Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

প্রবাসীদের খবর

দুবাইয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর

বৃহস্পতিবার, ১২ নভেম্বর ২০১৫

Picture

৯ নভেম্বর সোমবার রাতে দুবাইয়ে সেন্টার ফর এনআরবি কর্তৃক আয়োজিত ওয়ার্ল্ড কনফারেন্স সিরিজ ১৫ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। দুবাইয়ের ক্রাউন প্লাজা হোটেলের বলরুমে এই কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়।এনআরবির চেয়ারপারসন এম এস শাকিল চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দুবাইয়ে বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান, জনতা ব্যাংকের আরব আমিরাতের সিইও মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন ও বাংলাদেশের স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের সিইও আব্রাহাম আনোয়ার। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ব্যবসায়ী মোহাম্মদ রাজা মল্লিক, জহুরুল ইসলাম, মাহবুবুল আলম, সাইফুল ইসলাম তালুকদার, শিবলী আল সাদিক, ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, নাসিম উদ্দিন, মাওলানা আবদুল্লাহ আল মামুন, জাকির হোসেন, আল মামুন সরকার, ড. তানভির আহমেদ, সিরাজুল ইসলাম, নুর মোহাম্মদ ও মাহবুব হাসান প্রমুখ।


টরন্টো শহরে হয়ে গেল একটি অনন্য কবিতাসন্ধ্যা

মঙ্গলবার, ১০ নভেম্বর ২০১৫

Picture

বাপসনিঊজ:টরন্টোর আবৃত্তি সংগঠন বাচনিক পরিবেশন করল আনন্দ ভৈরবী শিরোনামের নানা স্বাদের কবিতা আর কবিতার উচ্চারণের সঙ্গে নৃত্যের ঝংকার। ৭ নভেম্বর শনিবার রাতে সিনেটর ওকোনর কলেজ স্কুলের অডিটোরিয়ামে এই কবিতাসন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়।

বক্তব্য দিচ্ছেন কবি আসাদ চৌধুরী
বাচনিকের বন্ধুরা অক্লান্ত পরিশ্রম করে আনন্দ ভৈরবীতে যে আয়োজন করলেন তা কানায় কানায় সার্থকতা পেয়েছে। অগণিত দর্শকদের শেষ পর্যন্ত স্থির বসে থেকে তাদের অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। একটি অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিকতার সার্থকতার চেয়ে পরিবেশনার নিখুঁত সমাপ্তিই প্রধান। বাচনিক তা করতে পেরেছে বলে দর্শক-শ্রোতাদের বিশ্বাস। দিনের পর দিন অক্লান্ত পরিশ্রম করে বাচনিকের প্রতিটি সদস্য শনিবার রাতে দর্শকদের সামনে অসাধারণ নান্দনিক অনুষ্ঠান করে তা প্রমাণ করেছেন।সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়ার পরও অনুষ্ঠান স্থলে কিছু ত্রুটি থেকেই যায়। ছোটখাটো সেই ভুলত্রুটি ছাপিয়ে বাচনিক একটি অনন্য অনুষ্ঠান উপহার দিয়েছে। এ জন্য বাচনিকের প্রতিটি সদস্য অভিনন্দনযোগ্য। কিন্তু তার চেয়ে বড় অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা শ্রোতাদের। যারা বাচনিকের পরিবেশনায় শুরু থেকেছে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত উপস্থিত ছিলেন।

কবিতাসন্ধ্যায় উপস্থিতি
কবি আসাদ চৌধুরী মঙ্গল প্রদীপ জ্বালিয়ে বাচনিকের আনন্দ ভৈরবী কবিতাসন্ধ্যার অনুষ্ঠানকে গৌরবান্বিত করেছেন। এ জন্য কবির প্রতি বাচনিকের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।টরন্টোর সাংস্কৃতিক অঙ্গনের অসংখ্য গুণীজন আনন্দ ভৈরবীতে উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানকে সার্থক করেন। মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বলনের সময় উপস্থিত ছিলেন কবি মেহরাব রহমান, শিল্পী সৈয়দ ইকবাল, কবি রোকসানা লেইস, সাদী মোহাম্মদ, লেখক-সম্পাদক বিদ্যুৎ সরকার, সাংবাদিক শওগাত আলী সাগর, লেখক জসিম মল্লিক, নাট্যজন হাবিবুল্লাহ দুলাল, উমামা নওরোজ ইত্তেলা, মিঠুন রেজা, দেলওয়ার এলাহী ও তাসনিম আহমেদ প্রমুখ। বাচনিকের পক্ষ থেকে তাদের সবাইকে কৃতজ্ঞতা জানানো হয়। সাউন্ড সিস্টেমে অমি রনি, তবলায় রনি পালমার, কি বোর্ডে মামুন কায়সার বাচনিকের অনুষ্ঠানকে পরিপূর্ণতা দান করেছেন। আনন্দ ভৈরবী যদি দর্শক শ্রোতারা উপভোগ করেন তবেই বাচনিকের শিল্পীদের অক্লান্ত পরিশ্রম সার্থক হবে। ভবিষ্যতে আরও অনুষ্ঠান করার পরিকল্পনা রয়েছে বাচনিকের। ব্যারিস্টার চয়নিকা দত্তকে কৃতজ্ঞতা জানাই বাচনিকের সঙ্গে আন্তরিকভাবে থাকার জন্য।


কোন ষড়যন্ত্র শেখ হাসিনা এর অগ্রযাত্রা থামাতে পারবে না -ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ

সোমবার, ০৯ নভেম্বর ২০১৫

ড. বিদ্যুত বড়ুয়া :বাপসনিঊজ:৮ নভেম্বর , ২০১৫ -জাতীয় চার নেতা হত্যা দিবস ৩ নভেম্বর  - জেল হত্যা দিবস   উপলক্ষে ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় করেন ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ এর সভাপতি জনান মোহাম্মদ আলী মোল্লা লিঙ্কন এর সভাপতিত্বতে  এর  ও সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুত বড়ুয়া সঞ্চালনায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  হয় ।

Picture

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন , জাতীয় চার নেতা রক্ত দিয়ে প্রমান করেছে  বঙ্গবন্ধুর সাথে বেইমানি করেনি কোনদিন। বঙ্গবন্ধুর প্রতি আনুগত্য ওরা রক্ত দিয়ে প্রমান করেছে তেমনি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে রক্ষার জন্য সকল ষড়যন্ত্র এর বিরুদ্ধে তাজউদ্দিন ,মনসুর আলী, কামরুজ্জামান ,ও সৈয়দ নজরুল এর আনুগত্য সম্পন্ন নেতা তৈরী করতে হবে আরো বেশি, তাহলে বঙ্গকন্যা শেখ হাসিনা আরো বেশি শক্তিশালী হয়ে  দেশের উন্নয়নে কাজ করতে পারবে। ১৬ কোটি মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা এর মত   অদম্য সাহসী নেতৃত্ব দরকার। শেখ  হাসিনা  এর নেতৃত্ব আজ শুধু বাংলাদেশে সমাদৃত নয় বিশ্ব দরবারে প্রশংসিত। উপস্থিত ছিলেন সহসভাপতি আ ন  ম আরিফ খালেক ,জনাব ইকবাল মিঠু , জাহেদ চৌধুরী বাবু ,জামাল  আহমেদ ,সুমি দাশ , যুগ্ম-সম্পাদক জনাব সাব্বির আহমেদ মুন্সী , সামি দাশ ,জাহাঙ্গীর আলম , সাংগঠনিক সম্পাদক মানজুর আহমেদ লিমন , জনাব মোতালেব ভুইয়া , বোরহান  উদ্দিন , মোহাম্মদ ইউসুফ হিল্লোল বড়ুয়া , আমির হোসেন ,আবু সাইদ রবিন , রেজাউল হক ,কাউসার আহমেদ সুমন ,রেজাউল করিম , বেলাল হোসেন রুমি ,তায়মুল শোয়েব ,হুমায়ুন কবির রানা,  শাহ আলম ,সেতু আহমেদ ,কবির আহমেদ , শাহজালাল পিন্টু ,খাদিজা খাতুন মিনি ,কোহিনুর আখতার মুকুল ,ডা. অমিত কুমার রায়, শামসুল আলম চৌধুরী , সাফিউল সাফী , আব্দুল্লাহ আল জাহিদ ,আবু আশরাফ মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ ,নিহারুল ইসলাম রুম্মান , মোহাম্মদ রাব্বী ,কচি মিয়া ,রাশেদুল হাসান রুবেল ,সুমন দাশ ,বদিউজাম্মান শান্ত ,মাহফুজুর রহমান নয়ন এ কিউ এম হ্যাপী ,সবুজ মল্লিক , অধ্যাপক টুটুল ,জামাল আহমেদ সোহাগ ,শাহীন মিয়া , মোকলেসুর রহমান , পরাগ পারিয়াল ,দীপঙ্কর পাল ,সুজন সাহা , দেবাশিস বড়ুয়া মোহাম্মদ নাজমুল ,মোহাম্মদ আরাফাত ,শামসুদ্দিন  ইয়াকিন ,সৈয়দ পাভেল ,নাসির রানা ,প্রত্যয় সাহা , কাজী হামিদ , রাইসুল রাহান ,মোহাম্মদ শহীদ ,মিজানুর রহমান , সুমন বিশ্বাস ,কানাই  পোদ্দার ,মাইনুল হাসান ,হুমায়রা আখতার জাসিয়া , লিন্ডা হাসান, জাহেদুর রহমান ,অমিত বড়ুয়া  , মাকসুদুল হাসান সহ , মোহামদ কামাল, আশিক কামাল আরো অনেকেএছাড়াও যুবলীগ ডেনমার্ক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জামিল আখতার কামরুল ও সাধারণ সম্পাদক আমির জীবন এবং ডেনমার্ক ছাত্রলীগ সভাপতি ইফতেখার সম্রাট ও সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির নিরু সহ আরো অনেকে।


এমআরপির ভ্রাম্যমাণ ক্যাম্পে দীপু মনি

সোমবার, ০৯ নভেম্বর ২০১৫

Picture
জোহর বারুতে কর্মরত বাংলাদেশি শ্রমিকদের সুবিধার্থে মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশন গত ১৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ কমিউনিটি অব জোহর বারুর সহযোগিতায় পানদান সিটিতে এই ভ্রাম্যমাণ ক্যাম্প স্থাপন করেছে। এর আগে জোহর বারু প্রদেশে কর্মরত বাংলাদেশিদের কষ্ট করে কুয়ালালামপুরে যেতে হতো।
দীপু মনিকে বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতারা ফুল দিয়ে স্বাগত জানান। তিনি মেশিন রিডেবল পাসপোর্টের জন্য আঙুলের ছাপ দিতে আসা সবার খোঁজখবর নেন। দীপু মনি সমবেত প্রবাসীদের উদ্দেশে বলেন, বর্তমান সরকার জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। প্রবাসীদের সমস্যা নিয়ে মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেছি। এ সব সমস্যা দূর করার ব্যাপারে তিনি আশ্বাস দিয়েছেন। আশা করি আরও বাংলাদেশি শ্রমিক মালয়েশিয়া কাজ করতে আসবেন।
পরে তিনি কয়েকজন প্রবাসী বাংলাদেশিদের হাতে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট বিতরণ করেন।

ক্যাম্পে মেশিন রিডেবল পাসপোর্টের জন্য আসা বাংলাদেশিরা
এ সময় উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়া নিযুক্ত হাইকমিশনার মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম, লেবার কনস্যুলার সাইদুল ইসলাম, প্রথম সচিব এস কে শাহিন, লেবার উইং শাহিদা সুলতানা, বাংলাদেশ কমিউনিটি অব জোহর বারুর সভাপতি মোহাম্মদ তরিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক এম জে আলম, ঊর্ধ্বতন সহসভাপতি এমডি ফাহিম, সহসভাপতি জাকির হোসেনসহ তারিকুল ইসলাম, মো. জয়নাল আবেদিন, শাহজাহান আহমেদ, মো. বাবলু, আব্বাস আলী, মো. জিল্লাল, তপন রানা, নজরুল ইসলাম, দেলোয়ার হোসেম, শামীম এজাজ, রুহুল আমিন, মো. মান্নান ও মো. জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।


সৌদি আরবের জেদ্দায় সৌদি আরব নবীন লীগ

শনিবার, ০৭ নভেম্বর ২০১৫

এ,বি,এম বুলবুল আহমেদ :বাপসনিঊজ:আয়োজিত জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে । উক্ত সভায় সংগঠনের সাধারন সম্পাদক ওয়াদুদ করিমের পরিচালনায় সভায় সভাপতিত্ব করেন সৌদি আরব আওয়ামী নবীন লীগের সভাপতি হোসেন মোহাম্মেদ নাহিদ । অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেদ্দা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি মার্সেল কবির পান্নু , এতে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেদ্দা বঙ্গ্বন্ধু স্বৃতি সংসদের ভারপাপ্ত সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান , বিশেষ অতিথি জেদ্দা জাতীয় শ্রমীক লীগের সহসভাপতি জালাল মুল্লা , কুরবান আলী বিশ্বাষ ,

Picture

উক্ত সভায় বক্তব্য রাখেন ংশুঢ়ব মাধ্যমে বাংলাদেশ আওয়ামী নবীন লীগের প্রতিষ্টাতা ও সভাপতি লুৎফুর রহমান সুইট , বাংলাদেশ আওয়ামী নবীন লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য সেলিম আহমেদ , মুমিনুল ইসলাম বাপন , মোঃ মামুন রাজন , সাঈদ ইসলাম , মোঃ জুলফিকার মিজান , সেলিম রানা , আলা উদ্দিন , তুফাজ্জল ইসলাম সহ আরো অনেকেই । বক্তারা বলেন জাতীয় চার নেতাকে জেলের মধ্যে যারা নির্মম ভাবে হত্যা করেছে হত্যাকারীকে বিদেশ থেকে ইন্টারফুলের মাধ্যমে দেশে এনে সাশস্তির দাবি করেছেন


‘'জনমত' রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবি রাখে’

শুক্রবার, ০৬ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:লন্ডন:বাঙ্গালীর স্বাধিকার আন্দোলন ও একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধসহ প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনে প্রবাসে অনবদ্য ভূমিকা রেখেছে 'জনমত'। 'জনমত' অবশ্যই বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবি রাখে।বুধবার স্থানীয় সময় রাতে লন্ডনে ব্রিটেনের প্রাচীনতম বাংলা সাপ্তাহিক 'জনমত' এর কার্যালয় পরিদর্শনে এসে বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এই মন্তব্য করেন। মন্ত্রী জনমত কার্যালয়ে এসে পৌঁছলে সম্পাদক নবাব উদ্দিন সহকর্মীদের নিয়ে তাঁকে স্বাগত জানান। এ সময় জনমত সম্পাদকের সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী সম্পাদক সাঈম চৌধুরী, বার্তা সম্পাদক মোসলেহ উদ্দিন আহমদ, পলিটিক্যাল এডিটর ইসহাক কাজল, বিশেষ প্রতিনিধি ও লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি মাহবুব রহমান, কমিউনিটি নিউজ এডিটর মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়া, সাব এডিটর নাজমুল ইসলাম, গ্রাফিক ডিজাইনার অপু রায়, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের ফ্যাসিলিটি সেক্রেটারি সালেহ আহমদ ও জনমত এর টাওয়ার হ্যামলেটস প্রতিনিধি আহাদ চৌধুরী বাবু প্রমুখ। মন্ত্রীর সাথে ছিলেন বাংলাদেশের মিনিস্ট্রি অব সিভিল এভিয়েশন ও ট্যুরিজম এর জয়েন্ট সেক্রেটারি নিখিল রঞ্জন রায়।

Picture

জনমত পরিবারের সদস্যসহ অন্যান্য সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়ে মন্ত্রী বলেন, 'বিলেতের প্রাচীনতম বাংলা সাপ্তাহিক জনমত এর সাথে আমার সম্পর্ক দীর্ঘ দিনের। জনমতের সাবেক সম্পাদক এটিএম ওয়ালি আশরাফের সময়কাল থেকেই আমি বিভিন্ন সময়ে জনমত অফিসে এসেছি।'

জনমতকে বিলেতে বাঙালি কমিউনিটির সবচেয়ে প্রিয় সংবাদপত্র হিসেবে উল্লেখ করে মেনন বলেন, 'বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামে প্রবাসের প্রাচীনতম এই পত্রিকাটি অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। নতুন প্রজন্মের কাছে দেশের খবর পৌঁছে দিতে জনমত এর অবদান অনস্বীকার্য।' তিনি সাপ্তাহিক জনমত এর রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি প্রদান বিষয়ে বলেন, 'জনমত যাতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি লাভ করে এর জন্য গত বছর আমি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রস্তাব করেছি। প্রয়োজনে এ ধরনের সম্মাননা প্রদানের জন্য যে কমিটি রয়েছে তাদের কাছে বিষয়টি আবার উপস্থাপন করবো'।

তিনি বলেন, 'আমি বিশ্বাস করি, প্রবাসে দেশকে চেনাবার, জানাবার লক্ষ্যে জনমত দীর্ঘ ৪৭ বছর থেকে যে গুরু দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে তার জন্য রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি জনমত এর প্রাপ্য।'

উল্লেখ্য, ১৯৬৯ সালে জন্ম নেয়া 'জনমত' দেশের বাইরের একমাত্র বাংলা সাপ্তাহিক যা কোন বিরতি ছাড়াই দীর্ঘ ৪৬ বছর ধরে প্রকাশিত হয়ে আসছে।


বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সম্মেলন ৬ মার্চ,২০১৬

বৃহস্পতিবার, ০৫ নভেম্বর ২০১৫

ড.বিদ্যুত বড়ুয়া ,বাপসনিঊজ::হেগ , হল্যান্ড -: গতকাল হল্যান্ডের হেগ শহরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর আগমন সর্ব ইউরোপ আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশগুপ্ত ও সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি সহ উর্ধতন নেতৃবৃন্দের সম্মিলন ঘটে। সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশগুপ্ত ও সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি এর সাথে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ সভাপতি বজলুর রশিদ বুলু , সহ সভাপতি মোহা শহিদুল হক, শ্রমিক লীগের সভাপতি আবুল কাশেম সহ বেলজিয়াম আওয়ামী যুবলীগ এর  সভাপতি এম এম মোর্শেদ  সহ অনেকের সাথে সাংগঠনিক বৈঠক এর সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ৬ মার্চ ,২০১৬ বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সম্মেলন এর তারিখ নির্ধারণ করা হয়।বাপসনিঊজ
এছাড়া ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম , সাবেক সভাপতি ও ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তত কমিটির আহবায়ক নাজিম উদ্দিন আহমেদ এর সাথে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের শ্রী অনিল দাশগুপ্ত ও সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি এর সাথে সাংগঠনিক বৈঠকে আগামী ১৬-১৮ এর নভেম্বর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর আগমন উপলক্ষে ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক কর্মকান্ডের খবর নেন। আগামী ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সম্মেলন সুষ্ট ও যথাযত ভাবে করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।


ফখরুল-গয়েশ্বরসহ গ্রেফতাকৃকদের মুক্তি দাবি ফিনল্যান্ড বিএনপির

বৃহস্পতিবার, ০৫ নভেম্বর ২০১৫

জামান সরকার,বাপসনিঊজ: হেলসিংকি:বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের জামিন বাতিলের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) ফিনল্যান্ড শাখা।এক যৌথ বিবৃতিতে এ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দলের নেতৃবৃন্দ বলেছেন,বাংলাদেশের মানুষ আজ চুয়ান্ন হাজার বর্গকিলোমিটারের একটি কারাগারে আবদ্ধ। দেশের সাধারন মানুষ আজ নিরাপত্তাহীন। হত্যা-গুম-খুন এখন ডাল-ভাতে পরিণত হয়েছে।

11042015_17_FIN_BNP

তারা আরও বলেন, জনগণ দেশের প্রত্যেকটি হত্যাকান্ডের বিচার চায়। অত্যন্ত দু:খজনক হলেও সত্য যে, সরকারের সাথে থাকা কিছু পরগাছা, যাদের কোন জনসমর্থন নাই কিন্ত তারা এই সরকারের কাধে ভর করে মন্ত্রী হয়েছে। তারা ক্রমাগত অতীব অন্যায়ভাবে বিএনপিকে অভিযুক্ত করছে। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি দুঃশাসনের অবসান ঘটিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। ফিনল্যান্ড বিএনপির নেতৃবৃন্দ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়সহ দলের গ্রেফকাকৃত সকল নেতাকর্মীদের মুক্তি দাবি করেন।

যৌথ বিবৃতিতে স্বাক্ষরকারীরা হলেন, ফিনল্যান্ড বিএনপির সভাপতি জামান সরকার, সাধারন সম্পাদক মবিন মোহাম্মদ, সিনিয়র সহসভাপতি মোকলেসুর রহমান চপল, সহসভাপতি এজাজুল হক ভূঁইয়া রুবেল, বদরুম মনির ফেরদৌস, আওলাদ হোসেন, প্রদীপ কুমার সাহা, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান মিঠু, সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী সামসুল আলম, আবদুল্লাহ আল মাসুদ, যুগ্ম সম্পাদক আলাউদ্দিন আহমেদ, আবুল কালাম আজাদ, নিজাম আহমেদ, তাজুল ইসলাম, আনোয়ার হোসেন, সাইফুর রহমান সাইফ, মোস্তাক সরকার, আশরাফ উদ্দিন, মনিরুল ইসলাম, সোলেমান মো. জুয়েল, সাজ্জাদ মুন্না, নূরুল ইসলাম, সাগর, আরিফুজ্জামান বাবু, মামুন হোসেন, মুকুল হোসেন, সবুজ খান, রাসেল খান, জুয়েল, হাসিব উদ্দিন, শাকিল নেওয়াজ, সাজিদ খান জনি, এমরান হোসেন খান, নজরুল ইসলাম, ফাহমিদ-উস-সালেহীন প্রমুখ।


জেল হত্যা দিবস এর আলোচনা সভায় সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ

বৃহস্পতিবার, ০৫ নভেম্বর ২০১৫

সকল ষড়যন্ত্র এর বিরুদ্ধে সজাগ থাকতে হবে আওয়ামী লীগ কর্মীদের
বাপসনিঊজ:জাতীয় চার নেতা হত্যা দিবস দিবস উপলক্ষে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ  হল্যান্ড এর হেগ শহরে সুইট স্পিস রেস্টুরেন্টে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশ গুপ্ত এর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক জনাব এম এ গনি এর পরিচালনায় আলোচনা সভায় শ্রী অনিল দাশগুপ্ত বলেন , বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা এর বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহবান জানেন। আমাদের একতাবদ্দ হয়ে অতীতের মত সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।  সোশ্যাল নেটওয়ার্ক এ বিএনপি জামাত এর বিরুদ্ধে লেখার আহবান জানান। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন বাংলাদেশকে উন্নয়ন ও সুশাসন এর মাধ্যমে বিশ্বদরবারে হাজির করেচেন তখন বিএনপি জামাত এর অপশক্তি রাহুগ্রাস করতে চায়। জনাব এম এ গনি বলেন , ২০০৭ এর  ১/১১ কথা সবাইকে স্মরণ  করে বলেন  ,সেই সময়ে ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সব দেশের নেতৃবৃন্দ দেশে দেশে যেইভাবে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার জন্য ঝাপিয়ে পড়েছিল তেমনি একই ভাবে বর্তমান সরকারের সফলতার কথা বিশ্ব বাসীকে জানাতে হবে। বঙ্গবন্ধু জাতির জনক ও জাতীয় চার নেতা হত্যা করে বাঙালি জাতির ভাগ্য ও উন্নয়নকে পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। বর্তমান আমাদের বাঙালি জাতির সম্পদ হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা।  আমাদের ঐক্যবদ্দ হয়ে দেশের জন্য কাজ করতে হবে। যুক্ত্যরাজ্জ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব সুলতান শরীফ বলেন , একতাই  শক্তি  শেখ হাসিনা তেই বাংলাদেশের  মুক্তি।  আর কোন জাতীয় চার নেতা হত্যার মত কোন ঘটনা যাতে ঘটতে না পারে সেই জন্য আমাদের চোখ কান খোলা  রাখতে হবে।  জয়বাংলার শক্তিতে বলিয়ান হতে হবে সবাইকে।

Picture
উল্লেখ যোগ্যদের  মধ্যে বক্তব্য করেন  ,যুক্ত্যরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারজ্জামান  চৌধুরী ,সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের  যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক , এম নজরুল ইসলাম হাসনাত মিয়া ,হল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব মায়ীদ ফারুক ও সাধারণ সম্পাদক জনাব মোস্তফা জামান , যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক মুরাদ খান ,জার্মান আওয়ামী লীগের সভাপতি বশিরুল হক সাবু ,ফ্রান্স আওয়ামী লীগের এম নাজিম উদ্দিন , সভাপতি বেনজির আহমেদ সেলিম ,সাধারণ সম্পাদক  মো আবুল  কাশেম ,ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব মোহাম্মদ আলী মোল্লা লিংকন ,সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুত বড়ুয়া, ইতালি আওয়ামী লীগের সভাপতি  ইদ্রিস ফারাজী ,সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল,যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক এম এ  রব মিন্টু ,স্পেন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাকিল খান পান্না ,,পর্তুগাল আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি রাফীক উল্লাহ , সহসভাপতি মহসীন হাবিব ভুইয়া ,যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম  বাবলু ,বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সভাপতি বজলুর রশিদ বুলু , জনাব শহীদুল হক  , সাধারণ সম্পাদক পলিন মনির ,সুইডেন আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম আম্বিয়া ঝন্টু , সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির , সহ সভাপতি ড. ফরহাদ আলী খান ,রানা খান , আয়ারল্যান্ড আওয়ামী লীগের রফিক খান , গ্রিস আওয়ামী লীগের মান্নান মাতব্বর ,যুক্ত্যরাজ্য যুবলীগের সভাপতি জনাব ফকরুল ইসলাম মধু , সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমেদ খান , সুইডেন যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান , সাধারণ সম্পাদক যোবায়দুল হক সবুজ , ডেনমার্ক ছাত্রলীগ সভাপতি ইফতেখার সম্রাট সহ প্রমুখ।


কাউন্সিল অধিবেশনকে কেন্দ্র করে একটি মহল সুইডেন আওয়ামী লীগকে বিভক্ত করার চক্রান্তে লিপ্ত

বৃহস্পতিবার, ০৫ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:আগামী ২১ নভেম্বর কাউন্সিল অধিশেন ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে সুইডেন আওয়ামী লীগের একটি নতুন কার্যকরী কমিটি গঠিত হবে- সুইডেনে বসবাসরত বঙ্গবন্ধুর অগনিত সৈনিকরা এটাই প্রত্যাশা করেন। কিন্তু সুবিধাবাদী ও ক্ষমতালোভী অনুপ্রবেশকারীদের কাছে সুইডেন আওয়ামী লীগের দীর্ঘদিনের দুর্দিনের সাহসী ও খাটি আদর্শের সৈনিকরা আজ চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন। ক্ষমতার লোভে অন্ধ হয়ে দীর্ঘদিনের চলার সাথী সুইডেন আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি গোলাম আম্বিয়া ঝন্টু দলীয় আদর্শের একনিষ্ঠ নির্ভিক খাটি কর্মিদের ফেলে আজ সুবিধাবাদীদের খপ্পরে পড়েছেন। এখন তিনি ক্ষমতাকে পাঁকাপোক্ত করার জন্য দলীয় গঠনতন্তকে আড়াল করে এবং সুইডেন আওয়ামী লীগের কার্যকরী পরিষদের একক সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যদের মতামতকে উপেক্ষা করে নিজের ইচ্ছামত একতরফা ভাবে দল পরিচালনা করছেন নিজের ও সুবিদাভোগী কিছু সদস্যদের স্বার্থে। অথচ দীর্ঘদিন যারা তাকে সভাপতি বানিয়ে রেখেছিলেন- যাদের পরিশ্রমে ও প্রচেষ্টায় আয়োজিত সভা ও কর্মসূচীতে শুধু ফিতা কেটে ও ভাষন দিয়ে উনার দায়ীত্ব পালন করে এসেছেন-তাদেরই আজ দল থেকে বাদ দিতে আপকৌশলে লিপ্ত রয়েছেন। উনার এক সময়ের বিশ্বস্ত সহ সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ লিটন, সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির, মাসুম বারী ও সিরাজুল হক খান রানা সহ অনেক নেতাকর্মি যারা ছায়ার মত সভাপতির সাথে ছিলেন- যারা সমস্ত কাজের দায়ভার নিয়ে নিন্দিত হয়েছেন; কিন্তু সভাপতির গাঁয়ে আঁচড় লাগতেও দেন নাই- তারাই আজ তার কাছে অবাঞ্চিত।

সম্প্রতি সুইডেন আওয়ামী লীগের ৪/৫ জন নেতাকমির্র উপস্থিতিতে বিভিন্ন সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মিদের ২১ নভেম্বর কাউন্সিল অধিবেশনের লক্ষ্যে কাউন্সিলর নির্বাচিত করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় সংবিধান লঙ্ঘন করতেও দ্বিধা করেননি সুইডেন আওয়ামী লীগের এই দীর্ঘতম সভাপতি। তিনি তার ক্ষমতা ধরে রাখতে দীর্ঘদিনের পরিক্ষীত নেতাকর্মিদের ছেড়ে ফরহাদ আলী খান নামক জনৈক ক্ষমতালোভী ব্যাক্তি- যিনি হঠাৎ সুইডেন আওয়ামী লীগে যোগদান করে নতুন নতুন লোকদের নিয়ে সংগঠন গড়ে তুলেছেন,তারই খপ্পড়ে পড়েছেন এবং তাকে ঢাল হিসেবে ব্যাবহার করছেন। আওয়ামী লীগ বাংলাদেশে ক্ষমতায় না থাকলে ফরহাদ আলী খান সুইডেন আওয়ামী লীগে যোগদান করত না বলেই অনেকে বিশ্বাস করেন।

Picture

এরশাদের জাতীয় পার্টি যখন ক্ষমতায় ছিল, তখন ফরহাদ আলী খান জাতীয় পার্টির অংগ সংগঠন ছাত্র সমাজে যোগ দিয়েছিলেন বলেও অনেকেরই জানা আছে। তাছড়া এরশাদ আমলে সুইডেনে যিনি জাতীয় পার্টি গড়েছিলেন- তিনিও এখন ফরহাদ আলী খানের ডাকে সাড়া দিয়ে তার প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন বলে জানা গেছে।স্ইুডেন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ লিটন- যিনি দীর্ঘদিন যাবৎ সুইডেন আওয়ামী লীগের ঐক্য ধরে রাখার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন, তিনিও অনেকবার সভাপতির সাথে যোগাযোগ করে সমঝোতার টেবিলে বসাতে ব্যার্থ হয়েছেন।

তবে সহ সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ লিটন, সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির, সহ সভাপতি সিরজিুল হক খান রানা, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মাসুম বারী ও যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আতাউর রহমানসহ সুইডেন আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির অধিকাংশ সদস্যগন আগামী ২১ নভেম্বর কাউন্সিল অধিবেশনের মাধ্যমে সুইডেন আওয়ামী লীগের একটি পুর্নাঙ্গ কার্যকরী কমিটি গঠন করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। ইতিমধ্যে তারা কয়েকটি সভার আয়োজন করেছেন।

এ লক্ষ্যে হুমাউন কবিরকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং রাবেয়া ইসলাম ও লুৎফর রহমানকে সহকারী নির্বাচন কমিশনার করে একটি নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছে। তাছাড়া একটি নির্বাচন প্রস্তুতি কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

এ সকল সভায় আরো যারা উপস্থিত ছিলেন তাদের মধ্যে রয়েছেন আবুল হোসেন, চৌধুরী আলম, রিপন আহমেদ, হুমাউন কবির, আঃ ছালাম চৌধুরী, আলী রিয়াজ, জুলফিকার হায়দার, আরিফ রহমান, আরিফ মাহবুব, নীলা চৌধরিী, সাইদুজ্জামান সিকদার খোকা, রাবেয়া ইসলাম, লায়লা আরজুমান, মান্নান মোল্লা, আমিনুল ইসলাম, মিজানুর রহমান, শেখ ইউসুফ আলী রতন, জহিরুল হক চৌধুরী, মিজানুর রশিদ, তারেক ঘোষ, গোলাম মোস্তফা সরোয়ার, রফিকুল ইসলাম নয়ন, ছরোয়ার আলম প্রমুখ।


দীপন হত্যায় কানাডায় প্রতিবাদ

বুধবার, ০৪ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:কানাডা প্রতিনিধি : জাগৃতি প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সাল আরেফিন দীপন হত্যা এবং শুদ্ধস্বরের মালিক আহমেদুর রশীদ টুটুলসহ তিনজনকে আহত করার ঘটনার তীব্র ক্ষোভ কানাডাতেও ছড়িয়ে পড়েছে।দেশে একের পর এক ধারাবাহিকভাবে লেখক-ব্লগার-প্রকাশকদের হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় কানাডা প্রবাসী লেখক, শিল্পী, সাহিত্যিক, সাংস্কৃতিককর্মীরা প্রতিবাদ প্রকাশ করেছে।কানাডা প্রবাসী ছড়াকার লুৎফর রহমান রিটন ইত্তেফাকের কাছে তার অনুভুতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেছেন, আমরা শোকার্ত, বেদনার্ত।দীপনের বাবা অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হক বলেছেন, তিনি পুত্র হত্যার বিচার চান না। একজন পিতা কখন এইরকম একটা কথা বলতে পারেন? এটা বুঝতে ক্ষমতাও আমাদের নেই।

Picture

এছাড়াও নিহত দীপনের বাবা আবুল কাসেম ফজলুল হক সম্পর্কে আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুব-উল আলম হানিফের আপত্তিকর বক্তবেও অনেকেই নিন্দা জানান।