Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

প্রবাসীদের খবর

বঙ্গবন্ধুর খুনি নূর চৌধুরীকে বহিষ্কারের দাবিতে টরন্টোতে মানববন্ধন

মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই ২০১৭

বাপ্ নিউজ : কানাডা থেকে : বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি নূর চৌধুরীকে কানাডা থেকে বহিষ্কারের দাবিতে টরন্টোর বাঙালী অধ্যূষিত ডেনফোর্থে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর আগে এই খুনিকে কানাডা থেকে বের করে দেওয়ার দাবির সমর্থনে নাগরিকদের কাছ থেকে স্বাক্ষর সংগ্রহ করা হয়।রবিবার বিকাল ৪টা থেকে কানাডা আওয়ামী লীগ, অন্টারিও আওয়ামী লীগ, সিটি আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ এবং আওয়ামী লীগ অব কানাডার নেতৃবৃন্দ ডেনফোর্থ এলাকায় স্বাক্ষর সংগ্রহ করেন। বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি স্বতঃস্ফূর্তভাবে কানাডা থেকে খুনিকে বহিষ্কারের দাবির সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে স্বাক্ষর করেন। আয়োজকরা জানান, গণস্বাক্ষর সম্বলিত দাবিনামা বাঙালি অধ্যূষিত এলাকার এমপির মাধ্যমে কানাডা সরকারের কাছে পাঠানো হবে। পরে সন্ধ্যায় খুনি নূর চৌধুরীকে বহিষ্কারের দাবিতে বিভিন্ন শ্লোগান সম্বলিত ফেস্টুন নিয়ে মানববন্ধন করা হয়। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ছাড়াও শহরের সাংস্কৃতিক কর্মীসহ প্রগতিশীল প্রবাসী বাংলাদেশিরা এই মানববন্ধনে অংশ নেন।

Picture

মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যরা হলেন জসিম উদ্দিন চৌধুরী, আলী আকবর, মোস্তফা কামাল, জামাল উদ্দিন, হৃষিকেশ সরকার, গোলাম সরওয়ার, তুতিউর রহমান, ফারুক হোসেন খান, ফায়জুল করিম, আবদুল কাদির মিলু, মুজাহিদুল ইসলাম, ইমরুল ইসলাম, বেলাল সামসুল, মাহবুব চৌধুরী, কানতি মাহমুদ,  দেলোয়ার হোসেন, হেলাল উদ্দিন, ফারহানা শান্তা, মনির হোসেন, সাবু শাহ, নিরু চাকলাদার, ফারহানা খান, আবদুল হাই সুমন, ডাক্তার আরিফ শক্তি দেব, শংকর দেব, রিংকু সোম, মোহাম্মদ হাসান, খান মোহাম্মদ, ফখরুল ইসলাম চৌধুরী মিলন প্রমুখ।


বৃটেনে ৬ মাসে ৪শ’ এসিড হামলা বাংলাদেশিরাও আতঙ্কে

মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই ২০১৭

বাপ্ নিউজ : বৃটেনে অব্যাহত এসিড হামলার ঘটনায় মুসলিম বিশেষত বাংলাদেশ কমিউনিটির ঘরে ঘরে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি, বার্তা পাঠিয়ে হামলার ভয়াবহতার বিষয়ে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত বৃটিশ নাগরিকদের একে অন্যকে সতর্ক করছেন। দেশে থাকা স্বজনদের কাছেও তারা সচিত্র বার্তা পাঠাচ্ছেন। বিষয়টি লন্ডন, ম্যানচেষ্টার ও বার্মিংহামস্থ বাংলাদেশ মিশনে কর্মরত কূটনীতিকদেরও ভাবিয়ে তুলেছে। তবে এটি একান্তই বৃটেনের অভ্যন্তরীণ এবং দেশটির নিরাপত্তার সঙ্গে সম্পর্কিত হওয়ায় বাংলাদেশি কূটনীতিকরা অত্যন্ত সতর্ক এবং ঘনিষ্ঠভাবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন।

বৃটিশ পুলিশের বরাতে বিবিসি বাংলার রিপোর্টে জানানো হয়, গত ৬ মাসে (চলতি বছরের এপ্রিল পর্যন্ত) ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে ৪০০টি এসিড হামলার ঘটনা রেকর্ড হয়েছে। ২০১২ সাল থেকে ২০১৬-১৭ সাল পর্যন্ত ৫ বছরে এ ধরনের হামলা দ্বিগুণ আকার ধারণ করেছে। এর বেশিরভাগ ঘটনাই ঘটছে রাজধানী লন্ডনে। সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার নর্থ-ইস্ট লন্ডনে ৫ জনকে লক্ষ্য করে এসিড হামলা চালানো হয়। গত মাসে পূর্ব লন্ডনের রাস্তায় গাড়ির জানালা দিয়ে এসিড নিক্ষেপের ঘটনায় মারাত্মকভাবে দগ্ধ হন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত বৃটিশ তরুণী রেশাম খান এবং তার সহযাত্রী জামিল মুখতার। এপ্রিল মাসে ইস্ট লন্ডনে এসিড হামলায় অন্তত ২০ জন আক্রান্ত হয়েছেন বলে বিবিসি’র রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়। বৃটেনের ন্যাশনাল পুলিশ চিফ কাউন্সিলের তথ্যে চলতি বছরে প্রথম ছয় মাসে যুক্তরাজ্য এবং ওয়েলসে পৃথকভাবে ৪০০টি এসিড হামলার ঘটনা উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, এসব হামলায় অভিযুক্তদের অধিকাংশই তরুণ। তাদের বয়স ১৮ এর মধ্যে। বৃহস্পতিবারের ঘটনায় একজন ১৬ বছর বয়সী কিশোরকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

গত সপ্তাহে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত লন্ডনের সাংবাদিক মুনজের আহমদ চৌধুরী দেশটিতে এসিডের সহজলভ্যতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। এসিড হামলার অনেক ঘটনা ‘মুসলিম বিদ্বেষ’ এবং ইসলামের নামে উগ্রপন্থিদের বিভিন্ন হামলার পাল্টা হামলা হিসেবে ঘটছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। মুসলিম নারী ও তরুণীরা এসিড হামলার বেশির ভাগ ঘটনায় ভুক্তভোগী (ভিকটিম) বলে জানান চ্যানেল আই ইউকে’র বার্তা সম্পাদকের দায়িত্বে থাকা ওই প্রবাসী সাংবাদিক। তবে পুরুষরাও আক্রান্ত হচ্ছে। বিবিসি বাংলার রিপোর্টে গত নভেম্বরে ইস্ট লন্ডনে এসিড হামলার শিকার রেস্টুরেন্ট ব্যবসায়ী ইমরান খানের করুণ চিত্র প্রকাশ পেয়েছে।

Picture

সেখানে এসিডে মুখ ঝলসে যাওয়া ইমরান খান বলেন, একদল তরুণ তার সঙ্গে বর্ণবাদী আচরণ করে এবং অর্থ ও খাবার দাবি করে। এরপর গাড়ির ভেতর তার মুখের ওপর তরল পদার্থ ঢেলে দেয় তারা। ইমরানের আশঙ্কা তিনি হয়তো পুরোপুরি অন্ধ হয়ে যাবেন। পূর্ব লন্ডনে স্কুলপড়ুয়া দুই মেয়ে নিয়ে বসবাস করেন সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার জলডুপ গ্রামের মুমতাহিনা জান্নাত (সাজু)। ইস্ট লন্ডন মসজিদ লাগোয়া একটি বাড়িতে থাকেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ওই নারী। মানবজমিনের সঙ্গে আলাপে সমপ্রতি পূর্ব লন্ডনে ঘটে যাওয়া একাধিক এসিড হামলার সিসিটিভি ফুটেজ শেয়ার করে তিনি বলেন, এসিড হামলার ঘটনাগুলো খুবই বীভৎস। অনেক নারী ও তরুণী এরইমধ্যে এর শিকার হয়েছে। তারা এখন জীবন যন্ত্রণায় ভুগছেন।

বর্বর এসব ঘটনায় বাঙালি পরিবারগুলোতে গভীর উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে জানিয়ে তিনি তার নিজের উদাহরণ দেন। বলেন, ‘আমার দু’টি মেয়ে রয়েছে। তারা স্কুলে যায়। ইসলামী শিক্ষা ক্লাস করতে ইস্ট লন্ডন মসজিদেও (মক্তব) যায়। তাদের আমি দিয়ে আসি। ফেরার সময় অনেক দিনই পরিচিত ভাবীরা (মেয়েদের সহপাঠীদের মায়েরা) ঘরে পৌঁছে দিয়ে যান। এত বছর এভাবেই চলছিলাম। কিন্তু এখন আর পারি না। মেয়েদের চিন্তায় তাদের নিয়ে যাই, আবার নিজেই নিয়ে আসি। রাস্তার পুরোটা সময় আতঙ্কে কাটাই। লন্ডনে প্রকাশ্যে এসিড কেনাবেচায় তেমন বিধি-নিষেধ নেই। তবে সামপ্রতিক এসব ঘটনার প্রেক্ষিতে বিশেষত উগ্রপন্থিদের হাতে হাতে এসিড থাকায় বেচাকেনা সংক্রান্ত আইন কঠোর করার জোর দাবি উঠেছে। এ নিয়ে সাধারণ মানুষের উদ্বেগ বাড়তে থাকায় এসিড হামলার মতো গুরুতর অপরাধের বিচার পদ্ধতি নিয়ে বৃটিশ প্রশাসন বিস্তারিত পর্যালোচনা করছে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আম্বার রাড।

এ বিষয়ে অপরাধ বিশেষজ্ঞ ডক্টর সিমোন হার্ডিং বিবিসিকে বলেন- এটা এক ধরনের সহজলভ্য অস্ত্র হিসেবে পরিণত হয়েছে। তার মতে, এসিড নিক্ষেপ আধিপত্য, ক্ষমতা ও নিয়ন্ত্রণের দাপট দেখানোর উপায় হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এর মধ্য দিয়ে বিভিন্ন গ্যাং ত্রাস সৃষ্টি করে থাকে। তার মতে, সরকারকে এ বিষয়ে তিনটি উদ্যোগ নিতে হবে। প্রথমত, এসিডের সহজলভ্যতা কমানো, দ্বিতীয়ত, কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করা এবং তৃতীয়ত, মানুষের মধ্যে শিক্ষার ব্যবস্থা করা প্রয়োজন। লন্ডনের দাতব্য প্রতিষ্ঠান এসিড সারভাইভার্স ট্রাস্ট ইন্টারন্যাশনাল-এর জাফর শাহ বলেন, এই ধরনের ঘটনা নতুন নয়।

তবে সামপ্রতিক হামলার ঘটনা উদ্বেগজনক। তার মতে, বিশ্বে সম্ভবত বৃটেনেই এখনো সবচেয়ে এসিড হামলার ঘটনা ঘটছে। এদিকে লন্ডনের সানডে টাইমস জানিয়েছে, এসিড হামলার বিষয়ে কঠোর আইন প্রণয়নের চিন্তাভাবনা করছে বৃটিশ সরকার। তাছাড়া এসিড বিক্রির ওপর কড়া নজরদারি আরোপের ভাবনাও রয়েছে প্রশাসনের। কেবল আইন কঠোর করাই নয়, পুলিশের দায়িত্ব এবং কিভাবে এসিডের মতো ক্ষতিকারক পণ্য মানুষের কাছে পৌঁছায় এবং এসিড হামলার শিকারদের কিভাবে সাহায্য করা যায় তা নিয়েও আলোচনা চলছে বৃটিশ প্রশাসনে। বৃটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সানডে টাইমসকে বলেন, অপরাধীরা যেন আইনের শক্তি পূর্ণমাত্রায় অনুভব করতে পারে সেটাই আমরা চাইছি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এসিড আক্রমণে বেঁচে থাকা ব্যক্তিদের জীবনযাত্রা কঠোর হয়ে যায়। সোমবার হাউস অব কমন্সে বর্বর এসিড হামলা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন এমপিরা।


লন্ডন থেকে সাইকেলে হজে যাচ্ছেন তিন বাংলাদেশি!

রবিবার, ১৬ জুলাই ২০১৭

বাপ্ নিউজ : সিরিয়ার যুদ্ধবিধ্বস্ত মানুষের সাহায্যার্থে এ বছর সাইকেলযোগে আট ব্রিটিশ নাগরিক হজে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর মাধ্যমে এক মিলিয়ন পাউন্ড সংগ্রহ করতে চান দাতব্য সংস্থা হিউম্যান এইডের এসব সদস্য। ওই আট যুবকের মধ্যে আছেন বাংলাদেশের তিন বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ।এরইমধ্যে যাত্রা শুরু করে দিয়েছেন ওই আট যুবক। আটটি দেশের মোট ২০০০ মাইল পাড়ি দিতে তাদের সময় লাগতে পারে ছয় সপ্তাহ। আগস্টে ঠিক সময়ের মধ্যেই তারা সৌদি আরব পৌঁছাবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

Picture

ব্রিটেন থেকে শুরু করে তারা সাইকেলে ভ্রমণ করবেন ফ্রান্স, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, ইতালি, গ্রিস। এর পর গ্রিস থেকে জাহাজে করে মিশর এবং সেখান থেকে সৌদি আরব। যদিও তারা তুরস্ক, সিরিয়া ও জর্ডান হয়ে সৌদি আরব যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু নিরাপত্তার কারণে তাদের সে পরিকল্পনা বাদ দিতে হয়েছে।


সৈয়দ সামাদুল হক ও ডঃ সাইদুল ইসলাম লস্করের সাথে কানেক্ট বাংলাদেশের মতবিনিময়

রবিবার, ১৬ জুলাই ২০১৭

বাপ্‌স নিউজ :বাংলাটিভি ইউকে ও বাংলাদেশের চেয়ারম্যান সৈয়দ সামাদুল হক এবং  জাতিসংঘ ফুড এন্ড এগ্রিকালচারাল অর্গেনাইজেশনের সাবেক ইকোনোমিষ্ট, ঢাকা স্কুল অব ইকোনোমিক্সের গভর্ণিং কাউন্সিলের  মেম্বার ডঃ সাইদুল ইসলাম লস্করের সাথে গত ১০ জুলাই ২০১৭ কানেক্ট বাংলাদেশ এক মতবিনিময়  করে।মতবিনিময়কালে কানেক্ট বাংলাদেশ এর লক্ষ্য উদ্দেশ্য ও কার্যাবলী তুলে ধরার সাথে  সাথে দেশে বিদেশে সকল প্রবাসীদের অধিকার, ক্ষমতা ও কর্তৃত্ব প্রতিষ্টায় ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস ও প্রচেষ্টার এই  যৌথ প্ল্যাটফর্ম  তুলে ধরেন এডভোকেট শিব্বির আহমেদ, ডাঃ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, নূরুল আমিন প্রমুখ।

এসময় অতিথিবৃন্দ দেশ বিদেশে প্রবাসী ও নতুন প্রজন্মের শিক্ষিত ও উচ্চ শিক্ষিত এক্সপার্টদের দেশের কাজে লাগানোর সঠিক নির্দেশনায় কানেক্ট বাংলাদেশ ব্যাপক ভুমিকা রাখতে পারে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।একইসাথে কৃষি, বিজ্ঞান, তথ্য প্রযুক্তি ও প্রকৌশল খাতে বাংলাদেশের বিশাল মানব সম্পদকে বূঝা নয় সম্পদে পরিণত  করে এসব খাতে ব্যাপক এক সংস্কার ও উন্নয়নের মাধ্যমে কানেক্ট  বাংলাদেশ সহযোগিতার নতুন দিগন্ত উম্মোচনেরও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তারা।এসময় অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্জ্ব ছমির উদ্দিন, কবি বাবুল তালুকদার সহ আরো অনেকেই। সৈয়দ সামাদুল হক বাংলা টিভির মাধ্যমে কানেক্ট বাংলাদেশের এই মহতী কার্যক্রমকে আরো বেগবান করার সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।


আরব আমিরাত আওয়ামীলীগের সভাপতি রাখাল কুমার ও সম্পাদক ইউছুফ

রবিবার, ১৬ জুলাই ২০১৭

Picture

সম্মেলন উদ্বোধন করেন সদ্য বিদায়ী সভাপতি আলহাজ্ব আল মামুন সরকার। রাখাল কুমার গোপের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন ইউএই আওয়ামী লীগের প্রধান উপদেষ্টা ক্যাপ্টেন সৈয়দ আবু আহাদ। প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা ডাঃ সৈয়দ নূর মোহাম্মদ। বিশেষ বক্তা হিসাবে আরো উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটির নেতা কাজী মোহাম্মদ আলী, আজমান বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ইসমাইল গণি, শারজাহ আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ সেলিম (সি. আই. পি), বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক এস.এম.শফিকুল ইসলাম, আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক সুবোধ চৌধুরী শিবু, আবুধাবী আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি বশির ভুঁইয়া, আজমান আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোরশেদুল কাদের মুন্না-সহ সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিভিন্ন প্রদেশ থেকে আগত নেতৃবৃন্দ।

সম্মেলনে বক্তারা আগামীতে সংগঠনের গতিশীলতা আরো বৃদ্ধি করে সাংগঠনিকভাবে কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে ২০১৯ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে পুনরায় ক্ষমতায় আসীন করার দৃঢ় প্রত্যয়ে কাজ করার আহবান জানান।


ইতালিতে বাংলাদেশি তরুণীর আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ

রবিবার, ১৬ জুলাই ২০১৭

এ বছর এই প্রতিযোগিতায় প্রায় ৪ হাজার জন লেখক ও সাংবাদিক অংশ নেন। এদের মধ্যে বাংলাদেশি তাহমিনা ইয়াসমিন শশীসহ বিভিন্ন দেশের ১০ জন সেরা লেখক এবার এ পুরস্কার লাভ করেন।

পুরস্কারপ্রাপ্তরা অন্যরা হলেন, মনিয়া ক্রিমালদি (ইতালি), মেলিতা ফারকোভিক (ক্রোয়েশিয়া), ফাতিমা ইযাহরা গারগুয়েক (মরক্কো), আইজা জুলিকা (লিথোনিয়া), রোকসানা লাজার (রোমানিয়া), সানতিনা লাজ্জারা (ইতালি), মারইয়ামা মারকেলা লিউক (আর্জেন্টিনা), মালভিনা সিনানী (আলবেনিয়া) ও রোবার্তা ভিলা (ইতালি)।

Picture

প্রতিযোগিতায় তার লেখার শিরোনাম ছিল ‘ভ্রুণহত্যা’। ইতালিয়ান ভাষায় যার নাম ‘তি পারলেরো দেলা লুনা’। শশী বাংলাদেশের শরীয়তপুর জেলার কার্তিকপুরের হাবিবুর রহমান ও হাসিনা হাবিবের মেয়ে। তিনি বর্তমানে ইতালির ভেনিসে বসবাস করছেন। শশী কমনি দি ভেনিস ইমিগ্রেশন অফিসে একজন অনুবাদক হিসেবে কাজ করেন। তিনি ইতালি ভাষা শেখান বিভিন্ন দেশের ভাষাভাষী মানুষদের। বাংলাদেশি অভিবাসী যারা লিবিয়া থেকে সমুদ্র পাড়ি দিয়ে ইতালি এসেছেন তাদের জন্য অনুবাদক হিসেবে কাজ করছেন সেদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে।

চাকরির পাশাপাশি ইউনিভার্সিটি ক্যাথলিকা দেল সাকরো কোওরে (Università Cattolica del Sacro Cuore ) সাংবাদিকতা বিষয়ে পড়াশোনা করছেন শশী। তার কবিতা ও ফিচার  বাংলাদেশের বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। পড়াশোনা শেষ করে তিনি বাংলাদেশকে উপস্থাপন করতে চান এক ভিন্ন রুপে। এজন্য  বাংলাদেশে ফিরে যেতে চান তিনি।


রোমে প্রবাসীদের ঈদ পুনর্মিলনী উৎসব

বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই ২০১৭

এমডি রিয়াজ হোসেন, বাপ্ নিউজ : ইতালি থেকে : প্রবাসে ঈদে আনন্দের চেয়ে কষ্টই বেশি অনুভূত হয়। তবুও পরিবার-পরিজন দেশে রেখে প্রবাসেই অনেকের ঈদ পালন করতে হয়। কাজের চাপে অনেকে আবার ঈদের নামাজ পর্যন্ত আদায় করার সুযোগ পায় না।

Picture

ইতালীর রাজধানী রোমের প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিরাট একটি অংশের বসবাস কর্ণেলিয়া-বাতিস্তিনি অঞ্চলে। সকলে ঈদের আনন্দ একসাথে উদযাপন করতে না পারলেও ঈদ পরবর্তী পুনর্মিলনীতে সবাই মিলিত হয়েছেন আনন্দ ভাগাভাগি করতে। গত ৯ জুলাই ঈদ পরবর্তী এ আনন্দ উৎসবে উপস্থিত হয়েছিলেন রোমের বিভিন্ন অঙ্গনের ব্যাক্তিবর্গ। আয়োজকরা বলেন, আমরা সারা বছরই কোন না কোন অনুষ্ঠানের আয়ােজন করে থাকি। এ বছর ঈদের আনন্দ ভাগাভগি করতে এই ঈদ পুনর্মিলনীর আয়োজন। খুব শিঘ্রই এ অঞ্চলের সকলের সমন্বয়ে বৃহদাকারে অনুষ্ঠান করা হবে। অনুষ্ঠানের শেষপর্বে আমন্ত্রিত অতিথিরা শিশুদের নৃত্য আর লটারির মাধ্যমে পুরস্কার বিতরণ উপভোগ করেছেন।


আওয়ামী লীগের অস্ট্রেলিয়া শাখার কমিটি গঠন

বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই ২০১৭

Picture
উল্লেখ্য, ড. আব্দুর রাজ্জাক বঙ্গবন্ধু কাউন্সিল অস্ট্রেলিয়ার দীর্ঘদিনের সভাপতি ছিলেন এবং সিডনি অলিম্পিক মেলায় বৈশাখী মেলা আয়োজনের অন্যতম রূপকার ছিলেন। ডা. আবুল হাসনাৎ মিল্টন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এবং নব্বইয়ের গণঅভ্যূত্থানের অন্যতম নেতা ছিলেন। এছাড়া ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ ছাত্রসংসদের সমাজকল্যাণ সম্পাদক ও ভারপ্রাপ্ত সহসভাপতি এবং স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন।


ব্যারিস্টার এনামুল কবির ইমনকে ক্রেস্ট প্রদান

বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই ২০১৭

বাপ্ নিউজ : গত ১০ জুন সোমবার য্ক্তুরাজ্য সফররত সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক জেলা প্রশাসক ব্যারিস্টার এনামুল কবির ইমন ও তার স্ত্রী ব্যারিস্টার ফারজানা শিলাকে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের স্পিকারের পক্ষ থেকে তাদের কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ স্পিকারের বিশেষ ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। এসময় তাদের একমাত্র মেয়ে রাবি পিয়া সাথে ছিল।

পরে টাউন হলে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন স্পিকার সাবিনা আক্তার। ছাতক ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন সেলিম পরিচালনায় মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নির্বাহী মেয়র জন বিগস। তিনি ব্যারিস্টার দম্পতিকে ফুল দিয়ে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলে স্বাগত জানান।

Picture

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলের কেবিনেট মেম্বার কাউন্সিলার আব্দুল মুকিত চুন্নু এমবিই, সাবেক মেয়র সরদার আব্দুল আজিজ, মতিনুজ্জামান মতিন, দরস উল্লাহ, সাবেক কাউন্সিলার জেনেট রহমান,

এসময় বিভিন্ন সংগঠনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তাহের কামালী, জামাল হোসেন চৌধুরী, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, নাসির উদ্দিন, সালেহ আহমদ, আওলাদ আলী রেজা, লিলু মিয়া তালুকদার, আকিক খান, দেলোয়ার হোসেন, মুমিন আহমদ, আলম পারভেজ, আদাম সুলেমান, সাইফুল আলম সুফিয়ান, আবুল হোসেন রফিক, আতাউর রহমান আনছার, আব্দুল করিম, জাবেদ আহমদ, নূর আলম, রাজু মিয়া, স্বপন মিয়া, সবুজ মিয়া, আবু হেলাল, আনোয়ার কামাল দুলাল, পীর ফয়ছল প্রমুখ।


বাংলাদেশি পাসপোর্টের কারণে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে বাধা

মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:কানাডার অন্যতম প্রদেশ ম্যানিটোবার রাজধানী উইনপেগের এক বাসিন্দাকে সম্প্রতি সস্ত্রীক যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে বাধা দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশি পাসপোর্ট ব্যবহার করায় তাকে যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে দেওয়া হয়নি বলে মনে করেন ওই দম্পতি। মো. মফিজুল ইসলাম নামে ওই বাংলাদেশি যুবক গত ৩০ জুন স্ত্রী ও এক বন্ধুকে নিয়ে শহরের দক্ষিণ সীমান্ত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মন্টানায় তিন দিনের ছুটি কাটাতে যাওয়ার প্রস্তুতি নেন। কিন্তু সীমান্তে তাদের আটকে দেয় নিরাপত্তারক্ষীরা।

সেখানে তিন ঘণ্টা বসিয়ে রাখা হয় তাকে এবং তার ছবি তুলে রাখা হয়। পরে দায়িত্বরত কর্মকর্তা মফিজুলকে জানায়, তার আবেদন বাতিল করা হয়েছে। তাকে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। তবে পরবর্তীতে নতুন পাসপোর্ট দিয়ে তিনি প্রবেশের চেষ্টা করতে পারেন।

Picture

মফিজুল জানান, তাকে অফিসার একটি ব্যক্তিগত কক্ষে নিয়ে যান। জানতে চান, তার কাছে কোনো অস্ত্র রয়েছে কি না এবং এরকম বিব্রতকর আরও প্রশ্ন। পরে তাকে জানানো হয়, তার বাংলাদেশি পাসপোর্ট অবৈধ, যদিও এর নয় মাসের মেয়াদ শেষ হয়নি।

কিন্তু পাসপোর্টের মেয়াদ থাকার পরও তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। পরে তিনি বাসায় ফিরে অনলাইন ঘেঁটে দেখেন, যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্টের নিয়ম অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানের তারিখের পরে ছয় মাসের বেশি পাসপোর্টের মেয়াদ থাকলেই দেশটি ভ্রমণ করা যায়।

মফিজুল বলেন, তিনি এতে চরম লজ্জিত বোধ করেন। তার কাছে মনে হয়েছে কোনো গুরুতর অন্যায় করেছেন। যদিও এর আগে যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণ করেছেন তিনি। তার স্ত্রী সিরাজুম মুনিরার মত, তাদের বাংলাদেশি পরিচয়ের জন্যেই এমন ব্যবহার করা হয়েছে।তিনি জানান, তিনি হিজার পড়েন। তার স্বামী ও বন্ধুর দাড়ি রয়েছে। তারা বয়সেও তরুণ। ফলে তাদের হুমকি হিসেবে দেখা হয়েছে। বিষয়টি ভাবতেই তিনি চরম হতাশ বলে জানান মুনিয়া।


যুক্তরাজ্যে ঢাবির প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মিলনমেলা

মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০১৭

alt
বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রাক্তন ছাত্র সাংবাদিক বুলবুল হাসান ও একই বিভাগের সাবেক ছাত্রী সৈয়দা সায়মা আহমেদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি রহমান জিলানী ও সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার খান।মিলনমেলার একটি দৃশ্যএ সময় সংগঠনের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক দুই শিক্ষার্থীকে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে সম্মাননা দেওয়া হয়।উৎসবে অংশ দিতে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসেন সাবেকেরা। কর্নওয়াল থেকে আসা খালেদা আক্তার তার বক্তব্যে বলেন, ‘কলাভবন কিংবা টিএসসির আশ্চর্য সুন্দর দিনগুলো আজও আমাকে হাতছানি দেয়। আর সে কারণেই এই ছুটে আসা।’

alt
মিলনমেলার একটি দৃশ্যঅনুষ্ঠানে স্থানীয় শিল্পীদের পাশাপাশি গান শোনান সংগীতশিল্পী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রী ফাহমিদা নবী।

আয়োজকেরা জানান, ২০২১ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ আরও বড় পরিসরে উদ্‌যাপন করার লক্ষ্যে সংগঠনের সদস্যরা ইতিমধ্যেই কাজ শুরু করেছেন।মিলনমেলার একটি দৃশ্যপ্রসঙ্গত, যুক্তরাজ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীদের সংগঠনটিও দুই ভাগে বিভক্ত। ব্যারিস্টার আনিস রহমানের নেতৃত্বে অন্য সংগঠনটি আগামী ১০ সেপ্টেম্বর পুনর্মিলনী আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক প্রাক্তন শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বিব্রতকর পরিস্থিতি এড়াতে তাঁরা কোনো অংশের আয়োজনে অংশ নিচ্ছেন না।