Editors

Slideshows

http://bostonbanglanews.com/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/605744Finding_Immigrant____SaKiL___0.jpg

কুইন্স ফ্যামিলি কোর্টে অভিবাসী

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দ্যা ইন্টারফেইস সেন্টার অব নিউইয়র্ক ও আইনী সহায়তা সংগঠন নিউইয়র্ক এর উদ্যোগে গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ৯ See details

http://bostonbanglanews.com/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/455188Hasina__Bangla_BimaN___SaKiL.jpg

দাবি পূরণের আশ্বাস প্রধানমন্ত্

বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দাবি-দাওয়া বাস্তবায়নে আলোচনা না করে আন্দোলন করার জন্য পাইলটরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে দুঃখ প্রকাশ করে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন। পাইলটদের আন্দোলনের কারণে ফ্লাইটসূচিতে জটিলতা দেখা দেয়ায় যাত্রীদের কাছে দুঃখ See details

http://bostonbanglanews.com/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/701424image_Luseana___sakil___0.jpg

লুইজিয়ানায় আকাশলীনা‘র বাৎসরিক

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ লুইজিয়ানা থেকে ঃ গত ৩০শে অক্টোবর শনিবার সনধ্যায় লুইজিয়ানা স্টেট ইউনিভার্সিটির ইণ্টারন্যাশনাল কালচারাল সেণ্টারে উদযাপিত হলো আকাশলীনা-র বাৎসরিক বাংলা সাহিত্য ও See details

http://bostonbanglanews.com/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/156699hansen_Clac__.jpg

ইতিহাসের নায়ক মিশিগান থেকে বিজ

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ ইতিহাস সৃষ্টিকারী নির্বাচনে ডেমক্র্যাটরা হাউজের আধিপত্য ধরে রাখতে সক্ষম হলো না। সিনেটে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ অক্ষুন্ন রাখতে সক্ষম হলেও আসন হারিয়েছে কয়েকটি। See details

http://bostonbanglanews.com/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/266829B_N_P___NY___SaKil.jpg

বিএনপি চেয়ারপারসনের অফিসে পুলি

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ নভেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটস্থ আলাউদ্দিন রেষ্টুরেন্টের সামনে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি তাৎক্ষণিক এক বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। এই See details

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

প্রবাসীদের খবর

বিজয় দিবস উপলক্ষে ফিনল্যান্ড বিএনপির আলোচনা সভা

বুধবার, ২১ ডিসেম্বর ২০১৬

সামি-উর রাশেদীন, বাপ্ নিউজ : হেলসিংকি (ফিনল্যান্ড): বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল ফিনল্যান্ড শাখা মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে সোমবার সন্ধ্যায় হেলসিংকিতে এক আলোচনা সভার আয়োজন করেছে।ফিনল্যান্ড বিএনপির জেষ্ঠ নেতা জামান সরকারের সভাপতিত্বে আলাউদ্দিন মোহাম্মেদের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য দেন সাবেক ছাত্রনেতা গাজী সামসুল আলম।আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন ফিনল্যান্ড বিএনপির জেষ্ঠ নেতা মোকলেসুর রহমান, বদরুম মনির ফেরদৌস, নাজমুল হুদা মনি, আবদুল্লা আল আরিফ, তাপস খান প্রমুখ।

alt 

এতে বক্তারা বলেন, গণবিরোধী সরকার ক্ষমতায় বসে দেশে রাজত্ব করছে। এই দেশে যত বিধ্বংসী নির্বাচন হয়েছে তার সবকিছু হয়েছে এই সরকারের আমলে। সরকার ভোট চুরি করে আর ইসি সেটা চেয়ে চেয়ে দেখে। গণবিরোধী এই সরকারের পক্ষে কখনো সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। নাসিক নির্বাচনের আগের দিন থেকে নারায়ণগঞ্জে সেনা মোতায়েনের দাবীও জানান বিএনপির নেতারা।

alt 

আলোচনা সভায় নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, রাষ্ট্রপতি ও চেয়ারপারসনের বৈঠকে আমরা আশাবাদী, মহামান্য রাষ্ট্রপতি চলমান সংকট থেকে দেশের উ‍ত্তরণের জন্য নিঃসন্দেহে ফলপ্রসূ ভূমিকা পালন করবেন।আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন মোস্তাক সরকার, আবুল কালাম আজাদ, তাজুল ইসলাম, মোঃ আনোয়ার হোসেন, নাজমুল হাসান, মীর সেলিম, মোঃ সাইফুর রহমান, ফাহমিদ উস সালেহীন, মনোয়ার পারভেজ, মোঃ সালাহউদ্দিন, জনি খান, মোঃ সামিউল আরেফিন, জাভেদ ইকবাল, শায়খ আকবার হোসাইন, মোঃ ইউসুফ ইসলাম ভূইয়া, সাইদ আহমেদ, ফাহিম শাহরিয়ার,  সামি-উর রাশেদীন, মীর ইসমাইল প্রমুখ।


ইতালির পাদোভায় আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস পালিত

বুধবার, ২১ ডিসেম্বর ২০১৬

Picture

বাপ্ নিউজ : ইতালি প্রতিনিধি : ইতালির পাদোভায় প্রবাসী বাংলাদেশী ও ইতালিয়ান প্রবাসীদের অংশগ্রহণে উৎসব মুখর  আনন্দঘন পরিবেশে আলোচনা খেলাধুলা সম্মাননা ও পুরস্কার বিতরণীর মধ্য দিয়ে জাকজমক পূর্ণ আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস পালন করা হয়েছে।

alt

রবিবার স্থানীয় একটি হলরুমে মিলান কনস্যুলেট এর আয়োজনে সবুজ  বাংলা এসোসিয়েশন পাদোভার সার্বিক সহযোগিতায় অভিবাসী দিবসের আলোচনা সভায় সভাপতিত্তে করেন মিলান কনস্যুলেট এর কনসাল জেনারেল রেজিনা আহমেদ। আলোচনার শুরুতে মাননীয় রাট্রপ্রতি,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও অর্থ মন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন কনসাল  রফিকুল করিম। পররাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রবাসী কল্যাণ বৈদেশিক ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী ও  মন্ত্রণালয়ের সচিব এর বাণী পাঠ করেন ভাইস কনসাল নাফিসা মনসুর।

alt
রফিকুল করিমের উপস্থাপনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কমুনে দি কাদুনেহ এর মেয়র মি মিকেলে স্কেয়াবো। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কমিউনিটির পক্ষে বাংলাদেশ ইসলামিক কালচারাল সেন্টার পাদোভার সভাপতি হুমায়ন কবির,কাউন্সিলর এন্ড কমিশনার অফ ইমিগ্রেন্ট কমুনে দি পাদোভার শাহ সেলিম,ভেনিস বাংলা স্কুলের সভাপতি কামরুল সারোয়ার,পাদোভা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ফরিদ শেখ,সবুজ বাংলা এসোসিয়েশনের সহ সভাপতি কামরুল মজুমদার,সাধারণ সম্পাদক কামাল আকন্দ প্রমুখ।

alt
আলোচনা শেষে কনস্যুলেট এর পক্ষ থেকে অভিবাসী দিবসের বিশেষ সম্মাননা প্রধান করেন প্রধান অতিথি সহ উপস্থিত ৩ জন ইতালিয়ান প্রবাসীকে।

alt
ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের সমাপনী খেলা ও প্রবাসী বাংলাদেশী এবং ইতালিয়ান প্রবাসীদের অংশগ্রহণে প্রীতি ভলিবল খেলা অনুষ্টিত হয়। খেলা শেষে বিজয়ী ও পরাজিত সকল খেলোয়াড় দেরকে এবং সহযোগিতা কারী সকলকে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

alt

পরিশেষে কনসাল জেনারেল উপস্থিত সকল প্রবাসীদেরকে অভিবাসী দিবসে অংশগ্রহণ করে ধন্যবাদ জানান সেই সাথে প্রবাসীরা ও কনস্যুলেট জেনারেলের এই ভিন্ন ধর্মী আয়োজনের জন্য প্রবাসীদের পক্ষ থেকে  অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।


বিজয় দিবস উপলক্ষে জাপান আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা

বুধবার, ২১ ডিসেম্বর ২০১৬

Picture

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- জাপান শাখা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ইঞ্জি. হানিফ, আওয়ামী লীগ নেতা এম ডি আলাউদ্দিন, ইঞ্জি. জসিম উদ্দিন, স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহ্বায়ক নুরুল আমিন রনি, যুবলীগ সভাপতি বি এম শাজাহান, মীর মিলন, সাহাবুদ্দিন আহমেদ সাবু, জয় ইসালাম, নাজমুল, ফখরুল ইসলাম আজাদ, হাসান, ড. এনামুল হক প্রমুখ।


বর্ণিল আয়োজনে কানাডায় বাংলাদেশ হাই কমিশনের বিজয় দিবস ২০১৬ উদযাপন

মঙ্গলবার, ২০ ডিসেম্বর ২০১৬

সদেরা সুজন, বাপ্ নিউজ : কানাডা থেকে।।  যথাযোগ্য মর্যাদা ও উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মহান বিজয় দিবস ২০১৬ উদযাপন করেছে কানাডার অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশন। এ উপলক্ষ্যে ১৬ ডিসেম্বর শুক্রবার সকালে বাংলাদেশ হাউসে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশের মান্যবর হাই কমিশনার মিজানুর রহমান। এ সময় দূতাবাসের সকল কূটনীতিক ও কর্মকর্তা-কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন। পতাকা উত্তোলনের পর ১৯৫২'র ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ১৯৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর শহীদ পরিবারের সদস্যবৃন্দের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

alt
বিজয় দিবসের কর্মসূচীর দ্বিতীয় অংশে সন্ধ্যায় অটোয়ার সুপ্রসিদ্ধ কার্লটন ইউনিভার্সিটির কৈলাশ মিতাল থিয়েটারে এক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বাংলাদেশ হাই কমিশন। অনুষ্ঠানের পূর্বে মহান মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন ঘটনাপঞ্জী ও বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষনের ভিডিও তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়, যা উপস্থিত দর্শক-শ্রোতাদরে বিমুগ্ধ করে। অনুষ্ঠানের শুরুতেই ঢাকা থেকে প্রেরিত মহামান্য রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন হাই কমিশনের মিনিস্টার নাইম উদ্দিন আহমেদ। মাননীয় প্রধামন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন কাউন্সিলর মাকসুদ খান; মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন প্রথম সচিব আলাউদ্দিন ভুঁইয়া  এবং মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন প্রথম সচিব অপর্ণা রাণী পাল।

alt 
অটোয়া ও কানাডাবাসীকে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে স্বাগত জানিয়ে কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশের মান্যবর হাই কমিশনার মিজানুর রহমান বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা ছিল বাঙালী জাতির ইতিহাসের সর্বশ্রেষ্ঠ অধ্যায়। আর সেই দীর্ঘ নয় মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধে চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হয় ১৬ই ডিসেম্বর, যে কারণে এ দিবসের তাৎপর্য এত ব্যাপক। স্বাধীন বাংলাদেশের জন্য আত্মদানকারী শহীদদের এবং বাঙালীর অবিসংবাদিত নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে হাই কমিশনার বলেন, তাঁদের আত্মত্যাগে অর্জিত বিজয় তখনই  সার্থক হবে যখন আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার আলোকে আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মকে গড়ে তুলতে পারবো।

alt 

বাংলাদেশ-কানাডা দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্ক জোরদারকরণে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের বিস্তারিত তুলে ধরে তিনি বলেন, গত ১৫-১৮ই সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কানাডা সফর করেন এবং কানাডার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর সাথে দেশের স্বার্থসংশ্লিষ্ট দ্বি-পাক্ষিক আলোচনায় মিলিত হন। বাংলাদেশের মহান মুুক্তযিুদ্ধে কানাডার অকুন্ঠ সমর্থনের স্বীকৃতিস্বরূপ কানাডার তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পিয়ের এলিয়ট ট্রুডোর প্রতি উৎসর্গীকৃত "বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননা" বর্তমান কানাডীয় প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর হাতে তুলে দেন বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, যা দু'দেশের দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্কে যোগ করেছে এক নতুন মাত্রা। এরই ধারাবাহিকতায় গত অক্টোবর মাসে বাংলাদেশের মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী কানাডা সফর করেন এবং কানাডার মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী স্টিফেন ডিওনের সাথে দ্বি-পাক্ষিক বৈঠকে মিলিত হন।

বন্ধুপ্রতীম দুই রাষ্ট্রের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য বর্তমানে ২.৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হয়েছে, যা ভবিষ্যতে আরো বৃদ্ধি পাবে। কানাডা প্রবাসী বাংলাদেশীদের কল্যাণে দূতাবাস কর্তৃক বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। বিভিন্ন প্রদেশে কনস্যুলার সেবা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। সম্প্রতি টরন্টো, ক্যালগেরী, এডমন্টন ও সাস্কাটুনে সফরে বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশীকে কনস্যুলার সেবা দেওয়া হয়েছ; পর্যায়ক্রমে সবগুলো প্রদেশে এবং সবক'টি বড় শহরেই কনসুলার সেবা সম্প্রসারিত করা হবে।

alt

বাণিজ্য সম্প্রসারণে মিশনের কার্যক্রম জোরদার করা হচ্ছে। তেলসমৃদ্ধ এ্যলবার্টা প্রদেশ থেকে তেল আমদানী এবং সেখানকার তেলক্ষেত্রে বিনিয়োগের বিষয়ে তাঁর সম্প্রতিক সফরে আলোচনা হয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তপক্ষের সাথে; সাস্কাচুয়ানের সাথে কৃষি-সংক্রান্ত বাণিজ্য বেড়ে চলেছে। প্রবাসীদের কল্যাণার্থে দূতাবাসের আন্তরিক প্রচেষ্টায় কানাডার সবচাইতে বাংলাদেশী অধ্যূষিত শহর টরন্টোতে  একটি কনসুলেট খোলার বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্তের কথা উপস্থিত সকলকে অবহিত করেন বাংলাদেশের হাই কমিশনার। দু'দেশের মধ্যে বিমমান চলাচল চুক্তি এবং বৈদেশিক বিনিয়োগ সুরক্ষা চুক্তি স্বাক্ষরের বিষয়গুলো প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তিনি কানাডাপ্রবাসী বাংলাদেশীদের সেবার প্রতি সর্বোচ্চ গুরুত্বারোপ করে বলেন, তাঁদের কল্যাণে বাংলাদেশ দূতাবাস দৃঢ়ভাবে অঙ্গীকারাবদ্ধ।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ১৯৭১ -এর মহান মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ, মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মত্যাগ এবং চূড়ান্ত বিজয়ের উপর বিভিন্ন দেশাত্মবোধক ও জাগরণের গান, নাচ ও কবিতা পরিবেশন করেন অটোয়ার এবং বাংলাদেশে হাই কমিশনের শিল্পীবৃন্দ। একে একে সমবেত কণ্ঠে পরিবেশিত হয় "বাংলা হিন্দু, বাংলার খ্রিষ্টান, বাংলার বৌদ্ধ, বাংলার মুসলমান - আমরা সবাই বাঙালী", "নোঙ্গর তোলো তোলো, সময় যে হলো হলো", "পূর্ব দিগন্তে, সূর্য উঠেছে, রক্ত লাল, রক্ত লাল, রক্ত লাল", "ধন-ধান্য-পুষ্প-ভরা, আমাদের এই বসুন্ধরা", "এই পদ্মা, এই মেঘনা, এই যমুনা-সুরমা নদী তটে", সূর্যোদয়ে তুমি, সূর্যাস্তেও তুমি ও আমার বাংলাদেশ" এবং "জয় বাংলা বাংলার জয়" - গানগুলো। পরিবেশন করেন শিল্পী অং, রুবি, ডালিয়া, শামা, সাখাওয়াত, মাকসুদ, মাহমুদ, সাজি, শিউলী ও সোহেল। একক কন্ঠে পরিবেশিত হয় "গ্রাম যে আমার শিল্পীর আঁকা বিশাল একটা ছবি" (সাখাওয়াত হোসেন), "আজি বাংলাদেশের হৃদয় হতে কখন আপনি" (মমতা দত্ত), "ও আমার দেশের মাটি, তোমার পরে ঠেকাই মাথা" (শারমিন সিদ্দীক শামা), "মু্ক্তিযোদ্ধারা, কোথায় আছো লুকিয়ে" (দেওয়ান মাহমুদ), "ও ভাই খাঁটি সোনার চেয়ে খাঁটি আমার দেশের মাটি" (অং সুয়ে থয়োই), "এক নদী রক্ত পেরিয়ে, বাংলার আকাশে মুক্তির সূর্য আনলে যারা" (নার্গিস আক্তার রুবি), এবং "সব ক'টা জানালা, খুলে দাও না" (ডালিয়া ইয়াসমীন)। আবৃত্তি করা হয় জীবনান্দ দাসের "আবার আসিব ফিরে" (গিয়াস ইকবাল সোহেল), সৈয়দ শামসুল হকের "আমার পরিচয়" (শিউলী হক), স্বরচিত "স্মৃতির নামাজগড় কতদূর" (সুলতানা শিরীন সাজী), এবং নির্মলেন্দু গুণের "স্বাধীনতা শব্দটি কী করে আমাদের হলো" (মাকসুদ খান)। শিশুশিল্পীরা পরিবেশন করে দুইটি সমবেত সঙ্গীত "মা গো ভাবনা কেন" এবং "মোরা ঝঞ্চার মতো উদ্দাম" (এ্যালিসিয়া, আলিনা, ওয়াজিদ এবং চন্দ্রিমা)। শিশু আবৃত্তিকার ফতিমা সহীহ আবৃত্তি করে সৈয়দ শামসুল হকের "এই আমাদের বাংলাদেশ" কবিতাটি। সবগুলো আয়োজনই দর্শক-শ্রোতাদের মুগ্ধ করে।  যন্ত্রসঙ্গীতে ছিলেন সাখাওয়াত হোসেন (বাঁশী) সাদী রোজারিও (তবলা) এবং আরেফিন কবীর (কীবোর্ড ও গীটার) । মনোমুগ্ধকর নৃত্য পরিবেশন করেন আফরোজা খান লিপি ও শিশুশিল্পী আঁচল ("জন্ম আমার ধন্য হলো মাগো"), এবং কারিনা দত্ত ("একই সুরে আওয়াজ ওঠাও, এক পতাকা তোলো")। প্রতিটি পরিবেশনার সাথে ব্যাক-স্ক্রীনে প্রদর্শিত গ্রাম-বাংলার জীবন, সংস্কৃতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু এবং বাঙালীর মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগ্রামের বর্ণিল চিত্রায়ন দর্শকদের বিমোহিত করে।

অনুষ্ঠান গ্রন্থনা ও সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলাদেশ হাই কমিশনের প্রথম সচিব (বাণিজ্যিক) দেওয়ান মাহমুদ। সার্বিক সমন্বয় ও ব্যবস্থাপনায় ছিলেন প্রথম সচিব ও দূতালয় প্রধান আলাউদ্দিন ভুঁইয়া। তীব্র ঠান্ডা (-৩০) উপেক্ষা করে অটোয়া, মন্ট্রিয়েল ও কর্নওয়াল থেকে শতাধিক বাংলাদেশী ও কানাডীয়র স্বতঃস্ফুর্ত অংশগ্রহণে প্রাণবন্ত হয়ে উঠে বর্ণাঢ্য এ আয়োজন।

অনুষ্ঠানের শেষে মঞ্চে এসে মান্যবর হাই কমিশনার মিজানুর রহমান এবং তাঁর সহধর্মিনী মিসেস নিশাত রহমান সফল এ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য সকল শিল্পী, কলা-কূশলী এবং হাই-কমিশনের সহকর্মীগণকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। সুস্বাদু দেশীয় খাবার দিয়ে আগত অতিথিদের আপ্যায়ানের মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হয় বাংলাদেশ হাই কমিশনের বিজয় দিবস উদযাপন।


রাষ্ট্রপতি এডভোকেট আব্দুল হামিদ-এর সাথে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের সাক্ষাৎ

রবিবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৬

বাপসনিউজ যুক্তরাজ্য : সম্প্রতি রাষ্ট্রপতি এডভোকেট আব্দুল হামিদ যুক্তরাজ্যে সফরকালে যুক্তরাজ্যে প্রবাসী বাঙ্গালীদের  একটি প্রতিনিধি দল লন্ডন হোটেল সুইটে রাষ্ট্রপতির সাথে  সাক্ষাৎ করেন।

alt

বিশিষ্ট আলেম এবং ইসলামি চিন্তাবিদ মৌওলানা শফিকুর রহমান বিপ্লবী, আওয়ামী লীগ নেতা সারোয়ার হোসেন খান লিটনসহ যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিশিষ্ট ব্যক্তিগণ সাক্ষাৎ করলে রাষ্ট্রপতি তাদের ধন্যবাদ জানান। এবং প্রবাসে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশের কল্যানে মুল ধারায় কাজ করার আহবান জানান। ছবি ঃ বাপসনিউজ।


লন্ডনে বঙ্গবন্ধুর মুরালের উদ্বোধন : বাংলাদেশের বাইরে এই প্রথম

রবিবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৬

বাপ্ নিউজ : পূর্ব লন্ডনের সিডনি স্ট্রিটে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি ভাস্কর্য স্থাপিত হয়েছে। আফছর খান সাদিক নামে যুক্তরাজ্য প্রবাসী এক বাঙালি এই ভাস্কর্যটি স্থাপন করেছেন। যুক্তরাজ্যে বঙ্গবন্ধুর এটি প্রথম ভাস্কর্য যা একজন ভক্তের ব্যক্তিগত ভালোবাসা থেকে স্থাপন করা হলো।
 পূর্ব লন্ডনে ব্যক্তি উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপিত
যুক্তরাজ্য সফররত আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত শনিবার ভাস্কর্যটি সাদিক খানের বাসার সামনে স্থাপন করেন। এসময় সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেন, আজ লন্ডনের মাটিতে একটি ঐতিহাসিক ঘটনার জন্ম হলো। এটি এই প্রজন্মের জন্য একটি ইতিহাস। তিনি এটির উদ্যোক্তা সাদিক খানকে ধন্যবাদ জানান।আফছর খান সাদিক জানান, তার বহুদিনের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। এতে ব্রিটেনের মানুষ ও নতুন প্রজন্ম বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হবেন। altইতিমধ্যে অনেকে শ্রদ্ধা জানাতে ভীড় করছেন তার বাসার সামনে।
ফ্রান্সের দুই এমপি ইতিমধ্যে এসে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন বলে সাদিক খান জানিয়েছেন। ভবিষ্যতে তার এই বাসাটিও বঙ্গবন্ধু মিউজিয়ামের জন্য দান করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন তিনি । ভাস্কর্য স্থাপনের সময় উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার মো. নাজমুল কাওনাইন, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরিফ, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক প্রমুখ।
 
সাদিক খান জানান, ২০১২ সালে ক্যামডেন  ব্রাউনসউইক পার্ক স্কোয়ার গার্ডেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের একটি ভাস্কর্য নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছিলো। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে ক্যামডেন কাউন্সিলের কাছে জায়গা চেয়ে প্রস্তাব করেছিলেন তৎকালিন হাইকমিশনার ডক্টর এম সাঈদুর রহমান খান। এর বাজেট ধরা হয়েছিলো প্রায় আড়াই লাখ পাউন্ড। কাউন্সিলের পক্ষ থেকে জায়গা নির্ধারণ করাও হয়েছিলো। ১মার্চ কাউন্সিলের প্ল্যানিং কমিটির মিটিংয়ে হাইকমিশনের প্রস্তাবটি এজেন্ডা হিসাবে তোলা হয়। প্ল্যানিং কমিটির মিটিং চলাকালেই স্থানীয় কিছু বাঙালির বিরোধীতার কারণে এজেন্ডা থেকে সেই প্রস্তাবটি উঠিয়ে নেয়া হয়। যাদের অধিকাংশই বিএনপি-জামায়াতের রাজনীতির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বলে সাদিক খান দাবি করেন।


সিউলে বাংলাদেশ দূতাবাসের বিজয় দিবস উদযাপন

রবিবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৬

Picture

এদিন সকালে দূতাবাসের কর্মকর্তা, কর্মচারী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। অনুষ্ঠানে কোরিয়ায় বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিসহ স্থানীয় বাসিন্দারও অংশ নেন।

alt
এক আলোচনা অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট প্রবাসী বাংলাদেশিরা বক্তব্য রাখেন। বক্তারা ৩০ লাখ শহীদ ও দুই লাখ নারীর অপরিসীম ত্যাগের কথা তুলে ধরেন।আলোচনা শেষে স্থানীয় শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। যা উপভোগ করেন অনুষ্ঠানে আগত অতিথি ও দর্শনার্থীরা।


ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসব উদযাপন

শনিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৬

বাপ্ নিউজ : -কোপেনহেগেন :১৬ ডিসেম্বর  মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিজয় উৎসবে টেলিফোনে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক  এম এ গনি বলেন , জাতির জনকের সোনার বাংলা বিনির্মানে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে আমাদের বীর বাঙালির আস্থার বাতিঘর জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে।  তাহলে স্বাধীনতার মূল উদ্দেশ্য সাধিত হবে।  বিজয়ের ৪৫ বছর পর আমরা শীর্ষ যুদ্ধাঅপরাধীদের  বিচার কার্য সম্পাদন করে   মুক্ত বাতাসে বিজয় উৎসব উদযাপন করছি - এর চেয়ে বড় আনন্দের কি হতে পারে। বক্তারা আরো বলেন ,  মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বহমান।  সময়ের সাথে সাথে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে সঞ্চারিত হয়।  আজকের দিনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা মানে অর্থনৈতিক মুক্তি। 

alt

আগামীর বাংলাদেশ গঠনে তরুণ যুবাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করতে হবে।  জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা এর কাছে  যতদিন দেশ থাকবে আমরা সুনিচ্ছিতভাবে এ দেশ থাকবে নিরাপদ।  কোন অপশক্তি আমাদের ঘায়েল করতে পারবে না। ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ এর সভাপতি ইকবাল হোসেন মিঠু এর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুৎ বড়ুয়া এর সঞ্চালনায় সমবেত জাতীয় সংগীত এর  মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়।  পরবর্তীতে স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত সকল শহীদের প্রতি  এক মিনিট নীরবতা পালন এর মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।  অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জাহাঙ্গীর আলম ,আমির হোসেন , হিল্লোল  বড়ুয়া , ডেনমার্ক ছাত্রলীগ এর সভাপতি ইফতেখার সম্রাট সহ আরো অনেকে।
এছাড়া উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদ ইউসুফ , মোতালেব ভূঁইয়া , আব্দুল্লাহ আল জাহিদ ,ফাহমিদ আল মাহিদ ,কোহিনূর মুকুল , সোমা ছিদ্দিকা , সানন্দা ইকবাল , আহসান উজামান নয়ন ,সুমন বিশ্বাস , জামশেদ  শাওন , রেজা, জ্যামশেদ , মিনহাজ  সহ  অনেকে।
মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচিত্র প্রামাণ্য চিত্র ও শিল্পী ওমর ফারুক সংগীত পরিবেশনায় অনুষ্ঠান শেষ হয়।


মালয়েশিয়ায় বেকসুর খালাস পেলেন বাংলাদেশি ফাঁসির আসামি

বুধবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৬

Picture

বাপ্ নিউজ : মালয়েশিয়া থেকে:মালয়েশিয়ায় দুই বাংলাদেশিকে হত্যা ও অপরজনকে গুরুতর জখমের অভিযোগে ১০ বছরের কারাদণ্ড ও ফাঁসির আসামি অলিয়ার শেখকে বেকসুর খালাস দিয়েছে দেশটির আদালত। বুধবার মালয়েশিয়ার সর্বোচ্চ আদালত ফেডারেল কোর্ট-এর পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ দীর্ঘ শুনানির পর তাকে খালাস দেয়।

Malaysia

কুয়ালালামপুরের বাংলাদেশ হাইকমিশন অলিয়ার শেখকে দীর্ঘ ৮ বছর আইনি সহায়তা দিয়েছে। হাইকমিশনের লেবার কাউন্সিল সাইদুর রহমান, শ্রম সচিব সাহিদা সুলতানা, শ্রম সচিব ফরিদ আহমদ ও সাবেক শ্রম সচিব মোশাররাত জেবীন মামলাটি সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করেন। মুক্তির পর অলিয়ার শেখকে তাৎক্ষণিকভাবে হাইকমিশনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।  তাকে হাইকমিশনের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে। আউট পাসের মাধ্যমে তাকে দু-একদিনের মধ্যেই দেশে পাঠানো হবে।

malaysia

এদিকে, আলিয়ার শেখের মুক্তির খবরে তার গ্রামের বাড়ি ছাগলছিরায় আনন্দের বন্যা বইছে।

হাইকমিশনার মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, হাইকমিশন কর্তৃপক্ষ প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশি কর্মীরা মালয়েশিয়ায় যাতে হয়রানির শিকার না হয় সেজন্য সজাগ দৃষ্টি রাখা হচ্ছে।

Malaysia

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০০৮ সালে গোপালগঞ্জের মোকসেদপুর উপজেলার ছাগলছিরা গ্রামের আওয়াল শেখ ঋণ ও ভিটেমাটি বিক্রি করে কলিং ভিসায় বড় ছেলে অলিয়ার শেখকে মালয়েশিয়ায় পাঠান। মালয়েশিয়ার একটি পোল্ট্রি ফার্মে কাজে যোগ দেন অলিয়ার শেখ। হঠাৎ এক রাতে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা কাদের ও শাহীন নামের দুই বাংলাদেশিকে হত্যা এবং হেলাল নামের অপরজনকে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়। অলিয়ার শেখ বিষয়টি মালিক পক্ষকে জানাতে অফিসে  গেলে তারা তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

malaysia

পরে মালয়েশিয়ার নিগরি সেম্বিলান হাইকোর্ট অলিয়ার শেখকে ১০ বছরের জেলসহ ফাঁসির আদেশ দেয়।

malaysia

 

শাকিল স্মরণে কানাডার টরেন্টোতে আওয়ামী লীগের শোক সভা

বুধবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৬

 

বাপ্ নিউজ : কানাডার টরেন্টো থেকে :সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশেষ সহকারী মাহবুবুল হক শাকিল স্মরণে কানাডা আওয়ামী লীগ গত রবিবার টরেন্টোর ৩০৯২ ডেনফর্থ এভিনিউতে এক শোক সভার আয়োজন করে। কানাডা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ আব্দুল গাফফারের সভাপতিত্বে ওই অনুষ্ঠানে কানাডা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান, আহাম্মদ হোসেন, মনির হোসেন বাবু, ঢাকা জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি ওবায়দুর, মরশেদ আহাম্মদ মুক্তা, মাসুদ আলী লিটন, সুদীপ সোম রিঙ্কু, রাধিকা রঞ্জন চৌধুরী, ইমরুল ইসলাম প্রমুখ।

Picture

সাবেক ছাত্রনেতা সোহেল শাহরিয়ার রানার  উপস্থাপনায় এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ছিলেন আব্দুল মান্নান, নিতাই ঘোষ , ফারহানা শান্তা । সভায় বক্তারা বলেন, মাহাবুবুল হক শাকিল ছিলেন একজন মেধাবী নির্মোহ এবং সৎ নেতা। ছাত্র নেতা হিসাবে স্বৈরাচার বিরোধী সক্রিয় ভূমিকা রেখেছেন এবং তার বলিষ্ঠ লেখনী উদ্ভুদ্ধ করেছে অন্যকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ সহকারী হিসেবেও নিজেকে মুক্ত রেখেছেন সকল অনৈতিকতার সংস্পর্শ থেকে। অনুষ্ঠানে শাকিলের লেখা কবিতা আবৃত্তি করেন সোহেল শাহরিয়ার রানা এবং আহাম্মদ হোসেন। সভাপতি সৈয়দ গাফফার শাকিলের কর্ম প্রেরণা এবং স্বাধীন লেখার প্রসংশা করে বলেন, শাকিল ছিলেন এক অসাধারণ কর্মী। শোকের পাশাপাশি শাকিলের নৈতিকতাটিকে গ্রহণ করলেই তার বিদেহী আত্মার প্রতি সঠিক সম্মান দেখানো হবে। সবশেষে এক দোয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সেক্রেটারি আজজুর রহমান প্রিন্স।


সিঙ্গাপুর আওয়ামী স্বেচ্ছা সেবক লীগের কর্মী সম্মেলন ২০১৬ অনুষ্ঠিত

সোমবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৬

Picture

জাতীয় সংগীত ও পবিত্র কোরান তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়।প্রধান অতিথি ছিলেন , আলহাজ্ব এডভোকেট মোল্লা কাওছার, সভাপতি বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছা সেবকলীগ ,কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ।বিশেষ অতিথি ছিলেন ,কে এম মাসুদুর রহমান, অর্থ সম্পাদক ,কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ,স্বেচ্ছা সেবকলীগ, এ কে এম মোহসিন ,সভাপতি ,বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট ,বাংলার কণ্ঠ সম্পাদক,সিঙ্গাপুর ,  তরিকুজ্জামান মিতুল,যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক,আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ ,মালোশিয়া  ,কেন্দ্রীয় কমিটি, সালাউদ্দিন রানা তন্ময় ,প্রস্তাবিত সভাপতি ,সিঙ্গাপুর আওয়ামীলীগ ,মাহবুব আবেদীন ,প্রস্তাবিত সাধারণ  সম্পাদক, সিঙ্গাপুর আওয়ামীলীগ,কে এইচ আলামিন,আহবায়ক   সিঙ্গাপুর যুবলীগ ,সিরাজ আহমেদ বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ।

alt

 সভাপতিত্ব করেন,  মোস্তাক আহমেদ চৌধুরী ,আহ্বায়ক সিঙ্গাপুর আওয়ামী স্বেচ্ছা সেবকলীগ ,পরিচালনা করেন,সাদ্দাম হোসেন ভূঁইয়া সজীব ,যুগ্ন আহ্বয়ক সিঙ্গাপুর আওয়ামী স্বেচ্ছা সেবকলীগ।অতিথিদের পাশাপাশি   বক্তব্য রাখেন ,আরিফুল ইসলাম সোবহান ,রাসেল ,ইসমাইল হোসেন সোহাগ,খায়রুল ,পাঠান মনির , আনোয়ার ও আরো অনেকে। অনুষ্ঠানে  ৮৭ সদস্য বিশিষ্ট সিঙ্গাপুর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি ঘোষণা করেন এবং কমিটিকে পরিচয় করিয়ে দেন  অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি। কমিটিতে সভাপতি মোস্তাক আহমেদ চৌধুরী ,সাধারণ সম্পাদক আরিফ সোবহান  দায়িত্ব পেয়েছেন।রাট সাতটা ত্রিশ মিনিটে অতিথিদের ফুলের শুভেচ্ছা জানান স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিনিধিগণ। রাতের খাবারের পর অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয় ।