Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

প্রবাসীদের খবর

শেখ জামালের জন্মদিনে ফ্রান্স আওয়ামী লীগ এর আলোচনা সভা

রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : প্যারিস থেকে :-ফ্রান্স আওয়ামী লীগ এর উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর দ্বিতীয় পুত্র শেখ জামালের জন্মদিন উপলক্ষে ২৮ এপ্রিল প্যারিস এর গাড় দু নর্থ এর হলে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। ফ্রান্স আওয়ামী লীগ এর সভাপতি মহসিন উদ্দিন খান লিটন এর সভাপতিত্বে এবং যুগ্ন সম্পাদক হাসান সিরাজের পরিচালনায় প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ এর সহ সভাপতি জনাব আব্দুল্লাহ আল বাকি। বিশেষ অতিথি হিসেবে মঞ্চে আসন গ্রহণ করেন সংগঠনের রাজনৈতিক উপদেষ্টা মন্ডলীর চেয়ারম্যান বীর মুক্তি যোদ্ধা এনামুল হক এবং যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও ফ্রান্স মুক্তি যোদ্ধা সংহতি পরিষদের সাবেক সভাপতি জনাব শেখ মোহাম্মদ আলী।

Picture

মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ সভাপতিবৃন্দ যথাক্রমে জনাব শাহজাহান রহমান ,জনাব শেখ মোহাম্মদ শাহজাহান সারু ,জনাব জসিম উদ্দিন ফারুক ,জনাব আশরাফুল ইসলাম , জনাব আলী আজম খান। সংগঠনের যুগ্ন সম্পাদক জনাব শাহীন আরমান চৌধুরী।

alt

বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ বিষয়ক সম্পাদক জনাব হারুনুর রাশিদ ,বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জনাব শায়েখ ইবনে হোসেন ,শিশু ও কিশোর বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ,সহ তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক জনাব আজিজুর রহমান ,সহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক জনাব তরিকুল ইসলাম, সহ সমাজ কল্যাণ সম্পাদক জনাব খাইরুল আলম মাজেদ ,সম্মানিত সদস্য জনাব মোহাম্মদ ফরহাদ মুরাদ ,জনাব আক্তার হোসেন ,মিজানুর রহমান ,ফ্রান্স ছাত্র লীগ এর সভাপতি জনাব আশরাফুর রহমান ,বাংলাদেশ থেকে আগত ফটো সাংবাদিক জনাব ফোজিত শেখ বাবু প্রমুখ।


রোমের মাঠে এক টুকরো বাংলাদেশ

শনিবার, ২৯ এপ্রিল ২০১৭

ইসমাইল হোসেন স্বপন ,বাপ্ নিউজ : ইতালী থেকে: ঘড়ির কাটা আটটা ছাড়িয়েছে তবুও সন্ধ্যা নামার নাম নেই। মিহি বাতাসের হাড় কাপানো ঠান্ডা ঠেকাতেই বুঝি রোদের তাপ উঞ্চতা ছড়াচ্ছে।ওদিকে মাঠে আর মাঠের এক প্রান্তে মঞ্চ ঘিরে দৌড় ঝাপ চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি মঞ্চ সজ্জা সাউন্ড সিষ্টেম এ্যাডজাষ্ট করার হুটোপুটি।

Picture

রোমের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসতে শুরু করেছে বাঙালীরা। অধিকাংশই সপরিবারে। পাশের মাঠে ঘরোয়া লীগের খেলা চলছে। খেলা শেষ হতেই মাইকে অনুষ্ঠান শুরুর ঘোষণা।

alt

ধুমকেতুর প্রান পুরুষ বাংলাদেশ সমিতি ইতালীর সাবেক সভাপতি নুরে আলম সিদ্দিকী বাচ্চুর সঞ্চালনায় শুরু হয় অনুষ্ঠান। রোমের সিনিচছরা ইতালীয়নোর নেতা সিনর জান লুকা,ঢাকা থেকে আসা সিনিয়র সাংবাদিক মোহনা টিভির বার্তা বিভাগের প্রধান রহমান মুস্তাফিজ,ইতালীতে অবস্হানরত বাঙালী কমিউনিটির নেতা আতিয়ার রসুল কিটন, প্রবীন কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ব আবদুর রশিদ,বাংলাদেশ সমিতির সাধারন সম্পাদক এমদাদুল হক মৃধা,অলিউদ্দিন শামীম,জসিম উদ্দিন,কাজী মনসুর আহমেদ শিপু সহ অন্যরা মঞ্চে এলেন।

altalt

বৈশাখী শুভেচ্ছা বিনিময়ের পর শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আলোঝলমলে মঞ্চে শান্তা সিকদার ও মুহিব হাসানের ব্যাবস্হাপনায় সায়েরা হোসেন রানী,শারমিন জাহান সুবর্ণা ও মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম এর উপস্হাপনায় শুরু হয় নাচ গানের জমাটি অনুষ্ঠান।অর্পিতা সিকদার,বর্ষা দেবী,সুন্নাহ ও রুপ কথা রয়ের নাচে মোহিত মাঠে উপস্হিত হাজার খানেক দর্শক। ফাকে ফাকে গাইলেন স্হানীয় শিল্পী কাজী জাকারিয়া,রতœা বসাক,মোহাম্মদ সেলিম,সাদ শহীদ,মোহাম্মদ নাজিম,জাহাঙ্গীর আলম,আতিক হাজারি,রিপন,মশিউর,হেলাল রায়হান,পুতুল,বাবু বাঙাল,মনির,শান্তা চৌধুরী ও কিয়ারা দাস।

alt
রাত সারে ১১টা পর্যন্ত বাঙালীদের পাশাপাশি ইতালীয়ান ও ভারতীয়রাও উপভোগ করলেন অনুষ্ঠান।সব শেষে গাইলেন ঢাকা থেকে আসা চ্যানেল আই সেরা কন্ঠের মামুন,ক্লোজ আপ প্রতিযোগী শেফালী সারগাম ও মল্লিকা।সবে মেরাজের জন্য একদিন অনুষ্ঠান শুরু হয় আগেই,রাত সারে ৯ টায় সেদিন অনুষ্ঠান শেষ হয়।চারদিনের বাংলা বর্ষবরন অনুষ্ঠানে প্রতিদিনই বাড়তে থাকে দর্শকের সংখ্যা শেষ দিনতো হাজার ছাড়িয়েছে দর্শক শ্রোতা।

alt
জনপ্রিয় সব বাংলা গান,বিশেষত ব্যান্ড,লোকজ ও মুর্সিদী গানে নেচেছে দর্শক সারি।বৈশাখী মেলাকে ঘিরে মাঠের এক প্রান্তে খাবারের দোকানের পাশাপাশি ছিল মানিগ্রাম,ভোদা ফোনের প্যাভিলিয়ন,লায়লা ফ্যাশন হাজির করে বাহারি সব পোশাক। মঞ্জুর আহম্মেদ মঞ্জুর চমৎকার সাউন্ড সিষ্টেম ও মঞ্চ পরিকল্পনায় ছিল অন্যরকম বিচিত্রতা।সব মিলিয়ে চার দিনের রোমের মাঠটি যেন হয়ে ওঠে এক টুকরো বাংলাদেশ।আগামী বছর এমন আয়োজন হবে এমন প্রত্যাশী জানিয়ে আয়োজকরা ২৫ এপ্রিল রাতে ইতি টানেন এবারের আয়োজনের।


কানাডার শহরে শহরে মাসব্যাপী বর্ণাঢ্য বর্ষবরণ

বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৭

alt

পহেলা বৈশাখ উদযাপনকে উপলক্ষ্য করে টরন্টোর এলডন রোড সংলগ্ন পার্কিং লটের দেওয়ালে বাংলা সংস্কৃতিকে উপজীব্য করে বর্ণাঢ্য ম্যূরাল আঁকা হয়েছে। যাছিলো মূলধারার মানুষের কাছে আকর্ষণীয়।  গত ১৪ এপ্রিল থেকে ৬ মে পর্যন্ত প্রতিটি উইকএন্ডে বর্ষবরণের অনুষ্ঠান লেগেই আছে।  কানাডার বিভিন্ন শহরের অনুষ্ঠিত এবং অনুষ্ঠিতব্য বর্ষবরণের অনুষ্ঠানের সংবাদ একত্রিত করে সিবিএনএর পক্ষ থেকে  রিপোর্টটি তৈরী করা হয়েছে।

কানাডার অটোয়ায় বাংলাদেশ হাই কমিশনের বর্ষবরণ

কানাডার অটোয়ায় বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে বাংলা নববর্ষ ১৪২৪ কে স্বাগত জানিয়েছে বাংলাদেশ হাইকমিশন । বর্ষবরণের লক্ষ্যে দূতাবাসের উদ্যোগে নগরীর ঐতিহ্যবাহী ব্রন্সন সেন্টারে বৈশাখী মেলার আয়োজন করা হয় যেখানে অটোয়া, টরন্টো ও মন্ট্রিয়েল থেকে বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী যোগদান করেন। কানাডা ও অন্যান্য দেশের অতিথিরাও আসেন এ বৈশাখী মেলায়।

Picture

বাংলা নববর্ষ ১৪২৪কে স্বাগত জানিয়ে ও মেলার উদ্বোধন ঘোষণা করে কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশের মান্যবর হাইকমিশনার মিজানুর রহমান বলেন, বাঙালী সংস্কৃতি এবং আমাদের দেশজ কৃষ্টিকে তুলে ধরা এ বৈশাখী মেলার অন্যতম উদ্দেশ্য। এতে স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণের জন্য তিনি সকলকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বর্তমান সরকার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গঠনের লক্ষ্যে কাজ করে চলেছে। তারই আলোকে কানাডা প্রবাসীদের কল্যাণে সচেষ্ট রয়েছে বাংলাদেশ হাই কমিশন। তাই কানাডার মতো এই দূর প্রবাসে বাঙালী সংস্কৃতির বিকাশ ও প্রসারে বাংলা নববর্ষ উদযাপন ও বৈশাখী মেলার আয়োজন খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। ভবিষ্যত প্রজন্মের মাঝে বাঙালী সংস্কৃতিকে উৎসাহ দান ও সম্প্রসারণে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্ববান জানান তিনি।

alt

ঐতিহ্যবাহী বাংলা গান ও সুরের ঝংকারে সুস্বাদু বাঙালী খাবারের আপ্যায়নের মধ্য দিয়ে পহেলা বৈশাখে নতুন বছরকে বরণ করে নেয়া হয়।

মেলার স্টলগুলোর অন্যতম ছিলো "Movement for Deportation of Killer Nur Chowdhury" আন্দোলন, যার মাধ্যমে বাংলাদেশী কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনী নুর চৌধুরীকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর লক্ষ্যে মেলায় আগত অতিথিদের গণস্বাক্ষর সংগ্রহ করেন। এ বিষেয়ে গণস্বাক্ষর সংগ্রহের অনুরোধ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন মিসেস সোমা সাইফুদ্দিন। বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রথম স্টলে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের তথ্যসমৃদ্ধ গ্রন্থ, বঙ্গবন্ধুর ছবি এবং বাংলাদেশের রপ্তানী বাণিজ্য, পর্যটন, গ্রাম-বাংলার জীবন, পালা-পার্বন ও উৎসবের প্রতীকসমৃদ্ধ বিভিন্ন স্মারক ডিসপ্লে করা হয়। হাইকমিশনের দ্বিতীয় স্টলে অতিথিদের দেশীয় বিভিন্ন খাবারে আপ্যায়নও করা হয়। গত ১৭ই মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখে মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মদিনে কানাডার বিভিন্ন শহরে হাইকমিশন আয়োজিত শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা থেকে প্রাপ্ত নির্বাচিত চিত্রকর্মের প্রদর্শনী মেলায় যোগ করে বাড়তি আকর্ষণ, যা মুগ্ধ করে আগত অতিথিদের।

 বিভিন্ন পসরা নিয়ে সাজানো স্টলগুলোর মধ্যে ছিলো এ্যালাইভ এডুকেশন (বিকল্প শিক্ষাদান প্রতিষ্ঠান), বাংলা ক্যারাভান, কবি-লেখক মোহসীন বখতের বইয়ের সংগ্রহ, নার্গিস বুটিক, ফিউশন বুটিক এবং'ডানা'স কুইসিন'(বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশীয় খাবারের দোকান)।

alt

অনুষ্ঠানের সাংস্কৃতিক পর্বের আগে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষ্যে আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে সার্টিফিকেট বিতরণ করেন কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশের মান্যবর হাই কমিশনার মিজানুর রহমান ও তাঁর সহধর্মিনী মিসেস নিশাত রহমান। "Bangabandhu, The Greatest Leader" বিষয়ে রচনা প্রতিযোগিতায় 'ক' গ্রুপে (বয়স ৫-১০) প্রথম হয় তাসমিয়াহ খান; দ্বিতীয় দেওয়ান ফাতিমা সাইয়িদা এবং তৃতীয় আরিয়ানা আলিশা চৌধুরী। 'খ' গ্রুপে (বয়স ১১-১৬ বছর) প্রথম হয় সন্দীপন সাহা, দ্বিতীয় ওয়াফা ইসলাম এবং তৃতীয় ফাইকা শিকদার।

মঞ্চে সঙ্গীত পরিবেশন করেন সাখাওয়াত হোসেন (বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রথম সচিব), রিজওয়ানা আলমগীর, শিশির শাহনেওয়াজ এবং শিশুশিল্পী তাথৈ। সমবেত কন্ঠে "এসো হে বৈশাখ এসো এসো" এবং "টাকডুম টাকডুম বাজাই বাংলাদেশের ঢোল" গেয়ে নতুন বছরকে স্বাগত জানায় শিশুশিল্পী এ্যালিসিয়া, ইস্টি, আলিনা, ওয়াজিদ এবং চন্দ্রিমা (হারমোনিয়াম ও নির্দেশনায় ডালীয়া ইয়াসমীন, তবলায় শুভঙ্কর)।  কবিতা আবৃত্তি করেন গিয়াস ইকবাল সোহেল এবং শিশু আবৃত্তিকার সানোভা। নাচ পরিবেশনায় দর্শকদের মুগ্ধ করে কারিনা দত্ত এবং শিশু নৃত্যশিল্পী লারিসা।অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রথম সচিব (বাণিজ্যিক) দেওয়ান মাহমুদ। সার্বিক নির্দেশনায় মিনিস্টার নাইম উদ্দিন আহমেদ এবং সমন্বয় ও ব্যবস্থাপনায় প্রথম সচিব আলাউদ্দিন ভুঁইয়া। হাইকমিশনের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী ও পরিবার সদস্যবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে অতিথিদের স্বাগত জানান এবং কূশল বিনিময় করেন।

alt

বাংলাদেশ হিন্দু এ্যাসোসিয়েশন অব মন্ট্রিয়লের বর্ষবরণ ১৪২৪

 বাংলাদেশ হিন্দু এ্যাসোসিয়েশন অব ক্যুইবেক, মন্ট্রিয়লের উদ্যোগে বাংলা নববর্ষ ১৪২৪ বর্ষবরণ উপলক্ষে মন্ট্রিয়লের সনাতন ধর্ম মন্দিরে গত ১৫ এপ্রিল শনিবার রকমারি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সকালে গনেশ পূজার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের কর্মসূচি শুরু হলেও বিকেলে মন্দির প্রাঙ্গনে মেলাসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিপুল সংখ্যক প্রবাসীদের মিলন মেলায় পরিণত হয়। বিকেল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পর্বগুলো উপস্থাপনা করেন শর্মীলা ধর, শক্তিব্রত হালদার মানু ও অনিন্দিতা রায় মিথিলা। অনুষ্ঠানের শুরুতেই শিশু শিল্পী ‘ঝুন ঝুন ময়না’ (নাচ) – রিশিতা ও রুদ্রানি,  ‘তোমরা কুঞ্জ  সাজাও গো’ (নাচ)- ভাবনা, ব্রিয়া, ‘মায়াবন বিহারিণী আমি নই’ (নাচ) – স্বাগতা ও সুমিতা, ‘নিশা লাগিলরে’ (নাচ) – অহনা, স্বাগতা, রামিয়া, শতরূপা ও পর্ণিকা’র অসাধারণ নৃত্য ছিলো খুবই সুন্দর। শুভ নববর্ষ উপলক্ষে সবাইকে শুভেচ্ছা জানান মন্দিরের পুরোহিত শ্রী রীতীশ চক্রবর্তী।   তারানা (নাচ) সুদেষ্ণা মৌলিক এর পরিচালনায় ক্লাসিক্যাল নৃত্য পরিবেশন করে  শিল্পী - অণুষ্কা রায়, অণুষ্কা চক্রবর্তী ও ইশা ধোতে। একটি দেশাত্মবোধক গান পরিবেশন করে শিশু শিল্পী উৎসব ও ঈশান।   জয় হোক’ (গান) এ অংশগ্রহণ করে মিত্তি, মোহিনী, প্রিয়ঙ্করী ও  পৌলমী। একক সংগীত পরিবেশন করেন তৃপ্তি দাস, তৃপর্ণা দে, শ্যামন্তি কর্মকার। মধুমিতা দে।পূরবী হালদার।পাপড়ি মিত্র ।গৌতম মিত্র । সুজাতা দেব।পুষ্পিতা দেব। সঞ্জীব কুমার দেব।সঞ্চিতা মজুমদার। সৌমিত্র কর সুমন। শর্মিষ্ঠা দেব।মুনমুন দেব।‘এসো হে বৈশাখ এবং এ দিন আজি কোন ঘরেগো (গান) , শর্মিলা ধর, রাখি চক্রবর্তী, লাকি চৌধুরী,  অনিন্দিতা রায় মিথিলা, মুন দেব রায়, কেয়া দত্ত।বাংলা নববর্ষে "লোকোজো" পরিবেশিত অনুষ্ঠান ।


সুইডেন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শোক সভা ও দোয়া মাহফিল

বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : ষাটের দশকের ছাত্রনেতা, ৬৯এর গনঅভ্যুল্থানকালীন জহুরুল হক হল(সাবেক ইকবাল হল) ভিপি সুইডেন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খালেদ হাশিম, সুইডেন আওয়ামী লীগের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা, মুজিব আদর্শের নির্ভিক সৈনিক মোঃ দেলোয়ার হোসেন ও বাংলাদেশের কিংবদন্তি কন্ঠ শিল্পি বীর মুক্তিযোদ্ধা লাকি আকন্দের এর আকশ্মিক মৃত্যুতে সুইডেন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভপতি মোঃ শামসুদ্দিন খেতু মিয়ার সভাপতিত্বে এবং সদ্য নির্বাচিত সুইডেন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক লাভলু মনোয়ারের সঞ্চালনায় ষ্টকহোমের স্কার্পনেকে ২৩ এপ্রিল দুপুর ২টায় একটি শোক সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

Picture

উক্ত শোক সভা ও দোয়া মাহফিলে বক্তব্য রাখেন সুইডেন আওয়ামী লীগ আহ্বায়ক কমিটির সাবেক যুগ্ন আহ্বায়ক কাজী মিরাজ, বিশিষ্ট কলামিষ্ট ও ব্লগার আরিফ মাহবুব, সুইডেনস্থ বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মাহফুজুর রহমান ভুইঁয়া, নাহার মমতাজ প্রমুখ। বক্তাগন প্রায়াতদের কর্মজীবনের উপর আলোকপাত করেন। দোয়া মাহফিল ও মোনাজাত পরিচালনা করেন আব্দুল মালেক জলিল ও একরামুজ্জামান।এছাড়া সভায় উপস্থিত ছিলেন শফিকুল আলম লিটন, হেদায়েতুল ইসলাম শেলী, আকরামুজ্জামান শাহিন, তৈয়বুর রহমান রিফুজ, নাজমুল খান, মনিরুল ইসলাম ভুইঁয়া, সাইফুল ইসলাম চুন্নু, আশরাফ খান, ফয়সাল আহমেদ, শরীফ দিদার, কাজী তুষার, রায়হান বিশ্বাস, সবুজ, হুমাউন, বাবুল ও মুজাহিদুল ইসলাম নওরোজসহ আরো অনেকে।

উল্লেখ্য, সুইডেন আওয়ামী লীগের সদ্য নির্বাচিত সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি জনাব মঞ্জুরুল হাসান মঞ্জু বর্তমানে বাংলাদেশে অবস্থান করায় উক্ত শোক সভা ও দোয়া মাহফিলে উপস্থিত থাকতে পারেন নাই।


মালয়েশিয়ায় অবৈধদের বৈধকরণের কার্যক্রম শুরু

বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৭

Picture

নিয়মাবলী
১. শ্রমিকদের নিজস্ব প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি বা চিঠির মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।
২. ইমিগ্রেশন হতে ভিসা স্টিকারপ্রাপ্তি সাপেক্ষে লেভি শোধ করতে হবে।
৩. রিহায়ারিং কর্মসূচির আওতায় বৈধতার মেয়াদ হবে ৩ থেকে ৫ বছর। তবে মালয়েশিয়া সরকার কর্তৃক অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান ছাড়া অন্য কোনো এজেন্ট বা দালালের মাধ্যমে রিহায়ারিং না করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

ই-কার্ড
পাসপোর্ট ও ভিসা না থাকলে কর্মরত প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে পূত্রাজায়া বা যে কোনো প্রদেশের ইমিগ্রেশন অফিসে গিয়ে বিনামূল্যে ই-কার্ড করা যাবে। এ সুযোগ আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত থাকবে। তবে ই-কার্ড পাওয়ার পর পাসপোর্ট না থাকলে শ্রমিকদের বাংলাদেশ হাইকমিশন থেকে পাসপোর্ট নিতে হবে এবং রিহায়ারিংয়ের কাজ শেষ করতে হবে।


জাপান আওয়ামী লীগের মুক্ত আলোচনা সভা

বুধবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৭

পি. আর. প্ল্যাসিড, বাপ্ নিউজ : টোকিও, জাপান থেকে : জাপানের রাজধানী টোকিওর কিতা ওয়ার্ডের আকাবানে ভিবিও হলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জাপান, ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগের ব্যানারে সম্প্রতি উম্মুক্ত আলোচনা সভার আয়োজন করে।সভায় সভাপতিত্ব করেন বিগত সম্মেলনের প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক উপদেষ্টা তাজউদ্দিন মাহমুদ রবি। প্রধান অতিথি এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক আওয়ামী লীগ সভাপতি কাজী মাহফুজুল হক লাল ও বঙ্গবন্ধু পরিষদ, জাপান শাখার প্রধান এমদাদ শেখ।

Picture

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাবেক ছাত্র নেতা আনোয়ার হোসেন সরকার।তাজউদ্দিন মাহমুদ রবি তার বক্তব্যে বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দুর্নীতি, জঙ্গিবাদ, স্বাধীনতাবিরোধী রাজাকার মুক্ত প্রশাসন সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়া ও বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষে ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগের বিকল্প নেই। তিনি তার বক্তব্যে অসাংবিধানিক, অগণতান্ত্রিক কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা এম এ মামুন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও আওয়ামী যুবলীগ নেতা এমডি আলামিন খান।


ফের নির্বাচনে লড়বেন টিউলিপ রুশনারা ও রূপা

সোমবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : আগামী ৮ জুন অনুষ্ঠিতব্য ব্রিটেনের নির্বাচনে আবারও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তিন ব্রিটিশ এমপি। তারা হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বোন শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ সিদ্দিক, রুশনারা আলী ও রূপা হক। ২০১৫ সালের নির্বাচনে লেবার পার্টি থেকে নির্বাচন করে তিনজনই জয়ী হয়েছিলেন।

এর আগে, গত মঙ্গলবার আচমকা আগাম সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের ঘোষণা দেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। পার্লামেন্টে তেরেসা মের মধ্যবর্তী নির্বাচনের প্রস্তাব পাস হওয়ার পর নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হয়েছে। আগামী ৮ জুন এ নির্বাচন করতে চান তিনি। হাতে আছে আর মাত্র ৫০ দিন।

প্রধানমন্ত্রীর আকস্মিক নির্বাচন ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছেন লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন। থেরেসা মে জানান, ব্রেক্সিটের মাধ্যমে তিনি ব্রিটিশ নাগরিকদের নিরাপদে রাখতে চেয়েছিলেন।

লন্ডনে জন্ম নেয়া টিউলিপ ২০১৫ সালের সাধারণ নির্বাচনে লেবার পার্টির মনোনয়ন নিয়ে হ্যাম্পসটেড ও কিলবার্ন আসনে এক হাজার ১৩৮ ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত হয়েছিলেন।

আসন্ন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার বিষয়ে টিউলিপ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘হ্যাম্পসটেড ও কিলবার্ন এলাকার সবার জন্য কঠোর পরিশ্রম চালিয়ে যেতে চাই।’

tulip20170422091954 চলতি বছরের শুরুতে পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট (ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে আসা) বিলের বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান নিয়েছিলেন টিউলিপ। এ কারণে তিনি লেবার পার্টির ছায়া মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগও করেন।

অপরদিকে গত নির্বাচনে কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতার পর স্বল্প ব্যবধানে জয়ী হয়েছিলেন লন্ডনের ইয়ালিং সেন্ট্রাল ও অ্যাকটনের বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি রূপা হক।

বেথানাল গ্রিন ও বো থেকে নির্বাচিত হওয়া রুশনারা আলী এবারও নির্বাচন করছেন। গত নির্বাচনে লেবার এমপি হিসেবে তিনি জিতেছিলেন ২৪ হাজার ৩১৭ ভোটে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৩ জুন ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে গণভোট অনুষ্ঠিত হয়। এই ভোটে ব্রেক্সিটের পক্ষে রায় দেন নাগরিকরা। ব্রেক্সিট ইস্যুতে দেশটির তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন পদত্যাগ করেন। পরে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন থেরেসা মে।

ওয়াশিংটন পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আগাম এ নির্বাচনে যদি তার দল কনজার্ভেটিভ পার্টি জয়ী হয় তাহলে ব্রেক্সিটে দলীয় এজেন্ডাকে প্রাধান্য দিতে পারবেন তিনি। কিন্তু যদি নির্বাচনে হেরে যান তাহলে ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্য ২৭ রাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনা অত্যন্ত জটিল হয়ে দাঁড়াবে।

দেশটিতে এই মুহূর্তে বিরোধী দল লেবার পার্টির চেয়ে জনপ্রিয়তায় ২০ পয়েন্ট এগিয়ে রয়েছে কনজার্ভেটিভ পার্টি। ২০২০ সাল পর্যন্ত ক্ষমতার মেয়াদ রয়েছে মে নেতৃত্বাধীন সংসদের।


মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ স্টুডেন্ট ইউনিয়নের বর্ষবরণ উৎসব

সোমবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৭

জহিরুল ইসলাম হিরন, বাপ্ নিউজ : মালয়েশিয়া থেকে :মালয়েশিয়ার ৫৫টির বেশি বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সংগঠন বাংলাদেশ স্টুডেন্ট ইউনিয়ন মালয়েশিয়ার উদ্যেগে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল প্রথম আন্তর্জাতিক স্টুডেন্ট কনভেনশন ও বাংলা বর্ষবরন অনুষ্ঠান।শনিবার রাজধানী কুয়ালালামপুরের সিতিয়াওয়াংসা দেওয়ান শ্রী ইস্কান্দারে দিনব্যাপি চলে এই বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠান । সকাল ১১টায় স্টুডেন্ট কনভেনশনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হলেও সকলের দৃষ্টিটা যেন শুধু বর্ষবরণের অনুষ্ঠানকে ঘিরে, বিকাল ৫টা থেকে শুরু হয় বর্ষবরণ ১৪২৪ এর মূল অনুষ্ঠান।

Picture

দিনব্যাপী আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে ছোটদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা,দৌড় প্রতিযোগিতা,মহিলাদের চেয়ার খেলা, কবিতা আবৃত্তি, নৃত্য,মেলা আকারে দেশীয় বিভিন্ন পণ্য সামগ্রী ও দেশীয় খানা-পিনার স্টল গুলো প্রবাসীদের বিশেষ ভাবে বিমোহিত করে,ছিল র‍্যাফেল ড্র এর ব্যবস্থাও। রাতে বাংলাদেশী ছাত্র ছাত্রীদের আয়োজনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি ছিল সবচেয়ে বেশি নজরকাড়া,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শুরুতে বাজানো বাংলাদেশের জাতীয় সংগীতটি সকলের মনে দোলা দেয় ।

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ শিক্ষার্থীদের অনুষ্ঠান হলেও মালয়েশিয়া বসবাসরত অনেক প্রবাসী বাংলাদেশী পরিবারের অনুষ্ঠানে আগমনে অনুষ্ঠানে যোগ হয় ভিন্ন মাত্রা ।বাংলাদেশ স্টুডেন্ট ইউনিয়ন মালয়েশিয়ার সভাপতি জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে ও অভিনেতা এবং মডেল তানভীর রহমান তনু ও শারমীন মৃত্তিকার প্রনবন্ত উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের ডিফেন্স উইং প্রধান এয়ার কমোডর হুমায়ন কবির,ফাস্ট সেক্রেটারি এস,কে শাহীন সহ মালয়েশিয়া বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়,কলেজে কর্মরত বাংলাদেশি শিক্ষকবৃন্দ,প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন গণমাধ্যমের সংবাদকর্মী।


মালয়েশিয়ায় এক্সপ্যাট গ্রুপের বর্ষবরণ

রবিবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৭

Picture

এ ছাড়া পান্তা-ইলিশসহ বাহারি রকমের খাবারের আয়োজন করা হয়। বর্ষবরণে পুরুষদের পাঞ্জাবি আর নারীদের সাদা শাড়ি বর্ণিল করে তোলে অনুষ্ঠান। মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের মিনিস্টার (পলিটিক্যাল) রইছ হাসান সারোয়ার, ড. আব্দুর রহমানসহ প্রবাসীরা উপস্থিত থেকে বর্ষবরণের অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।


আবুধাবিতে বাংলাদেশ সমিতির নতুন কমিটি

শনিবার, ২২ এপ্রিল ২০১৭

এম আবদুল মন্নান, বাপ্ নিউজ : সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে :সংযুক্ত আরব আমিরাতের স্থানীয় সরকার কর্তৃক অনুমোদনপ্রাপ্ত  প্রবাসী বাংলাদেশিদের একমাত্র সংগঠন বাংলাদেশ সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানী আবুধাবির একটি হোটেল মিলনায়তনে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

Picture

উপস্থিত সদস্যদের  মতামতের ভিত্তিতে আমিরাতের মিনিস্ট্রি অব কমিনিউটি ডেভলপমেন্ট এর কর্মকর্তা আহমেদ হুসাইন আমিনী পুনরায় প্রকৌশলী মোয়াজ্জেম হোসেনকে সভাপতি, আবদুস সালাম তালুকদারকে সাধারণ  সম্পাদক এবং নাছির উদ্দিন তালুকদারকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ২৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি অনুমোদন দেন। আগামী দুই বছরের জন্য অনুমোদন দেওয়া হয় এ কমিটি।সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল সালাম তালুকদার বিগত বছরের কার্যক্রম তুলে ধরেন। আয়-ব্যয় হিসাব উপস্থাপন করেন সমিতির সিনিয়র সহসভাপতি দিদারুল আলম। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আশিষ বড়ুয়া। 


স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের বৈশাখী আড্ডা

বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৭

Picture

গান, কবিতা, দেশে বাংলা নববর্ষ উদযাপনের স্মৃতিকথায় আড্ডাটি আনন্দমুখর হয়ে ওঠে। স্পেন প্রবাসী শিল্পী মঞ্জুরুল হাসান শুভ‘র গাওয়া ‘এবার জমবে মেলা বটতলা হাটতলা ...’ গান দিয়ে শুরু হয় বৈশাখী আড্ডার অনুষ্ঠান।

আড্ডায় বক্তব্য দেন স্পেন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি জাকির হোসেন, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি মো: জাকির হোসেন, প্রজন্ম ৭১ এর সভাপতি রিজভী আলম, স্পেন বিএনপি‘র আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আবু জাফর রাসেল, বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের প্রচার সম্পাদক সায়েদ মিয়া, হবিগঞ্জ এসোসিয়েশনে সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন প্রমূখ। আড্ডার ফাকে ফাকে কবিতা ও গান পরিবেশন করেন স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা মিনহাজুল আলম মামুন, রিজভী আলম, শাহিদ রহমান বাপ্পি, ইমরান খান প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে কেক কেটে স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সদস্য কবির আল মাহমুদের জন্মদিনও পালন করা হয়। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাহাদুল সুহেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেলিম আলম, সদস্য সাইফুল আমীন, আবু তাহের সাজু, শাহিনুর রহমান, শাহরিয়ার রহমান, আশরাফ বকসী পাবেল, আছলাম পারভেজ প্রমূখ। উপস্থিত সুধীজন বাংলা নববর্ষ বরণ করতে এমন জম্পেস আড্ডার আয়োজন করায়  স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সদস্যদের ধন্যবাদ জানান। অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত সুধিজনদের আপ্যায়ন করা হয়।