড লেজারের নির্বাহী সদস্য কাউন্সিলর লুৎফুর রহমান। চেতনার সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক-কলামিস্ট ফারুক যোশীর সঞ্চালনায় এতে স্বাগতিক বক্তব্য দেন সংগঠনের সভাপতি সৈয়দ মাহমুদুর রহমান। অন্যান্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন কাউন্সিলর আবিদ চৌহান, মুক্তিযোদ্ধা ডা. নজরুল ইসলাম, জিএমবিএর চেয়ারম্যান নাসের ওয়াহাব, হাইড ওয়েলফেয়ারের চেয়ারম্যান নাসির খান, সুরাবুর রহমান, মইনুল আমিন ও রুহুল আমিন চৌধুরী প্রমুখ।

alt
উৎসবে ছিল শিশু-কিশোর নারী পুরুষদের জন্য বিভিন্ন খেলাধুলা। বাচ্চাদের সুন্দর করে বাংলা লেখা, পাস দ্য পার্সেল, পাস দ্য পিলো, রশি টানাটানি, চকলেট দৌড় ও মোরগের লড়াইসহ বাংলাদেশের গ্রামীণ সংস্কৃতির বিভিন্ন খেলাধুলা চলে এ উৎসবে। উৎসব সমন্বয়ক ও চেতনার সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল হক ওয়েছের সার্বিক পরিকল্পনায় এই খেলাধুলার দায়িত্ব পালন করেন নজরুল ইসলাম, মরিয়ম ইসলাম, সাবিনা ইয়াসমিন শাপলা, সালেহা চৌধুরী ও রেহানা বেগম প্রমুখ।

alt
অনুষ্ঠানে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করেছেন আমেনা ওয়েছ, নিশাত, সেঁজুতি, মাহিরা, নওরীন, প্রভা, আরীভা, এমা ও সুহাসহ এ দেশে বেড়ে ওঠা একঝাঁক কিশোরী-তরুণী।এ অনুষ্ঠানকে সফল করে তুলতে সার্বিক সহযোগিতা করেছেন আলমগীর চৌধুরী, ফয়জুল ইসলাম, ফয়সল আহমদ, শাহ কাইয়ুম, মাহী মাসুম, ইলিয়াস চৌধুরী, বিশাল দেব, বেলায়েত চৌধুরী, রাহেল চৌধুরী, আফজাল রাব্বানী, এম আহমদ জুনেদ, শাহনেওয়াজ আহমদ, সেকুল ইসলাম ও নাসিরুল ইসলাম প্রমুখ। উৎসবটি স্পনসর করেছে রয় অ্যান্ড কোং।খেলাধুলার পাশাপাশি চলে সংগীতানুষ্ঠান। মীর গোলাম মোস্তফা ও আমিনুল হক ওয়েছের পরিচালনায় দীর্ঘ চার ঘণ্টার এ অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন লন্ডন-হাইড-বার্নলি ও ব্রাইটনসহ ম্যানচেস্টারের স্থানীয় শিল্পীবৃন্দ। কয়েক শ মানুষের অংশগ্রহণে উৎসবটি শেষ হয় বিকেল পাঁচটায়। জনপ্রিয় অনলাইন টিভি প্রবাস বাংলা অনুষ্ঠানটি লাইভ সম্প্রচার করেছে।


Add comment


Security code
Refresh