Editors

Slideshows

http://bostonbanglanews.com/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/605744Finding_Immigrant____SaKiL___0.jpg

কুইন্স ফ্যামিলি কোর্টে অভিবাসী

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দ্যা ইন্টারফেইস সেন্টার অব নিউইয়র্ক ও আইনী সহায়তা সংগঠন নিউইয়র্ক এর উদ্যোগে গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ৯ See details

http://bostonbanglanews.com/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/455188Hasina__Bangla_BimaN___SaKiL.jpg

দাবি পূরণের আশ্বাস প্রধানমন্ত্

বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ দাবি-দাওয়া বাস্তবায়নে আলোচনা না করে আন্দোলন করার জন্য পাইলটরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে দুঃখ প্রকাশ করে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন। পাইলটদের আন্দোলনের কারণে ফ্লাইটসূচিতে জটিলতা দেখা দেয়ায় যাত্রীদের কাছে দুঃখ See details

http://bostonbanglanews.com/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/701424image_Luseana___sakil___0.jpg

লুইজিয়ানায় আকাশলীনা‘র বাৎসরিক

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ লুইজিয়ানা থেকে ঃ গত ৩০শে অক্টোবর শনিবার সনধ্যায় লুইজিয়ানা স্টেট ইউনিভার্সিটির ইণ্টারন্যাশনাল কালচারাল সেণ্টারে উদযাপিত হলো আকাশলীনা-র বাৎসরিক বাংলা সাহিত্য ও See details

http://bostonbanglanews.com/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/156699hansen_Clac__.jpg

ইতিহাসের নায়ক মিশিগান থেকে বিজ

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ ইতিহাস সৃষ্টিকারী নির্বাচনে ডেমক্র্যাটরা হাউজের আধিপত্য ধরে রাখতে সক্ষম হলো না। সিনেটে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ অক্ষুন্ন রাখতে সক্ষম হলেও আসন হারিয়েছে কয়েকটি। See details

http://bostonbanglanews.com/components/com_gk3_photoslide/thumbs_big/266829B_N_P___NY___SaKil.jpg

বিএনপি চেয়ারপারসনের অফিসে পুলি

হাকিকুল ইসলাম খোকন/বাপ্‌স নিউজ/প্রবাসী নিউজ ঃ বষ্টনবাংলা নিউজ ঃ নভেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটস্থ আলাউদ্দিন রেষ্টুরেন্টের সামনে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি তাৎক্ষণিক এক বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। এই See details

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

নিউয়র্কের খবর

শিরি শিশুসাহিত্য কেন্দ্র ও প্রতিষ্ঠাতা হাসানুরের বর্ণাঢ্য জন্মতিথি ॥ উদ্বোধনে কবি সালেম সুলেরী অবহেলিত মা-বাবারা এবার যথাযথ সম্মান পেতে পারেন

বুধবার, ২৪ আগস্ট ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন,মো:নাসির,ওসমান গনি,সুহাস বডুয়া,বাপসনিউজ ॥ প্রবাসের অন্যতম সমস্যা হচ্ছে পিতা-মাতার প্রতি সন্তানদের অবহেলা। এই সমস্যা নিরসনে পথের সন্ধান দিয়েছেন প্রবীণ লেখক-সংগঠক হাসানুর রহমান। তাঁর প্রতিষ্ঠিত শিরি শিশুসাহিত্য কেন্দ্রও দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।  শিরি শিশুসাহিত্য কেন্দ্র নিউইয়র্কের ১৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর উদ্বোধনী বক্তব্যে এ কথা বলেন বিশ্ববাতায়নের কবি-কথাকার-সাংবাদিক সালেম সুলেরী। সংগঠনের ১৮ বছর পূর্তি ও প্রতিষ্ঠাতা হাসানুর রহমানের ৭০তম জন্মতিথিতে আয়োজিতা হয় এই বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালা। ২২ আগস্ট নিউইয়র্কের এস্টোরিয়াস্থ ক্লাব সনমে আলোচনা, সম্মাননা, কবিতাপাঠ ও সঙ্গীত সংযোজিত ছিলো বিভিন্ন পর্বে।খবর বাপসনিঊজ। সভাপতিত্ব করেন। 

alt

শিরি শিশুসাহিত্য  কেন্দ্রের কেন্দ্রীয় পরিচালক ও বাপসনিউজ-এর সম্পাদক হাকিকুল ইসলাম খোকন এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন শিরি শিশুসাহিত্য কেন্দ্র নিউইয়র্কের উপদেষ্টা, প্রাবন্ধিক -কবি-প্রকাশক-সংগঠক এবিএম সালেহউদ্দিন। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন  সংস্কৃতিসেবী ও আমেরিকা-বাংলাদেশ এলাইন্সের প্রেসিডেন্ট এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার প্রতিষ্টিাতা সম্পাদক এমএ সালাম, দৈনিক যুগান্তরের সাবেক সিনিয়র সহকারী সম্পাদক, কবি ড. মাহবুব হাসান, টাইম টিভির কর্ণধার ও বাংলা পত্রিকার সম্পাদক আবু তাহের, খ্যতিমান সুরকার-গীতিকার নাদিম আহমেদ, আইটি বিশেষজ্ঞ এবং প্রয়াত লেখক দম্পতি ‘তালিম হোসেন ও মাফরুহা চৌধুরী’র পুত্র শাহরিয়ার চৌধুরী শাহীন।

alt
অনুষ্ঠানের শুরুতে শিরি শিশুসাহিত্য কেন্দ্রের পরিচিতি তুলে ধরেন শিরি শিশুসাহিত্য কেন্দ্র নিউইয়র্কেও পরিচালক কণ্ঠশিল্পী বিউটি দাশ। লেখক-সংগঠক হাসানুর রহমানের কর্মবহুল জীবনের বিবরণ উপস্থাপন করেন বিটিভি’র সাবেক জনপ্রিয় উপস্থাপক, প্রবাসের সুপরিচিত শিক্ষাবিদ, কবি লেখক এবং সাংস্কৃতিক সংগঠক টিভি ব্যক্তিত শাহরিন খালেস লিটা (শাহরিন লিটা) । কেক কাটার পর্বটি সমন্বয় করেন হাসানুর রহমানের পতœী কণ্ঠশিল্পী পারভিন রহমান। অতঃপর ফুল ও উপহার দিয়ে অনুষ্ঠানের মধ্যমণি হাসানুর রহমানকে কবি-লেখক-শিল্পী-নিকটজন-শুভান্যুধ্যয়ীরা বরণ করতে থাকেন। প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে কবি-পতœী পারভিন রহমান অনুষ্ঠানে নতুন মাত্রা যোগ করেন। কবিতার ভাষায় বলেন, রিক্ত আমি সিক্ত আমি, দেবার কিছু নাই, / আছে শুধুই ভালোবাসা, এবার দিলাম তাই।

alt
প্রায় ১০ জন ব্যক্তিত্ব শিরি শিশুসাহিত্য কেন্দ্র ও হাসানুর রহমানের জন্মতিথিতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যারয়ের সোসিওলজী বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপিকা ড. মাহমুদা ইসলাম, সাবেক অতিরিক্ত সচিব নজরুল ইসলাম, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই এসোসিয়েশন ইউএসএ-এর সভাপতি সৈয়দ মিজারনুর রহমান, লেখকদের সংগঠন স্বদেশ ফোরাম-এর সভাপতি কবি অবিনাশ আচার্য, প্রফেসর সুরাইয়া শেখ, শিরি শিশুসাহিত্য কেন্দ্রে নিউইয়র্কের প্রধান উপদেষ্টা আবু চৌধুরী, আইটি বিশেষজ্ঞ ও কমিউনিটি এক্টিভিস্ট আনোয়ার সোবহানী, প্রবাসের সুপরিচিত সমাজসেবক ইঞ্জিনিয়ার জারিফ আশরাফ , ডোরা চৌধুরী, লেখিকাÑসাংবাদিক আম্বিয়া বেগম অন্তরা এবং কবিপুত্রদ্বয় কণ্ঠশিল্পী রাজীব রহমান ও প্রকৌশলী আশিক রহমান প্রমুখ।

alt
হাসানুর রহমানকে নিবেদিত কবিতা পাঠে অংশ নেন বিশিষ্ট কবি জুলি রহমান, শামীম আরা আফিয়া, জেরিন মায়শা এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালক কবি প্রাবন্ধিক এবিএম সালেহউদ্দিন। সঙ্গীত পরিবেশনে ছিলেন রাজীব রহমান, বিউটি দাশ, নাঈম ও তুষার। বিশেষ শুভেচ্ছা বার্তা পাঠান জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন ও নিউইয়র্কে কর্মরত কনসাল জেনারেল শামীম আহসান।

alt
অনুষ্ঠান উদ্বোধক কবি-কথাকার সালেম সুলেরী শিরি সংগঠন ও হাসানুর রহমান বিষয়ে দীর্ঘ আলোকপাত করেন। বলেন, আড়াই বছরে শিরি নামের মা’কে হারিয়েছিলেন শিশু হাসান। একটি মানুষের বেড়ে ওঠার নেপথ্যে মায়ের প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ ভূমিকাই মুখ্য। অথচ এই মা বা বাবা পরবর্তীতে অনেক সন্তানের নিকট থেকে পান অনাদর, অবহেলা। কিন্তু ম’ায়ের প্রতি দায়িত্বশীলতা একান্ত প্রয়োজনীয় একটি বিষয়। মায়ের নামে সেবামূলক প্রতিষ্ঠান গড়ে হাসানুর রহমান মাতৃপ্রেমের আদর্শকে প্রতিষ্ঠা করেছেন। প্রবাস উপযোগী কর্মসূচিও দিয়েছেন শিরি শিশসাহিত্য সংগঠনের মাধ্যমে।

alt
কবি সালেম সুলেরী স্মৃতিচারণ করে বলেন, আমি সৌভাগ্যবান। ২০১৪ সালে ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবে শিরি সংগঠনের বিশাল উৎসবে উদ্বোধক ছিলাম। তৎকালীন সমাজকল্যাণমন্ত্রী প্রয়াত সৈয়দ মহসীন আলী ছিলেন প্রধান অতিথি। সভাপতিত্ব করেন প্রখ্যাত শিশুসাহিত্যিক-সাংবাদিক-সংগঠক রফিকুল হক দাদুভাই। ঐদিন ‘শিরি সে এক মা’ কাব্য সংকলণের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। সেটি সম্পাদনা করেছিলেন আজকের অনুষ্ঠানের সভাপতি সিনিয়র হাকিকুল ইসলাম খোকন। বাড পাবলিকেশন্সের পক্ষে প্রকাশক ছিলেন আজকের সঞ্চালক এবিএম সালেহউদ্দিন। আর কাব্যসংকলণটির প্রধান অনুপ্রেরনাদাতা ছিলেন মাতৃপ্রেমিক ব্যক্তিত্ব হাসানুর রহমান।উল্লেখ্য, অনুষ্ঠান উদ্বোধক কবি সালেম সুলেরী বক্তব্যের শুরু ও সমাপণীতে নিবেদিত কবিতা পাঠ করেন।

alt
শিশুসাহিত্যিক-সংগঠক হাসানুর রহমান জন্মগ্রহণ করেন ১৯৪৬ সালে। তখন বৃটিশ শাসনকাল। ১৯৪৭-এর ১৪ আগস্ট পাকিস্তান এবং ১৯৭১-এর ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীন হয়। প্রসঙ্গক্রমে কবি সালেম সুলেরী পদ্যে লিখেছেন : বিশাল ভাগ্যবান / যিনি, এক মাটিতেই এক জনমেই তিন পতাকা পান, / স্বদেশ-প্রবাস প্রিয় পুরুষÑ হাসানুর রহমান, তিনি সত্যি ভাগ্যবান।

alt
আয়োজনের মধ্যমণি কবি-সংগঠক হাসানুর রহমান সকলকে ধন্যবাদ জানান। বলেন, মায়ের নামে স্কুল-কলেজ প্রতিষ্ঠার মতো অর্থনৈতিক অতি-স্বচ্ছলতা আমার ছিলো না। তাই আদর্শভিত্তিক সামাজিক সংগঠন করেছি। ১৯৯২-এর ফেব্রুয়ারিতে প্রতিষ্ঠিত সে উদ্যোগ বৃথা যায়নি। ৭০তম জন্মদিন প্রসঙ্গে বলেন ১৩টি বই লিখে সময়কে কাজে লাগিয়েছি। আরও কিছু বই লেখার বাকি আছে। সকলের কাছে দোয়া চাই যেন আরও কিছু লিখে যেতে পারি।অনুষ্ঠান সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন বলেন, উদ্বোধক, সম্মানিত অতিথি ও আলোচকবৃন্দ বক্তব্য রেখেছেন হৃদয় দিয়ে। সবার হৃদয়ের ভালোবাসাই আমাদের চলার পাথেয়।

alt
সবার প্রারম্ভে ১৯৭৫-এর ১৫ আগষ্ট স্বপরিবারে নিহত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু, ডাঢা কেন্দ্রিয় কারাগারে চার জাতীয় নেতা, একাত্তর-এর মুক্তিযুদ্ধ ও  ১৯৫২- এর মহান ভাষা আন্দোলনসহ আজ পর্যন্ত সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নিহতদের স্মরনে সভায় দাঁড়িয়ে  এক মিনটি কাল নিরাবতা পালন করা হয়।


এপিসিবাঅ’র জাতীয় শোক দিবস উদযাপন

মঙ্গলবার, ২৩ আগস্ট ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,বাপসনিউজঃ আমেরিকান প্রেসক্লাব অব বাংলাদেশ অরিজিন এর উদ্যোগে যথাযথ মর্যাদার সাথে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪১তম শাহাদৎ বার্ষিকী ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়। খবর বাপসনিউজ।এ দিন সকাল ১১টায় সংগঠনের সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন ও সাধারণ সম্পাদক হেলাল মাহমুদের নেত্বত্বে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পনের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

Picture

অপরাহ্ন ২টায় নিউইয়র্কের কুইন্সের একটি রেষ্টুরেন্টে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি হাকিকুল ইসলাম খোকন-এর সভাপতিত্ত্বে ও সাধারন সম্পাদক হেলাল মাহমুদের পরিচালনায়-অনুষ্ঠিত জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সহ সম্পাদক এমএ করিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন আমেরিকা-বাংলাদেশ এলাইন্সের প্রেসিডেন্ট ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক এম এ সালাম,যুক্তরাষ্ট্রস্থ সোহরাওয়ার্দী স্মৃতি পরিষদের সভাপতি প্রবীন শিশু সাহিত্যিক হাসানুর রহমান। বক্তব্য রাখেন ক্লাবের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আবু সাঈদ রতন এবং কোষাধ্যক্ষ ও লেখক খালেদ শরফুদ্দিন।

alt

আলোচনা সভায় বক্তারা জাতির পিতার বর্ণাঢ্য জীবন ও অর্জন সম্পর্কে আলোকপাত করেন। তারা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ’সোনার বাংলা’ গড়ার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে সমবেতভাবে কাজ করে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহবান জানান।সবার প্রারম্ভে ১৯৭৫-এর ১৫ আগষ্ট স্বপরিবারে নিহত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু, ডাঢা কেন্দ্রিয় কারাগারে চার জাতীয় নেতা, একাত্তর-এর মুক্তিযুদ্ধ ও ১৯৫২- এর মহান ভাষা আন্দোলনসহ আজ পর্যন্ত সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নিহতদের স্মরনে সভায় দাঁড়িয়ে এক মিনটি কাল নিরাবতা পালন করা হয়।


আওয়ামী লীগনেতা এমএ করিমের ঢাকার উদ্দেশ্যে নিউইয়র্ক ত্যাগ

রবিবার, ২১ আগস্ট ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিউজ: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহকারী সম্পাদক, বাংলাদেশ কৃষক লীগের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি এবং বাংলাদেশ আমেরিকা ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটির সভাপতি এমএ করিম এক সপ্তাহের যুক্তরাষ্ট্রের শুভেচ্ছা সফর শেষে গত ২০ আগষ্ট শনিবার সকাল ১১টায় এ্যামিরাত এয়ারযোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে নিউইয়র্ক ত্যাগ করেছেন।খবর বাপসনিঊজ।

Picture

এ সময় আওয়ামী লীগনেতা এমএ করিমকে নিউইয়র্কের জেএফকে আন্তজার্তিক বিমান বন্দরে বিদায় অভ্যার্থনা জ্ঞাপন করেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন, উপ দপ্তর সম্পাদক আব্দুল মালেক ও প্রবাসী কামাল উদ্দিন সহ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ এবং  সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।উল্লেখ্য, এমএ করিম গত ১৪ আগষ্ট শনিবার ঢাকা থেকে নিউইয়র্কে এসেছিলেন। তিনি গত ১৫ আগষ্ট জাতিসংঘের বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন, নিউইয়র্ক বাংলাদেশ কনসুলেট এবং যুক্তরাষ্ট আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

alt

এছাড়াও আমেরিকান প্রেসক্লাব অব বাংলাদেশ অরিজিন, বাপসনিউজ, যুক্তরাষ্ট্রস্থ সোহরাওয়ার্দী স্মৃতি পরিষদ, বঙ্গবন্ধু প্রচারকেন্দ্র সমাজকল্যান পরিষদ, বাংলাদেশ মানবাধিকার পরিষদসহ প্রবাসের বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের বিভিন্ন কর্মসূচীতে সম্মানীত অতিথি হিসেবে অংশ নিয়েছেন।


নিউইয়কে ২১ শে আগস্ট বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলায় শহীদদের স্মরণে যুক্তরাস্ট্র আওয়ামী লীগ

রবিবার, ২১ আগস্ট ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন, মো:নাসির, ওসমান গনি, সুহাস বডুয়া, বাপসনিঊজ: নিউইয়কে ২১ শে আগস্ট বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলায় শহীদদের স্মরণে যুক্তরাস্ট্র আওয়ামী লীগ কর্তৃক আয়োজিত দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুস্ঠিত হয ।নিউইযকে জ্যাকসন হাইটসে মেজবান রেস্টুরেন্টে গত ২০শে আগ্সট রোজ শনিবার সন্ধা ৮ টায় । উক্ত দোয় মাহফিল ও আলোচনা সভায সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাস্ট্র আওযামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান ও সভা পরিচলনা করেন ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ । সভায বক্তারা ২১ শে  আগস্ট নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন তবে ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন  ..... ২১ শে আগস্ট, ইতিহাসের তেমনি এক বিভীষিকাময় দিন। সাল ২০০৪। দেশে তখন চলছে জামায়াত-বিএনপি জোট সরকারের অপশাসন। তাদের প্রত্যক্ষ পৃষ্ঠপোষকতায় দেশজুড়ে বিস্তৃত হচ্ছিল ঘৃণ্য জঙ্গীবাদ। কোথাও কোথাও প্রশাসনের সমান্তরালে তখন জঙ্গী শাসন শুরু হয়ে গিয়েছিল সরকারের প্রত্যক্ষ মদদে।
alt
২০০৪ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউতে জননেত্রী শেখ হাসিনার জনসভায় বোমা ও গ্রেনেড হামলা করা হয়। এতে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা আহত হলেও প্রাণে বেঁচে যান। কিন্তু আওয়ামী লীগ নেত্রী আইভী রহমানসহ ২৪ নেতাকর্মী নিহত হন এবং গুরুতর আহত হন দুই শতাধিক নেতাকর্মী। বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউ সেদিন রক্তে লাল হয়ে গিয়েছিল। হতাহত নেতাকর্মীদের আর্তনাদ ও বাঁচানোর আকুতিতে সৃষ্টি হয়েছিল এক হƒদয়বিদারক দৃশ্যের। দলীয় সভানেত্রীকে বাঁচানোর জন্য ট্রাকের ওপর মানববর্ম রচনা করেছিলেন আওয়ামী লীগের নেতারা। সেদিনের গ্রেনেড হামলায় গুরুতর আহত আইভী রহমান ৫৮ ঘণ্টা মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে মারা যান ২৪ আগস্ট। ওই দিন নিহত হন মোস্তাক আহমেদ সেন্টু, ল্যান্স কর্পোরাল (অব) মাহবুবুর রশীদ, রফিকুল ইসলাম আদা চাচা, সুফিয়া বেগম, হাসিনা মমতাজ রীনা, লিটন মুন্সী ওরফে লিটু, রতন সিকদার, মোঃ হানিফ ওরফে মুক্তিযোদ্ধা হানিফ, মামুন মৃধা, বেলাল হোসেন, আমিনুল ইসলাম, আবদুল কুদ্দুস পাটোয়ারী, আতিক সরকার, নাসিরউদ্দিন সর্দার, রেজিয়া বেগম, আবুল কাশেম, জাহেদ আলী, মমিন আলী, শামসুদ্দীন, আবুল কালাম আজাদ, ইছহাক মিয়া এবং অজ্ঞাত পরিচয় আরো দুজন। হামলায় আহতের মধ্যে ছিলেন জিল্লুর রহমান, আমির হোসেন আমু, আবদুর রাজ্জাক, মোঃ হানিফ, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, আবদুল লতিফ সিদ্দিকী, এ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর, কাজী জাফরউল্লাহ, ওবায়দুল কাদের, ড. হাছান মাহমুদ, আব্দুর রহমান, আখতারুজ্জামান, এ্যাডভোকেট রহমত আলীসহ পাঁচ শতাধিক আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ। দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিয়ে অনেকে কিছুটা সুস্থ হলেও পঙ্গুত্বের অভিশাপ নিয়ে বেঁচে থাকতে হচ্ছে অনেককে। সেদিনের সেই দুঃসহ স্মৃতি প্রতিনিয়ত তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে তাদের। সেই দুঃস্বপ্নের দিন আজ, ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার একাদশ বার্ষিকী।
alt
সেদিনের ঘটনাপঞ্জির দিকে তাকানো যাক। মিছিল উপলক্ষে বিকেল ৪টা থেকেই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষে ভরে ওঠে বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউ। ৫টার দিকে বুলেট প্রুফ গাড়িতে করে সমাবেশস্থলে পৌঁছান বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। বক্তৃতায় তিনি আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের ওপর হামলা এবং দেশব্যাপী বোমা হামলা বন্ধে সরকারকে হুঁশিয়ার করেন। প্রায় ২০ মিনিট বক্তৃতা শেষে সন্ত্রাসবিরোধী মিছিল শুরুর ঘোষণা দেয়ার ঠিক আগ মুহূর্তে শুরু হয় গ্রেনেড হামলা। পুরো এলাকা ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে যায়। এরপর শেখ হাসিনার গাড়ি লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করা হয়। নিক্ষিপ্ত গ্রেনেডগুলোর মধ্যে তিনটি অবিস্ফোরিত থেকে যায়। শত শত মানুষের আর্তচিৎকার, ছড়িয়ে থাকা ছিন্নভিন্ন দেহ, রক্ত আর পোড়া গন্ধ, সব মিলিয়ে বীভৎস অবস্থার সৃষ্টি হয় পুরো এলাকায়। আহতদের সাহায্য করার বদলে বিক্ষুব্ধ এবং আহত মানুষের ওপর বেপরোয়া লাঠিপেটা ও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে তৎকালীন সরকারের পুলিশ। মুহূর্তের মধ্যে দোকানপাট ও যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আতঙ্কে এলাকা ছেড়ে পালাতে শুরু করে সবাই।
বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রাণনাশের উদ্দেশ্যেই গ্রেনেড হামলা চালানো হয়েছিল। অথচ বিগত চারদলীয় জোট সরকারের আমলে সংঘটিত এ হত্যাকা- নিয়ে সেদিন সংসদে কোন শোক প্রস্তাবও তুলতে পারেনি আওয়ামী লীগ। শোক প্রস্তাব তুলতেই দেয়া হয়নি। জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রাণনাশের উদ্দেশ্যে পরিচালিত সেদিনের সেই গ্রেনেড হামলায় যে চারদলীয় জোটের ইন্ধন ছিল তা আজ অনেকটাই প্রমাণিত সত্য। আর, সে কারণেই সেদিন জোট সরকার গ্রেনেড হামলার বিষয়টি এড়িয়ে যেতে নানা কৌশলের আশ্রয় নিয়েছিল। সিআইডিকে দিয়ে সাজানো হয়েছিল জজ মিয়া প্রহসন।বর্বর এ হত্যাকার ঘটনা মনে হলে আজও গা শিউরে ওঠে। কোন গণতান্ত্রিক, স্বাধীন ও সভ্য দেশে নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতিতে প্রকাশ্য দিবালোকে জনসভায় এমন বর্বরোচিত ঘটনা ঘটতে পারে, তা ভাবনারও অতীত। গ্রেনেড হামলার ঘটনার পর এলাকায় নিয়োজিত পুলিশ হামলাকারীদের আটক করার ব্যাপারে কোন চেষ্টা কি করেছিল? এ প্রশ্নের মীমাংসা আজও হয়নি। গ্রেনেড হামলার পর দ্রুত ঘটনার আলামত নষ্ট করে ফেলা হয়েছিল। এত বড় একটি হত্যাকা- চারদলীয় জোটের অনেক নেতা শোক প্রকাশের বদলে হামলার জন্য আওয়ামী লীগকেই দায়ী করে বক্তৃতা-বিবৃতি দিয়েছিলেন। বিরোধীদলীয় নেতার জনসভায় এ রকম পৈশাচিক হামলার পরও দুঃখ প্রকাশ কিংবা লজ্জিত হওয়া তো দূরে থাক, আমাদের নষ্ট রাজনীতির নির্লজ্জ ঐতিহ্য ধরে তৎকালীন সরকারী দলীয় নেতৃত্ব হামলার জন্য উল্টো আওয়ামী লীগকেই দোষারোপ করে। মামলার তদন্তকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার নানা চেষ্টা করা হয়।
alt
বিগত জোট সরকারের সময় তাদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ মদদে এ দেশে জঙ্গীবাদ ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করেছিল, এ সত্য আজ আর অস্বীকার করা যাবে না। ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট রাজধানী ঢাকার এক জনাকীর্ণ স্থানে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জনসভায় যে বর্বরোচিত ঘটনা ঘটানো হয়েছিল, সেটি যে অত্যন্ত সুদূরপ্রসারী এক ঘৃণ্য পরিকল্পনা বাস্তবায়নের নীলনক্সা ছিল তাও এখন সবার কাছে দিনের আলোর মতো পরিষ্কার। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারে জাতির জনককে হত্যার মধ্য দিয়ে একটি চিহ্নিত অপশক্তি দেশ-জাতিকে উল্টোপথে ঠেলে দিতে চেয়েছিল, ২০০৪ সালের ২১ আগস্টের ঘটনা এরই ধারাবাহিক প্রক্রিয়া। অবশ্য এর আগেও এমন অপচেষ্টা ওরা করেছিল কোটালীপাড়ায় জননেত্রী শেখ হাসিনার জনসভাস্থলে বোমা পুঁতে রেখে।২১ আগস্টের ঘটনার সময় যে দল বা জোট ক্ষমতায় ছিল, তারা সে হামলার ঘটনার কোন বিচার করেনি। সেই ২৪ জনের হত্যার বিচার করেনি তৎকালীন সরকার। তদন্তের ভান করেছিল। ইন্টারপোলের সাহায্য নেয়ার কথা বলা হয়েছিল। স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের সাহায্য নেয়া হয়েছিল। কিন্তু তারপর চুপচাপ ছিল সেদিনের সরকার। এতেই স্পষ্ট হয় এই গ্রেনেড হামলার পেছনে তৎকালীন জোট সরকারের হাত ছিল। জঙ্গী-জামায়াতবেষ্টিত সরকার চেয়েছিল বাংলাদেশ থেকে প্রগতিশীলতার ধারা মুছে ফেলতে। চেয়েছিল বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি চিরতরে নির্বাসনে পাঠাতে। কিন্তু তা সম্ভব হয়নি। সত্যের জয় কোন কিছুতেই ঠেকিয়ে রাখা যায়নি।

alt
আগস্ট বাঙালীর শোকের মাস। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারে হত্যা করা হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।২০০৫ সালে দেশের ৬৩ জেলায় একযোগে বোমা হামলা হয়েছে। বাংলার মানুষ কিন্তু নতুন করে জেগে উঠেছে। ২০০৮ সালের নির্বাচনে বাংলাদেশের মানুষ ভোট দিয়েছে প্রগতিশীলতার পক্ষে। ২০১৪ সালের নির্বাচনে জামায়াত-বিএনপির জঙ্গী জোট নির্বাচনে অংশ নেয়ারই সাহস পায়নি। এভাবেই মানুষ তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে। ২১ আগস্টের বিভীষিকাময় স্মৃতি মনে রেখে বাংলার মানুষ আগামীতেও অপশক্তিকে রুখে দেবে, প্রত্যাখ্যান করবে, এমন আশা করাই যায়। বাংলার ইতিহাস তো তাই বলে।            সভায আরো বক্তা ছিলেন যুক্তরাস্ট্র আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি  . আক্তার হোসেন . সৈয়দ বশারত আলী. সামসুঊদ্দীল আজাদ .লুৎফর করিম .সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহাম্মেদ . আব্দুর রহিম বাদশা .চন্দন দত্ত. গনসংযোগ সম্পাদক কাজী কয়েস .প্রবাসী সম্পাদক সোলাইমান আলী .যুব সম্পাদক মাহাবুব রহমান টুকু উপ দপ্তর সম্পাদক আব্দুল মালেক কাযকরি সদস্য .সাহানারা রহমান গোলাম মওলা ।শরিফ কামরুল আলম হিরা. আব্দুল হামিদ .জহির ঊদ্দিন .খোরশেদ খন্দকার . আলী গজনবী .এস আলম বিপ্লব . আশ্রাফ মাশুক ,নিউইয়র্ক ষ্টেট .আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শাহীন আজমুল .সিটি আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ইমদাদ চৌধরী নিউ জার্সি আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শামিম আহাম্মেদ .ইস্ট আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি শেখ আতিক .মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শাহানাজ মমতাজ .বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের দপ্তর সম্পাদক সালেহ মুহাম্মদ টুটুল .আন্ত: সহ সম্পাদক সাখওয়াত বিশ্বাস .যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন , যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নুরুজ্জামান সরদার ,সাধারন সম্পাদক সুবল দেবনাথ .সহ সভাপতি আশরাফ উদ্দিন , সহ সভাপতি দরুদ মিয়া রনেল , স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনিসুজ্জামান সবুজ , সাংগঠনিক সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট ,  জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি কাজী আজিজুল হক খোকন .  সহ সভাপতি আনিচুর রহমান .যুবলীগের প্রচার সম্পাদক গনেশ কীতনীয়া .নিউইয়র্ক ষ্টেট যুবলীগের সভাপতি জামাল হোসেন সাধারন সম্পাদক সেবুল মিয়া , ছাত্রলীগের সাবেক সাবেক সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর এইচ মিয়া , ও হেলাল মিয়া প্রমুখ।সবার প্রারম্ভে ১৯৭৫-এর ১৫ আগষ্ট স্বপরিবারে নিহত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু, ডাঢা কেন্দ্রিয় কারাগারে চার জাতীয় নেতা, একাত্তর-এর মুক্তিযুদ্ধ ও  ১৯৫২- এর মহান ভাষা আন্দোলনসহ আজ পর্যন্ত সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নিহতদের স্মরনে সভায় দাঁড়িয়ে  এক মিনটি কাল নিরাবতা পালন করা হয়।


শিরি শিশু সাহিত্য কেন্দ্র নিউইয়র্ক শাখার ১৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং হাসানুর রহমানের ৭০তম জন্মদিন ২২ আগষ্ট সোমবার

রবিবার, ২১ আগস্ট ২০১৬

alt
হাকিকুল ইসলাম খোকন ,বাপসনিউজঃ প্রবীন শিশু সাহিত্যিক হাসানুর রহমানের ৭০তম জন্মতিথি আগামী ২২ আগষ্ট সোমবার। শিশু সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠন শিরি শিশু সাহিত্য কেন্দ্রের নিউইয়র্ক শাখা এ উপলক্ষে ঐদিন বিকেল ৬টায় এষ্টোরিয়ার ৩৬ এভিনিউস্থ এবং ৩৬ ষ্ট্রীট ক্লাব সনমে এক মনোরম অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে।খবর বাপসনিঊজ।

alt

উক্ত অনুষ্টানে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সকল কবি, শিশু সাহিত্যিক, সাংবাদিক ও সংস্কৃতিসেবীকে স্বাদর আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।এবং শিরি শিশু সাহিত্য কেন্দ্র নিউইয়র্ক শাখার ১৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীও পালিত হবে।

alt


নিউইয়ক ১৫ আগস্ট, ২০১৬, মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের শক্তির সম্মিলিত জোটের উদ্যোগে পালিত হলো “জাতীয় শোক দিবস” বঙ্গবন্ধুর ৪১ তম শাহদাৎ বাষিকী

রবিবার, ২১ আগস্ট ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন, মো:নাসির, ওসমান গনি, সুহাস বডুয়া, বাপসনিঊজ: কেঁদেছিল আকাশ, ফুঁপিয়ে ছিল বাতাস। বৃষ্টিতে নয়, ঝড়ে নয়- এ অনুভূতি ছিল শোকের। পিতা হারানোর শোক। কী নিষ্ঠুর, কী ভয়াল, কী ভয়ঙ্কর ছিল- সেই রাত। যা ৪১ বছর পরও ৫৬ হাজার বর্গমাইলের জনপদের ধূলিকণা ভুলতে পারেনি, ভুলতে পারবে না। স্বাধীন বাংলাদেশের ইতিহাসের সবচেয়ে অশ্রুভেজা,কলঙ্কময় পচাওোরের ১৫ আগস্ট রাতের কথা। যে রাতে স্ত্রী-সন্তানসহ সপরিবারে নিহত হয়েছিলেন স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

Picture
"শোকই হোক শক্তি" এই শপথে ১৫ আগস্ট, ২০১৬, সোমবার ০০০১ মিনিটে ডাইভারসিটি প্লাজা, জ্যাকসন হাইস্টস, নিউইয়কে "বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ্য অর্পণ" ও নিহতদের আত্মার শান্তি কামনার মধ্য দিয়ে পালিত হলো “জাতীয় শোক দিবস” বঙ্গবন্ধুর ৪১ তম শাহদাৎ বাষিকী।

alt
১৫ আগস্ট, ২০১৬, সোমবার ০০০১ মিনিটে নিউইয়কের বাঙ্গালী অধ্যূসীত এলাকা জ্যাকসন হাইস্টস এর ডাইভারসিটি প্লাজায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ্য অর্পণে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার অগনিত মানুযের ভীড়।  অনুষ্ঠানে ঘোষনাপএ উপস্থাপন  করেন আয়োজক সংগঠনের প্রধান সম্মনয়ক মুক্তিযোদ্ধা ডঃ প্রদীপ বঞ্জন কর। তিনি উল্লেখ করেন এবারের শোক দিবসে আমাদের শপথ হোক-“শোক হোক শক্তি-উজ্জীবিত করুক সমগ্র বাঙ্গালী জাতিকে এবং বঙ্গবন্ধুর আদশ ও প্রদশিত পথ শোষনমুক্ত অসাস্প্রদায়িক আধূনিক গনতান্তিক  বাংলদেশ প্রতিষ্ঠাই হোক আমাদের একমাএ চলার পথ”।

alt
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ্য অর্পণ অনুষ্ঠানে উপস্থিতদের মধ্যে বিশেষভাবে উল্লেখ্য, মাসুদ বিন মোমেম, ইউএন বাংলাদেশ মিশনের মান্যবর স্থায়ী প্র্রতিনিধি ও রাস্ট্রদূত;  শামীম আহসান, মাননীয় কনস্যাল জেনারেল নিউইয়ক;আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহকারী সম্পাদক, বাংলাদেশ কৃষক লীগের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি এবং বাংলাদেশ আমেরিকা ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটির সভাপতি এমএ করিম , ড. সিদ্দিকুর রহমান ও আবদুস সামাদের নেওৃওে যুক্তরাস্ট্র আওয়ামীলীগের বিভিন্ন শ্রেনীর নেতাকমী; শাহিন আজমলের নেওৃওে নিউইয়ক স্টেট  আওয়ামীলীগের নেতাকমী; মেজবা আহমেদ ও ফরিদ আলমের নেওৃওে যুক্তরাস্ট্র আওয়ামী যুবলীগের নেতাকমী; আজিজুল হক খোকনের নেওৃওে যুক্তরাস্ট্র শ্রমিকলীগ, 

alt

নূরুজ্জামান ও সুবল দেবনাথের যুক্তরাস্ট্র স্বেচ্ছাসেবকলীগের বিভিন্ন শ্রেনীর নেতাকমী; মমতাজ শাহনাজের নেওৃওে যুক্তরাস্ট্র মহিলা আওয়ামীলীগের বিভিন্ন শ্রেনীর নেতাকমী; জাহিদ হাসানের যুক্তরাস্ট্র ছাএলীগের বিভিন্ন শ্রেনীর নেতাকমী; মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মুকিত চৌধুরী, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা ইউএস কমাণ্ড; মুক্তিযোদ্ধা খুরশীদ আনোয়ার বাবলু ও সাঈদুর রহমান বেনুর নেওৃওে যুক্তরাস্ট্র মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের নেতাকমী; নূরে আলম ঝিকুর নেওৃওে যুক্তরাস্ট্র জাসদের নেতাকমী; আশরাফুজ্জামানের নেওৃওে বঙ্গমাতা পরিষদ; এ্যাডভোকেট মোর্শেদা জামানের নেওৃওে আওয়ামী আইনজীবি পরিষদ; হাকিকুল ইসলাম খোকন ও সাধারণ সম্পাদক হেলাল মাহমুদর নেওৃওে আমেরিকান প্রেসক্লাব অব বাংলাদেশ অরিজিন; আশরাফুজামানের নেওৃওে পোজীবি সমম্নয় পরিষদ; জালালউদ্দিন জালিল ও কায়কোবাদ খানের নেওৃওে শেখ হাসিনা মঞ্জ; আলী হাসান কিবরিয়া অনুর নেওৃওে আমেরিকা বাংলাদেশ কমিউনিটি ডেভলেপমেণ্ট ইনিটিয়েটিফ (এবিসিডিআই); মিথুন আহমেদ ও জলি করের নেওৃওে উওর আমেরিকা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট; ওবায়দুল্লা মামুনের নেওৃওে একুশের চেতনা পরিষদ; 

alt

শিতাংগুহের নেওৃওে বঙ্গবন্ধু পরিষদ;  রমেশ নাথের নেওৃওে বঙ্গবন্ধু সমাজকন্যান পরিষদ; নবেন্দু দও যুক্তরাস্ট্র ঐক্য পরিষদ, দেওয়ান আশরাফের নেওৃওে বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা, এছাড়া অন্যান্ন যে সকল সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতে পুস্পার্ঘ্য অর্পণ করে তাদের মধ্যে জেনোসাইড ’৭১ ফাউন্ডেশন; মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন মঞ্জ; স্বাধীনতা চেতনা মঞ্জ; বাংলাদেশ আওয়ামী ফোরাম, যুক্তরাষ্ট্র; স্বদেশ ফোরাম; মুক্তিযোদ্ধা শওকত আকবর রিচি; মুক্তিযোদ্ধা এবি সিদ্দিক; মুক্তিযোদ্ধা সাঈদুর রহমান; মুক্তিযোদ্ধা শহিদুর রহমান; মুক্তিযোদ্ধা হিরু ভূইয়া ইঞ্জি: মিজানুল হাসান, আশরাফ মাসুক, মঞ্জুর চৌধুরী; প্রবীর গুন; আবুল কাসেম ভূইয়া সাহাদৎ হোসেনের  নেওৃওে মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের শক্তির সম্মিলিত জোট, যুক্তরাষ্ট্র; এছাড়া আরো অনেকই বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।


বঙ্গবন্ধুর শাহাদৎ বার্ষিকীতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন এমএ সালাম

শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০১৬

alt

ছবিতে গত ১৫ আগষ্ট,সোমবার নিউইয়র্কের উডসাইডস্থ গোলশান টেরেসে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪১তম শাহাদৎ বার্ষিকীতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখছেন আমেরিকা-বাংলাদেশ এলাইন্সের প্রেসিডেন্ট ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক এমএ সালাম , অনুষ্ঠানের সভাপতি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান, প্রধান অতিথি স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন, অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ সম্পাদক এবং বাংলাদেশ কৃষক লীগের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি সাংবাদিক এমএ করিমসহ আরোও অনেককে দেখায়াচেছ । ছবি ঃ বাপসনিউজ।


জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নিউইয়র্কে শ্রদ্ধাঞ্জলি

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০১৬

alt

হাকিকুল ইসলাম খোকন : বাপসনিঊজ :নিউইয়র্কে ১৫ আগস্টের প্রথম প্রহরে জাতীয় শোকদিবস পালন অনুষ্ঠানে নিউইয়র্কের সংবাদমাধ্যমের পক্ষে জাতিরপিতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন সাপ্তাহিক বর্ণমালার সম্পাদক মাহফুজুর রহমান ও বাপস নিউজের সম্পাদক হাকিকুল ইসলাম খোকন ।


নিউইয়র্কে সার্বজনীন জাতীয় শোকদিবস পালন

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০১৬

alt

বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্কে সার্বজনীন জাতীয় শোকদিবস পালন অনুষ্ঠানে নিউইয়র্কের সংবাদমাধ্যমের পক্ষে জাতিরপিতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন সাপ্তাহিক বর্ণমালার সম্পাদক মাহফুজুর রহমান, এটিএন বাংলা ইউএসএ'র কানুদত্ত ও সাপ্তাহিক প্রবাসের অভিজিৎ কাব্য।


এফসিআইবি এডিএম স্বস্ত্রীক যুক্তরাষ্ট্রে

মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০১৬

হাকিকুল ইসলাম খোকন, মো:নাসির, ওসমান গনি, সুহাস বডুয়া, বাপসনিউজ :ফাষ্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের অতিরিক্ত ম্যানেজিংক ডাইরেক্টর সৈয়দ হাবিব হাসনাত এবং সহধর্মিনি প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী কামরুল হাসানের তনয়া সঙ্গীত শিল্পী সুমনা হাসান ২ সপ্তাহের শুভেচ্ছা সফরে এখন যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন। খবর বাপসনিউজ। 

Picture

সৈয়দ হাবিব হাসনাত এবং সুমনা হাসান যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন , বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনীময় করবেন। ইতি মধ্যে প্রবাসীদের সাথে এনআরবি’র বিভিন্ন দিক নিয়ে মতবিনীময়ে অংশ নিয়েছেন। তাদের সাথে যোগাযোগ হেলাল মাহমুদ ৯২৯-৩৪৪-৮৩২০।  

alt
ছবিতে  জ্যাকসন হাইটসের ডাইভারসিটি প্লাজায় বাথেকে  রিমন ইসলাম, হেলাল মাহমুদ , ফাষ্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের অতিরিক্ত ম্যানেজিংক ডাইরেক্টর সৈয়দ হাবিব হাসনাত এবং সহধর্মিনি প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী কামরুল হাসানের তনয়া সঙ্গীত শিল্পী সুমনা হাসান এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকনকে দেখা যাচ্ছে।ছবি:বাপসনিঊজ।


আওয়ামী লীগনেতা এমএ করিম এখন নিউইয়র্ক

মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০১৬

Picture

হাকিকুল ইসলাম খোকন, মো:নাসির, ওসমান গনি, সুহাস বডুয়া, বাপসনিউজ : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ সম্পাদক এবং বাংলাদেশ কৃষক লীগের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি সাংবাদিক এমএ করিম গত ১৪ আগষ্ট রবিবার সকাল ৯টায় এমিরাত এয়ার যোগে নিউইয়র্কের জেএফকে আন্তজার্তিক বিমান বন্দরে এসে পৌছলে তাকে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের পক্ষ থেকে ফুলেল অর্ভ্যার্থনা জানানো হয়। খবর বাপসনিউজ।

alt
এ সময় উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহ দপতর সম্পাদক আব্দুল মালেক, মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ুন কবির কামাল উদ্দিন, তথ্যের মিছিল গ্রন্থের সম্পাদক আওয়ামী লীগ নেতা ফিরোজ মাহমুদ, আওয়ামী লীগ নেতা হেলাল মাহমুদ এবং  যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকনসহ বিপুল সংখ্যাখ যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী প্রমুখ।

alt