Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

প্রবাসীদের খবর

যুক্তরাজ্য যুবলীগের উদ্যোগে যুবলীগের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:গত ১১ই নভেম্বর বুধবার ইম্প্রেশন ইভেন্ট ভেনুতে যুক্তরাজ্য আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভা, কেক কাটা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংগঠনের সভাপতি ফখরুল ইসলাম মধুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমেদ খানের পরিচালনায় উক্ত প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ, প্রধান বক্তা যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর চেয়ারম্যান আলহাজ্জ শামস উদ্দিন খান, বিশেষ অতিথি এম এ গনি, প্রফেসর আবুল হাশেম, যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নইম উদ্দিন রিয়াজ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও যুক্তরাজ্য যুবলীগের সাবেক সভাপতি আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ চৌধুরী, যুক্তরাজ্য যুবলীগের সাবেক সেক্রেটারি ও যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক তারিফ আহমেদ, শাহ শামিম আহমেদ, মিসবাহুর রাহমান মিসবাহ, সারব আলী, আসম মিসবাহ, আহমেদ হাসান, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ নেতা গিয়াস উদ্দিন, মেহের নিগার চৌধুরী, হসনে আরা মতিন সহ প্রমুখ।

Picture

যুক্তরাজ্য যুবলীগের সম্মানিত সহ সভাপতিবৃন্দ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বৃন্দ, সাংগঠনিক সম্পাদক বৃন্দ, সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্যবৃন্দ, লন্ডন মহানগর যুবলীগ, যুক্তরাজ্য আইনজীবী পরিষদ লীগ, যুক্তরাজ্য যুব মহিলালীগ, যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবকলীগ, যুক্তরাজ্য প্রজন্মলিগ, যুক্তরাজ্য যুবলীগের বিভিন্ন শাখা কমিটির নেতৃবৃন্দ ও যুক্তরাজ্য ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ সহ অন্যান্য  সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তিলাওত করেন লন্ডন মহানগর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ আহমেদ শাহিন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রাহমান, যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মনি সহ বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে এই পর্যন্ত যুবলীগের যারা প্রাণ দিয়েছেন তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে ১মিনিট নীরবতা পালন করেন। সভা শেষে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাঁটা হয়।


আমিরাতে ফুজিরাহ বাংলাদেশ সমিতির অভিষেক

বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজিরাহ বাংলাদেশ সমিতির নব নির্বাচিত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান সম্প্রতি শহরটির সিটি টাওয়ার হোটেলের বলরুমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। অভিষেক অনুষ্ঠােনে সংগঠনের সভাপতি রানা জ্যোতি চাকমার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সমিতি ইউএই কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোজাম্মেল হোসেন।

আমিরাতে ফুজিরাহ বাংলাদেশ সমিতির অভিষেক 

মাহাবুবল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি দিদারুল আলম, শাখাওয়াত হোসেন বকুল। ফিরোজ উদ্দিনের কোরআন তেলওয়াতের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বেলাল উদ্দিন চৌধুরী, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হাজী নুরুল আজিজ চৌধুরী প্রমুখ। পরে নবনির্বাচিত কমিটিকে ফুল দিয়ে অভিষিক্ত করা হয়।উল্লেখ্য, ২০১৫-২০১৬ সালের কার্যকরী কমিটির নতুন দায়িত্বপ্রাপ্তরা হলেন রানা জ্যোতি চাকমা সভাপতি, সহ সভাপতি তপন সরকার, সাধারণ সম্পাদক বকতেয়ার উল ইসলাম, যুগ্ন সম্পাদক বেলাল উদ্দিন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবল হক মাহবুব। এছাড়া উপদেষ্ঠা পরিষদের মধ্যে উপদেষ্ঠা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন সাবেক সভাপতি হাজী নুরুল আজিজ চৌধুরী, উপদেষ্ঠা নির্বাচিত হন সাবেক সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মনোজ কুমার বড়ুয়া।


যুবলীগ সুইডেন শাখার উদ্যোগে পালিত হয় আওয়ামী যুবলীগের ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী

বুধবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:বিশেষ প্রতিনিধি : বিগত ১৪ নভেম্বর দুপুর ২ টায় সুইডেনস্থ স্পাইস গার্ডন রেস্তোরায় বিশাল ঝাকঝমক পূর্নভাবে আওয়ামী যুবলীগের ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করেছে আওয়ামী যুবলীগ সুইডেন শাখা। প্রথমে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত শেষে আওয়ামী যুবলীগের প্রথম প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শেখ ফজলুল হক মনি, বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারসহ সকল শহিদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়।

আওয়ামী যুবলীগ সুইডেন শাখার সংগ্রামী সভাপতি মিজানুর রহমান মিজানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুইডেন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুইডেন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ লিটন, সহ সভাপতি সিরাজুল হক খান রানা, সহ সভাপতি ড. ফরহাদ আলী খান, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মাসুম বারী, সুইডেন আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ও সুইডেন যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আতাউর রহমান, গ্রীস আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও গ্রীস যুবলীগ এর সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ রিপন ফকির।

উক্ত অনুষ্ঠানে আলোচনা করেন আমিনুল ইসলাম, এম এ আলম, আবুল হোসেন, সুইডেন যুবলীগ শাখার ওয়াসেল সরকার, মিজানুর রশিদ, লাভলু মনোয়ার, শেখ ইউসুফ আলী রতন, বসন লাল সরকার, গোলাম মোস্তফা মামুন, সৈয়দ মোহাম্মদ মইন, মোঃ রাজ্জাক, আবুল হোসেন, মোঃ মামুন ভুঁইয়া ও মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম নয়ন।অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন যুবলীগ সুইডেন শাখার সংগ্রামী সাধারন সম্পাদক মোঃ যুবাইদুল হক সবুজ।সভাপতির ভাষনে মিজানুর রহমান মিজান বলেন, যে কোন আন্দোলন-সংগ্রামে যুবলীগ অগ্রণী ভুমিকা পালন করে আসছে। আগামীতেও বিরোধী দলের যে কোন আন্দোলন মোকাবিলা করতে যুবলীগ , ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মিরা এক হয়ে কাজ কর যাবে।

Picture

তিনি আরও বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ দেশের সর্ববৃহৎ যুব সংগঠন।এই সংগঠনকে তৃণমূল পর্যন্ত গতিশীল ও যুগোপযোগী জ্ঞান ভিত্তিক আদর্শ সংগঠন হিসেবে গড়ে তুলতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন সংগঠনের সম্মানিত চেয়ারম্যান যুবলীগের দীর্ঘদিনের পরিক্ষিত নেতা আলহাজ্ব মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী। তিনি নানা আপবাদ ও কুপ্ররোচনায় ক্লিষ্ট ইদানিং কালের বিভিন্ন যুব সংগঠন থেকে আলাদা এই যুব সংগঠনকে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে গতানুগতিকের বাইরে প্রচলিত রাজনীতি থেকে আলাদা করে নানা গবেষণা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জ্ঞান ভিত্তিক প্রগতিশীল আদর্শিক সংগঠনে রূপান্তরিত করতে চাচ্ছেন।

তিনি বলেন, ক্ষমতাসীন দলের যুব সংগঠন হিসেবে মাস্তানি ও চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধে জড়িত থেকে সংগঠনের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করে মুল দলকে ও সরকারকে বেকায়দায় ফেলে দেয়া যখন প্রায় আবধারিত ছিল তখনই এই সংগঠনের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী তার বর্তমান গতিশীল কমিটিকে সাথে নিয়ে সারা দেশের যুবলীগকে একটি সুশৃঙ্খল যুব রাজনৈতিক শক্তিতে পরিনত করেছেন। সংগঠনকে নিজের ব্যাক্তিগত সুবিধার জন্য বা ভোগ বিলাসের জন্য কাজে লাগান নাই বা কাউকেই কাজে লাগাতে দেন নাই। কোথাও সংগঠনের কোন নেতা কর্মিদের কোন বিচ্যুতি দেখলে কঠোরভাবে দমন করেছেন। এখানে আদর্শকেই প্রধান্য দিয়েছেন, ব্যাক্তিকে নয়। প্রচলিত রাজনৈতিক কার্যক্রমের উর্দ্ধে উঠে শিক্ষা ও গবেষণামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে রাজনীতিতে নতুন ধারার প্রবর্তন করেছেন এই নেতা। তারই এক উদাহরণ বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের যুব গবেষণা কেন্দ্র। বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সমূহ বাস্তবায়নে যুব সমাজের ব্যাপক ভিত্তিক গঠনমূলক অংশগ্রহনের অভিপ্রায়ে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী ১০ জানুয়ারি ২০১০ সালে স্বাধীন বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাবর্তন দিবসে এই সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন।

মিজানুর রহমান মিজান বলেন, সর্বকালের ও সর্বযুগের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে শেখ ফজলুল হক মনি কর্র্তৃক প্রতিষ্ঠিত এবং রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রতি আস্থাশীল যুবকদের নিয়েই বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগকে সুসংগঠিত ও আদূনিক একটি সংগঠন হিসেবে গড়ে তুলে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে অবগত করাই এর মুল কাজ। আধুনিক ধ্যান-ধারনায় সম্মৃদ্ধ রাজনীতির বাস্তবায়নে এবং রাজনীতির সংগে ব্যাবস্থাপনার যৌক্তিক সমন্বয় ঘটানো।যুবকদের মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে আবহিত করা। যুব সমাজের বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা সম্বন্ধে গবেষণালব্ধ অভিজ্ঞতার আলোকে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহন করা। জাতির প্রত্যাশা অনুযাই বাস্তবসম্মত প্রশিক্ষন ও কর্মশালার মাধ্যমে যুব সমাজকে দেশ সেবায় উপযোগি করে গড়ে তোলা। আন্তযোগাযোগের মাধ্যমে ভিন্ন ভিন্ন মত ও পথের তরুনদের জাতিয় ও আন্তর্জতিক কোন ইস্যুতে ঐক্যবদ্ধ করা। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের যুব প্রতিনিধিদের সঙ্গে আন্তযোগাযোগের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিজেদের অবস্থান ও কার্যক্রম পরিচিত করতেই এসকল কার্যক্রম গ্রহন করা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার দর্শন ও তার গনতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম ইত্যাদি কার্যক্রমকে প্রকাশনার মাধ্যমে দেশবিদেশে ছড়িয়ে দিতেও অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন যুবলীগ ও তার প্রান পুরুষ মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী।

বীর চট্টলার কৃতি সন্তান, বঙ্গবন্ধু পরিবারের ঘনিষ্ট আত্মীয় ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের একনিষ্ঠ যোদ্ধা এবং শেখ হাসিনার অত্যন্ত প্রিয় ও আস্থাভাজন, সারা দেশের কর্মিদের প্রিয়ভাজন ওমর ফারুক চৌধুরী ২০১০ সালে সংগঠনটির দায়িত্ব পেয়ে পরবর্তিতে ২০১২ সালে কাউন্সিল অধিবেশনের মাধ্যমে পুনরায় সংগঠনের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে একঝাঁক তরুন শিক্ষিত, মেধাবী ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফল ব্যাক্তি ও সংগঠকদের নিয়ে একটি গতিশীল কমিটি গঠনের মাধ্যমে যুবলীগকে দেশসেরা এক যুব সংগঠনে পরিনত করেছেন- একথা বলেন, যুবলীগ সুইডেন শাখার সংগ্রামী সভাপতি মিজানুর রহমান মিজান।

তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা , তার পরিবারের সদস্যগন, আওয়ামী যুবলীগের দীর্ঘদিনের পরিক্ষিত চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী, সাধারন সম্পাদক হারুনুর রশিদসহ সকল কেন্দ্রীয় নেতাকর্মিদের দীর্ঘায়ু কামনা করেন।সভায় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, তরুন লীগসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মিরা উপস্থিত ছিলেন।সভাশেষে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কাটা হয় এবং আপ্যায়নের ব্যাবস্থা করা হয়।


অসুস্থ ফ্রান্স আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এনামুল হক এর শয্যাপাশে এম এ গনি

বুধবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:প্যারিস:সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি , ফ্রান্স আওয়ামী লীগ এর নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এনামুল হককে দেখতে হাসপাতালে যান। উল্লেখ গত ৯ নভেম্বর ,২০১৫ তিনি হটাত করে ব্রেন স্ট্রোক করেন। এম এনামুল হক দীর্ঘদিন ধরে ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সংগঠক হিসেবে যথেস্ট কাজ করেছেন। উল্লেখ তিনি ১৯৭১ সালে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি তার অসুস্থতার সার্বিক খবর নেন। তিনি আশা করেন অচিরেই এনামুল হক সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরে যাবেন।

অসুস্থ ফ্রান্স আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এনামুল হক এর শয্যাপাশে এম এ গনি  

এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত মুখাভিনেতা পার্থ প্রতিম মজুমদার , বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপকমিটির সহ সম্পাদক প্রশান্ত ভূষণ বড়ুয়া , ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুত বড়ুয়া , পর্তুগাল আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক খন্দকার রফিকুল ইসলাম,ফ্রান্স আওয়ামী লীগের মনজুরুল হাসান সেলিম। ।


চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবান এখন লন্ডনে

বুধবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৫

Picture

শুধু তাই নয়, দূর পরবাসে সাদা ভাত, গরুর মাংস আর ডালের এই ভোজ আয়োজন যে কতটা উৎসবমুখর হয়ে উঠতে পারে তারও প্রমাণ মিলল মেজবানের লন্ডন আয়োজনে।
রোববার (১৫ নভেম্বর) পূর্ব লন্ডনের মালব্যারি ব্যাঙ্কুয়েটিং মিলনায়তনে হয়ে গেল চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানের আয়োজন। এই আয়োজনে বাড়তি মাত্রা যোগ করে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। যুক্তরাজ্যের গ্রেটার চিটাগং অ্যাসোসিয়েশন ইউকে এই মেজবানের আয়োজন করে। তবে শুধু চট্টগ্রামবাসী নয়, সিলেট, নোয়াখালীসহ যুক্তরাজ্যে বসবাসরত বিভিন্ন জেলার মানুষের আগমন ঘটে এ আয়োজনে।

খাওয়া-দাওয়ার দৃশ্য  গ্রেটার চিটাগং অ্যাসোসিয়েশন ইউকের সভাপতি ব্যারিস্টার মনোয়ার হোসেন বলেন, সাধারণ মেজবানিতে গরুর মাংস রান্না করা হয়। কিন্তু বিভিন্ন ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মানুষের কথা চিন্তা করে তারা গরুর বদলে ভেড়ার মাংস (ল্যাম্ব) রান্না করেছেন। তিনি বলেন, এবারে মেজবান তাদের দ্বিতীয় আয়োজন। গতবার খাবারের কমতি পড়ে যাওয়ায় এবার তারা মেজবানে আসার ক্ষেত্রে পাঁচ পাউন্ডের টিকিট চালু করেন। তারপরও গতবারের চাইতে এবার প্রায় দ্বিগুণ লোক হয়েছে জানিয়ে মনোয়ার বলেন, প্রায় আড়াই হাজার লোকের সমাগম ঘটেছে এবারের মেজবানে।
কথা ছিল স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা থেকে শুরু হবে খাবার পরিবেশন। কিন্তু ১২টার বেশ আগে থেকেই জমে উঠে আয়োজনস্থল। শুধু লন্ডন নয়, লন্ডনের আশপাশের শহরসহ স্কটল্যান্ড, ম্যানচেস্টার, বার্মিংহামের মতো দূরদূরান্তের শহরগুলো থেকেও চট্টগ্রামবাসী অনেকে ছুটে এসেছেন ঐতিহ্যবাহী এ আয়োজনে শামিল হতে। সবচেয়ে লক্ষণীয় ছিল নারী ও শিশু-কিশোরদের সরব উপস্থিতি। সাপ্তাহিক ছুটির দিনে আয়োজন হওয়ায় পরিবারগুলো হাজির হয়েছে সদলবলে। এ যেন সুদূর প্রবাসে আত্মীয়-স্বজন কিংবা পরিচিতজনদের সঙ্গে পরিবার নিয়ে আনন্দঘন একটি দিন কাটানোর মোক্ষম আয়োজন। তার চেয়েও বড় ব্যাপার যেন, একান্ত আপন চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় প্রাণখুলে কথা বলার স্বাধীনতা।
আয়োজনস্থলে বারবারই কানে ভেসে আসছিল—বদ্দা গম আছন্না, অনার ফোন নম্বরত আঁত্তুন নাই পল্লার। কিংবা নারী কণ্ঠে শোনা যাচ্ছিল—ওআল্লা ভাবি, অনার লগে আঁর খতদিন দেকা ন অয়। কেউবা অন্যের খোঁজ নিচ্ছেন—তারা ন আইস্যে?
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উপস্থিতিমালব্যারি ব্যাঙ্কুয়েটিং মিলনায়তনে পাশাপাশি দুটি সুবিশাল কক্ষ। একটিতে চলছে খাওয়া-দাওয়া। অন্য কক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। খাবার পরিবেশনের কক্ষের পেছনের দরজায় ভোজনপ্রেমীদের দীর্ঘ লাইন। এক ব্যাচ খেয়ে সামনের দরজা দিয়ে বের হচ্ছেন। আর পেছন দরজা দিয়ে ঢুকছেন আরেক ব্যাচ। মেজবানের চিরাচরিত টেবিল দখলের দৃশ্যও এখানে বাদ যায়নি। পরিবার-পরিজন নিয়ে একসঙ্গে বসতে টেবিল দখলের প্রচেষ্টাও ছিল লক্ষণীয়।
খাবার শেষে সবাই আবার ভিড় জমাচ্ছেন পাশের কক্ষের সাংস্কৃতিক আয়োজনে। মঞ্চে চলছে চট্টগ্রামের আঞ্চলিক গানের মূর্ছনা। একে একে সূর উঠছে—নাতিন বরই খা; ও জেডা ফইরার বাপ কিংবা যদি সুন্দর একখান মুখ পাইতাম-এর মতো পুরোনো জনপ্রিয় গানে। পরিবেশিত হয় হালে শ্রোতাপ্রিয় হয়ে ওঠা রসিয়া বন্ধুরে পরানের বন্ধুরে কিংবা কইলজার ভিতর গাঁথি রাইক্কুম তোয়ারের মতো গানগুলোও। মঞ্চ মাতাতে বাংলাদেশ থেকে ছুটে আসেন শিল্পী তপন চৌধুরী। সংগীত পরিবেশন করেন স্থানীয় বাংলা সংগীত শিল্পী লাবণী বড়ুয়া, রুবাইয়াত জাহান ও রুকসানা সাফাসহ অনেকে। ছিল যুক্তরাজ্যে বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মের শিশু শিল্পীদের মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা।
আয়োজনে নারী ও শিশু-কিশোরদের উপস্থিতিম্যানচেস্টার থেকে আসা মুনিরুল প্রথম আলোকে বলেন, তিনি স্ত্রী, দুই পুত্র ও এক কন্যাকে নিয়ে এসেছেন। তার মতে, সন্তানদের নিজস্ব ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্য এই মেজবান একটি বড় সুযোগ।
গ্রেটার চিটাগং অ্যাসোসিয়েশন ইউকের সভাপতি ব্যারিস্টার মনোয়ার হোসেন বলেন, যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা চট্টগ্রামবাসীকে ঐক্যবদ্ধ করে নিজেদের মধ্যে পারস্পরিক যোগযোগ বৃদ্ধির লক্ষ্যেই এই মেজবানের আয়োজন। চট্টগ্রামবাসীসহ অন্যান্য জেলার লোকদের মধ্যে এবারের মেজবান যে সাড়া ফেলেছে, তাতে ভিড় সামলাতে হয়তো ভবিষ্যতে কোনো খোলা মাঠে এই আয়োজন করতে হবে।
চট্টগ্রামে পরিবারের কেউ মৃত্যুবরণ করলে কিংবা পরিবারের প্রয়াত সদস্যের মাগফিরাত কামনায় মেজবানের আয়োজন হয়। এখন মেজবানের উদ্দেশ্যে যেমন ভিন্নতা এসেছে তেমনি স্থান-কাল ও পরিস্থিতি বিবেচনায় আয়োজনেও যোগ হয়েছে নানা মাত্রা। তবে ভিন্ন সংস্কৃতির ভিন্ন দেশেও মেজবানের আমেজ রয়েছে অটুট। হয়তো এই যুক্তরাজ্যেই একদিন চালু হবে ব্যক্তি উদ্যোগে মেজবানের আয়োজন।


যুক্তরাজ্য যুবদলের নতুন কমিটিকে ইঞ্জিনিয়ার রেজাউল করিমের অভিনন্দন

মঙ্গলবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:যুক্তরাজ্য যুবদলের ইতিহাসে প্রথমবারের মত সরাসরি ভোটে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচন করা হয়েছে। যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহর কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, আহবায় ও যুগ্ম আহবায়ক এবং যুক্তরাজ্য যুবদলের আহবায়ক কমিটির নেতৃবৃন্দের প্রথমবারের সরাসরি ভোটে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন রহিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন সোয়ালেহিন করিম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছে লায়েক মোস্তফা।সোমবার দুপুর পূর্ব লন্ডনের আমানা সেন্টারে আয়োজিত সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন যুবদলের আহবায়ক দেওয়ান মোকাদ্দেম চৌধুরী নিয়াজ। এসময় বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক, সাধারণ সম্পাদক কয়ছর এম আহমদ।পরে যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচনের নির্বাচন কমিশনার দায়িত্ব পালন করেন। এতে ভোটাররা অত্যান্ত সুশৃঙ্খলভাবে ভোট প্রদানের মাধ্যমে তাদের নতুন নেতা নির্বাচিত করে।

ভোট গণনায় পর্যবেক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় আন্তর্জাতিক সম্পাদক মাহিদুর রহমান, যুক্তরাজ্য বিএনপির উপদেষ্টা শায়েস্তা চৌধুরী কুদ্দুছ, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মানবাধিকার সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এ সালাম, ব্যারিস্টার আবু সায়েম, যুক্তরাজ্য বিএনপির সহ সভাপতি আবুল কালাম, যুবদলের কেন্দ্রীয় আন্তর্জাতিক সম্পাদক এনামুল হক লিটন,যুক্তরাজ্য যুবদলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মুজিবুর রহমান মুজিব, সাবেক সভাপতি নাসিম আহমদ চৌধুরী, সহ বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ।

Baps 555

এদিকে সভাপতি পদে অপর দুই প্রার্থী ছিলেন মোস্তাক আহমেদ ও মঞ্জুর আশরাফ খান, সাধারণ সম্পাদক পদে অপর দুই প্রার্থী ছিলেন আফজাল হোসেন, বাবর চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে অপর তিন প্রার্থী ছিলেন, জিয়াউল ইসলাম জিয়া, সেবুল মিয়া, ওবায়দুল হক চৌধুরী।

যুক্তরাজ্য যুবদলের নতুন কমিটির সভাপতি সভাপতি রহিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন সোয়ালেহিন করিম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক  লায়েক মোস্তফাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন যুবদলের সাবেক কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য, জিয়া পরিষদের সহ আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদক, যুক্তরাজ্য ও ঝালকাঠি জেলা বিএনপির বিএনপির কার্যনির্বাহী সদস্য, সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ যুক্তরাজ্য শাখার যুগ্ম আহবায়ক,  বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম যুক্তরাজ্য শাখার সাবেক সহ-সভাপতি,বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী গবেষনা পরিষদের সিনিয়র সহ সভাপতি, শের-ই-বাংলা এ কে ফজলুল হক রিসার্চ ইনস্টিটিউট’র প্রতিষ্ঠিতা, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী রিসার্চ সেন্টারের চেয়ারম্যান এবং চার্টাড ইনস্টিটিউট অব লিগ্যাল এক্সিকিউটিভের মেম্বার ইঞ্জিনিয়ার একেএম রেজাউল করিম। অভিনন্দন জানিয়ে রেজাউল করিম বলেন, নতুন কমিটির যোগ্য নেতারা আগামী দিনের আন্দোলন সংগ্রাম সহ দল সংগঠিত করতে পারবে বলে আমি মনে করি। তিনি নতুন কমিটির নেতাদের সাফল্য কামনা করেন।


প্যারিস হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি -সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ

মঙ্গলবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৫

Picture

আমাদের নেত্রী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন , সন্ত্রাসীদের কোন দেশ নেই। এদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে মোকাবেলা করতে হবে। জঙ্গিবাদ সমূলে উত্পাটন করতে বিশ্ব নেতাদের সকল পদক্ষেপের প্রতি জননেত্রী শেখ হাসিনা অকুন্ঠ সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন। বাংলাদেশের সন্ত্রাস নির্মূলে বর্তমান সরকারের গৃহিত পদক্ষেপের কারণে বাংলাদেশ সরকার অনেক সফলতার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছে। এখন সময় এসেছে এইসব অপকর্মের মদদ দাতাদের চিন্নিত করে বিচার করার। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে কেন্দ্রীয় কমিটির উপকমিটির সহসম্পাদক প্রশান্ত ভূষণ বড়ুয়া শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

alt

প্যারিস রিপাবলিক এর অস্তায়ী বেদিতে এই সময় উপস্থিত ছিলেন সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ এর যুগ্ম-সম্পাদক নজরুল ইসলাম ,মুজিবর রহমান ফ্রান্স আওয়ামী লীগ এর পক্ষে সভাপতি জনাব বেনজির আহমেদ সেলিম ,সাধারণ সম্পাদক মো. আবুল কাশেম ,ইতালি আওয়ামী লীগ এর পক্ষে সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল , সহসভাপতি জাহাঙ্গীর ফরাজী , যুগ্ম সম্পাদক এম এ রব মিন্টু , ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুত বড়ুয়া , স্পেন আওয়ামী লীগ এর সভাপতি শাকিল খান পান্না , ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি তাহের -ই-ভার , এম এ কাসেম ,মহসীন উদ্দিন খান লিটন , মনজুরুল হাসান সেলিম ,কয়েস দিলওয়ার ,মোহাম্মদ আতিকুজ্জামান , ,ইতালি আওয়ামী লীগ এর সহসভাপতি জাহাঙ্গীর ফরাজী , যুগ্ম সম্পাদক এম এ রব মিন্টু পর্তুগাল আওয়ামী লীগ এর যুগ্ম-সম্পাদক খন্দকার রফিকুল ইসলাম সহ আরো অনেকে।


রোমে ফ্রান্স দূতাবাসের সামনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধান্জলী

মঙ্গলবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:গত ১৩ই নভেম্বর সন্ধ্যায় প্যারিসে নির্বিচারে নিরিহ নাগরিকদের সন্ত্রাসী হামলা ও  হত্যাকান্ডের প্রতিবাদ জানাতে ও নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাতে রোমের বাংলাদেশ কমিনিটির পক্ষ হতে ইতালীয়ান বাংলাদেশী নাগরিকবৃন্দের একটি প্রতিনীধি দল রোমের পিয়াচ্ছা ফারনেজে প্যারিসে দূতাবাসের  সামনে নিহতদের স্মরনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

Picture

বাংলাদেশী ইতালীয়ান নাগরীকদের প্রতিনীধিত্ব করেন শাহ মো: তাইফুর রহমান ছোটন, খন্দকার নাসির উদ্দিন, হাজী মো: মোজাম্মেল হক দিপু,  আবুল কালাম, হাজী আব্দুর রাজ্জাক,  হুমায়ুন কবির, মাঈনুল আলম খোকন, কামরুজ্জামান রতন, ফিরোজ খান, আশরাফুল হক, জিয়াবুল কালাম , শওকত হোসেন, মাসুম বিল্লা, মীর আল আমিন পরাগ, রুহুল আমিন রাহুল, হাজী মো: নাসিম, আজম মৃধা, আল আমিন, গিয়াস উদ্দিন, শাহ আলী প্রমুখ। উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্ন উত্তরে ইতালীর কমুনিটি নেতা জনাব তাইফুর রহমান ছোটন প্যারিস, সিরিয়া, গাজা অথবা বাংলাদেশে সকল অমানবিক হত্যাকান্ড বন্ধ করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বিবেক জাগ্রত করে দায়ীত্বশীল ভুমিকা নিয়ে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।


আজমান বঙ্গবন্ধু পরিষদের সহ-সভাপতির স্মরণে শোকসভা

মঙ্গলবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৫

কামরুল হাসান জনি, ইউএই :সংযুক্ত আরব আমিরাতের আজমান বঙ্গবন্ধু পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি মরহুম মোহাম্মদ নাছিরের স্মরণে শোকসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। গত বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় ওয়ালিমা রেস্টুরেন্টে আজমান বঙ্গবন্ধু পরিষদ কর্তৃক আয়োজিত শোকসভায় পরিষদের সভাপতি ইসমাঈল গনী চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন দুবাই বিজনেস কাউন্সিলের সহ-সভাপতি আইয়ুব আলী বাবুল।

Picture

এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সৈয়দ আহাদ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ক্যাপ্টেন সৈয়দ আবু আহাদ, কমিউনিটি নেতা কাজী মোহাম্মদ আলী, রাস আল খাইমাহ সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সভাপতি পেয়ার মোহাম্মদ, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ রাস আল খাইমাহ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার জসীম উদ্দিন ভূঁইয়া, সিনিয়র সহ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম।শোকসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রাস আল খাইমা বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাফর চৌধুরী, চকরিয়ার সাবেক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ মুসা, মীর আহাম্মদ, মোহাম্মদ আনসারুল হক প্রমুখ। বক্তারা মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। শেষে মরহুমের আত্মার শান্তির জন্যে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।


মালয়েশিয়ায় যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

সোমবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:মালয়েশিয়ায় জমকালো আয়োজনের মধ্যদিয়ে যুবলীগের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। বুধবার বিকেলে কুয়ালালামপুর মুতিয়ারা বলরুমে মালয়েশিয়া যুবলীগের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।মালয়েশিয়া যুবলীগের আহবায়ক তাজকির আহমেদের সভাপতিত্বে ও যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মানসুর আল বাশার সোহেল ও জহিরুল ইসলাম জহিরের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী।ওমর ফারুক বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে শেখ ফজলুল হক মণির নেতৃত্বে ১৯৭২ সালের এই দিনে ঢাকা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক যুব কনভেনশনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠা লাভ করে সংগঠনটি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের আদলে অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক ও শোষণমুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে যুবসমাজকে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্য নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় এই সংগঠন। গত চার দশকের বেশি সময় ধরে দীর্ঘ লড়াই-সংগ্রাম ও হাজারো নেতাকর্মীর আত্মত্যাগের মাধ্যমে যুবলীগ আজ দেশের সর্ববৃহৎ যুব সংগঠনে পরিণত হয়েছে।

Picture

তিনি বলেন, আমরা একটি পরিবার । এই পরিবারের সকল সদস্য একে অন্যকে সম্মান করতে হবে। পরিবারের ভিন্নতাগুলো যে সমন্বয় করতে পারে  সেই প্রকৃত নেতা।অনুষ্ঠানে  অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগ নেতা মকবুল হোসেন মুকুল, কামরুজ্জামান কামাল, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, আব্দুল করিম, হাজী জাকারিয়া, মনিরুজ্জামান মনির,  মালয়েশিয়া যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক এ কামাল চৌধুরী, কেন্দ্রীয় যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনজুর আলম শাহীন, ঢাকা উওর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন সরকার, শাখাওয়াত হক জোসেফ, মখলিছুর রহমান, সিরাজুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি বিএম বাবুল হাসান, শ্রমিক লীগের যুগ্ম আহবায়ক শাহ আলম হাওলাদার, যুবলীগের রেজাউল হক লায়ন প্রমুখ।
অনুষ্ঠান শেষে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটেন মালয়েশিয়া যুবলীগের নেতা কর্মীরা।


মালয়েশিয়ায় হুমায়ূন আহমেদের জন্মদিন পালিত

সোমবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৫

বাপসনিঊজ:মালয়েশিয়া প্রতিনিধি : মালয়েশিয়ায় কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ-এর ৬৭তম জন্মদিন পালিত হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় কুয়ালালামপুরের রেস্টুরেন্ট পেলিতায় হুমায়ুন আহমেদ স্মৃতি সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদ জম্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল এর আয়োজন করে ও কেক কাটে।হুমায়ুন আহমেদ স্মৃতি সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদ মালয়েশিয়া শাখার সভাপতি শেখ শরিফ আহমেদ রাজার সভাপতিত্বে তরুণ সংগঠক সাইয়েদ মিনহাজুর রহমান মিনহাজের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন চলচ্চিত্র অভিনেতা ব্রাউন সোহেল।

Picture

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মালয়েশিয়া শাখা আওয়ামী লীগের সদস্য মিনহাজ উদ্দিন মিরান, ছাত্রলীগের আহ্বায়ক হুমায়ুন কবির, বাংলাদেশ স্টুডেন্ট ইউনিয়ন মালয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট মহিউদ্দিন মাহী, ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল ওয়াজেদ মজুমদার ওয়াসিম ও শাপলা । এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মী, ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।অনুষ্ঠানে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন বাংলাদেশ স্টুডেন্ট ইউনিয়নের সেক্রেটারি মোহাম্মদ রবিউল ইসলাম।