Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

যুক্তরাষ্ট্রের খবর

জর্জিয়ার বাংলাদেশি শেখ রহমান ডেমোক্র্যাটিক পার্টি জাতীয় কমিটির সদস্য হলেন

রবিবার, ০৯ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : জর্জিয়া থেকে : মূলধারার রাজনৈতিক দলে এই প্রথমবারের মতো জাতীয় কমিটির কার্যকরী সদস্য হিসেবে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়ে ইতিহাস তৈরি করলেন একমাত্র বাংলাদেশি-আমেরিকান সংগঠক আটলান্টার অধিবাসী শেখ রহমান চন্দন।

Picture

শেখ রহমান এর আগে হিলারী ক্লিনটনের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হওয়ার প্রাক্কালে আয়োজিত জাতীয় কনভেনশন উপলক্ষে জর্জিয়া রাজ্য থেকে একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে সুপার ডেলিগেট ও সদস্য মনোনীত হয়েছিলেন। ডেমোক্র্যাটিক পার্টির জাতীয় কার্যকরী কমিটিতে রহমানের এই বিজয়ের ঘটনাটিতে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি তথা এশিয়ান নাগরিকদেরকে মূলধারার রাজনীতিতে উজ্জীবিত ও আরও সক্রিয় হওয়ার সম্ভাবনাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকগণ মনে করছেন।

alt

শেখ রহমানের মূল ধারার রাজনৈতিক দলে কার্যকরী সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হবার খবরটি প্রচার হওয়ার পর পর প্রবাসের বাংলাদেশি কমিউনিটিতেও আনন্দের বন্যা নেমে আসে। এছাড়া রহমানের ঘনিষ্ঠ রাজনৈতিক বন্ধু, স্বজন, শুভানুধ্যায়ীরা একের পর এক টেলিফোনে তাঁকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাতে শুরু করেন। এর জবাবে প্রতিশ্রুতিশীল এই ডেমোক্র্যাট নেতা সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে তাঁর জন্যে দোওয়া করার অনুরোধ জানান।

alt

সম্মেলনে এবারই প্রথম একজন হিস্পানিক বংশোদ্ভূত নেতা ও ওবামা প্রশাসনের শ্রমমন্ত্রী টম পেরেজকে সদস্যদের ভোটে দলের চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। চেয়ারম্যান হিসেবে বিজয় নিশ্চিত হওয়ার পর পরই নব নির্বাচিত দলীয় প্রধান পেরেজ দলের যুগ্ম চেয়ারম্যান হিসেবে গঠনতন্ত্র মোতাবেক নিজ ক্ষমতাবলে তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেসম্যান কেইথ এলিসনকে মনোনীত করেন।

alt

আমেরিকার বিভিন্ন স্টেট থেকে আগত প্রায় চার শতাধিক সদস্যদের অংশগ্রহণে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি, শনিবার জর্জিয়া স্টেটের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলীয় প্রধান শহর আটলান্টায় অনুষ্ঠিত হল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির জাতীয় সম্মেলন। আর এই  দিনব্যাপী সম্মেলনে বক্তাদের আলোচনায় দেশের বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট তথা ট্রাম্প প্রশাসনের নানা উদ্ভট ও নৈতিকতা বিরোধী বিধি-নিষেধ জারীর সমালোচনাসহ দলকে আরও শক্তিশালী করার দৃঢ় অঙ্গীকার উচ্চারিত হয়। সেইসাথে ট্রাম্প প্রশাসনের যে কোন নেতিবাচক পদক্ষেপের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে তা মোকাবেলা করার ঘোষণাও প্রদান করেন ডেমোক্র্যাট নেতা-সংগঠকগণ।

alt

শেখ রহমান ওই সম্মেলনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে কেইথ এলিসনকে সমর্থন ও ভোট দিলেও টম পেরেজ বিজয়ী হওয়ার পর এক বিবৃতিতে নতুন চেয়ারম্যানকে অভিনন্দিত করে তাঁর নেতৃত্বেই দলকে আরও সুসংহত ও ঐক্যবদ্ধ করতে এবং রিপাবলিকান পার্টি তথা ট্রাম্পের অনৈতিক এজেন্ডা সমুহের বিরুদ্ধে একযোগে কাজ করে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। সেইসাথে জাতীয় কমিটির নবাগত কার্যকরী সদস্য হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের সকল দেশপ্রেমিক নাগরিকের স্বার্থ রক্ষায় দলের আদর্শ ও নীতিমালাকে অনুসরণ করে নিজেকে নিবেদিতপ্রাণ সংগঠক হিসেবে সাধ্যমত আত্মনিয়োগ করবেন বলে ঘোষণা করেন।

alt

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলার অধিবাসী  শেখ মোজাহিদুর রহমান চন্দন দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ায় বাস করছেন।তিনি কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর অধিবাসী রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়ী শেখ মুজিবুর রহমান ইকবালের বড় ভাই।


জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি’র বৈশাখী মেলা ২৩ এপ্রিল

রবিবার, ০৯ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক তথা উত্তর আমেরিকায় প্রবাসী বাংলাদেশীদের অন্যতম সনামধন্য সামাজিক সংগঠন জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি’র এবছরের বৈশাখী মেলা আগামী ১০ বৈশাখ (২৩ এপ্রিল) রোববার। এদিন জ্যামাইকার ১৬৮ স্ট্রীট ও ৯০ এভিনিউ সংলগ্ন পার্কিং লটে দিনব্যাপী এই মেলার কার্যক্রম চলবে। এদিকে মেলাটি সফল করতে ইতিমধ্যেই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ারকে আহ্বায়ক ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইফজাল আহমেদ চৌধুরীকে সদস্য সচিব করে ‘বৈশাখী মেলা কমিটি-১৪২৪’ গঠন করা হয়েছে।


ড্রামা সার্কল-এর বর্ষবরণ ১৪ এপ্রিল শুক্রবার কুইন্স প্যালেসে

শুক্রবার, ০৭ এপ্রিল ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,বাপসনিউজ : ড্রামা সার্কল প্রতিবছরের ন্যায় এবার ও বাংলা বর্ষবরণ অনুষ্ঠান উদযাপন করবে ১৪ এপ্রিল শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় নিউইয়র্কের কুইন্স প্যালেসে (৩৭-১১, ৫৭ ষ্ট্রীট, উডসাইড, নিউইয়র্ক এনওয়াই-১১৩৭৭১)।

উক্ত অনুষ্ঠানে সকল প্রবাসীদের স্বাদর আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ড্রামা সার্কল সভাপতি নার্গিস আহমদ।


কবি,সাহিত্যিক ও সাংবাদিক সাযযাদ কাদির-এর প্রয়ানে আমেরিকান প্রেসক্লাব অব বাংলাদেশ অরিজিন-এর শোক

শুক্রবার, ০৭ এপ্রিল ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন, বাপসনিউজ : কবি, সাহিত্যিক ও সাংবাদিক সাযযাদ কাদির (৭০) গত ৬ এপ্রিল, বৃহষ্পতিবার সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন । বাপসনিউজকে তার ছেলে সাদ্দাম তার মৃত্যুও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাপসনিউজে। কবি,সাহিত্যিক ও সাংবাদিক সাযযাদ কাদির-এর প্রয়ানে গভীর শোক ও শোক সনতপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা করেছেন আমেরিকান প্রেসক্লাব অব বাংলাদেশ অরিজিন সভাপতি সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন ও সাধারন সম্পাদক হেলাল মাহমুদ উল্লেখ্য,কাদির ১৯৪৭ সালের ১৪ এপ্রিল টাঙ্গাইল জেলার মিরের বেতকা গ্রামে মাতুলালয়ে জন্ম গ্রহণ করেছিলেন। সাযযাদ কাদির বাংলা সাহিত্যের ষাটের দশকের অন্যতম কবি , গবেষক ও প্রাবন্ধিক হিসেবে পরিচিত। সাযযাদ কাদির ১৯৬২ সালে বিন্দুবাসিনী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক  পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে ১৯৬৯ সালে ¯œাতক (সম্মান) এবং ১৯৭০ সালে ¯œাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন। দেশ স্বাধীন হবার পর ১৯৭২ সালে তিনি টাঙ্গাইল করোটিয়ার সাদ’ত কলেজ-এর বাংলা বিভাগে শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন। ১৯৭৬ সালে তিনি কলেজের চাকরি ছেড়ে সাপ্তাহিক বিচিত্রা পত্রিকায় যোগদানের মাধ্যমে সাংবাদিকতা শুরু করেন।


জাতিসংঘে উন্নয়ন বিষয়ক কমিটির কো-চেয়ার মনোনীত বাংলাদেশ

শুক্রবার, ০৭ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে :জাতিসংঘে জনসংখ্যা ও উন্নয়ন বিষয়ক সাউথ-সাউথ কো-অপারেশনের ‘বেইজিং কল ফর অ্যাকশান’ বাস্তবায়নে গঠিত ‘কোঅর্ডিনেটিং কমিটি অন দ্য সাউথ-সাউথ কো-অপারেশন ইন পপুলেশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট’ এর কো-চেয়ারপারসন মনোনীত হয়েছে বাংলাদেশ। ৬ এপ্রিল বিকালে নিউইয়র্কে অবস্থিত জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল (ইউএনএফপিএ)-এর সদরদপ্তরে সাউথ-সাউথ কো-অপারেশনভুক্ত বাংলাদেশ, ইন্দোনেশিয়া, ভারত, চীন, কেনিয়া, সাউথ আফ্রিকা, উগান্ডা ও তিউনিশিয়ার প্রতিনিধিগণের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত এক সভায় সর্বসম্মতিক্রমে দক্ষিণ আফ্রিকাকে চেয়ারপারসন এবং বাংলাদেশকে কো-চেয়ারপারসন হিসেবে মনোনীত করার নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

Picture
এ সভায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি। এসময় জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য গত বছর ১৮ মার্চ চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত ‘মিনিস্টেরিয়াল স্ট্রাটিজিক ডায়ালগ অন সাউথ-সাউথ কো-অপারেশন ফর পপুলেশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট’ শীর্ষক সভায় জনসংখ্যা ও উন্নয়নের ক্ষেত্রে সাউথ-সাউথ কো-অপারেশনের জন্য ‘বেইজিং কল ফর অ্যাকশান’ গ্রহণ করা হয়। উক্ত ‘বেইজিং কল ফর অ্যাকশান’-কে সামনে এগিয়ে নেওয়া এবং এর নিয়মিত ফলোআপের জন্য ‘সাউথ-সাউথ কো-অপারেশন’-এর সদস্যদেশগুলোকে নিয়ে একটি কোঅর্ডিনেটিং কমিটি প্রস্তুত করার লক্ষ্যে ইউএনএফপিএ ৬ এপ্রিল এই সভার আয়োজন করে।
সভায় সাউথ-সাউথ কো-অপারেশন-এর সদস্য দেশের প্রতিনিধিগণ জনসংখ্যা ও উন্নয়ন বিষয়টিকে এগিয়ে নিতে পারস্পরিক সহযোগিতা ও সমন্বয়ের উপর জোর দেন। প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক জনসংখ্যা ও উন্নয়ন বিষয়ে গত প্রায় আট বছরেরও বেশী সময় ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যে সফলতা অর্জন করেছে তা তুলে ধরে বলেন, “বেইজিং কল ফর অ্যাকশান বাস্তবায়নে বাংলাদেশের অর্জিত অভিজ্ঞতা কাজে লাগানো যেতে পারে এবং এক্ষেত্রে বাংলাদেশ প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত রয়েছে”। তিনি আরও বলেন, “শুধু আলোচনার টেবিলে বসে থাকলে চলবে না, আমাদেরকে বেইজিং ঘোষণা বাস্তবায়নে এখনই কাজে নেমে যেতে হবে”।
চলতি বছরের নভেম্বর মাসে ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় অনুষ্ঠিতব্য পার্টনার্স ইন পপুলেশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট (পিপিডি)- এর মন্ত্রী পর্যায়ের সভার আগের দিন অর্থাৎ ২৫ নভেম্বর এই কোঅর্ডিনেটিং কমিটির পরবর্তী আনুষ্ঠানিক সভা অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত সভায় নতুন এই কোঅর্ডিনেটিং কমিটির টার্ম অব রেফারেন্সসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াদি নির্দিষ্ট করা হবে মর্মে আজকের সভা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।
নতুন এই কোঅর্ডিনেটিং কমিটির আজকের সভার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন দক্ষিণ আফ্রিকার জনসংখ্যা ও উন্নয়ন এবং সামাজিক উন্নয়ন বিভাগের চীফ ডাইরেক্টর জ্যাকুইস্ ভ্যান জুইদাম।
উল্লেখ্য ৩-৭ এপ্রিল, জাতিসংঘ সদর দপ্তরে কমিশন অন পপুলেশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট এর ৫০তম সেশনে বাংলাদেশ ডেলিগেশনের প্রতিনিধিত্ব করছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি।


জেনোসাইড ’৭১ ফাউন্ডেশন, ইউএসএ থেকেই সর্বপ্রথম ২৫ মার্চকে “গণহত্যা দিবস” হিসাবে স্বীকৃতির দাবী উঠে

বুধবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৭

বাপ্‌স নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে :জেনোসাইড ’৭১ ফাউন্ডেশন, ইউএসএ ২৫ মার্চ শনিবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক এর জ্যাকসন হাইস্টস্ বাংলাদেশ প্লাজা মিলনায়তনে বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে পালন করলো “গণহত্যা দিবস (জেনোসাইড স্মরণ দিবস)”। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথী ছিলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশ মিশনের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাস্টদূত জনাব মাসুদ-বিন-মোমেন।  বিশেষ অতিথী ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের কনস্যাল জেনারেল, নিউইয়র্ক জনাব মোঃ শামীম আহসান। সভাপতিত্ব করেন জেনোসাইড ’৭১ ফাউন্ডেশন, ইউএসএর সভাপতি ড. প্রদীপ রঞ্জন কর এবং সঞ্চালনায় কবি ও আবৃত্তিকার গোপন সাহা। সেমিনার ও আলোচনায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিক সাপ্তাহিক বাঙালী সম্পাদক ও সাহিত্য সমালোচক কৌশিক আহমেদ। তিনি বাংলাদেশের গণহত্যার উপর তথ্যবহুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। অনুষ্ঠানে গণহত্যায় শহীদের স্মরণে মোমের আলো প্রজ্জ্বলন করা হয় এবং ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসের প্রথম প্রহরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয় ও সম্মিলিত কণ্ঠে জাতীয় সংঙ্গীত পরিববেশিত হয়।
 
প্রধান অতিথী ছিলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশ মিশনের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাস্টদূত জনাব মাসুদ-বিন-মোমেন বলেন ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস (জেনোসাইড স্মরণ ডে) হিসাবে জাতিয় সংসদে স্বীকৃতি প্রদান করায় বহিঃবিশ্বে একাওুরের গনহত্যার স্বীকৃতি আদায়ের পথ অনেক প্রসস্ত হয়েছে। তিনি আরো বলেন আমরা বাংলাদেশ মিশন থেকে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধির সহিত দেন দরবার শুরু করে দিয়েছি। তিনি জেনোসাইড ’৭১ ফাউন্ডেশন, ইউএসএ এর নেএীবৃন্দদের দেশে ও বিদেশে ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস (জেনোসাইড স্মরণ দিবস) হিসাবে স্বীকৃতি আদায়ে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ধন্যবাদ জানান।
 
সভাপতি ড. প্রদীপ রঞ্জন কর তার বক্তব্যে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবসের (জেনোসাইড স্মরণ দিবস) স্বীকৃতির বিষয়ে জেনোসাইড ’৭১ ফাউন্ডেশন, ইউএসএ এর কর্মকাণ্ড তুলে ধরে বলেন একাত্তুরে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর এই দীর্ঘ ৪৬ বছর ২৫ মার্চ কালরাত স্মরণে শ্রদ্ধাঞ্জলি, স্মরণসভা কিংবা আলোচনা সভার মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল। ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবসের কোন আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি ছিল না। কিন্তু ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবসের কোন আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি না থাকলেও গত ১৫ বছর যাবৎ  নিউইয়কে জেনোসাইড ’৭১ ফাউন্ডেশন নামে সংগঠনটি ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস (জেনোসাইড স্মরণ দিবস)  হিসাবে স্বীকৃতির দাবী জানিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচীর মাধ্যমে দিবসটি পালন করে আসছে। তিনি আরো বলেন আমাদের জানামতে নিউইয়ক থেকেই সর্বপ্রথম ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস (জেনোসাইড স্মরণ দিবস) হিসাবে স্বীকৃতির দাবী উপস্থাপন করা হয়েছে এবং তা বাস্তবায়নে আন্দোলন পরিচালিত হয়েছে। প্রথম দিকে এ দাবী বক্তব্য-বিবৃতির মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও পরবওীতে ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস (জেনোসাইড স্মরণ দিবস) হিসাবে স্বীকৃতির জন্য প্রাতিষ্ঠানিক রুপ দিয়ে জেনোসাইড ’৭১ ফাউনণ্ডেশন, ইউএসএ (পূর্বে এর নাম ছিল International Campaign Against Genocide And War Crimes Inc.) নামে সংগঠন গঠন করে সুনিদিস্ট কর্মসূচীর মাধ্যমে কর্মতৎপরতা পরিচালিত হয়।
২৫ মার্চকে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস (জেনোসাইড স্মরণ দিবস)  সহ অন্যান্য দাবীতেও জেনোসাইড ’৭১ ফাউনণ্ডেশন, ইউএসএ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে আসছে। বিশেষ করে-এই সংগঠনের পক্ষ থেকে মানবতাবিরোধী ও  যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবীতে বিভিন্ন সময়ে বিক্ষোভ সমাবেশ, মানবন্ধন ইত্যাদি কার্যক্রম আয়োজন করা হয়েছে। জাতীয় বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক ইস্যুতে বক্তব্য, বিবৃতি ও সংবাদ সম্মেলন এই সংগঠনের পক্ষ থেকে করা হয়েছে। প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকল শক্তি একএিত করে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের অনেক আন্দোলন পরিচালনা ছিল এই সংগঠনের একটা বড় প্রয়াস। মৃতু্দণ্ডপ্রাপ্ত কুখ্যাত আবুল কালাম আজাদ বাচ্চু রাজাকারের মুখোষ জনগনের সামনে উন্মোচনও এই সংগঠনের পক্ষ থেকে করা হয়। এই সংগঠনের কার্যক্রম সুদুর কানাডার টরেন্টো সিটিতে পর্যন্ত প্রসারিত ছিল।
গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির আদায়ে ইউএস মুলধারার রাজনীতিবিদ, বিশেষ করে ইউএস কংগ্রেস বাংলাদেশ ককাসের কো-চেয়ার কংগ্রসম্যান জোসেফ ক্রাউলি ও কংগ্রসম্যান পিটার কিং এর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বাংলাদেশে সংগঠিত গণহত্যার বিভিন্ন তথ্য-উপাওের ডকুমেণ্ট হস্তান্তর করে ইউএস কংগ্রেসে বাংলাদেশের গণহত্যা স্বীকৃতির পক্ষে একটি রেজুলেশন গ্র্রহন করার প্রস্তাব করা হয়েছিল। এছাড়া জাতিসংঘ মহাসচিব বরাবর দফায় দফায় বাংলাদেশের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির যৌতিকতা তুলে ধরে স্বারকলপি পেশ করা হয়েছে। বাংলাদের জাতীয় নেএীবৃন্দ বিশেষ করে মাননীয় রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকার এবং বেশ কয়েকজন মন্ত্রীবগ বিশেষ করে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মূহিত, আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, সাবেক পরিকল্পনা মন্ত্রী এ, কে খন্দকার, সাবেক পররাস্ট্র মন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি,  সাবেক আইন প্রতিমন্ত্রী ও বতমান খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী আ,ক,ম মোজাম্মেল হক ও বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কমাণ্ড কাউন্সিলের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল হেলাল মোশেদ সহ আরো অনেক জাতীয় নেতৃবন্দদের জাতীয় সংসদে ২৫ মার্চকে গণহত্যা স্মরণ দিবস হিসাবে স্বীকৃতির বিল উন্থাপনের মাধ্যমে রেজুলেশন পাশ ও বাংলাদেশ জাতিসংঘের সদস্যদেশ হিসাবে জাতিসংঘের সাধারন অধিবশেনে ২৫ মার্চকে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস (জেনোসাইড স্মরণ দিবস) হিসাবে স্বীকৃতির আদায়ের জন্য প্রস্তাব পেশ ও প্রস্তাবের পক্ষে জোড় কূটনৈতিক তৎপরতা চালানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। জেনোসাইড ’৭১ ফাউনণ্ডেশন, ইউএসএ এতসব কর্মকান্ড জাতীয় সংসদে ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস (জেনোসাইড স্মরণ দিবস) অনুমোদনের প্রস্তাব প্রভাবিত হয়েছে।


আলোচনায় অন্যান্যের মধ্যে অংশ নেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব বেলাল বেগ, প্রবীন সাংবাদিকক সৈয়দ মোহাম্মদ উল্লাহ, সাপ্তাহিক ঠিকানা পএিকার প্রধান সম্পাদক ফজলুর রহমান,  বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা খান মিরাজ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আবদুল মূকিত চৌধূরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা খুরশীদ আরোয়ার বাবলু, বীর মুক্তিযোদ্ধা শওকত আকবর রীচি, হাকিকুল ইসলাম খোকন, বীর মুক্তিযোদ্ধা সুব্রত বিশ্বাস, লুত্ফুন নাহার লতা, আলী হাসান কিবরিয়া অনু, মোজাহিদ আনসারী,  ওবায়দুল্লাহ মামুন, কৃষিবিদ আশরাফুজ্জামান, মোঃ সুলাইমান আলী, সিরাজ উদ্দিন আহম্মেদ সোহাগ, নূরে আলম জিকু, ফাহিম রেজা নূর, মোশদা জামান, মিনহাজ আহমেদ, হারুনূর রশিদ, জাকির হোসেন বাচ্চু প্রমুখ।
আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস (জেনোসাইড স্মরণ দিবস) হিসাবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছে জেনোসাইড ’৭১ ফাউন্ডেশন, ইউএসএ। বক্তারা জেনোসাইড ’৭১ ফাউন্ডেশন, ইউএসএ এর কমকওাদের এই অসাধারন কাজ পরিচালনার জন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। বাংলাদেশের সংসদে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস হিসাবে স্বীকৃতি পাওয়ায় আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবসের স্বীকৃতি আদায়ের কাজকে ত্বরান্বিত করেছে। তবে গণহত্যা দিবসের স্বীকৃতি পেতে ৪৬ বছর আমাদের অপেক্ষা করতে হয়েছে। আলোচনা সভায় বক্তারা ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস না বলে ‘জেনোসাইড ডে’ হিসাবে পালনের আহ্বান জানিয়ে বলেন, একাত্তরে বাংলাদেশে যত মানুষকে হত্যা করা হয়েছে বিশ্বের আর কোনো দেশে এত বড় হত্যাযজ্ঞ সংঘটিত হয়নি। বক্তারা বাংলাদেশের গণহত্যার (জেনোসাইড) আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ে প্রবাসী বাঙালি, এনজিও, সুশীল সমাজ, মিডিয়া, সাহিত্যিক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, শিক্ষাবিদ ও গবেষকসহ সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
 
আলোচনা সভায় বক্তারা ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস না বলে ‘জেনোসাইড স্মরণ দিবস’ হিসাবে পালনের আহ্বান জানিয়ে বলেন, একাত্তরে বাংলাদেশে মাএ ৯ মাসে যত মানুষকে হত্যা করা হয়েছে বিশ্বের আর কোনো দেশে এত বড় হত্যাযজ্ঞ সংঘটিত হয়নি। বক্তারা বাংলাদেশের গণহত্যার (জেনোসাইড) আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ে প্রবাসী বাঙালি, এনজিও, সুশীল সমাজ, মিডিয়া, সাহিত্যিক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, শিক্ষাবিদ ও গবেষকসহ সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
 
অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী শহীদ হাসান, শফি চৌধুরী হারুন, জলি কর ও তাহমিনা শহীদ। এছাড়া কবিতা আবৃত্তি করেন মিথুন আহমেদ, মুমু আনসারী, খুরশীদ আনোয়ার বাবলু, নাহিদ নজরুল, শুক্লা রায় প্রমুখ।
 
আলোচনা শেষে নিম্নোক্ত প্রস্তাব গুলো গ্রহন করা হয়ঃ-
 ১) ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস না বলে ‘জেনোসাইড স্মরণ দিবস’ হিসাবে পালনের প্রস্তাব করা হল।
 ২) বাংলাদেশের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি চাই। ৩) একাওুরের গণহত্যায় নিহতদের পরিবারের পুনবাসন চাই।
 ৪) আন্তর্জাতিক আদালতে পাকিস্থান হানাদার বাহিনীর ১৯৫ জন যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রক্রিয়া শুরু করা।
 ৫) পাকিস্থানের কাছে পাওনা ৩৭ হাজার কোটি টাকা ফেরৎ আনা ও পাওনা সম্পদের শেয়ার আদায় করা।
 ৬) যুদ্ধাপরাধীদের দ্রুত বিচার ও পালিয়ে থাকা দন্ডপ্রাপ্ত আসামীদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে দন্ড কার্যকর করা।
 ৭) অবিলম্ভে জামাত-শিবির নিষিদ্ধ করা।
 ৮) দেশের সকল পর্য্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠ্যসূচীতে গনহত্যা (জেনোসাইড) বাধ্যতামুলক পাঠ্য হিসাবে চালু করা এবং
    যুক্তরাষ্ট্রসহ বিদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও পাঠ্য হিসাবে বাংলাদেশের গনহত্যা (জেনোসাইড) অন্তরভূক্ত করার প্রয়াস
    অব্যহত রাখা।
৯) গণহত্যা (জেনোসাইড) উপর গবেষনার উদ্দেশে জাতীয় পর্য্যায় গবেষণা ইনিস্টিটিউট প্রাতিষ্ঠা করা।


নিউইয়র্কে নিহত বাংলাদেশি জাকির খানের হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মত বিনিময় সভা

বুধবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৭

Picture

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ :নিউইয়র্কে বাড়ীর মালিকের ছুরিকাঘাতে নিহত বাংলাদেশি রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী কমিউনিটির পরিচিত মুখ জাকির খানের হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবিতে আগামী ২২ জুন ব্রঙ্কস সুপ্রিম কোর্টের সামনে বিশাল প্রতিবাদ সভার ডাক দিয়েছে কমিউনিটির নের্তৃবৃন্দ। স্থানীয় সময় গত ২ এপ্রিল রোববার রাতে ব্রঙ্কসের গোল্ডেন প্যালেসে অনুষ্ঠিত এক মত বিনিময় সভা থেকে এ কর্মসূচি ঘোষণা করে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশী কমিউনিটির নের্তৃবৃন্দ।

alt
প্রয়াত জাকির খানের এলাকা নিউইয়র্কে বসবাসরত ফেঞ্চুগঞ্জবাসী আহুত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন ফেঞ্চুগঞ্জ অর্গেনাইজেশনের সভাপতি আব্দুস শহীদ দুদু। সংগঠনের প্রতিষ্ঠকালীন সাধারণ সম্পাদক আহবাব চৌধুরী খোকনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এই মতবিনিময় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাকালীন আহবায়ক জুনেদ আহমদ চৌধুরী ও অর্গেনাইজেশনের সাধারণ সম্পাদক শামীম মিয়া। অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমদ, সিনিয়ার সহ সভাপতি আব্দুর রহিম হাওলাদার, বাংলাদেশ-আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ও ব্রঙ্কস কমিউনিটি বোর্ডের

alt

ফাস্ট ভাইস চেয়ারম্যান মূলধারার রাজনীতিক মোহাম্মদ এন মজুমদার মাস্টার অব ল, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জেড চৌধুরী জুয়েল, বাংলাদেশ সোসাইটির বোর্ড অব ট্রাষ্টি আব্দুল হাসিম হাসনু, নিউইয়র্ক সিটির কুইন্স ডিস্ট্রিক্ট ৩২ এর কাউন্সিলম্যান পদপ্রার্থী মূলধারার রাজনীতিক হেলাল আবু শেখ, বাংলাদেশ-আমেরিকান ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক সোসাইটির সাবেক প্রেসিডেন্ট মূলধারার রাজনীতিক আবদুস শহীদ, মামুন’স টিউটোরিয়ালের প্রিন্সিপাল শেখ আল মামুন, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট আব্দুল বাসিত চৌধুরী, আব্দুর রব দলা মিয়া, আজিমুর রহমান বুরহান, তোফায়েল আহমদ চৌধুরী, আনোয়ার হোসেন, হারুন আহমদ চৌধুরী, প্রফেসর সৈয়দ মুজিবুর রহমান, প্রফেসার আব্দুল কাইয়ুম, এডভোকেট নাসির উদ্দীন, মাহবুব আলম, সৈয়দ আল ওয়াহিদ নাজিম, সাংবাদিক সাখওয়াত হোসেন সেলিম, আহসান হাবিব, মেসবাউজ্জামান, ডা, নাহিদ খান, নজরুল হক, নুরে আলম জিকু, নুরুল এহিয়া, রফিকুল ইসলাম, কফিল আহমদ চৌধুরী, শাহজাহান শাহ, মনির আহমদ, নুরে আলম জিকু, মাকসুদা আহমেদ, রিয়াজ উদ্দীন কামরান, মোহতাসিম বিল্লাহ তুষার, রাশেদুল ইসলাম শিশু, শামীম আহমদ প্রমুখ।

alt
সভায় প্রয়াত জাকির খানের দু’সহোদর জুবের আহমদ খান ও নাদির আহমদ খানও বক্তব্য রাখেন। তারা তাদের পরিবারের এই দুর্দিনে সহযোগীতা করার জন্য কমিউনিটি নের্তৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।সভায় জাকির খানের হত্যাকান্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করা হয়। সভায় জাকির খানের খুনী তাহার মাহরানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে আগামী ২২ জুন ব্রঙ্কস সুপ্রিম কোর্টের সামনে দিনভর সকল স্থরের নারী-পূরুষের অংশ গ্রহণের মাধ্যমে বৃহত্তম প্রতিবাদ সভা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।alt
উল্লেখ্য, চাঞ্চল্যকর জাকির খান হত্যা মামলার পরবর্তী তারিখ আগামী ২২ জুন। এদিন জাকির খানের খুনী তাহার মাহরানকে ব্রঙ্কস সুপ্রিম কোর্টে হাজির করা হবে।মত বিনিময় সভায় জাকির খানের বিচারের দাবীতে গঠিত জাষ্টিস ফর জাকির খান ওয়েব সাইটে গিয়ে দেশ ও প্রবাসের সবাইকে অন লাইনে সাইন করার আহবান জানানো হয়।alt
সভায় জাকির খানের বিচারের দাবীতে জনমত গড়ে তুলতে আগামী ১৪ এপ্রিল জ্যাকসন হাইটসে বাংলাদেশ সোসাইটি আয়োজিত বৈশাখী মেলায় জাষ্টিস ফর জাকির খান নামে একটি বুথ খোলার সিদ্ধান্ত হয়।সভায় বক্তারা জাকির খানের মামলা পরিচালনায় সহযোগীতার জন্য কমিউনিটির পক্ষ থেকে অভিজ্ঞ এটর্ণি নিয়োগের ব্যাপারে মতামত ব্যক্ত করেন। এ ব্যাপারে ফান্ডরেইজিংয়ের জন্য কেউ কেউ পরামর্শ দেন।alt
সভায় জাকির খানের হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবির এই সামাজিক আন্দোলনে সকল স্থরের প্রবাসী বাংলাদেশীদের সম্পৃক্ত করতে বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমদকে আহবায়ক, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক জেড চৌধুরী জুয়েলকে সদস্য সচিব এবং বাংলাদেশ-আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এন মজুমদারকে প্রধান সমন্বয়কারী ও মুখপাত্র করে একটি কমিটি গঠন করা হয়।

alt
সভায় জাকির খানের বিদেহী আতœার মাগফেরাত এবং তার বিধবা স্ত্রী ও সন্তানদের জন্য আল্লাহর রহমত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন পার্কচেষ্টার জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা মো. মইনুল ইসলাম।

alt
সভায় বিশিষ্ট রাজনীতিক যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহিম বাদশা, কমিউনিটি অ্যাকটিভিস্ট সিরাজ উদ্দিন সোহাগ, নিউইয়র্ক এসেম্বলি ডিস্ট্রিক্ট ৮৭ এর জুডিশিয়াল ডেলিগেট ও বাংলাদেশী আমেরিকান উইম্যান এসোসিয়েশন’র প্রেসিডেন্ট রেক্সোনা মজুমদার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কাওছারুজ্জামান কয়েছ, হোসেন আহমদ, ফয়ছল চৌধুরী, লোকমান হোসেন লুকু, আব্দুর রহিম, মনজুর চৌধুরী জগলু, মখন মিয়া, সবুর আহমদ খান, হেলাল আহমদ, কাওছার আহমদ, ব্রঙ্কস বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের সভাপতি এ ইসলাম মামুন, সরোয়ার আলী, চৌধুরী মোমিত তানিম, সামাদ মিয়া জাকের, ইহাহিয়া খান, বুবহান উদ্দীন, নুর উদ্দীন, মামুন রহমান, রেহানুজ্জামান, সৈয়দ খছরুজ্জামান, কবির আহমদ খান, আপ্তাব উদ্দীন খান মোহন, জুই ইসলাম, জুবের চৌধুরী, নুরুজ্জামান লিপনসহ কমিউনিটির বিপুল সংখ্যক প্রবাসী উপস্থিত ছিলেন।

alt
সভায় উপস্থিত সকলে এ কর্মসুচির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে প্রয়োজনীয় সহযোগীতা প্রদানের আশ্বাস প্রদান করেন।উল্লেখ্য, নিউইয়র্কে ব্র্রঙ্কসের থ্রগসনেক এলাকায় ১০০১ লগান এভিনিউর নিজ বাসার সামনে গত ২২ ফেব্রুয়ারী বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় বাড়ীর মালিকের ছুরিকাঘাতে নির্মমভাবে খুন হন বাংলাদেশি খ্যাতনামা রিয়েলেটর ও কমিউনিটি এক্টিভিষ্ট জাকির খান (৪৪)। জাকির খানের বাড়ির মালিক মিসরীয় বংশোদ্ভূত তাহার মাহরান (৫১) কে পুলিশ ওইদিন রাতেই গ্রেপ্তার করে। তিনি এখন কারাগারে রয়েছেন।


নিউইয়র্কে মরহুম ড. ফয়সাল আহমেদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

বুধবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৭

আব্দুল হামিদ ,হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে :: কূষিবিদ মরহুম ড: ফয়সল আহমেদ চৌধুরীর রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল ও বণার্ঢ্য জীবন সম্পর্কে আলোচনা এবং স্মৃতি পর্যালোচনা করেন যুক্তরাষ্ট প্রবাসী কৃষিবিদ পরিবারের অনেক সদস্যরা । শোক সভায বিশিষ্ট কৃষিবিদ প্রতিষ্টাতা সভাপতি ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং কূষিবিদ মিজানুর রহমানের পরিচলনায গত ২রা এপ্রিল নিউইয়র্কে জ্যাকসন হাইটসে মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা ও বণার্ঢ্য শিক্ষকতা জীবন নিয়ে বক্ততারা আলোচনা করেন আলোচনায় অংশগ্রহন করেন মরহুমের ছাত্র সহপাঠী বন্ধুরা । সভায মরহুমের জীবনী নিয়ে স্থিতিচারণ করেন কূষিবিদ সাদিক প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ নাজমুল ইসলাম চৌধুরী, কৃষিবিদ আব্দুস সবুর, কৃষিবিদ কাজী গোলাম মোস্তফা, কৃষিবিদ মাহমুদ চৌধুরী মামুন, কৃষিবিদ আবু রেজাউল করিম, কৃষিবিদ আব্দুল কাদির, কৃষিবিদ ড: মনজুরুল হক, কৃষিবিদ মনোয়ারুল ইসলাম, কৃষিবিদ মইনুল ইসলাম, কৃষিবিদ আসাদুজ্জামান কিরণ, সভা পরিচালনা করেন কৃষিবিদ সৈয়দ মিজানুর রহমান।

Picture

অতিথি বক্তা ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগ এর ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ, সহসভাপতি সৈয়দ বসারত আলী উপদেষ্টা ডা: মাসুদুল হাসান । সভায আরো উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহাম্মেদ. প্রবাসী সম্পাদক সোলাযমান আলী.যুক্তরাস্ট্র আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য শাহানারা রহমান. খোশসেদ খন্দাকার .আব্দুল হামিদ.প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয। উল্লেখ্য মরহুম ড. ফয়সাল আহমেদ গত ২৮শে মার্চ ডালাসে তার মূত্যু হয। বাংলাদেশের সিলেটে তাহার জন্মভূমিতে দাফন সম্পন্ন করা হয।


৬ এপ্রিল নিউ ইয়র্কে মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের জন্মবার্ষিকী পালনের উদ্যোগ

বুধবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৭

Picture

মহানায়িকার প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর এই অনুষ্ঠানে সুচিত্রা প্রেমিকদের উপস্থিত হওয়ার আমন্ত্রন জানিয়ে নাট্যকর্মী ও বাচিক শিল্পী লুৎফুন নাহার লতা বলেন. ‘সুচিত্রা সেন একজন কিংবদ›িন্ত অভিনেত্রীর নাম। তিনি আমার কাছে প্রাতঃস্মরণীয় নমস্য। তার অক্লান্ত শ্রম ও সাধনা বাংলা সিনেমাকে দিয়েছে গৌবর উজ্জল পরিচয়। তিনি শিল্পের এই শাখার এক মহান দিকনির্দেশক। তার অমলিন স্মৃতির জন্য নিরন্তর যারা কাাজ করে যাচ্ছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। আসুন সবাই মিলে এই সুন্দর আয়োজনকে সফল করি।” প্রিয় নায়িকার অনুষ্ঠানে সবাইকে উপস্থিত থাকতে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আহ্বান জানিয়েছেন নিউইর্য়ক সুচিত্রা সেন মেমোরিয়ালের গোপাল স্যানাল।


সুনামগঞ্জ জেলা সমিতি ইউএসএ’র নতুন কমিটি : সভাপতি জুসেফ, সম্পাদক টিপু

বুধবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৭

Picture

সুনামগঞ্জ জেলা সমিতির সভাপতি মো. জুসেফ চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান রানা ও নির্বাহী সদস্য মানিক আহমেদের পরিচালনায় এ সাধারণ সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সমিতির প্রধান নির্বাচন কমিশনার মুক্তিযোদ্ধা ছদরুন নূর, নির্বাচন কমিশনার ইকবাল আহমেদ মাহবুব, আবদুস সহীদ, আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন, এস এম জলিল, নুরুজ্জামান শাহী, রাবেয়া মালিক, তোফায়েল আহমদ চৌধুরী, আজমল আলী প্রমুখ।সভায় সমিতির ২০১৭-২০১৯ সালের জন্য ২৭ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটির নাম ঘোষনা করেন নির্বাচন কমিশনার ইকবাল আহমেদ মাহবুব।

alt
 নতুন কমিটির কর্মকর্তারা হলেন : সভাপতি মো. জুসেফ চৌধুরী, সহ সভাপতি মো: মনির উদ্দিন আহমেদ, মো: আবদুল আজিজ, হিরন্ময় আচার্য্য ও নুরুল হক, সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুল আম্বিয়া টিপু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুমায়ূন কবির সোহেল, কোষাধ্যক্ষ এফ রহমান কামাল, প্রচার সম্পাদক হামজা কোরেশী, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক কয়েছ খান, ক্রীড়া ও আপ্যায়ন সম্পাদক এমডিএস কবির, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আবদুল আউয়াল, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, আইন ও আন্তর্জাতিক সম্পাদক অধ্যাপক আমিনুল হক চুন্নু, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রেহানা নূর, দপ্তর সম্পাদক মো: শুকুর আলী, কার্যকরী সদস্য : আফতাব আলী, আজিজুর রহমান রানা, মানিক আহমেদ, আলী রেজা, হাবিবুর রহমান, হোসেন আহমেদ, মান্না মুত্তাছির, রুমেল হোসেন, কয়ছর আহমেদ ও আবদুর রউফ।অনুষ্ঠানে নবনির্বাচিত কমিটিকে শপথ পাঠ করান সমিতির প্রধান নির্বাচন কমিশনার মুক্তিযোদ্ধা ছদরুন নূর। এ সময় অন্যান্য নির্বাচন কমিশনারাও উপস্থিত ছিলেন।alt
নব নির্বাচিত সভাপতি জুসেফ চৌধুরী ও নব নির্বাচিত সাধারণ সস্পাদক তৌফিকুল আম্বিয়া টিপুসহ নয়া কমিটির কর্মকর্তারা তাদের নির্বাচিত করার জন্য যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সুনামগঞ্জবাসীর প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা জানান। কর্মকর্তারা দেশে ও প্রবাসে সুনামগঞ্জবাসীর কল্যাণে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সকলের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় সুনামগঞ্জ জেলা সমিতি ইউএসএ সম্প্রীতি ও সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশের মধ্য দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে সুনামগঞ্জের সুনাম অক্ষুন্ন রাখার জন্য সুনামগঞ্জবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তারা।সভায় দেশ, প্রবাস ও বিশ্ব মানবতার শান্তি ও মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী সকল শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়। দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন বাংলাবাজার জামে মসজিদের খতীব মাওলানা আবুল কাশেম এয়াহইয়া। সভায় বিপুল সংখ্যক প্রবাসী সুনামগঞ্জবাসী উপস্থিত ছিলেন।


মিশিগানে বৈশাখী মিউজিক শো

বুধবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৭

সাইফুল আজম সিদ্দিকী,বাপ্ নিউজ : মিশিগান (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে  : পহলো বৈশাখের আগেই যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে বৈশাখী হাওয়া লেগেছে। মিশিগানের হামট্রামাক শহরে শনিবার (১ এপ্রিল) অনুষ্ঠিত হয়েছে, বাংলা স্কুল অফ মিউজিক আয়োজিত বাংলা নতুন বর্ষ মিউজক্যাল শো-২০১৭।

Picture

বাংলা গান এবং বাংলা ভাষার ঐশ্বর্য সম্পর্কে বাংলাদেশি ও ভারতীয় বাঙালিদের নতুন প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেবার লক্ষ্য নিয়ে এক দশক আগে বাংলা স্কুল অব মিউজিকের পথচলা।

uae

মিউজক শো`র এ আয়োজনে প্রথমে স্কুলের শিক্ষার্থীরা অতিথিদের সামনে গান পরিবেশন করেন। ছোট ছোট বাচ্চারা একক ও দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন। বড়দের পর্বেও একক ও দলীয় সঙ্গীত দর্শকদের বিমহিত করে।অনুষ্ঠানের প্রধান আকর্ষণ ছিল অতিথি শিল্পীর পরিবেশনা। অতিথি শিল্পী ছিলেন বাংলা মডার্ন ফোকের জনপ্রিয় শিল্পী ফরিদ রহমান।

uae

শিশু শিল্পীদের মাঝে গান পরিবেশন করেন জারা আনোয়ার, সৌরভ, অমিতা মৃধা, অহনা, মুক্তি, দীপ্ত, অর্পিতা, সুকান্ত, পিয়াস, দিতি, স্নেহা, শ্রুতি, শ্রদ্ধা। এছাড়াও গান পরিবেশন করেন বাংলা স্কুলের কর্ণধার – সভাপতি ও প্রিন্সিপাল আকরাম হোসাইন, এথেনা আকরাম, আহমেদুল হাসান রুশো, তানজীন চৌধুরী, কামরুন হায়দার, চিনু মৃধা (দীপা), শাম্মী আক্তার, মাহফুজুর রহমান, রতন হাওলাদার, শফিক রহমানসহ অনেকে।আইরিন সুলাতানা এনির উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে তবলায় ছিলেন উত্তম বড়ুয়া এবং জাফরি আল কাদরী, গিটারে আথেনা আকরাম, পারকাসন প্যাডে ছিলেন মিউজক স্কুলের সাধারণ সম্পাদক ড. নাজমুল আনোয়ার।

uae

প্রবাসী বাংলাদেশি ও বাংলা ভাষাভাষীদের মাঝে ভাষা ও সংস্কৃতির স্মরণ ও লালন, তরুণ প্রজন্মের সঙ্গে বাংলা গানের ঐতিহ্য ভাগাভাগি করার লক্ষ্যে এ প্রতিষ্ঠান অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে।