Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

নিউয়র্কের খবর

আমেরিকার প্রখ্যাত সাংবাদিক চার্লস ওসগুড নিউইয়র্ক প্রেসক্লাবের মুক্ত আলোচনায়

রবিবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,বাপসনিউজ:আমেরিকার জনপ্রিয় টিভি চ্যানেল সিবিএস -এর নিউজম্যান ও প্রখ্যাত সাংবাদিক চার্লস ওসগুড গত ২৫ জানুয়ারী, সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় নিউইয়র্কের ম্যানহাটানের কিউনি র্জানালিজম স্কুল মিলনায়তনে (সিটি ইউনির্ভাসিটি অব নিউইয়র্কর) আলোচনায় প্রধান বক্তা হিসেবে অংশ নেন । মুলধারার নিউইয়র্ক প্রেসক্লাব আয়োজিত এক মুক্ত আলোচনা নিউইয়র্ক প্রেসক্লাবের প্রেসিডেন্ট ষ্টীভ স্কোট-এর সঞ্চালনায় অনুষ্টিত হয়।  মুক্ত আলোচনায় প্রখ্যাত সাংবাদিক, গ্রন্থ প্রনেতা চার্লস ওসগুড সাংবাদিকতায় তার কর্মময় জীবনের অভিজ্ঞার বর্ণনা দেন। উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নেরও জবাব দেন । উক্ত অনুষ্ঠানে ও মুলধারার প্রায় অর্ধ শতাদিক সাংবাদিকদের মাঝে বাংলাদেশ কমিউনিটির একমাত্র আমন্ত্রিত হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আমরেকিান প্রসেক্লাব অব বাংলাদশে অরজিনি  সভাপত,িমরোপলাশ ডটকম উপদেষ্টা  সম্পাদক ও প্রবাস-মেলার   যুক্তরাষ্ট্রের বুরে‌্যা  প্রতিনিধি হাকিকুল ইসলাম খোকন।

alt

ছবিতে - মাঝে প্রখ্যাত সাংবাদিক, গ্রন্থ প্রনেতা চার্লস ওসগু, ডানে সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন, বামে সাংবাদিক  ফিলিসা লীন এবং সাংবাদিক ভিকটরকে দেখা যাচ্ছে।

alt

২য় ছবিতে সাংবদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন,সাংবাদিক রবাটো কাপোলিসিলি সাংবাদিক ও সাংবাদিশ ফিলিসা লীনকে দেখা যাচ্ছে । ছবি বাপসনিউজ।


আরএলবি গ্রুপের সিইও আকতার হোসেন বাদলের উদ্যোগে সম্পাদক ও সাংবাদিকদের নৈশভোজ

রবিবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,বাপসনিউজ:আরএলবি গ্রুপের সিইও আকতার হোসেন বাদলের উদ্যোগে গত ২৫ জানুয়ারী, সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় নিউইয়র্কের কুইন্সের ৫৮ ষ্ট্রীট এবং ৩১ এভিনিউর উপর নিতুনিতূ আলোর উডসাইডের ‘পাপারাজি ট্র্যাটোরিয়া’ রেস্টুরেন্ট মিলনায়তনে নৈশ ভোজে আপ্যায়ন করেন যুক্তরাষ্ট্রের বাংলা ভাষাভাষীর প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক , নিউজ পোটাল ,নিউজ এজেন্সি সহ বিভিন্ন মিডিয়ার সম্পাদক,পরিচালক ও প্রতিনিধিদের সম্মানে নৈশ ভোজ অনুষ্টানে আকতার হোসেন বাদল সাংবাদিকদের অভ্যর্থনা জানান। নানান রকম সুস্বাদু খাবার দিয়ে শুরু  হয় আপ্যায়ন । এরপর জমজমাট আড্ডা। আকতার হোসেন বাদলের ডানে বামে সম্পাদক ও সাংবাদিকদের আসন গ্রহণ ছিল দৃষ্টি নন্দন।খবর বাপসনিঊজ ।
অতিথি সাংবাদিকদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সাপ্তাহিক ঠিকানার সম্পাদক লাভলু আনসার , সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদ আলী খান, সাপ্তাহিক বাংলাপত্রিকা সম্পাদক আবু তাহের , সাপ্তাহিক জন্মভূমি সম্পাদক রতন তালুকদার, সাপ্তাহিক বর্ণমালা সম্পাদক মাহফুজুর রহমান, সাপ্তাহিক প্রবাস সম্পাদক মোহাম্মদ সাঈদ, বাপসনিউজ এডিটর,মুলধারার নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিল ও হুজ হজ এবং বিবিসি -ইমপেক্ট পুরস্কার জয়ী সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন, আই অন বাংলাদেশ টিভির পরিচালক রিমন ইসলাম , সময় টিভির যুক্তরাষ্ট্র ব্যুরো প্রধান শিহাব উদ্দিন কিসলু,মিলিনিয়াম টিভির  প্রতিনিধি মঞ্জুরুল হক, চ্যানেল আই প্রতিনিধি আবিদ রহমান, এনটিভি ইউএসএর প্রতিনিধি আবিদুর রহমান , সাপ্তাহিক আজকাল নির্বাহী সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, সাপ্তাহিক ঠিকানার প্রতিনিধি আবুল কাশেম, সাপ্তাহিক ২০০০ প্রতিনিধি আকবর হায়দার কিরন,খবর ডটকম সহযোগী  সম্পাদক মশিউর রহমান, ফটো সাংবাদিক নিহার সিদ্দিকী প্রমুখ।

alt
দীর্ঘদিন নিউইয়র্ক প্রবাসী আকতার হোসেন বাদল রাজনীতির মঞ্চে তিনি যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সম্পাদক, সারেক রহমান মুক্তি আন্তর্জাতিক কমিটির প্রতিষ্টাতা সভাপতি। এই পরিচয়েই প্রবাসে তিনি কমবেশী পরিচিত। কিšু‘ এর বাইরে আকতার হোসেন বাদল নিজেকে মিলিয়নায়ার ব্যবসায়ী পরিচয় দিতেই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন বেশী। সে কারনেই গত সোমবার বাদল এই ডিনার পার্টির আয়োজন করেছিলেন।  

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলা ভাষায় প্রকাশিত সংবাদপত্রের সম্পাদক ও সাবাদিকগণের এক মিলনমেলায় তুষার বিধ্বস্ত জনপদে রোদেলা সকালের মতোই ঝলসে উঠলো কঠোর পরিশ্রমী এক প্রবাসীর স্বপ্ন পূরণে অদম্য বাসনার ধারা বিবরণী। সততা এবং আকতার পাশাপাশি দরদ দিয়ে মনোনিবেশ করলে কোন চাওয়াই অপূর্ণ থাকে না, কেউ পাশে না দাঁড়ালেও কোন কাজ ঠেকে থাকে না-এমন উদাহরণ সৃষ্টিকারি এই প্রবাসীর নাম আকতার হোসেন বাদল। কর্মরত সাংবাদিক এবং সম্পাদকগণের সম্মানে এ মিলনমেলার আয়োজনও করেছিলেন চাঁদপুরের সন্তান ও প্রবাসের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আকতার হোসেন বাদল।খবর বাপসনিঊজ।২৮ বছরেরও অধিক সময় যাবত নিউইয়র্কে বসবাসরত বাদল নিজের মেধা ও পরিশ্রমের সমন্বয় ঘটিয়ে কীভাবে মার্কিন ধারায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন, কীভাবে নির্মাণ সেক্টরে ব্যবসায়িক আসন পোক্ত করেছেন ইত্যাদি অবলিলায় উপস্থাপন করেন। আর এভাবেই তার ব্যবসায়িক দিগন্ত বি¯তৃত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সীমানা পেড়িয়ে মেক্সিকো, ডোমিনিকান রিপাবলিক, চীন এবং পানামায়-সে কথাও প্রকাশ করেন মিডিয়ার কাছে। নির্মাণ ব্যবসার নানা সামগ্রি ক্রয়ের জন্যে এসব দেশে যাতায়াতের মধ্য দিয়ে এখন রিয়েল এস্টেট এবং রেস্টুরেন্ট ব্যবসাতেও পা বাড়িয়েছেন নিউইয়র্কস্থ এশিয়ান-আমেরিকান কাউন্সিলর এই ব্যবসায়ী বাদল। আরএলবি গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বাদল নিজেই তার সাফল্যের কাহিনী উপস্থাপন করলেন নিউইয়র্কে সাংবাদিকদের এ মিলনমেলায়।
 ব্যতিক্রমী এ অনুষ্ঠানে ছিলেন না কোন বক্তা। উপস্থাপনার নামে চাটুকারিতার ঘটনাও ঘটেনি। একেবারেই সাদামাটা এ আয়োজনে কেবলই ছিল খাবারের মাধ্যমে আতিথেয়তা। রেস্টুরেন্টের স্প্যানিশ মালিক পেড্রো রীজ এ রাতকে উৎসর্গ করেছিলেন ‘বাংলাদেশ ডিনার’ হিসেবে। যদিও বাঙালি কোন খাবার পরিবেশিত হয়নি।

Picture


বাদল সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বক্তব্যে তার এ এগিয়ে চলার ক্ষেত্রে নিউইয়র্কের মিডিয়ার নিরন্তর সমর্থনের কথা উল্লেখ করেন। গভীর কৃতজ্ঞতা জানান সাংবাদিকদের প্রতি। চলার পথে যদি কোন ত্রুটি হয়ে থাকে সেজন্যে ক্ষমা প্রার্থনাও করেন। বাদল অকৃপণচিত্তে উল্লেখ করেন, সামনের দিনে সকলের সাথে মিশে থাকতে চাই আরো এগিয়ে যেতে। চাই সকলের আন্তরিক সহায়তা। এ সময় নিজের মধ্যে চেপে রাখা একটি দু:খবোধের কথা বলতেও দ্বিধা করেননি। বললেন, শুরুতে অর্থাৎ ১৯৮৮ সালে একটি কাজের জন্যে রেফারেন্স প্রয়োজন হয়েছিল। অনেকের কাছে গিয়েছি। কিন্তু কেউ দেননি। বাদল বলেন, তাই বলে আমি থেমে থাকিনি। ব্রঙ্কসের তদানিন্তন মূলধারার এক নেতার শরনাপন্ন হই। তিনি বিনাবাক্য ব্যয়ে আমার জন্যে সুপারিশ করেছিলেন। সেই যে শুরু, আর থামতে হয়নি। এজন্যে আমি অবশ্য কম্যুনিটিকে দূরে ঠেলে দেইনি। কম্যুনিটির ঐসব কথিত নেতৃবৃন্দের অনেকেই এখন বেঁচে নেই। আমি তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। বাদল বলেন, ভাগ্য গড়ার অফুরšত সুযোগ রয়েছে এ যুক্তরাষ্ট্রে। তাই এটি ভাবার অবকাশ নেই যে, আমি বাদল এগিয়ে গেলে আরেকজন তা পারবেন না। এক মিলিয়ন বাংলাদেশীর সকলেই এগিয়ে গেলেও সুযোগের ঘাটতি পড়বে না এই আমেরিকায়। বাদল বলেন, মিডিয়ার ভূমিকা অপরিসীম এবং তা দিনদিনই বাড়ছে। বাংলা ভাষায় প্রকাশিত মিডিয়াগুলোও মূলধারায় মেসেজ দিচ্ছে। প্রায় সকল অফিসেই বাংলা অনুবাদক রয়েছেন। তাদের মাধ্যমে সবকিছু তারাও জানতে পারেন। তাই, মিডিয়াকেও সেভাবেই সবকিছু পরিবেশন করা দরকার। কারণ, কম্যুনিটিকে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছে দিতে বাংলা ভাষার মিডিয়ার গুরুত্ব অপরিসীম। বাদল উল্লেখ করেন, বহির্বিশ্বে অর্জিত অর্থে আমি চাঁদপুরে কিছু করতে চাই। তবে এ জন্যে আরো কিছুদিন সময় নিচ্ছি। চাঁদপুরের ইতিহাস-ঐতিহ্যকে সমুন্নত রেখে এমন একটি কিছু করবো-যা প্রক্কান্তরে গোটা বাংলাদেশকেই আলোকিত করতে পারবে।
আর এভাবেই স্থানীয় মিডিয়ার সকলে পরস্পরের সহযোগী হয়ে কম্যুনিটির কল্যাণে ব্রত হওয়ার সংকল্পে বর্ণাঢ্য ডিনারে মনোনিবেশ করেন। এ সময় সকলে নানা ইস্যুতে মেতে উঠেন। মিডিয়া ব্যক্তিত্বগণের মধ্যেকার সম্প্রীতির বন্ধন মধুর করার ক্ষেত্রেও বাদলের এ অনুষ্ঠান প্রভাব ফেলবে বলে অনেকের ধারণা।


যুক্তরাষ্ট্র জেএসডি’র সাংগঠনিক সম্পাদকের মাতৃবিয়োগে শোক প্রকাশ

বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০১৬

যুক্তরাষ্ট্র জেএসডি’র সাংগঠনিক সম্পাদকের মাতৃবিয়োগে শোক প্রকাশ

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,বাপসনিউজ: জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি যুক্তরাষ্ট্র শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মীর তসলিম উদ্দিন খানের মাতা জহুরা খাতুন (৭৭) গত শনিবার, ২৩ জানুয়ারী অপরাহ্ন ১২টায় লক্ষীপুর জেলার ১২নং সরাইল ইউনিয়নের নূরুল্লাহপুর এর মীরবাড়ীতে বাধক্যজনিত কারনে মৃত্যুবরণ করেছেন।(ইন্না ...রাজেউন) খবর বাপসনিউজ। মৃত্যুকালে মরহুমা জহুরা খাতুন স্বামী, ২ পুত্র ও ৪ কন্যা সহ অসংখ্যক নাতী-নাতনী, বন্ধু-বান্ধব গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।
মরহুমা জহুরা খাতুনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ ও শোক সমতপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি আ স ম আবদুর রব ও  সাধারন সম্পাদক আবদুল মালেক এবং বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সাবেক সংসদ সদস্য ও মুক্তিযোদ্বা আনিসুজ্জামান খোকন, এডভোকেট মুজিবুর রহমান ,সমাজতান্ত্রিক দল -জেএসডি কেন্দ্রিয় কমিটির প্রবাস বিষয়ক সম্পাদক ও মুলধারার রাজনৈতিক এডভোকেট মুজিবুর রহমান, আমেরিকা-বাংলাদেশ এলাইন্সের প্রেসিডেন্ট ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রতিষ্টাতা সাধারন সম্পাদক এমএ সালাম , যুক্তরাষ্ট্রস্থ সোহরাওয়ার্দী স্মৃতি পরিষদের সভাপতি প্রবীণ শিশু সাহিত্যিক হাসানুর রহমান,জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- জেএসডি যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি হাজী আনোয়ার হোসেন লিটন ও সাধারন সম্পাদক শামসুউদ্দিন আহমেদ শামীম, এমজেড ফয়সল, আমেরিকান প্রেসক্লাব অব বাংলাদেশ অরিজিন সভাপতি ও বার্তা সংস্থা বাপসনিউজ এডিটর হাকিকুল ইসলাম খোকন ও সাধারন সম্পাদক হেলাল মাহমুদ, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি আব্দুল মোসাব্বির ও সাধারণ সম্পাদক নূরে আলম জিকু,হারুন অর রশীদ বাবুল, এডভোকেট জসিম ঊদিদন,অধাপক সামসুল ইসলাম,তসলিমা আকতার শিলা,রফিকুললা,রফিক আহমেদ,ইকবাল হোসেনসহ আরো অনেকে।


সিলেট বিভাগবাসীর উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর সিলেটের জনসভাকে সাফল্য মন্ডিত করার জন্য সভা অনুষ্ঠিত

বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:গত মঙ্গলবার ১৯শে জানুয়ারী জ্যাকসন হাইটসের ইত্যাদি রেষ্টুরেন্টে প্রবাসী সিলেট বিভাগবাসীর উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিলেটের ঐতিহাসিক আলিয়া মাদ্রাসার সভাকে সার্থক ও সাফল্যমন্ডিত করার জন্য এক গুরুত্বপূর্ণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। কন কনে শতের মধ্যে বিপুল সংখ্যক সিলেটবাসীর উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন জালালাবাদ এসোসিয়েশন এবং বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সভাপতি কামাল আহমেদ।নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইমদাদ চৌধুরীর পরিচালনায় ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি দুরুদ মিয়া রণেলের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত এই সভায় সিলেট বিভাগের উন্নয়নে বেশ কিছু দাবী দাওয়া প্রধানমন্ত্রীর বিবেচনার জন্য উপস্থাপন করে বক্তরা তাদের বক্তব্য উপস্থাপন করেন। সভায় প্রধানমন্ত্রীর সভাটিকে সার্থক এবং সাফল্যমন্ডীত করার জন্য দল মত নির্বিশেষ সিলেটবাসীকে দলে দলে সভায় যোগদানের জন্য উদ্বাত্ত আহ্বান জানানো হয়।

SYLHET MEETING HASINA 1

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র আওযামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এমএ সালাম, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হাসিব মামুন, প্রচার সম্পাদক হাজী এনাম, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম, নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন আজমল, যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা আনোয়র হোসেইনর, আওয়ামী লীগ নেতা রুহেল চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মুকিত চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা ফখর উদ্দিন, নিউজার্সী আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মালিক চুন্নু, নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ তুলন, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শিমুল হাসান নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক শাহিন ইবনে দিলওয়ার, সাংবাদিক ইলিয়াস খসরু, আওয়ামী লীগ নেতা মিসবাহ আহমদ, ছাত্র লীগ নেতা সাদিক আহমদ, মহানগর আওযামী লীগ নেতা মোঃ রিয়াদ, ইয়াকুত রহমান প্রমূখ। এছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নিউইয়র্ক মহানগর আওামী লীগের দপ্তর সম্পাদক সাইকুল ইসলাম, আবু তাহের আসাদ।
SYLHET MEETING HASINA 2
সভায় বক্তরা সিলেটকে আইটি সিটি এবং পর্যটন নগরী হিসাবে গড়ে তুলার জন্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মানের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট জোর দাবী জানানো হয়।


স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে আসাদুজ্জামান খান কামাল,এমপিকে জেএফকেতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের বিদায় জ্ঞাপন

মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে :স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল,এমপি ও ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাসুদ রেজওয়ান,পিএসসি,কে গত ১৬ জানুয়ারী শনিবার, সকাল সাড়ে ১০টচায় নিউইয়র্কের জেএফকে আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে ঢাকার উদ্দেশ্যে নিউইয়র্ক ত্যাগকালে বিদায় জ্ঞাপন করেছেন নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনসুলেটের কনসাল জেনারেল শামীম আহসান ,প্রটোকল আসিব আহমেদ,যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ ,উপদেষ্ঠা ডাঃ মাসুদুল হাসান ও উপদেষ্টা সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন, দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী,নিউইয়র্ক ষ্টেট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন আজমল, প্রবাসী কল্যান বিষয়ক সম্পাদক সালাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, নিউইয়র্ক সিটি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমদুর রহমান চৌধুরী ,ব্রুকলীন বুরে‌্যা আওয়ামী লীগের সভাপতি নূরুল ইসলাম নজরুল, জাতীয় শ্রমিক লীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি কাজী আজিজুল হক খোকন প্রমুখসহ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠন সমূহের নেতৃবৃন্দ।

Asaduzzaman Khan kamal MP 1
 উল্লেখ তিনি:জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুনর্ গত ১৫ জানুয়ারি,সকালে জাতিসংঘে উগ্রবাদ মোকাবেলার জন্য একটি রূপরেখা চষধহ ড়ভ অপঃরড়হ উপস্থাপন করেন। এই অতি গুরুত্বপূর্ণ সেশনে ১৯৩টি সদস্য দেশের উপস্থিতিতে জাতিসংঘের  Trusteeship council কানায় কানায় পূর্ণ ছিল। বাংলাদেশের পক্ষে বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উগ্রবাদ এর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের  "Zero tolerance" নীতি তুলে ধরেন। উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৭০তম জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক আয়োজিত Countering Violent Extremism (CVE) এর অধিবেশনে যোগ দেন।খবর বাপসনিঊজ ।
Asaduzzaman Khan kamal MP 3
মহিলা সম্প্রদায়, সুশীল সমাজ, ধর্মীয় নের্তৃবৃন্দ, স্থানীয় নের্তৃবৃন্দ, তৃণমূল সদস্য এবং মিডিয়ার সামগ্রীক সহযোগীতা ও অংশগ্রহণের মাধ্যমে সহিংসতা রোধে বাংলাদেশ কর্তৃক গৃহীত পদক্ষেপসমূহ তুলে ধরেন।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে Extremism এবং Terrorism মোকাবেলায় বাংলাদেশের সর্বাতœক সহযোগিতার দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। উল্লেখ্য মেক্সিকোতে এবং নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল অফিসে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (MRP) ও মেশিন রিডেবল ভিসা (MRV) কার্যক্রম উদ্বোধন শেষে বাংলাদেশে ফেরার পথে তিনি উক্ত অনুষ্ঠানে যোগদান করেছেন।


স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে প্রবাস মেলা উপহার

সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৬

Picture

ছবিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল,এমপি ,কনসাল জেনারেল শামীম আহসান , জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেনকে দেখা যাচ্ছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কনন্সুলেট জেনারেলের হেড অব চ্যান্সরি চৌধুরী সুলতানা পারভিন , ভাইস কনসাল জেনারেল সাহিদুল ইসলামসহ অন্যান্য  কর্মকর্তাবৃন্দ।

alt

উল্লেখ জাতিসংঘের একটি অনুষ্টানে ও বক্তব্য রাখেন। তিনি গত ১৬ জানুয়ারী ঢাকার উদ্দেশ্যে নিউইয়র্ক ত্যাগ করেন এ সময় তাকে বিদায় জানান নিউইয়র্কের জেএফকে আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে বিদায় জ্ঞাপন করেছেন নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনসুলেটের কনসাল জেনারেল শামীম আহসান ,প্রটোকল আসিব আহমেদ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ ,উপদেষ্ঠা ডাঃ মাসুদুল হাসান , উপদেষ্টা সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন, দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী নিউইয়র্ক ষ্টেট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন আজমল, প্রবাসী কল্যান বিষয়ক সম্পাদক সালাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী ,নিউইয়র্ক সিটি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমাদ চৌধুরী ,ব্রুকলীন বুরে‌্যা আওয়ামীলীগের সভাপতি নূরুল ইসলাম নজরুল, জাতীয় শ্রমিক লীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি কাজী আজিজুল হক খোকন প্রমুখ সহ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠন সমূহের নেতৃবৃন্দ। ।   


নিউইয়র্কে নতুন বছরের উপহার - আলী মাহমুদ টুটু,শম্পা জামান সহ প্রবাসী শিল্পীদের গীত ও গজল সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত

সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৬

Picture

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্‌স নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে :নিউইয়র্কে নতুন বছরের উপহার গীত ওগজল সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয় গত ৮ জানুয়ারী , শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় কুইন্সের উডসাইডস্থ কুইন্স প্যালেসে। ফোরাম ফর হিউম্যান রাইটসের পৃষ্টপোষকতায় অনুষ্ঠিত গীত ও গজল সন্ধ্যায় পাঁচ মিশালী সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়।

alt
অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন বাংলাদেশের প্রতিশ্রুতিবান সঙ্গীত শিল্পী আলী মাহমুদ টুটু। নিউইয়র্ক প্রবাসী জনপ্রিয় শিল্পী শম্পা জামান, সুষ্মিতা জামান,নাসির খান ,নেন্সী ও আবজল হোসেন।আবতি করেন জিএইচ আরজু।যন্ত্র সঙ্গীতে ছিলেন তবলায় আবদুস সাত্তার ,গিটারে মাসুদ,লিড গিটারে জোহান, আকটপ্যাডে রিড। সাউন্ড সিষ্টেমে এলাইভ সাউন্ডের লিটন।খবর বাপসনিঊজ।সার্বিক উপস্থাপনা করেন জনপ্রিয় উপস্থাপক সাদিয়া খন্দকার।অনুষ্ঠানের ম্পসর ও পৃষ্ঠপোষকদের পরিচয় করিয়ে দেন সমন্বকারী ইমরান শাহ রন।

alt
অনুষ্ঠানের প্রথম দিকে সঙ্গীত শিল্পীগন তিনটি করে পাঁচ মিশালী সঙ্গীত পরিবেশন করেন। পরে আলী মাহমুদ টুটু, শম্পা জামান ও সুষ্মিতা জামান যৌথও সমবেত কন্ঠে তিনটি করে সঙ্গীত পরিবেশন করে দর্শক-শ্রোতাদের মনজয় করেন। শেষ পর্বে আলী মাহমুদ ও শম্পা জামান যৌথ কন্ঠে অনেক গুলো গজল পরিবেশন করেন ।

alt

এ সময় উপস্থিত দর্শক শ্রোতা মুমুর্ত করতালি দিয়ে তাদের অভিনন্দীত করেন। অনুষ্টানের অন্যতম সমন্বয়কারী ড. নূরুল আমিন পলাশ অভ্যাগতদের স্বাগত জানান। সঙ্গীতের ফাঁকে ফাঁকে অনুষ্ঠানের ম্পসর ও পৃষ্ঠপোষকগন সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন ॥রাত ১২টায় অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।


পিটার ভ্যালন জজ হিসেবে শপথ নিলেন

বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী ২০১৬

Picture

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিউজ:নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলের সাবেক কাউন্সিলম্যান পিটার এফ ভ্যালন জুনিয়ন বিগত নভেম্বওে ২০১৫, নিউইয়র্ক সিটির কুইন্স কাউন্টির জজ হিসেবে নির্বাচিত হন।

alt

গত ৭ জানুয়ারী বিকাল ৪টায় ৮৯-১৭ সাপাটিন ব্যুলোভড জামাইকা ,নিউইয়র্ক-এর কুইন্স কাউন্টি সিভিল কোটের রোম ১০১ প্রথম তলায় শপথ গ্রহন অনুষ্টানে কুইন্স কাউন্টির সিভিল কোটের বিচারপতিগন সহ গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

alt

শপথ পাঠ করান প্রধান বিচারপতি আমন্ত্রিত হিসেবে তার বাবা নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলের প্রাক্তন স্পীকার পিটার ভ্যালন এবং বাংলাদেশ কমিউনিটির বঙ্গবন্ধু প্রচার কেন্দ্র সমাজকল্যান পরিষদ যুক্তরাষ্ট্র শাখার সহ-সভাপতি ব্যাংকার দেলওয়ার মানিক ও নাসিরউদ্দিন এবং ছোটকিশোর সোমন মানিক আমন্ত্রিত হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।


নিউইয়র্কে শোটাইম মিউজিক-এর জমজমাট নববর্ষ বরনে ভূতের স্বর্গ নাটক

মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,বাপসনিউজ:গত ৩ জানুয়ারী সন্ধায় উডসাইডের কুইন্স প্যালেসে বাংলাদেশের জনপ্রিয় নাট্যতারকাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো জমজমাট নাটক ও সঙ্গীতানুষ্ঠান।অনুষ্ঠানের শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য করেন আলমগীর খান আলম। তিনি ঢাকা থেকে আসা জনপ্রিয় শিল্পীদের হাতে সম্মাননা তুলে দেন। একঝাঁক উচ্ছ্বল তরুণ-তরুণীর উপস্থাপনায় ফ্যাশন শো।খবর বাপসনিঊজ।

Picture

নতুন বছরকে স্বাগত জানিয়ে এই লাইভ কনর্সাটের মূল আয়োজক ছিলেন শোটাইম মিউজিকের কর্ণধার আলমগীর খান আলম। উৎসব ডটকমের ব্যবস্থাপনায় বৃন্দাবন দাসের রচনা ও নির্দেশনায় ভূতের স্বর্গ নাটকে অভিনয় করেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় নাট্যশিল্পী ফজলু রহমান, চঞ্চল চৌধুরী ও শাহনাজ ফেরদৌস খুশী। প্রতীকী অর্থে প্রবাসীদের যন্ত্রনাদগ্ধ জীবন-যাপনের কথাই এই নাটকে তুলে ধরা হয়েছে। স্বপ্ন ঘোরের এই আমেরিকাকে ‘ভূতের স্বর্গ’ হিসেবে এই নাটকে উপস্থাপনা করা হয়েছে। মহান মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লক্ষ বাঙালীর জীবন উৎসর্গ, প্রিয় মাতৃভূমি কথা ও নিখাদ দেশ প্রেমের সংলাপে উপস্থিত অনেক দর্শক-শ্রোতা আবেগতাড়িত হয়ে পরেন।

alt

সুদূর প্রবাসে যারা যন্ত্রদানবের মত পরিশ্রম করছে, তাদের জীবনের ইতিবৃত্তের ক্যানভাস ফুঁেট উঠেছে ‘ভূতের স্বগর্’ নাটকে তিন শিল্পীর সাবলিল উচ্চারণ, সংলাপ প্রক্ষেপনে মুন্সিয়ানা ও চরিত্রের সাথে মিশে একাকার হয়ে যাওয়ায়, কখনো কখনো স্তব্ধ হয়ে অশ্রু বিসর্জন আবার কখনো কখনো তুমূল হাততালি দিয়ে শিল্পীদের অভিনন্দিত করতে দেখা গেছে। নাটক শেষে এই তিন গুনীশিল্পী সঙ্গীত পরিবেশন করেন। এছাড়াও সঙ্গীত পরিবেশন করেন বৃন্দাবন চন্দ্র দাস, বৃষ্টি মুৎসুদ্দি ও হাফিজ। ভূতের স্বর্গ নাটকটি উপস্থিত মিলনায়তন পরিপূর্ন দর্শক-শ্রোতাদের প্রচুর প্রসংশা কুড়িয়েছে।এছাড়া মাজিদ ডিজায়ার এর বিশেষ ফ্যাশন শো, বিশেষ করে ক্যাভারে নাচ অনেকেই উপভোগ করেন। নিত্য নতুন এবং রুচিশীল পোষাকে অংশ নেয়া এই ফ্যাশান-শো অনুষ্ঠানে ভিন্ন আমেজের সৃষ্টি করেছে । অনুষ্ঠানে ফ্যাশন কোরিওগ্রাফার করেন মজিদ লোদি।

alt
এক সময়ের চ্যানেল অ্যাই এর সেরাকণ্ঠ বৃষ্টি মুৎসুদ্দি অনুষ্ঠানে গান করে সঙ্গীত পিপাসুদের আনন্দ দেন।  স্থানীয় শিল্পীদের মাঝে গান করেন হাফিজুর রহমান হাফিজ,নুরুজামান লাল্টু, কামাল হোসেন ও রানু নেওয়াজ।লাইভ মিউজিক দিয়ে অনুষ্ঠানকে প্রাণময় রাখতে পুরো সময় জুড়ে ছিলেন পার্থ গুপ্ত, রিচারড মধু, রাকেশ ব্যানারজী এবং ঢোলী শফিক মিয়া।সউন্ড গিয়ারের সায়েম তার চমৎকার সাউন্ড এবং লাইটিং দিয়ে পুর অনুষ্ঠানকে করে তোলেন অত্যন্ত হৃদয়গ্রাহী। উপস্থাপনা করেন আশরাফুল হাসান বুলবুল।

alt
 প্রবাসে বাংলা বিনোদনের এবং শোটাইম মিউজিক এন্ড পে’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর খান আলম খুব ভালো করে জানেন একটি অনুষ্ঠানকে কি করে সফল করতে হয়। তাই প্রচন্ড শীত উপেক্ষা করেও তার অনুষ্ঠান হয়ে ওঠে লোকে লোকারন্য। আলম সবসময় রোববার তার অনুষ্ঠান আয়োজন করে থাকেন। পরের দিন কাজ থাকলেও দর্শক শ্রোতারা তার শো ছেড়ে যেন ঘরে ফিরতেই চান না। আসলেই আলমগীর খান আলম যেন বিনোদনের এক যাদুকর। বছরের পর বছর কি অবলীলায় এই যাদু দিয়ে সবাইকে সম্মোহিত করে রেখেছেন। তারই আবার প্রমান মিলেছে নিউইয়র্কের উডসাইডে অবস্থিত কুইন্স প্যালেসে আয়োজিত নতুন বছরকে বরন করে নিতে আয়োজিত বিশেষ সঙ্গীত এবং নাটকে।

alt
নতন বছরকে বরন করতে শোটাইমের অনুষ্ঠানে প্রবাসের বিশিষ্টজনরা বিপুল সংখ্যায় যোগ দেন। সমবেত শ্রোতা দর্শক মুহুর্মুহু করতালি দিয়ে তাদের আনন্দ এবং ভালোলাগা প্রকাশ করেন। মা এবং দেশের কথা নাটকটিতে এতো চমৎকার ভাবে প্রতিফলিত হয়েছে যার ফলে অনেক শ্রোতা দর্শক চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি। বাড়তি পাওনা ছিল চঞ্চল চৌধুরী এবং ফজলুর রহমান বাবুর কণ্ঠে গান। মিডিয়া পার্টনা এনটিভি ও অনুষ্ঠান স্পন্সরে ছিল আইনজীবি নাসরিন চৌধুরী,খাবার বাড়ি রেষ্টুরেন্ট,পিপল টেক,এনওয়াই ইন্স্যুরেন্স, বিসমিল্লা পোল্ট্রি ও আরএলবি আয়রন।ঢাকা থেকে আসা জনপ্রিয় শিল্পীদের হাতে সম্মাননা তুলে দিতে আলমগীর খান আলমের সাথে মঞ্চে অন্যান্যদের ভেতর ছিলেন মোহাম্মদ শাহ নেওয়াজ, নাসরীন চৌধুরী এবং জাকারিয়া চৌধুরী।


জামায়াতের সঙ্গে ওলামা লীগও নিষিদ্ধের দাবি নিউ ইয়র্কে

মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন: বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে :শনিবার (৯ জানুয়ারি) নিউইয়র্কের বাঙালীর প্রধান প্রানকেন্দ্র, জ্যকসন হাইট্সের ইত্যাদি সেন্টারে (পুরাতন ফুডকোটর্) জনাকীর্ণ এক সাংবাদিক সম্মেলনে, বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন রোধে ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশের সরকারের প্রতি বাংলাদেশ মাইনরিটি রাইটস ম্যুভ্মেন্ট, ইউএস এর পক্ষ থেকে দাবী জানানো হয়। এতে বলা হয় সরকার ৩১শে মার্চ ২০১৬-এর মধ্যে অন্তত: একটি অপরাধের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে বা বিচার করে প্রমাণ করুন তারা সংখ্যালঘু সমস্যা সমাধানে সত্যিকার অর্থেই আন্তরিক।প্রেস কনফারেন্সটি সঞ্চালন করেন শিতাংসু গুহ, তিনি সবাইকে আমন্ত্রণ জানিয়ে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন এবং পরিচয় করিয়ে দেন। তিনি বলেন, বিশ্বের এক ডজনেরও বেশি দেশে বিভিন্ন সংগঠন আজ একযোগে এমত কর্মসূচী পালিত হচ্ছে এবং এমুহুর্তে আমাদের কাছে সংবাদ রয়েছে যে, ঢাকা, কলকাতা, লন্ডন, জেনেভা, ফ্রান্স, সুইডেন, কানাডায় কর্মসূচি পালিত হয়েছে। লিখিত বক্তব্যটি উপস্থাপন করেন শুভাশীষ রায় শুভ। এসময় মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন, প্রবীন সাংবাদিক, সবর্জন শ্রদ্ধেয় সৈয়দ মোহন্মদউল্ল্যাহ; সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি মিথুন আহমেদ, উদিচির সহ-সভাপতি সুব্রত বিশ্বাস, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ব খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রফেসর নবেন্দু বিকাশ দত্ত, বাংলাদেশ সোসাইটির সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা মনিকা রায়, কমিউনিটি এক্টিভিষ্ট সুশীল সাহা। গণজাগরণ মঞ্চের নেতা মুজাহিদ আনসারী পরে এসে যোগ দেন। 

USA Ba 1 

সংখ্যালঘু সংক্রান্ত এক প্রশ্নের উত্তরে শিতাংশু গুহ বলেন, আমরা সংখ্যালঘু থাকতে চাইনা, কিন্তু ৮ম সংশোধনী আমাদের জোর করে সংখ্যালঘু বানিয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশে সংখ্যালঘু অত্যাচার এখন একটি নিয়মিত ঘটনা, সবার গা-সহ হয়ে গেছে, কিন্তু কোথাও না কোথাও তো এটা থামতে হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশে হাজার হাজার মুর্তি-মন্দির ভাঙ্গা হলেও আজ পর্যন্ত একজনের বিচার হয়নি, বা কেউ শাস্তি পায়নি-এটা প্রতিষ্ঠিত সত্য; আমরা চাই সরকার একটি বিচার করে আমাদের একথা বলার সুযোগ বন্ধ করে দিক। তিনি বলেন, আমরা এই সরকারের সমর্থক, কিন্তু কোন সরকারের আমলই এখন আর হিন্দুদের জন্যে নিরাপদ নয়।নিউইয়র্কের প্রায় সকল মিডিয়ার উপস্থিতিতে প্রানবন্ত এ সাংবাদিক সন্মেলনে হিন্দুদের জমিজমা সংক্রান্ত অপর এক প্রশ্নের জবাবে সুব্রত বিশ্বাস বলেন, সুলতানা কামাল সদ্য প্রেস-কনফারেন্স করে বলেছেন যে মন্ত্রী ও সাংসদরা হিন্দুদের জমিজমা দখল করছে, তিনি মন্ত্রীর নাম বলেননি, আমি সেই মন্ত্রীর নাম বলছি তিনি গণপূর্তমন্ত্রী জাতীয় বেয়াই ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, এবং সাংসদ দবিরুল। তিনি বলেন, সরকারের উচ্চমহলের নেতারা যখন হিন্দু সম্পত্তি দখল করেন, তখন সাধারণ মানুষ তো করবেই। একইসঙ্গে তিনি রানা দাশগুপ্তের চোখ উপড়ে ফেলার মন্ত্রী হুমকি ও সাংবাদিক প্রবীর শিকদারের ওপর হামলার প্রসঙ্গ টানেন।

USA Ba 12 

প্রেস কনফারেন্সে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন একটি দৈনন্দিন ঘটনা। আগে আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে হিন্দুরা অপেক্ষাকৃত কম নির্যাতিত হতো, এখন সব আমলই সমান।গত সাত বছরে সংখ্যালঘুর ওপর অত্যাচার যেকোনো আমলের থেকে খুব একটা কম নয়।বিদায়ী বছরে এমন একটি দিনও হয়ত পাওয়া যাবে না যেদিন কোন না মিডিয়ায় দেশের কোথাও না কোথাও হিন্দু মন্দির বা মূর্তি ভাঙচুর, হিন্দুর জমি দখল, নাবালিকা ধর্ষণ ও ধর্মান্তরিতকরণ বা দেশত্যাগের হুমকি ইত্যাদি খবর প্রকাশিত হয়নি।এতে বলা হয়,সদ্য অনুষ্ঠেয় পৌরসভা বা স্থানীয় নির্বাচনে আমরা খুশী যদিও কোন দলই সংখ্যালঘুদের তেমন মনোনয়ন দেয়নি, তাই দু'চারজন হাতেগোনা ব্যতীত কেউ জেতেওনি। ব্লগার হত্যার বিচারে আমরা আনন্দিত এবং আশা করবো এই বিচারটি ত্বরান্বিত হবে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের কাজ দ্রুত এগিয়ে যাক এবং দেশে সব খুনের বিচার হোক আমরা তা চাই। দেশে প্রথম আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে আমরা শঙ্কিত। দেশ সন্ত্রাসমুক্ত হোক আমরা কামনা করি।আমরা জামায়েতের সাথে সাথে আওয়ামী ওলামা লীগ ও নিষিদ্ধের দাবি জানাই। বাংলাদেশ ১৯৭২ সংবিধানের আলোকে একটি ধর্মনিরপেক্ষ গণতান্ত্রিক দেশ হোক আমরা তা চাই।

USA Ba 11 

এতে ডিসেম্বর ২০১৫-তে সংঘটিত বেশ ক'টি ঘটনা তুলে ধরা হয় এবং যেসব সংগঠন ও নেতৃবৃন্দ বিশ্বব্যাপী এ কর্মসূচী সফল করে তুলেছেন তাদের টেলিফোন নাম্বারসহ একটি তালিকা দেয়া হয়। নিচে তা দেয়া হলো:পুস্পিতা গুপ্ত, লন্ডন। সভাপতি, স্যেকুলার বাংলাদেশ মুভমেন্ট, ইউকে এবং সিওআরএমবি (campaign for religious minorities in Bangladesh)। চিত্রা পাল, সুইডেন। সভাপতি, হিন্দু ফোরাম সুইডেন। তরুণ চৌধুরী, সুইডেন। সভাপতি, ইউরোপীয় ঐক্য পরিষদ। অরুণ বড়ুয়া, জেনেভা। সভাপতি, বাংলাদেশ মাইনরিটি কাউন্সিল। উদয়ন বড়ুয়া, প্যারিস। সভাপতি, ইউরোপীয় ঐক্য পরিষদ। স্বদেশ বড়ুয়া, ফ্রান্স। সভাপতি, ফ্রান্স ঐক্য পরিষদ। দিলীপ কর্মকার, মন্ট্রিল। উপদেষ্টা, কানাডা ঐক্য পরিষদ। ড: মোহিত রায়, কোলকাতা। সভাপতি, ক্যাম্ব (ক্যাম্পেন এগেনস্ট এট্রসিটিস্ অন মাইনরিটিস অব বাংলাদেশ)।প্রফেসর চন্দন সরকার, ঢাকা। সভপতি, আরইএস (রিসার্স এন্ড এম্পাওয়ারমেন্ট )। রিপন দে, ঢাকা। অরুন কে দত্ত, কনভেনর; সুশীল পাল, কো-কনভেনর; ডা: সুশীতল চৌধুরী, মেম্বার সেক্রেটারী, বাংলাদেশ মাইনরিটি রাইটস এল্যায়েন্স, টরন্টো। কানাডা। সরোজ দাস, সেক্রেটারী, কানাডা ঐক্য পরিষদ এবং প্রদীপ সরকার দোলন, মন্ট্রিল, কানাডা।তুষার কান্তি সরকার, ফিন্ল্যান্ড। Centre for Protection of Minorities in Bangladesh (CPMB). বিপুল রানা ধর, কনভেনর, ঐক্য পরিষদ, ইতালি।তাপস নন্দী, সিঙ্গাপুর, হিন্দু গ্র্যান্ড এল্যায়েন্স। বিজন সাহা, ডিএসসি। রাশিয়া। প্রবীর মৈত্র, অস্ট্রেলিয়া।প্রবীর সরকার ও রবিন্ গুহ, মস্কো, রাশিয়া।তাপস কে চৌধুরী, মালয়েশিয়া। সংখ্যালঘু স্বার্থ সংরক্ষণ ও অধিকার বাস্তবায়ন পরিষদ, বাংলাদেশ। শুভাশীষ রায়, নিউইয়র্ক। বাংলাদেশ মাইনরিটি রাইটস ম্যুভ্মেন্ট, ইউএসএ। সুশীল সাহা, বাংলাদেশ মাইনরিটি রাইটস ম্যুভ্মেন্ট, ইউএসএ।


আমেরিকায় ইমিগ্রেশন এবং ব্যবসা বিষয়ে নিউইয়র্কে ফ্রি সেমিনার

রবিবার, ১০ জানুয়ারী ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন:হেলাল মাহমুদ:বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে :আমেরিকায় ইমিগ্রেশন, ট্যাক্স ফাইল এবং ব্যবসা বানিজ্য সংক্রান্ত বিষয়ে প্রবাসীদের ধারনা দিতে নিউইয়র্কে গুরুত্বপূর্ণ এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। জ্যাকসন হাইটস এর জুইস সেন্টারে ৯ জানুয়ারী শনিবার বিকালে ফ্রি এ সেমিনারের আয়োজন করেন এ বিষয়ে অভিজ্ঞ আইনজীবি মোহাম্মদ এন মজুমদার।

3

তবে তিনি ছাড়াও একাধিক আমেরিকান আইনজীবি এবং সিপিএ সেমিনারে দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন। আইনজীবিরা আটটি বিষয়ে তাদের মতামত এবং অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন। এন মজুমদারের প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় সিরিজ বক্তব্যে অংশ নেন এটর্নি ব্যারি সিলভারজ উইগ, এটর্নি কেন সিলভারম্যান, আইনজীবি ফেরদৌসী চৌধুরী, রবার্ট ক্রুশলিঙ্ক এবং সিপিএ ইয়াকুব এ খান।

USA   Baps 43
সেমিনারে বক্তারা যেসব বিষয়ে আলোকপাত হরেন তা হলো, প্রেসিডেন্ট ওবামা ঘোষিত ইমিগ্রেশন অধ্যাদেশের ভবিষ্যত, যুক্তরাষ্ট্রে ব্যবসা বানিজ্য করে গ্রীনকার্ড পাওয়ার উপায়, পুরনো ইমিগ্রেশন মামলা পুন:রুজ্জীবিত করে কিভাবে গ্রীনকার্ড পাওয়া যাবে, কি কি কারনে ট্যাক্স অডিট হয় এবং কি কি ভুলের জন্য ৮০ ভাগ ক্ষুদ্র ব্যবসা বন্ধ হয়ে যায়, ইনকাম ট্যাক্সের সাথে মেডিকেড, সোস্যাল সিকিউরিটি এবং বাড়ি ঘর কেনা বেচার সাথে কি সম্পর্ক, গাড়ি ও বাড়ি রেখে ব্যাংকরাপসি করে কিভাবে ঋনমুক্ত হবেন, গৃহ বিবাহ, চাইল্ড সাপোর্ট সম্পত্তির ভাগ বাটোয়ারার উপায় এবং ক্রিমিনাল ল ভঙ্গকারীর পরিনতি কি সে সম্পর্কে সেমিনারে বিস্তারিত ধারনা দেয়া হয়।