Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

বিনোদন

দুই মাসের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন মিশা সওদাগর

বুধবার, ১৩ এপ্রিল ২০১৬

আয়েশা আকতার রুবী,বাপসনিঊজ: ঢাকা থেকে : ঢাকাই ছবির পর্দা কাঁপানো ভিলেন মিশা সওদাগর প্রায় দুই মাসের ছুটি কাটাতে যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন। আজ রাতের ফ্লাইটেই ঢাকা ত্যাগ করবেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মিশা সওদাগর বাপসনিঊজকে বলেন, ‘আমার ছেলেকে উচ্চতর পড়াশোনার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের একটি কলেজে ভর্তি করাব। এ কারণেই মূলত আমরা সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছি। দুই মাস অবস্থান করব সেখানে। এরপর দেশে ফিরে আবারো নিয়মিত শুটিংয়ে অংশ নিবো।’

Picture


এ দিকে বেশ কিছুদিন আগেই ‘মিসকল’ ছবির শুটিং করতে গিয়ে পায়ের লিগামেন্ট ছিঁড়ে কয়েকদিন বিছানায় থাকতে হয়েছিল তাঁকে। সুস্থ হতে না হতেই আবারো শুটিংয়ে ফিরেছিলেন তিনি। সর্বশেষ তিনি ‘শুটার’ ছবির অভিনয় করছিলেন। এদিকে মুক্তির প্রতীক্ষায় দিন গুনছে তাঁর অভিনীত অনন্য মামুন পরিচালিত ‘অস্তিত্ব’ ও শামীম আহমেদ রনি পরিচালিত ‘মেন্টাল’ ছবি।


সিডনির রাস্তায় হঠাৎ মোশাররফ করিম

মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল ২০১৬

Picture

নাটকগুলোতে মোশাররফ-জুঁই ছাড়াও অভিনয় করেছেন-মডেল ও অভিনেত্রী নাজিরা মৌ, রহমতউল্লাহসহ সিডনী প্রবাসী অভিনেতা-অভিনেত্রীগণ।নাটক তিনটি হলো- এনি সাবরিনের পরিচালনায় ‘তবুও ভালোবাসি’, শিমুল সিকদারের রচনা ও পরিচালনায় ‘অঘটন’ ও মাসুম রেজার রচনায় ও সজীব আহমেদ চৌধুরীর পরিচালনায় ‘বিউটিফোবিয়া’।আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত সিডনীর বিভিন্ন মনোরম লোকেশনে নাটকগুলো নির্মাণের কাজ চলবে। এগুলো আসছে ঈদে বেসরকারি চ্যানেলে প্রচারিত হওয়ার কথা রয়েছে।


চলে গেলেন ইমাম হোসেন

মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল ২০১৬

বাপসনিঊজ:ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মানলেন অভিনেতা ইমাম হোসেন। কোরিয়াপ্রবাসী এই সংস্কৃতিকর্মী আজ মঙ্গলবার ভোরে সেখানকার একটি স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৪৮ বছর।মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘টেলিভিশন’ছবিতে অভিনয় করেন ইমাম হোসেন। পাশাপাশি তাঁর পরিচালনায় বেশ কয়েকটি বিজ্ঞাপনচিত্রেও দেখা গেছে তাঁকে। ইমাম হোসেনের মৃত্যু কষ্ট দিয়েছে এই পরিচালককে। ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ফারুকী সেই কষ্টের কথা প্রকাশ করেছেন।
alt
ফারুকী লিখেছেন, ‘দিন শুরু হলো মনে খারাপ করা খবর দিয়ে। “টেলিভিশন” ছবির অভিনেতা, আমার বন্ধু-ভাই ইমাম লি কাল রাতে ক্যানসারের সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ লড়াইয়ে হার মেনেছে। ভোর থেকে মাথায় সিনেমার মতো চলছে ইমাম লি…’ ‘টেলিভিশন’ ছবিটি ছাড়াও ইমাম হোসেন অভিনয় করেছেন আবু শাহেদ ইমনের শর্ট ফিল্ম ‘দ্য কন্টেইনার’-এ। ছবি দুটি বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয়। জনপ্রিয় ব্যান্ড ‘এলআরবি’র অ্যালবামে গান লিখেছিলেন ইমাম হোসেন। এ ছাড়া আরও বেশ কয়েকটি গানের দলের জন্যও গান লিখেছিলেন ইমাম হোসেন।


মডেল কুইন সূচনা - জসিমউদ্দিনের ‘আমেরিকান ড্রিম’ সিনেমায়

রবিবার, ১০ এপ্রিল ২০১৬

alt

আয়েশা আকতার রুবী,বাপসনিঊজ:বিশেষ দৃশ্যে ঢাকার রেমপ মডেল কুইন সূচনা আজাদ এবং বিশেষ চরিত্রে জসীম উদ্দীন । লোকেশন শামছুন নাহার হল মল ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ।
এম. জসীম উদ্দিন এর পরিচিতি
এম.জসীম উদ্দিন ১৯৬৯ সালের ১৫ই জুন, কুমিল্লার শহরতলী সীমান্তবর্তী গ্রাম হরিপুরে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে
জন্মগ্রহন করেন। পিতা মরহুম মাষ্টার এমএ বারী এবং মাতা কাজী রুছিয়া খাতুনের মেধাবী ও কৃতি সন্তান তিনি।
তার পিতামহ ছিলেন বিশিষ্ট দানবীর মরহুম সৈয়দ আকরাম আলী। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের- লোকপ্রশাসন বিভাগ
থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রী অর্জন করেন। শিক্ষাকালীন সময়ে তিনি ছিলেন একজন তুখোড় ছাত্র নেতা এবং বর্তমানে একজন
সএিয় রাজনীতিবিদ ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক। ১৯৯০ এর পর থেকে তিনি স্থায়ী ভাবে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস শুরু করেন।
শৈশব থেকেই রাজনীতির পাশাপাশি সাহিত্য ও সংস্কৃতি মনা প্রতিভাবান এই লেখক সাহিত্য চর্চায় মনোনিবেশ
করেন। তার লেখা ছোটগল্প, নাটক, উপন্যাস, কবিতা এবং সমসাময়িক রাজনৈতিক বিশ্লেষন ধর্মী ফিচার দেশ ও
বিদেশের বিভিনন পত্র পত্রিকায়, জার্নালে এবং ম্যাগাজিনে প্রকাশিত হওয়ায় অনেক প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি। বর্তমানে
তার লেখা উপন্যাস হিসেবে ডজন খানেক পান্ডুলিপি প্রকাশের অপেক্ষায় প্রস্তুত। তার লেখনিতে প্রকাশ পায়- সমাজের
নিষ্পেষিত মানুষের অধীকারের কথা, দেশের কথা, চলমান রাজনীতির কথা। পৃথিবীর উল্টো প্রান্তে বসবাস করেও
বাংলা সাহিত্যকে বিশ্ব সাহিত্যের দরবারে প্রতিষ্ঠার আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। সাহিত্য চর্চা ও রাজনীতি একে
অপরের পরিপূরক। অর্থনীতি, সমাজনীতি, এবং রাজনীতি সবই একই সূত্রে গাঁথা। সবই মানুষের কথা বলে, মানুষের
কল্যানের কথা বলে। যখন মানুষের কল্যানে, সমাজের নিপিড়িত মানুষগুলোর চিত্র পাঠকের চোখের সামনে উঠে
আসবে তখনই সার্থক হবে তার লেখনি।
পাঠকের চাওয়া পাওয়া পরিপূর্ণতায় ভরিয়ে দিতে  লেখকের তিনটি ছোটগল্প “রুপালি ইলিশ”
“প্রেমের সীমান্তে” এবং “দি আমেরিকান ড্রীম”পাঠকের হৃদয় ছুঁয়ে যায়।


বাংলাদেশের একটি গান এখন বিশ্ব জুড়ে

রবিবার, ১০ এপ্রিল ২০১৬

Picture

বাপসনিঊজ:বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় ফোঁক সঙ্গীত কিভাবে বিশ্বময় তার সুর ঝংকার ছড়িয়ে দিয়েছে আসুন দেখে নেই এই ভিডিওটি = https://www.youtube.com/watch?v=-73i6t-prcM


আমেরিকায় স্থায়ী হচ্ছেন শ্রাবন্তী

শনিবার, ০৯ এপ্রিল ২০১৬

আয়েশা আকতার রুবী,বাপসনিঊজ:ঢাকা থেকে  বেশ কয়েক বছর অভিনয়ে নেই শ্রাবন্তী। স্বামী, সন্তান আর সংসারকে প্রাধান্য দিয়েই তিনি অভিনয় থেকে দূরে রয়েছেন। যে কারণে ২০১০ সালে নূরুল আলম আতিকের ‘ডালিম কুমার’ নাটকে অভিনয়ের পর আর নতুন কোনো নাটকে তাকে দেখা যায়নি। এতদিন দর্শক এবং নির্মাতারা আশায় ছিলেন শ্রাবন্তী অভিনয়ে হয়তো ফিরবেন। কিন্তু সেই আশাতেও গুড়েবালি এখন।

কারণ শ্রাবন্তী ও তার স্বামী খোরশেদ আলম ইমিগ্রেন্ট নিয়ে আমেরিকায় স্থায়ী হতে আজ রাত নয়টার ফ্লাইটে সে দেশে চলে যাচ্ছেন। সঙ্গে শ্রাবন্তীর দুই কন্যা রাবিয়া আলম ও আরিশা আলমও যাচ্ছে। আমেরিকাতে শ্রাবন্তীর বড় বোন সাবেরা আলম আছেন। শ্রাবন্তী প্রথম আমেরিকাতে গিয়ে মেরিল্যান্ডে বসবাস করবেন। তারপর হয়তো অন্য কোথাও স্থায়ী হবেন- এমনটাই নিশ্চিত করেছেন তিনি।

শ্রাবন্তী বলেন, সত্যি বলতে কী জীবনের অর্ধেকটা সময়ই তো আসলে মিডিয়াতে কাজ করেছি, অভিনয় করেছি, বিজ্ঞাপনের মডেল হিসেবে কাজ করেছি। সুখে-দুঃখে মিডিয়ার মানুষদের সঙ্গেই সময় কেটেছে আমার। তাই প্রতি মুহূর্তে এই অঙ্গনটাকে খুব মিস করি এবং করবোও এটাও সত্যি। কিন্তু যেহেতু একজন নারীর পরিপূর্ণতা আসে সংসার জীবনে, তাই সেটাকে গুরুত্ব দিয়ে আমার দুই মেয়ের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেই আমেরিকায় চলে যাচ্ছি।

Picture

প্রত্যেক মানুষেরই জীবনে অনেক কিছু ইচ্ছে করে। কিন্তু সব সময় মানুষ তার ইচ্ছেমতো চলতে পারে না। আমার ভক্ত, দর্শক, সহকর্মী এবং আমার সাংবাদিক ভাইবোনদের বলছি-আপনারা আমাদের জন্য দোয়া করবেন যাতে ভালো থাকতে পারি। খুব ছোটবেলা থেকেই অভিনয় এবং বিজ্ঞাপনে শ্রাবন্তীকে পাওয়া যায়। ছোটবেলায় আতিকুল হক চৌধুরীর নির্দেশনায় ‘আমার দুধ মা’ নাটকে তিনি প্রথম অভিনয় করেন।

অন্যদিকে ছোটবেলায় ‘বেইলী কেডস’র বিজ্ঞাপনে প্রথম মডেল হন তিনি। বড়বেলায় এসে মতিউর রহমান গাজীপুরীর নির্দেশনায় একটি নাটকে অভিনয় করেন। পাশাপাশি তারিক আনাম খানের নির্দেশনায় পেপসোডেন্টের বিজ্ঞাপনে মডেল হন। এরপর হেনোলাক্স, ইংলিশ শ্যাম্পু, ইউরোকোলা’র বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে শ্রাবন্তী আলোচনায় চলে আসেন।

তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য দর্শকপ্রিয় নাটকের মধ্যে রয়েছে ‘একান্নবর্তী’, ‘নীড়’, ‘দ্বিতীয় জীবন’ ইত্যাদি। মতিন রহমানের নির্দেশনায় চিত্রনায়ক রিয়াজের বিপরীতে শ্রাবন্তী অভিনয় করেন ‘রং নাম্বার’ চলচ্চিত্রে। ২০১০ সালের ২৯শে অক্টোবর খোরশেদ আলমের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন শ্রাবন্তী।


সুচনা আজাদ ঢাকার র্র্যামপ মডেল কুইন এখন দি আমেরিকান ড্যীম এর বাধঁন চরিএে আভিনয় করে ইংলিশ বিশ্বে বাংলাদেশী নারীদের দরজা বিশব বাজারে উন্মোচিত করবে

বৃহস্পতিবার, ০৭ এপ্রিল ২০১৬

আয়েশা আকতার রুবী,বাপসনিঊজ:Acting mood shooting at Banani Ananda TV Bhaban . Suchana Azad & Jashim Uddin. সুচনা আজাদ ঢাকার র্র্যামপ মডেল কুইন এখন দি আমেরিকান ড্যীম এর বাধঁন চরিএে আভিনয় করে ইংলিশ বিশ্বে বাংলাদেশী নারীদের দরজা বিশব বাজারে উন্মোচিত করবে । সারা বিশ্বে মুক্তি দিবে আমেরিকান ম্যেইন স্টীমে মুভি "দি আমেরিকান  ড্যীম" ক্যাটাগরী আমেরিকান ।

alt

বাংলাদেশী আমেরিকান জসীম উদ্দীন ইতিহাস সৃস্টি করবেন আমেরিকান প্যাথম বিশ্বে । সাইমন সাদিক , আইরিন . তনময় সহ সাদেক বাচ্চু । ইংরেজী কথা বলা মুভি দেখবে সারা বিশ্বে আন্তর্জাতিক ভাষা ইংরেজীতে ।


ওবামার আমন্ত্রণে হোয়াইট হাউজে প্রিয়াঙ্কা

বৃহস্পতিবার, ০৭ এপ্রিল ২০১৬

Picture

আর এবার সে পথেই বোধয় হাঁটতে যাচ্ছেন বলিউডের আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া! কারণ তিনিও যে বারাক ওবামার তরফ থেকে হোয়াইট হাউজে আমন্ত্রণ পেয়েছেন!

alt

চলতি অস্কার অ্যাওয়ার্ডে প্রিয়াঙ্কা...

ভারতীয় শীর্ষস্থানীয় দৈনিক ও অনলাইন মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, মল্লিকা সেরওয়াতের পর এবার বলিউডের আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্ক চোপড়াও মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে সাক্ষাতের সুযোগ পেতে যাচ্ছেন। শিগগিরই হোয়াইট হাউজের একটি বিশেষ নৈশভোজে আমন্ত্রণ পেয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। 

alt

আমেরিকার জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘কোয়ান্টিকো’তে প্রিয়াঙ্কা...

প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, হোয়াইট হাউজে প্রতি বছরেই সাংবাদিকদের নিয়ে একটি বিশেষ নৈশভোজের আয়োজন করা হয়। আর তাতে উপস্থিত থাকেন বারাক ওবামা ও ফার্স্টলেডি মিশেল ওবামা। আর বার্ষিক এই নৈশভোজে বিখ্যাত সাংবাদিকদের পাশাপাশি হলিউড তারাদের সঙ্গে আমন্ত্রণ পেয়েছেন বলিউডের সুন্দরী প্রিয়াঙ্কা চোপড়াও! বারাক ওবামার আমন্ত্রণে ওই নৈশভোজে প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে উপস্থিত থাকবেন হলিউড সুপারস্টার অভিনেতা ব্রেডলি কুপার, লুচি লিও, জেনে ফন্ডা এবং গ্লেডিস নাইট।       

প্রতি বছরেই হোয়াইট হাউজের নন প্রফিট ‘করসপন্ডেন্ট’ সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত এই বার্ষিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকেন রিপোর্টার্স, প্রডিউসার, ক্যামেরা অপারেটরসহ হোয়াইট হাউজের খবর প্রদান করা অসংখ্য সাংবাদিকরা।

alt

সুপারস্টার রকের বিপরীতে ‘বেওয়াচ’ সিনেমায় প্রিয়াঙ্কা...

উল্লেখ্য, বলিউডের মত পশ্চিমের ইন্ডাস্ট্রিতেও পা রাখা মাত্রই ক্যারিয়ার নিয়ে সাফল্যের দেখা পাচ্ছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। জনপ্রিয় টিভি সিরিয়াল ‘কোয়ান্টিকো’ দিয়েই দুর্দান্ত অভিষেক হল তার। আর তারপর চলতি বছরে অনুষ্ঠিত অস্কার উৎসবেও প্রথম কোনো ভারতীয় হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তিনি। আর এরপরই হলিউডের সুপারস্টার অভিনেতা ও সাবেক কুস্তিগীর ডুয়াইন জনসন রকের বিপরীতে তিনি চুক্তি হন আমেরিকার তুমুল জনপ্রিয় টিভি সিরিয়াল নিয়ে নির্মিতব্য আলোচিত সিনেমা ‘বেওয়াচ’-এ।  


অবশেষে যুক্তরাষ্ট্রে থেকে দেশে ফিরলেন মোনালিসা

বুধবার, ০৬ এপ্রিল ২০১৬

আয়েশা আকতার রুবী,বাপসনিঊজ:ঢাকা থেকে :প্রায় দুই বছরেরও বেশি সময় সুদূর যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাস জীবন কাটিয়ে অবশেষে দেশে ফিরেছেন মডেল ও অভিনেত্রী মোনালিসা। মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকার হযরত শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বেরিয়েই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে দেশে ফেরার খবরটি সবাইকে জানান।

Picture

২০১৪ সালে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ফাইয়াজ শরীফের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের পর থেকেই মোনালিসা বলে আসছিলেন যে, আইনগত জটিলতা মিটিয়ে তিনি শিগগিরই দেশে ফিরবেন। অবশেষে তার ফেরা হলো।

alt

বিয়ে ও চাকরির সুবাদে দীর্ঘদিন ধরেই যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছিলেন মোনালিসা। তবে মাঝেমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভক্তদের উদ্দেশ্যে শুভেচ্ছা বার্তাও পাঠাতেন। সেই ধারাবাহিকতায় গেল বছরে শেষের দিকে জানিয়ে ছিলেন যে, এ বছরের মাঝামাঝি সময়ে তিনি দেশে ফিরতে পারেন। কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে মঙ্গলবার বিকেলে ফেসবুকে কিছু ছবি প্রকাশ করেন। যেখানে দেখা যায়, ঢাকার রাস্তায় মায়ের সঙ্গে গাড়িতে বসে আছেন মোনালিসা।

alt

এদিকে ফেসবুকের মোনালিসা লিখেন, ‘বন্ধুরা, অনুমান করো তো আমি কোথায়? খুবই আনন্দের একটি উপহার পেয়েছে আমার পরিচিতরা। আমাকে দেখে তাদের প্রতিক্রিয়া ভালো ছিলো সত্যিই ভালো ছিলো। আনন্দ ছিলো সঙ্গে অশ্র“ও ছিলো। বাসায় এসে তাদের সারপ্রাইজ করেছি।

alt

আমি আনন্দিত নিজে দেশে ফিরে। আশা করি নিউইয়র্কে আমার বন্ধু ও পরিবারের সবাই ভালো আছে। এবং সবুজের সঙ্গে ফিরে আসা আশ্চর্যজনক, চারিদিকে সবুজ। আশাকরি সবাই ভালোই আছে। ভালোবাসি তোমাদের।’


সানজিদা তন্ময়ের “দি আমেরিকান ড্রিম”

মঙ্গলবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৬

আয়েশা আকতার রুবী,বাপসনিঊজ:ঢাকা থেকে :র্নিমাতা রিয়াজুল রিজুর ‘বাপজানের বায়োস্কোপ’ সিনেমার মাধ্যমে ঢাকাই সিনেমায় অভিষিক্ত হন সানজিদা তন্ময়। নিজের প্রথম সিনেমায় সমালোকচদের কাছে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি। এরপরে বন্ধন বিশ্বাসের ‘শূন্য’ ও মুন্তাহিদুল লিটনের শিশুতোষ সিনেমা ‘লাস্ট কিস’-এ অভিনয় করেছেন সানজিদা। এবার তিনি অভিনয় করছেন জসিমউদ্দিনের ‘আমেরিকান ড্রিম’ সিনেমায়।

alt
সম্প্রতি ঢাকার বিভিন্ন স্থানে বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় নিমর্তব্য সিনেমাটির দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে।নতুন এই সিনেমা সম্পর্কে  evcmwbEজকে সানজিদা তন্ময় বললেন, “সিনেমায় বড় লোকের মেয়ে অঙ্কনের চরিত্রে দেখা যাবে আমাকে, যার সাথে একজন গরীব ছেলের প্রেম থাকে। তবে উভয়ের মাঝে দেয়াল হয়ে দাড়ায় ছেলেটির দারিদ্র। ধনীর মেয়ে হওয়ার কারনে ছেলেটির ভালোবাসাকে অগ্রাহ্য করে অঙ্কন। কিন্তু প্রেমিকাকে নিয়ে সুন্দর ভবিষৎ গড়ার জন্য ছেলেটি যখন দেশ ছেড়ে আমেরিকা পাড়ি জমায় এবং পাঁচ বছর পর আবার তার প্রেমিকার কাছে ফিরে আসে তখন কাহিনিতে তৈরি হয় নতুন ক্লাইম্যাক্স।”
“দি আমেরিকান ড্রিম” -এ সম্পূর্ণ ভিন্ন অবতারে আবির্ভূত হতে চলেছেন বলেই দাবী করলেন সানজিদা।

শেষ চুম্বনের প্রতীক্ষায় তন্ময়! (দেখুন ছবিতে)  

‘বাপজানের বায়োস্কোপ’ সিনেমা আমাদের দেশের, মাটির গল্পের ও ‘লাস্ট কিস’ একজন শিশু ও বিবাহিতা নারীর গল্পের সিনেমা। কিন্তু ‘wদ আমেরিকান ড্রিম’ সিনেমাটি আগের গুলোর তুলনায় সম্পূর্ণই আলাদা গল্পের। আসলে এই সিনেমায় আমার চরিত্রটি এতটাই ব্যতিক্রম যে এমন চরিত্রের মানুষগুলো সাধারণত আমাদের সমাজে খুবই কম হয়।”

alt 

ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই বেশ যাচাই বাছাই করে কাজ করতে অভ্যস্ত সানজিদা। তাই নাকচ করেছেন অনেক নাটক ও সিনেমায় কাজের প্রস্তাব। ‘আমেরিকান ড্রিম’-এর মধ্যে এমন কি ছিল যে সিনেমাটিতে কাজ করার প্রস্তাব লুফে নিলেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে সানজিদা বললেন,“আমাদের এই পুরো সিনেমাটিই নিমরাণ করা হচ্ছে ইংরেজি ভাষায়। তাই নিমর্তা প্রথম থেকেই এমন কাউকে খোঁজ করেছেন যিনি ইংরেজিতে বেশ দক্ষ। তাদের কাছে তারকার তুলনায় শিক্ষিত অভিনেত্রীর প্রাধান্যই বেশি ছিলো।

alt

তবে গল্পটা যখন আমি শুনেছি তখন আমার কাছে খুবই ভাল লেগেছে। কারণ পড়াশোনা কিংবা টাকা-পয়সার কারণেই আমাদের পরিচিত বন্ধু-বান্ধবীদের প্রেম বেশিরভাগ সময়ই আমরা ভেঙে যায় বলে শুনি। কিন্তু এই গল্পটা গতানুগতিক গল্পগুলোর চেয়ে একেবারেই আলাদা। আসলে এই গল্পের কেন্দ্রিয় চরিত্র অঙ্কনকে দেখে কেউ বুঝতেই পারবেনা তার হৃদয়ে সে কি লালন করছে। তাই আমার কাছে এই চরিত্রটি খুবই ভাল লেগেছে..তাই লুফে নেয়া।” সিনেমায় সানজিদার বিপরীতে অভিনয় করছেন সায়মন সাদিক। সব কিছু ঠিকঠাক মতো চললে আগামী মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রে সম্পন্ন করা হবে সিনেমাটির দৃশ্য ধারণের কাজ। “দি আমেরিকান ড্রিম”ছবির আমেরিকায় ইন্ডিয়ানা স্টেট এর “এক্স লিবির্স পাবলিকেশন কোম্পানী” একটি  বইও  ইংরেজীতে প্রকাশ করে ।

alt 

আমেরিকান মূল ধারায় ইংরেজী ভার্সনে নিউইয়র্ক সিটি মেয়র’স্ অফিস এর  ফ্লিম এন্ড মিডিয়া ডিপার্টমেন্ট এর সহযোগীতায় নির্মিত হচেছ “দি আমেরিকান ড্রিম” । চলচ্চিত্রটি এম. জসীম উদ্দিন এর উপন্যাস “দি আমেরিকান ড্রিম”  থেকে নেওয়া।  এই চলচ্চিত্রে বাংলাদেশ থেকে  অভিনয় করবেন চিত্র নায়িকা সানজদিা তন্ময়,সায়মন সাদকি, কলকাতা থেকে একজন উদিয়মান নায়িকা ,  নুতন মুখ ওপেল হাসান,আমেরিকান  অভিনেতা ডেভিড এনটনি সহ  একঝাক থিয়েটার কর্মী। আমেরিকার হলিউড  থেকে  তিন জন অভিনেতা অংশ গ্রহন করবেন। এই প্রথম কোন বাংলাদেশী আমেরিকান -আমেরিকার মূল ধারার চলচ্চিত্রে ইংরেজী ছবি নির্মানের উদ্যেগ নিয়েছেন।

Picture
এই ছবিটির পরিচালনা থেকে শুরু করে চিত্রনাট্য, সংলাপ, গান,  শিল্প নির্দেশনা সকল দায়িত্ব পরিচালক এম. জসীম উদ্দিন নিজেই পালন করিবেন।
 alt

এম. জসীম উদ্দিন এর পরিচিতি
এম.জসীম উদ্দিন ১৯৬৯ সালের ১৫ই জুন, কুমিল্লার শহরতলী সীমান্তবর্তী গ্রাম হরিপুরে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে
জন্মগ্রহন করেন। পিতা মরহুম মাষ্টার এমএ বারী এবং মাতা কাজী রুছিয়া খাতুনের মেধাবী ও কৃতি সন্তান তিনি।
তার পিতামহ ছিলেন বিশিষ্ট দানবীর মরহুম সৈয়দ আকরাম আলী। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের- লোকপ্রশাসন বিভাগ
থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রী অর্জন করেন। শিক্ষাকালীন সময়ে তিনি ছিলেন একজন তুখোড় ছাত্র নেতা এবং বর্তমানে একজন
সএিয় রাজনীতিবিদ ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক। ১৯৯০ এর পর থেকে তিনি স্থায়ী ভাবে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস শুরু করেন।
শৈশব থেকেই রাজনীতির পাশাপাশি সাহিত্য ও সংস্কৃতি মনা প্রতিভাবান এই লেখক সাহিত্য চর্চায় মনোনিবেশ
করেন। তার লেখা ছোটগল্প, নাটক, উপন্যাস, কবিতা এবং সমসাময়িক রাজনৈতিক বিশ্লেষন ধর্মী ফিচার দেশ ও
বিদেশের বিভিনন পত্র পত্রিকায়, জার্নালে এবং ম্যাগাজিনে প্রকাশিত হওয়ায় অনেক প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি। বর্তমানে
তার লেখা উপন্যাস হিসেবে ডজন খানেক পান্ডুলিপি প্রকাশের অপেক্ষায় প্রস্তুত। তার লেখনিতে প্রকাশ পায়- সমাজের
নিষ্পেষিত মানুষের অধীকারের কথা, দেশের কথা, চলমান রাজনীতির কথা। পৃথিবীর উল্টো প্রান্তে বসবাস করেও
বাংলা সাহিত্যকে বিশ্ব সাহিত্যের দরবারে প্রতিষ্ঠার আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। সাহিত্য চর্চা ও রাজনীতি একে
অপরের পরিপূরক। অর্থনীতি, সমাজনীতি, এবং রাজনীতি সবই একই সূত্রে গাঁথা। সবই মানুষের কথা বলে, মানুষের
কল্যানের কথা বলে। যখন মানুষের কল্যানে, সমাজের নিপিড়িত মানুষগুলোর চিত্র পাঠকের চোখের সামনে উঠে
আসবে তখনই সার্থক হবে তার লেখনি।
পাঠকের চাওয়া পাওয়া পরিপূর্ণতায় ভরিয়ে দিতে  লেখকের তিনটি ছোটগল্প “রুপালি ইলিশ”
“প্রেমের সীমান্তে” এবং “দি আমেরিকান ড্রীম”পাঠকের হৃদয় ছুঁয়ে যায়।


আমেরিকা থেকে প্রকাশিত হচ্ছে চিরকুটের নতুন সিঙ্গেল ট্র্যাক

সোমবার, ০৪ এপ্রিল ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ :আমেরিকা থেকে ইউওন্ডা মিউজিকের ব্যানারে প্রকাশিত হচ্ছে বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় ব্যান্ড চিরকুটের নতুন সিঙ্গেল ট্র্যাক। আগামী ৬ এবং ৭ এপ্রিল নিউ ইয়র্কের ব্রঙ্স এ ‘উই লাউড’ স্টুডিওতে চিরকুটের নতুন এ ইন্টারন্যাশনাল প্রজেক্ট-এর রেকর্ডিং চলবে। এমনটিই জানানো হয়েছে চিরকুটের অফিসিয়াল পেজ থেকে।

Picture

সেখানে লেখা হয়, ‘চিরকুট-এর জীবনে অত্যন্ত দারুণ আরেকটি ঘটনা যোগ হতে চলেছে। সবার প্রার্থনা আর ভালোবাসায় গ্লোবাল মিউজিকে বাংলাদেশের ব্যান্ড হিসেবে চিরকুট-এর যাত্রা আরও দৃঢ়ভাবে শুরু হতে যাচ্ছে আর দু'দিন বাদে। আমরা ভীষণ আনন্দের সাথে জানাচ্ছি যে, ল্যাটিন গ্র্যামি, ল্যাটিন বিলবোর্ড এবং বিএমআই উইনার প্রোডিউসার জোহান এ্যালকোভার চিরকুট-এর একটি সিঙ্গেল প্রোডিউস করতে যাচ্ছে।

alt

 আজকে নিউ ইয়র্কের ব্রঙ্স-এ তার দারুণ সুন্দর স্টুডিও 'উই লাউড'-এ আমরা তাঁর সাথে অসাধারণ কিছু সময় কাটিয়েছি। একেবারেই তরুণ, অসম্ভব ডাউন-টু-আর্থ জোহান অনেক সময় নিয়ে আমাদেরকে তাঁর স্টুডিও ঘুরিয়ে দেখিয়েছে, গান শুনেছে, দারুণ প্রশংসা করেছে, উৎসাহ দিয়েছে, তাঁর পাওয়া গ্র্যামি এ্যাওয়ার্ড হাতে ছবি তুলেছে। জ্বি, গ্র্যামি না পেলেও, আজকে আমরা গ্র্যামি এ্যাওয়ার্ড ছুঁয়ে দেখেছি!’