Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

যুক্তরাষ্ট্রের খবর

নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র ইফতার মাহফিলে মসজিদ স্থাপনের ঘোষণা

শুক্রবার, ১৬ জুন ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খাকন,বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে : মসজিদ স্থাপনের ঘোষণার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল নিউইয়র্কে বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের সবচেয়ে বড় সংগঠন জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশী বিজনেস এসোসিয়েশন অব নিউইয়র্ক (জেবিবিএ)’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল। জ্যাকসন হাইটসে বেলোজিনো পার্টি হলে গত মঙ্গলবার আয়োজিত আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত এ মাহফিলে ছিল উপচে পড়া ভিড়। ব্যবসায়িদের মিলনমেলায় পরিনত হয়েছিল এ অনুষ্ঠানটি। শুধু ব্যবসায়ি নন, কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তি ছাড়াও নিউইয়র্কে কর্মরত বিভিন্ন মিডিয়ার সদস্যদের সরব উপস্থিতি ছিল লক্ষ্য করার মত। ইফতারের দোয়ার আগ পর্যন্ত সবাই কোলাকুলি আর আড্ডায় মেতে ওঠেন।

Picture

আমন্ত্রিত অতিথির বাইরে অতিরিক্ত শতাধিক অতিথিকে সামাল দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হয় জেবিবিএ কর্মকর্তাদের। ইফতারের সময় অনেকেই টেবিলে বসার সুযোগ পাননি। তাদের সাথে দাঁড়িয়ে জেবিবিএ কর্মকর্তাদের একসাথে ইফতার গ্রহণ করতে দেখা গেছে। এছাড়া ইফতারের সময় জেবিবিএ প্রেসিডেন্ট সহ কর্মকর্তাদের টেবিলে টেবিলে গিয়ে অতিথিদের খোঁজ নিতে দেখা যায়। ইফতার মাহফিলে জ্যকসন হাইটসের ব্যবসায়িদের জন্য মসজিদ স্থাপনের ঘোষণা করা হয়।

alt

জেবিবিএ প্রেসিডেন্ট জাকারিয়া মাসুদ জিকোর সভাপতিত্বে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেবিবিএ’র সিনিয়র সহসভাপতি শাহনেওয়াজ, সেক্রেটারি তারেক হাসান খান ও মাহফিলের আহ্বায়ক হাসান জিলানী । এসময় জেবিবিএ’র কার্যকরি পরিষদের সদস্য ছাড়াও সংগঠনের উপদেষ্টা ও বিভিন্ন সাপ্তাহিকের সম্পাদক সহ কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। তাদের মধ্যে সাবেক এম পি এম এম শাহীন, জেবিবিএ’র প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ও উপদেষ্টা মো: মহসিন মিয়া, জেবিবিএ উপদেষ্টা মোহাম্মদ রহমান, চট্রগ্রাম সমিতির প্রেসিডেন্ট আব্দুল হাই জিয়া উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া কোরআন তেলোয়াত করেন মাওলানা কাজী কাইয়্যুম, পবিত্র মাহে রমজানের পবিত্রতা ও তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা ও দোয়া পরিচালনা করেন আবু হোরায়রার মসজিদের ইমাম মুফতি ফায়েকউদ্দিন এবং ব্যবসা বানিজ্যে রমজানের গুরুত্ব নিয়ে আলোচনা করেন আইটিভির ইউএস’র প্রধান নির্বাহী আলহাজ

alt

 

জেবিবিএ প্রেসিডেন্ট জাকারিয়া মাসুদ জিকো তাঁর বক্তৃতায় জানান, নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ি জেবিবিএ নির্বাহী কমিটি জ্যাকসন হাইটস এলাকার ব্যবসায়িদের নামাজ আদায়ের জন্য একটি মসজিদ স্থাপন করবে। এ ব্যাপারে একটি রূপরেখা তৈরি করা হয়েছে। ইতোমধ্যে এলাকায় কয়েকটি ভবণ দেখা হয়েছে। তিনি বলেন, ৭৩স্ট্রিটে যে মসজিদ রয়েছে তাতে মুসল্লিদের স্থান সংকুলান হচ্ছে না।এরআগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানকে সামনে রেখে হাসান জিলানীকে আহ্বায়ক করে একটি কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটির প্রধান সমন্বয়কারি এম লিয়াকত আলী, সমন্বয়কারি কামরুজ্জামান বাচ্চু এবং সদস্য সচিব মাহমুদ হোসাইন বাদশা।


ফিলাডেলফিয়ায় বি.টি.এস.পি’র ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

শুক্রবার, ১৬ জুন ২০১৭

বাপ্ নিউজ : গত ১৩ জুন মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় ফিলাডেলফিয়ার আপার ডার্বির মদিনা মসজিদে বাংলাদেশ ট্যাক্সি সোসাইটি অব ফিলাডেলফিয়ার ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে সদ্য নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট সাইয়েখুল ইসলাম ইফতার মাহফিলের আয়োজন করেন। তিনি নিজে উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানের সব কাজ তদারকি করেন।
আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের নব-নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক এ.বি.এমআলতামাশ বাবুল। তিনি অনুষ্ঠানে সকলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেন এবং অভ্যর্থনায় নিয়োজিত ছিলেন। ল্যান্সডেল, নর্থইষ্ট, বেন সালাম, ডেলোয়ার, নিউ জার্সিবিটিএসপির প্রত্যেক সদস্য স্বপরিবারে ইফতার মাহফিলে উপস্থিত হওয়ায় তিনি আন্তরিক অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানান। তাছাড়া বি.টি.এস.পি’র প্রধান উপদেষ্টা এ আর খান লাভলু স্মরনকালের সর্ববৃহৎ ইফতার মাহফিলের আয়োজন করতে পারায় অত্যন্ত আনন্দিত এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বর্তমান প্রেসিডেন্ট এবং সেক্রেটারিকে বিটিএসপির সদস্যভুক্ত বিভিন্ন এলাকা যেমন ল্যান্সডেল, নর্থইষ্ট, বেন সালাম, নিউ জার্সি, ডেলোয়ার প্রভৃতি জায়গাতেও যেন সামনের বছরগুলোতে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা যায় সেই ব্যাপারে বিশেষ ভাবে পরামর্শ দেন। বিটিএসপির উপদেষ্টাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেনপ্রধান উপদেষ্টা এ আর খান লাভলু, উপদেষ্টা গোলাম আবিদ মিয়াঁ, উপদেষ্টা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, উপদেষ্টা মোঃ জিল্লুর রহমান এবং সংগঠনের কমিটির প্রত্যেকটি সদস্যবৃন্দ।
এতে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন, প্রাক্তন সহ সভাপতি মোঃ ইদ্রিস আলী, বর্তমান সিনিয়র সহ সভাপতি মোঃ জাকিরুল আলম জাকির, সহ সভাপতি আজম মাহাবুবুর রহমান, সহ সাধারণ সম্পাদক মোঃ চৌধুরী বাবু, সহ কোষাধ্যক্ষ জাকির হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক নূর উদ্দিন দানিয়াল বাদশা, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন, দপ্তর সম্পাদক আবদুল্লাহ আল আমিন চান, প্রচার সম্পাদক গোলাম মইনুদ্দিন, ক্রীড়া সম্পাদক রফিকুন্নবী রুকু, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মোঃ হাফিজুর রহমান। সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আবুল কাশেম, রেজাউল করিম, বি এম আবদুল ওয়ারেশ, মোঃ রবিউল ইসলাম।
প্রেসিডেন্ট সাইয়েখুল ইসলাম ল্যান্সডেল, নর্থইষ্ট, বেন সালাম, ডেলোয়ার, নিউ জার্সিএলাকার উপস্থিত সকল বিটিএসপির সদস্যবৃন্দকে অনুষ্ঠানে এসে এক সাথে ইফতার করার জন্যে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান এবং বিশেষভাবে কৃতজ্ঞতা জানান। বিটিএসপি যেন প্রতিটি এলাকায় এভাবে ইফতারের আয়োজন করতে পারে, এই ব্যাপারে তিনি সবার কাছে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি রমজানের পর সবাইকে নিয়ে বিটিএসপির পিকনিকে সংগঠনের সকল সদস্যকে স্বপরিবারে উপস্থিত হওয়ার জন্যে সবাইকে আমন্ত্রণ জানান।


মুন্সিগঞ্জ বীক্রমপুর এসোসিয়েশন-এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন

শুক্রবার, ১৬ জুন ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খাকন,বাপসনিঊজ:গত ১১ই জুন শনিবার মুন্সিগঞ্জ বিক্রমপুর এসোসিয়েশন-এর ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয় উডসাডের কুইন্স প্যালেস পার্টি হলে। দোয়া মাহফিলে সভাপতির আসন গ্রহণ করেন মুন্সিগঞ্জ বীক্রমপুর এসোসিয়েশনের সভাপতি ইকবাল হোসেন। উক্ত ইফতার ও দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আবু সায়েম ঢালী এবং ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আহবায়ক  হাবীবুর রহমান দেওয়ান। ইফতার ও দোয়া মাহফিলের প্রধান অতিথির আসন গ্রহণ করেন কনসাল্ট জেনারেল  শামীম আহমেদ। বিশেষ অতিথির আসন গ্রহণ করেন সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আকতার হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা কামরুল হাসান চৌধুরী, সংগঠনের অন্যতম উপদেষ্টা  আখতার হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা  মুজিবুর রহমান, হাফিজুর রহমান বাবুল, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাজেদুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি ও বর্তমান উপদেষ্টা রফিকুল ইসলাম ও কাজি জামান বিটু। আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি সৈয়দ আজিজুর রহমান, সহ-সভাপতি  হাফিজুর রহমান হাফিজ, হাবীবুর রহমান দেওয়ান, জহিরুল আমিন ফারুক, মইনুল হোসেন কাজল, সাংগঠনিক সম্পাদক মোশারফ হোসেন, কোষাধ্যক্ষ জহিরুল আমিন প্যারিস, মনছুর আহ্মেদ, জুবায়ের হোসেন, আনোয়ার শেখ এবং মোহাম্মদ আজিজসহ আরো গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।


কোরান তেলওয়াত করেন হাফেজ মোহাম্মদ নূর হোসেন এবং মাওলানা মোহাম্মদ ওয়াসিম সিদ্দিকী, মাওলানা আব্দুর রহিম মাহমুদ। রমজান মাসের তাৎপর্য  ও ফজিলত বর্ণনা করে দোয়া পড়ান মাওলানা শামসুল আরেফিন।
মুন্সিগঞ্জ বীক্রমপুর এসোসিয়েশন-এর প্রধান উপদেষ্টা  আকতার হোসেন এবং সকল উপদেষ্টাবৃন্দ তাদের পৃথক পৃথক বক্তব্যে মুন্সিগঞ্জ বীক্রমপুর এসোসিয়েশন-এর কার্যকরী কমিটির প্রশংসা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং মুন্সিগঞ্জ বীক্রমপুর এসোসিয়েশনকে আরো গতিশীল ও শক্তিশালী করার পরামর্শ দেন। সকল মিডিয়ার প্রতিনিধিদের দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণের জন্য ধন্যবাদ জানান।
সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক  আবু সায়েম ঢালী ৯ই জুলাই বনভোজনের ঘোষণা দেন এবং বনভোজনে অংশগ্রহণের জন্য মুন্সিগঞ্জ বীক্রমপুরবাসিদের আহবান জানান। সংগঠনের সহ-সভাপতি এবং বনভোজন ২০১৭ আহবায়ক  হাফিজুর রহমান বনভোজনের আমন্ত্রণপত্র সকল উপদেষ্টাদের প্রদান করেন এবং সকলের কাছে সর্ব প্রকার সহযোগিতা কামনা করেন।
অনুষ্ঠান   চলাকালে দুটি শোক সংবাদ শুনে সবাই মর্মাহত হন। একজন প্রাক্তন সভাপতি জকাজি জামান বিটু সাহেবের মামা ইঞ্জিনিয়ার ফরহাদ খান, পিএসসি (বয়স ৮৭) এবং অন্যজন গজারিয়া সমিতির উপদেষ্টা জনাব আইয়ুব খানের মা রহিমা বেগম, পতি এ, এফ, এম সৈকত আলী খানের স্ত্রী (৭৫ বছর) ৯ই জুন শুক্রবার সকাল ১০ টায় ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। উক্ত শোক বার্তায় সংগঠনের সভাপতি   ইকবাল হোসেন মরহুম ও মরহুমার জন্য সকলের কাছে আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।খবর বাপসনিঊজ।
পরিশেষে অনুষ্ঠানের সভাপতি ইকবাল হোসেন দোয়া মাহফিলে আগত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সমাপ্তি ঘোষণা করেন।


ক্যালিফোর্নিয়ায় আবারও বাংলাদেশি খুন

শুক্রবার, ১৬ জুন ২০১৭

বাপ্ নিউজ : সদ্য কেনা বাসার ড্রাইভওয়েতে দুর্বৃত্তের গুলিতে প্রাণ গেল বাংলাদেশী মোস্তাফিজুর রহমানের। ৪৮ বছর বয়েসী এই বাংলাদেশির বাড়ি জামালপুর জেলা সদরে।ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের বাংলাদেশী অধ্যুষিত লসএঞ্জেলেস সিটি থেকে ১৮০ কিলোমিটার দূর বেকার্সফিল্ড সিটিতে দুই পুত্র, এক কন্যা এবং স্ত্রীসহ বাস করছিলেনবেকার্সফিল্ড তিনি।১২ জুন সোমবার ভোর পাঁচটায় তার লাশ তার রক্তাক্ত নিথর দেহ অবিস্কার করেন তার স্ত্রী বাসার সামনে ড্রাইভওয়েতে।আর্তচিৎকার করে পুলিশকে ফোন করেন মিসেস মোস্তাফিজ। এ্যাম্বুলেন্সসহ পুলিশ এতে মোস্তাফিজকে নিকটস্থ হাসপাতালে নেয়ার পর জরুরী বিভাগের কর্মকর্তারা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। প্রাথমিক তদন্তে চিকিৎসকরা জানান যে, তার বাম বুকে ৮টি বুলেট বিদ্ধ হয়েছে। অর্থাৎ বুকে বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি করা হয়েছে পরপর ৮ বার। এসব তথ্য জানান মোস্তাফিজের বন্ধু লসএঞ্জেলেস প্রবাসী কামরুল ইসলাম শিপন।
সম্প্রতি তিনি ক্রয় করেন এই বাড়ি এবং মাসখানেক আগে উঠেছিলেন। এ উপলক্ষে সোমবারই ইফতার মাহফিলের আয়োজন করেছিলেন মোস্তাফিজ।


 গত ঈদুল আযহার দিন ঈদ জামাত শেষে সপরিবারে মোস্তাফিজুর রহমান।

জামালপুরের সন্তান মোস্তাফিজ ডিভি লটারিতে জয়ী হয়ে ২ পুত্র, এক কন্যা এবং স্ত্রীসহ ২০১০ সালে লসএঞ্জেলেসে এসেছিলেন। বছরখানেক পরই তিনি বেকার্সফিল্ডে ‘আমেরিকান এতক্সপ্রেস ট্যাক্সি’ নামক একটি ট্যাক্সি কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেন। খুব দ্রুত সেটি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল। তিনি নিজেও ট্যাক্সি চালাতেন। রাতের শিফটে কাজ করে প্রতিদিন ভোর চারটার দিকে ঘরে ফিরতেন। সোমবার নির্ধারিত সময়ে তিনি ঘরে ফিরে না আসায় তার স্ত্রী ঘরের বাইরে এসে দেখেন তার গাড়ি পার্ক করা এবং তার লাশ ড্রাইভওয়েতে পড়ে আছে।
এই সিটিতে শিখ সম্প্রদায়ের লোক বেশী। বাংলাদেশী ২০/২৫টি পরিবার বাস করছেন। মোস্তাফিজুরের ট্যাক্সি কোম্পানীর ঈর্ষনীয় সাফল্য দেখে কেউ প্রতিহিংসাপরায়ন হয়ে তাকে এমন নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করেছে কিনা, সে গুঞ্জনও রয়েছে। কারণ, ব্যক্তিগতভাবে তিনি ছিলেন খুবই অমায়িক।
টার্গেট করেই তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রবাসীদের ধারণা। তবে এখন পর্যন্ত হত্যার কারণ উদঘাটনে সক্ষম হয়নি পুলিশ। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিবারকে জানানো হয়েছে যে, ঘাতক গ্রেফতারে তারা তৎপর রয়েছেন।
লসএঞ্জেলেস কম্যুনিটি লিডার মমিনুল হক বাচ্চু এ ব্যাপারে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, সাম্প্রতিক সময়ে এ এলাকায় দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হলেন ৩ বাংলাদেশী।
মোস্তাফিজুর রহমানের কন্যা এবারই হাই স্কুল গ্র্যাজুয়েশন করেছেন। দুই পুত্র যাচ্ছে হাই স্কুলে। স্ত্রী কাজ করেন স্থানীয় একটি হাসপাতালে, নার্স হিসেবে। যুক্তরাষ্ট্রে আসার আগে মোস্তাফিজুর এ্যাকনি ল্যাবরেটরির আঞ্চলিক ম্যানেজার ছিলেন।
মরহুমের জানাযা অনুষ্ঠিত হবে ১৬ জুন শুক্রবার বাদ জুমআ ডাউন টাউন মসজিদে। একইদিন বিকেলে তাকে স্থানীয় মুসলিম গোরস্তানে দাফন করা হবে। শিপন তার আত্মার মাগফেরাত কামনায় সকলের দোয়া চেয়েছেন।


নিউইয়র্কে বাংলাদেশের ডেপুটি কন্সাল জেনারেল শাহেদুল ইসলাম জামিনে মুক্ত

শুক্রবার, ১৬ জুন ২০১৭

বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে : গৃহকর্মীকে নির্যাতন, শ্রমপাচার, মজুরি দাবি করায় মারধোর এবং দেশে স্বজনকে হত্যার হুমকি ইত্যাদি অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া নিউইয়র্কে বাংলাদেশের ডেপুটি কন্সাল জেনারেল শাহেদুল ইসলাম (৪৫) ৩৬ ঘন্টা পর ১৩ জুন মঙ্গলবার ইফতারের ৮ মিনিট আগে জামিনে মুক্তিলাভ করেছেন। কন্সাল জেনারেল শামীম আহসান জেলগেইট থেকে এনআরবি নিউজকে এ তথ্য জানিয়ে বলেন, ব্রঙ্কসে ভারনন সি বেইন কারেকশনাল সেন্টারে (Vernon C. Bbain Correctional Facility) তাকে রাখা হয়েছিল। ৫০ হাজার ডলার বন্ডে তাকে মুক্ত করা হয়।
১২ জুন সোমবার সকালে নিউইয়র্কের পুলিশ শাহেদুলকে গ্রেফতার করেছিল তার কুইন্সের বাসা থেকে। তার এ গ্রেফতারে তীব্র প্রতিক্রিয়া পরিলক্ষিত হচ্ছে প্রবাসীদের মধ্যে। ক’টনীতিক হিসেবে ন্যূনতম সুবিধা তাকে দেয়া হয়নি বলে অভিযোগ করে অনেকে বলেছেন, গ্রেফতারের মত চরম পদক্ষেপ গ্রহণের আগে তাকে নোটিশ প্রদান করা যেত। সচরাচর যা অন্যদেশের ক’টনীতিকদের জন্যে করা হয়। এমনকি ৪ বছর আগে বাংরাদেশের কন্সাল জেনালে মুনিরুল ইসলামকে নোটিশ প্রদানের প্রক্রিয়া অবলম্বন করা হয়েছিল।

Picture
এ প্রসঙ্গে সাবেক পাবলিক ডিফেন্ডার এবং যুক্তরাষ্ট্র সুপ্রিম কোর্টের এটর্নী এ্যাট ল’ মঈন চৌধুরী এনআরবি নিউজকে বলেন, অভিযোগটি গুরুতর, যে কারণে জামিনের পরিমাণ ৫০ হাজার ডলার ধার্য করা হয়। তবে যেহেতু অভিযোগ করার এক বছরের বেশী সময় পর তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে, তাই সরকার পক্ষের আইনজীবীর কাছে কি প্রমাণ আছে তা বিচার শুরুর আগেই জানা যাবে। তবে যথাযথভাবে শুনানী পরিচালনা করলে এই মামলায় ডেপুটি কন্সাল জেনারেল নির্দোষ প্রমাণিত হবার সম্ভাবনাই বেশী। বাংলাদেশ সরকার যদি চেষ্টা করে এবং ডেপুটি কন্সাল জেনারেল ডিপ্লোম্যাটিক ইম্যুনিটি পান, তবে এই মামলা স্থগিত হয়ে যাবার সম্ভাবনাও প্রবল।’
ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকেও স্টেট ডিপার্টমেন্টে যোগাযোগ করে বলা হয়েছে ক’টনীতিকদের জন্যে বিদ্যমান আইনের পূর্ণ বাস্তবায়ন ঘটানো হয়নি শাহেদুলকে গ্রেফতারের সময়। এটি খুবই দু:খজনক।
নিউইয়র্কের কন্সাল জেনারেল বলেছেন, এটি শাহেদুলের বিরুদ্ধে সুপরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের অংশ। গৃহকর্মী নির্যাতিত শ্রমিক হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ীভাবে বসবাসের অভিপ্রায়ে এমন প্লট করেছেন। সময়ের ব্যবধানে তা প্রমাণিত হবে।
জানা গেছে, শাহেদুলের বাড়িতে জন্মগ্রহণকারি ৪৩ বছর বয়েসী এই গৃহকর্মী মো. আমিন গত বছরের মে মাসে আত্মগোপনের পর একটি স্বেচ্ছাসেবী-মানবাধিকার সংস্থার আশ্রয়ে যান এবং শাহেদুলের বিরুদ্ধে মামলার পরিকল্পনা চ’ড়ান্ত করেন।
শাহেদুলের বাংলাদেশী পাসপোর্ট আটক রেখেছে কুইন্স সুপ্রিম কোর্ট। ২৮ জুন তাকে আদালতে যেতে হবে মামলার শুনানীতে অংশগ্রহণের জন্যে। মামলা চলবে সুপ্রিম কোর্টের বিচারক ডেনিয়েল লুইসের এজলাসে।


শহীদ জিয়ার মৃত্যুবার্ষিকীতে পেনসেল্ভেনিয়া বিএনপিকে বিভাজন মুক্ত করার উদাত্ত আহবান

শুক্রবার, ১৬ জুন ২০১৭

বাপ্ নিউজ : গত ১১ জুন রবিবার পেনসেল্ভেনিয়া ষ্টেট ফিলাডেলফিয়ার সেন্টার সিটির স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ইফতার মাহফিল এবং আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির বলিষ্ঠ নেতা রফিকুল আমিন ভুঁইয়া (রুহেল)। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন ওয়াশিংটন ডিসির প্রাক্তন বিএনপির সভাপতি শরাফত হোসেন (বাবু)। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ল্যান্সডেল বিএনপির অন্যতম নেতা এস আলম মিন্টু।

সন্ধ্যা ৭টায় সাইয়েখুল ইসলামের কুরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান টি শুরু হয়। তাতে বিশেষ অতিথি ছিলেন মেলবোর্ন কাউন্টির দ্বিতীয়বারের মতন বিপুল ভোটে বিজয়ী কাউন্সিলম্যান মনসুর আলী মিঠু, আপার ডার্বি ৭ম ডিসট্রিক্ট কাউন্সিলম্যান ডঃ শেকেলা কোলস, বিটিএসপির প্রাক্তন সভাপতি মোঃ হায়দার আলী, ল্যান্সডেল বিএনপির প্রাক্তন সভাপতি এডভোকেট হাফিজুর রহমান বুলবুল, আব্দুর রহমান শাহীন, আবদুল কাদের বিশ্বাস, মাহতাব উদ্দিন মিথু, বিএসপির প্রেসিডেন্ট ইফতেখার হোসেন।

অনুষ্ঠানে বক্তাদের মধ্য থেকে শ্রদ্ধাভাজন বিএনপি নেতা এবং বিগত জোট সরকারের আমলের সাবেক সফল শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী এহসানুল হক মিলনের তীব্র সমালোচনা করা হয়। বিগত ২ বছর আগে জনাব মিলন পেনসেলভেনিয়া বিএনপির কমিটি করার কাজে এসেছিলেন। উল্লেখ্য যে, উক্ত বিতর্কিত কমিটি করার দায়ে মিলন সাহেব স্থানীয় বিএনপি নেতা কর্মীদের তোপের মুখে পড়েন এবং তার একক স্বেচ্ছাচারী সিদ্ধান্তের কারনে দেশে বিদেশে ব্যাপক সমালোচিত হন। স্থানীয় নেতাকর্মীদের কাছ থেকে জানা যায় সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ২০১৫ সালে পেনসেল্ভেনিয়া বিএনপি কমিটি করতে এসে একজন আওয়ামী-জামায়াত এর গুপ্তচর হিসেবে পরিচিতজনাব শাহ ফরিদের পক্ষ নেন এবং অপর প্রার্থী যোগ্য হওয়া স্বত্বেও তাঁকে বিভিন্ন কৌশলে কমিটি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা থেকে অযোগ্য ঘোষনা করেন। অতঃপর তিনি তার আশীর্বাদপুষ্ট জনৈক শাহ ফরিদ কে সভাপতি ঘোষণা করে একটি পকেট কমিটি তৈরি করে দ্রুত স্থানত্যাগ করেন।স্থানীয় বক্তারা বলেন, “ শাহ ফরিদ শুধু গুপ্তচর বৃত্তি করেন না, সেই সাথে তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির ব্যাপক প্রমাণাদি তাদের কাছে রয়েছে।”

উল্লেখ্য যে, জনাব ফরিদ আওয়ামী জামায়াত এর নেতাদের সাথে আঁতাত করেছেন, যার জোরালো প্রমান স্থানীয় নেতাকর্মীদের কাছে বিদ্যমান। উক্ত ঘটনায় স্থানীয় নেতাকর্মী গন তীব্র নিন্দা প্রকাশ করেন এবং বলেন যে, তারা মিলন সাহেবের মতন এমন সজ্জন ব্যক্তির কাছ থেকে এইরূপ পক্ষপাতিত্বমূলক কাজ কখনোই আশা করেন নি। মিলন সাহেবের চলে যাবার পর এক দিন পরেই জনাব ফরিদ একক স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাবের বলে ১০১ কমিটি বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করেন, যেখানে ৯৯% সদস্যই আওয়ামী জামাত পরিবারের নেতাকর্মী হিসেবে পরিচিত। স্থানীয় নেতাকর্মীরা উক্ত ঘটনায় ক্ষুদ্ধ হয়ে যখন শাহ ফরিদকে জিজ্ঞাসাবাদ করলেন কমিটির ব্যাপারে, তখন তিনি এর সদুত্তর না দিয়ে নেতাকর্মীদের সাথে বাক বিতন্ডায় জড়িয়ে পরেন এবং অনেক কর্মীদের কুরুচিপূর্ণ ভাষায় তিরস্কার করেন। কর্মীদের প্রশ্নে তিনি দম্ভের সাথে বলেন, তিনি একমাত্র তারেক রহমানের কথা শুনেন এবং তার কথা অনুযায়ী কাজ করেন, পৃথিবীর কেউ তাঁকে তার পদ থেকে সরাতে পারবে না। স্থানীয় এক সাংবাদিক শাহ ফরিদকে প্রশ্ন করেন যে আপনি কিভাবে বিএনপির নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে নিজে নিজে কমিটি গঠন করলেন, এর প্রত্যুত্তরে শাহ ফরিদ বলেন, আমার যা পাওয়ার আমি পেয়ে গেছি, তিনি হুংকার ছেড়ে বলেন, “আপনারা যা করার পারলে করেন”। তিনি আরো বলেন তিনি বাংলাদেশের অনেক প্রভাবশালী মন্ত্রী এমপির সাথে লবিং রেখেছেন, সেজন্য তিনি মনে করেন তাঁকে কেউ তার পদ থেকে সরাতে পারবে না।

স্থানীয় বিএনপির সকল নেতাকর্মী একযোগে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে বিতর্কিত শাহ ফরিদের যে কোন অনুষ্ঠান তারা বয়কট করবেন এবং শক্ত হাতে সেগুলো প্রতিহত করবেন। স্থানীয় নেতাগন জনাব মিলনের পুনরায় আগমনের অপেক্ষায় আছেন এবং তারা মনে করেন মিলন সাহেব অচিরেই তার ভুল বুঝতে পেরে আগের বিতর্কিত কমিটি বিলুপ্ত করে গনতান্ত্রিক উপায়ে সত্যিকারের বিএনপির কমিটি গঠন করতে উদ্যোগী হবেন।মিলন সাহেবের কাছে সকল নেতাকর্মী উদাত্ত কণ্ঠে আহ্বান জানান যে মিলন সাহেব যদি প্রকৃত অর্থেই গনতান্ত্রিক উপায়ে সত্যিকারী ত্যাগী নেতাকর্মী দের মাধ্যমে কমিটি গঠন করেন, তবে তারা জনাব মিলনের যে কোন সিদ্ধান্ত কে স্বাগত জানাবেন।


আওয়ামী যুবলীগ নিউজার্সী শাখার তৃবার্ষিক সম্মেলন ও ইফতার পার্টিতে বক্তব্য রাখছেন এম এ সালাম

বুধবার, ১৪ জুন ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে : গত ১১জুন রবিবার বাাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ নিউজার্সী শাখার তৃবার্ষিক সম্মেলন ও ইফতার পার্টিতে বক্তব্য রাখছেন সম্মানীত বিশেষ অতিথি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও আমেরিকা-বাংলাদেশ এলাইন্সের প্রেসিডেন্ট এম এ সালাম।ছবি:বাপসনিঊজ।


বাংলাদেশ আওয়ামী ফোরাম ইউএসএ’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল ১৮ জুন রবিবার

বুধবার, ১৪ জুন ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিউজ ঃ বাংলাদেশ আওয়ামী ফোরাম ইউএসএ’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে ১৮ জুন রবিবার সন্ধ্যা ৭টায় এষ্টোরিয়াস্থ বৈশাখী রেষ্টুরেন্টে ( ২৯-১৪, ৩৬ এভিনিউ, এষ্টোরিয়া, নিউইয়র্ক, এনওয়াই ১১১০৬ )।


উক্ত ইফতার ও দোয়া মাহফিলে সকল প্রবাসীদের স্বাদর আমন্ত্রণ জানিয়েছেন সভাপতি মাইন উদ্দীন মঈন ও সাধারন সম্পাদক হারুন অর রশীদ।


নিউইয়র্কের রকমারি ইফতার

বুধবার, ১৪ জুন ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন:আয়েশা আকতার রুবী,বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে : নিউইয়র্কের জ্যামাইকায় দীর্ঘ ১০ বছর ধরে বসবাস করেন মুজিবুর রহমান (৫৪)। বাড়ি ঢাকার চানখাঁরপুলে। প্রবাসজীবনের প্রথম বছর এসেই খুবই দুশ্চিন্তায় ছিলেন আমেরিকার মাটিতে ইফতারি মিলবে কি না? এক বন্ধুর সাহায্যে ২০০৭ সালে বিভিন্ন রেস্তোরাঁয় গিয়ে ইফতারির দেখা পেয়েছিলেন। আগ্রহ ছিল পুরান ঢাকার ‘বড় বাপের পোলায় খায়’ ইফতারি মেলে কি না দেখার? চুপিসারে অনেক খুঁজেছেন।মুজিবুর রহমান বলেন, ‘জ্যাকসন হাইটসের একটি বাংলাদেশি মালিকানাধীন রেস্তোরাঁয় গিয়ে এ ধরনের ইফতারসামগ্রী দেখতে না পেয়ে একটু হতাশই হয়েছিলাম। কিন্তু ছোলা, পেঁয়াজি, বেগুনি, আলুর চপ, ডিমের চপ, জিলাপির দেখা পেয়েছিলাম।’

Picture
মুজিবুর রহমান প্রবাসজীবনে সময় পার করেছেন অনেক বছর। প্রতিবছর রোজা এলেই ইফতারির বাজারে ছোটেন তিনি। এখানে দোকান বেড়েছে। কিন্তু সেই ঢাকার ঐতিহ্য বা রকমারি ইফতারসামগ্রীর দেখা মিলছে না এখনো। তাই মুজিবুর রহমানের মতো অনেকেই জ্যামাইকা থেকে জ্যাকসন হাইটস, অ্যাস্টোরিয়া থেকে ব্রঙ্কস-ব্রুকলিন—অনেক জায়গায় খুঁজছেন সেই পুরান ঢাকার রকমারি ইফতারের আস্ত মুরগির রোস্ট, খাসির রোস্ট, ঝাল খাসির রান, কোয়েল ভুনা, কবুতর ভুনা, পেঁয়াজি, বেগুনি, ঘুগনি, মোরগ পোলাও, শাহি জিলাপি, পেস্তা বাদামের শরবত, সুতি কাবাব, টিকা কাবাব, শাকপুলি, জালি কাবাব, দই বড়া ইত্যাদি। পাশাপাশি শাহি জিলাপির খোঁজও করেন অনেকে। বাদ যায় না বুটের ডাল, চিড়া, মুরগি-কবুতর-কোয়েল-খাসির মাংস, গরুর মগজ, কলিজা, ডিমের সঙ্গে প্রায় ৩৫ প্রকারের উপকরণসহ ৪২ প্রকারের মসলা মিশিয়ে তৈরি করা রকমারি ইফতারসামগ্রীও।

alt
মুজিবুর রহমান মনে করেন, রকমারি ইফতারির জন্য একটু-আধটু ব্যথা বা অপূর্ণতা থাকলেও অ্যাস্টোয়ার ক্যাবি জসিমের আক্ষেপ নেই মোটেও। তিনি বলেন, ‘পাঁচ বছর ধরে ব্যাচেলর থাকি। প্রতিবছর রোজা রাখি, ইফতারের সময় এলেই বাংলাদেশি রেস্তোরাঁয় ছুটি এবং বক্স আইটেমের ইফতার করি তৃপ্তির সঙ্গে। এসব বক্সে যে প্যাকেজ দেওয়া হয়, তাতে অন্তত বাংলাদেশের ইফতারির মতো অনেক কিছুই পাওয়া যায়।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি অ্যাস্টোরিয়ার আলাউদ্দিন রেস্তোরাঁ থেকে ৭ ডলারে ইফতারির বক্স কিনি। এতে অন্তত ১০ পদের ইফতারি থাকে। যেমন ছোলা, মুড়ি, পেঁয়াজি, বেগুনি, আলুর চপ, পাকোড়া ইত্যাদি।’
ওই রেস্তোরাঁর এক কর্মী জানালেন, ইফতারে তাঁরা খোলা আইটেম বিক্রি করেন। তবে বক্স ভর্তি প্যাকেটের প্রতি সবার ঝোঁক বেশি। কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, লোকজন কাজে যাওয়ার সময় এবং পরিবারের সদস্যদের জন্য নিয়ে যেতে পারেন বলেই বক্স ইফতারির কদর বেশি।
জ্যাকসন হাইটসের প্রিমিয়াম রেস্তোরাঁয় রোজার দিন বিকেল থেকেই ভিড় লেগে থাকে। নানা পদের ইফতারি নিয়ে রোজদারেরা ঘরে ফিরতে চান। ব্যবস্থাপক শাওন বলেন, ‘রোজার সময় আমরা লাভকে বেশি প্রাধান্য দিই না। মানুষ যাতে শান্তিতে খেতে পারে সেটিই থাকে মুখ্য, তাই আমাদের রেস্তোরাঁয় এত ভিড়।’

alt

জ্যাকসন হাইটসের ইত্যাদি গার্ডেনে একটি ইফতারির বক্স বিক্রি হয় ৮ ডলারে। যেখানে থাকে প্রায় ১২ পদের ইফতারি। রেস্তোরাঁর অন্যতম স্বত্বাধিকারী শাকিল জানান, ‘আমাদের রেস্তোরাঁয় বসে ইফতার করার মতো প্রচুর জায়গা আছে। তারপরও লোকজন ইফতারির বক্স নিয়ে ইফতার করতে বসেন। এতে যেমন কাস্টমারদের লাভ, তেমনি আমাদেরও লাভ। কারণ কাস্টমারদের অতিরিক্ত সার্ভিস দিতে হয় না।’
লোকজন কেমন ইফতারি খোঁজেন এমন প্রশ্নে শাওন বলেন, ‘বলতে গেলে ট্র্যাডিশনাল ইফতারি আমরা বিক্রি করি। যেমন ছোলা, মুড়ি, পেঁয়াজি, বেগুনি, আলুর চপ, পাকোড়া। কিন্তু বক্স আইটেমে আরও কিছু বেশি আইটেম থাকে। যেমন খেজুর, খিচুড়ি, এক টুকরা বাঙ্গি বা তরমুজ, দু-একটি আঙুর বা চেরি ফল ইত্যাদি।’

alt
জ্যামাইকার তাজমহল রেস্টুরেন্টের কর্মচারী মাসুম বলেন, ‘আমাদের ইফতারির বক্সের চাহিদা অনেক বেশি। তাই আমরা মাত্র ৭ ডলারে ১৩ আইটেম সরবরাহ করে থাকি। যেমন ছোলা, মুড়ি, পেঁয়াজি, মরিচা, বেগুনি, আলুর চপ, পাকুড়া, খেজুর, খিচুড়ি, এক টুকরো বাঙ্গি বা তরমুজ, দু-একটি আঙুর এবং এক টুকরো মুরগির মাংস।
বাংলাদেশি-অধ্যুষিত এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, রেস্তোরাঁগুলোতে ইফতারির বক্সের প্রতিযোগিতা চলে। যেসব দোকানে ইফতারির বক্স পাওয়া যায়, তার মধ্যে জ্যামাইকার তাজমহল রেস্তোরাঁ, স্টার কাবাব, কস্তুরি, পানসি ও ঘরোয়া, জ্যাকসন হাইটসের হাটবাজার, খাবার বাড়ি, ইত্যাদি গার্ডেন, মেজবান ও ঢাকা গার্ডেন, অ্যাস্টোরিয়ায় বৈশাখী ও আলাউদ্দিন, ব্রঙ্কসের পেটারসন ও নীরব, ব্রুকলিনের ঘরোয়া ও নীরব রেস্তোরাঁ উল্লেখযোগ্য।
প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে ইফতারির মান নিয়ন্ত্রণ করা হয় কি না, এমন প্রশ্নে জ্যাকসন হাইটসের খাবার বাড়ির স্বত্বাধিকারীদের একজন হারুন ভূঁইয়া বলেন, সবাই রমজানে আরও বেশি যত্নসহকারে ইফতারি তৈরি করে থাকেন। আর বাংলাদেশের স্বাদের রকমারি ইফতারি তৈরির চেষ্টা করা হয় বাড়িতে।
তবে সবকিছুর পরও পুরান ঢাকার মুজিবুর রহমানের মতো প্রবাসীদের রকমারি ইফতারির স্বাদ অপূর্ণ থেকেই যাচ্ছে।


ব্রাক্ষণবাড়ীয়া সম্মিলনী অব নর্থ আমেরিকা’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল ১৭ জুন শনিবার

বুধবার, ১৪ জুন ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিউজ : ব্রাক্ষণবাড়ীয়া সম্মিলনী অব নর্থ আমেরিকা’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে বাঙ্গালী অধ্যষিত জ্যাকসন হাইটসের নিউ মেজবান রেষ্টুরেন্টে ( ৭৪-২৪,৩৭ এভিনিউ, জ্যাকসন হাইটস, নিউইয়র্ক,এনওয়াই-১১৩৭২)।


উক্ত ইফতার ও দোয়া মাহফিলে সকল প্রবাসীদের স্বাদর আমন্ত্রণ জানিয়েছেন সভাপতি সৈয়দ মোঃ শওকত ও সাধারণ সম্পাদক আশাফ মাসুক। ১৭ জুন, শনিবার সন্ধ্যা ৭টায়।


নিউইয়র্কে ৩৬ ঘণ্টা পর মুক্তি বাংলাদেশি কূটনীতিকের - ২৮ জুন মামলার শুনানী

বুধবার, ১৪ জুন ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ :নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে :গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে অভিযুক্ত নিউইয়র্কে গ্রেফতার বাংলাদেশ কনস্যুলেটের ভাইস কনসাল শাহেদুল ইসলাম জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। নিউইয়র্কের স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যা আটটা ২০ মিনিটে তিনি সিটির ব্রঙ্কস বরোস্থ ভারমন সি কারেকশন সেন্টার থেকে মুক্ত হন তিনি। কনসাল জেনারেল শামীম আহসান তার মুক্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

অভিযুক্ত ভাইস কনসাল শাহেদুল ইসলামকে আগামী ২৮ জুন আবারো আদালতে হাজির হতে হবে জানা গেছে।

ভাইস কনসাল শাহেদুল ইসলামের মুক্তির সময় কনসাল জেনারেল শামীম আহসান, কনস্যুলেটের প্রথম সচিব শামীম হোসেন এবং তৃতীয় সচিব আসিব আহমেদ সহ শাহেদুল ইসলামের কয়েকজন আতœীয়-স্বজন ভারমন সি কারেকশন সেন্টারের গেটের সমানে উপস্থিত ছিলেন। এর আগে কনসাল জেনারেল শামীম আহসান সহ কনস্যুলেটের একাধিক কর্মকর্তা কারেকশন সেন্টারে প্রবেশ করেন এবং শাহেদুল ইসলামের জামিনের বিষয়টি তদারকি করেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সরাসরি তত্বাবধানে ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাস ও নিউইয়র্কে কনস্যুলেট জেনারেলের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা আর কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের সহযোগিতায় প্রায় ৩৬ ঘন্টা পর শাহেদুল ইসলাম মুক্ত হন। মুক্তি পাওয়ার পর তিনি কনস্যুলেটের গাড়ীতে চড়ে সরাসরি বাসায় ফিরে যান বলে জানা যায়।

কনসাল জেনারেল শামীম আহসান ভাইস কনসাল শাহেদুল ইসলামের গ্রেফতার ও জামিনের বিষয় তুলে ধরে বলেন, গত বছরের মে’তে শাহেদুল ইসলামের বাসা থেকে রুহুল আমীন (মামলার বাদী) নিরদ্দেশ হন। এ ব্যাপারে নিউইয়র্ক কনস্যুলেট অফিস থেকে স্টেট ডিপার্টমেন্টকে অবহিত করা হয়েছিল।

Picture

শাহেদুল ইসলামের আতœীয় পরিচয়দানকারী নর্থ বেঙ্গল ফাউন্ডেশন ইউএসএ’র সভাপতি ডা. মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ মিডিয়ার কাছে দাবী করে বলেন, শাহেদুল ইসলাম ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন। আর এই ঘটনার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশেরর ভাবমূর্তি দারুনভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, সরকারী উদ্যোগে নয়, আমরাই ব্যক্তিগতভাবে জামিনের অর্থ যোগান দিয়েছি।

শাহেদুল ইসলামের চাচা পরিচয়দানকারী মোস্তফা কামাল মিলটন বলেন, আমরা ছোট বেলা থেকেই রুহুল আমীন (শাহেদুল ইসলামের গৃহকর্মী, মামলার বাদী) চিনতাম। সে শাহেদুল ইসলামের বাড়ীতেই বড় হয়েছে এবং তার লেখাপড়ারও খরচ বহন করা হয়েছে। এক পর্যায়ে রুহল আমীন শাহেদুল ইসলামের পরিবারের সদস্যই হয়ে যায়। পরবর্তীতে রুহুল আমীনের অনুরোধে শাহেদুল নিউইয়র্কে তার বাসার কাজের লোক হিসেবে সরকারী উদ্যোগে যুক্তরাষ্ট্র নিয়ে আসে। তিনি বলেন, রুহুল আমীন শাহেদুল ইসলামের বাসায় কাজ করার বিনিময়ে অর্থ দিয়ে দেশে বাড়ী করেছেন। তিনি দাবী করেন ভাইস কনসাল শাহেদুল ইসলামের বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ মিথ্যা।

ভাইস কনসাল শাহেদুল ইসলামকে গ্রেফতার ও জামিন প্রসঙ্গে বাংলাদেশী-আমেরিকান এটর্নী মঈন চৌধুরী ভারমন সি কারেকশন সেন্টারের গেটের সামনে এই প্রতিবেদকে বলেন, আমি শাহেদুল ইসলামের এটর্ণী নই, তবে একজন বাংলাদেশী-আমেরিকান হিসেবে তার খোঁজ-খবর নিতেই এখানে এসেছিলাম। তিনি বলেন, শাহেদুল ইসলামের বিরুদ্ধে একাধিক গুরুত্ব অভিযোগ থাকায় তাকে জামিন নিতে ৫০ হাজার ডলারের বন্ড দিতে হয়েছে। তাকে গ্রেফতারের দিনই নগদ অর্থ বন্ড হিসেবে দিতে পারলে তিনি সেই দিনই জামিনে মুক্তি পেতে পারতেন।

উল্লেখ্য, গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে নিউইয়র্কে বাংলাদেশের ভাইস কনসাল শাহেদুল ইসলাম ১২ জুন সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গ্রেফতার করা হয়। নিউইয়র্কের পুলিশ সিটির কুইন্সে বসবাসকারী শাহেদুল ইসলামকে তার বাসা থেকে গ্রেফতার করার কয়েক ঘণ্টা পর কুইন্স সুপ্রীমকোর্টে হাজির করে।

আরো উল্লেখ্য, শাহেদুল ইসলাম ঠাকুরগাঁওয়ের আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য প্রয়াত খাদেমুল ইসলামের পুত্র। রাজনৈতিকভাবে নিয়োপ্রাপ্ত হয়ে তিনি ২০১১ সালে নিউইয়র্ক কনস্যুলেটে যোগ দেন। এর আগে তিনি কানাডাস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনে কর্মরত ছিলেন বলে জানা গেছে।

এর আগে নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটে নিযুক্ত কনসাল জেনারেল মনিরুল ইসলামের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ উঠে এবং তার বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়ার আগেই মনিরুল ইসলাম তরিঘড়ি করে স্বস্ত্রীক নিউইয়র্ক ত্যাগ করে তার নতুন কর্মস্থলে (অন্য দেশ) চলে যান।

এদিকে শাহেদুল ইসলামকে গ্রেফতারের কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতকে মঙ্গলবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করে এই প্রতিবাদ জানানো হয় বলে জানা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত জোয়েল রিফম্যান ও পলিটিক্যাল কাউন্সিলর আন্দ্রেয়া বি রড্রিগেজ মঙ্গলবার ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্র সচিব মাহবুব উজ জামানের সঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে দেখা করেন। এসময় বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ডেপুটি কনসাল জেনারেলের অবিলম্বে মুক্তি চাওয়া হয়।