Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

যুক্তরাষ্ট্রের খবর

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুক্তরাষ্ট্র আগমন উপলক্ষে নিউজার্সি আওয়ামী লীগের প্রস্তুতি সভা

শুক্রবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বিশ্বজিৎ দে বাবলু : বাপ্ নিউজ : নিউজার্সি থেকে : জাতিসংঘের চলতি ৭২তম অধিবেশনে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতা হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৭ সেপ্টেম্বর রোববার অপরাহ্নে নিউইয়র্কে আসছেন। এ উলক্ষে নিউজার্সি আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মালিক চুন্নু-এর সভাপতিত্বে এবং সাধারন সম্পাদক শামীম আহমেদ-এর সঞ্চালনায় প্যাটারসন শহরের ৩৭৪ ইউনিয়ন এভিনিউতে অবস্থিত জাকির বেকারীতে এক প্রস্তুতি সভা হয়েছে ।

Picture
সভাশেষে নিউজার্সি আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দগন স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে জানান ,নিউজার্সি আওয়ামী লীগ আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এয়ারপোর্টে অভ্যর্থনা, ১৯ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কে টাইমস স্কোয়ারের মেরিয়ট মারকুইস হোটেলের বলরুমে প্রধানমন্ত্রীর গণসংবর্ধনা  ও ২১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার অপরাহ্নে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য উপস্থাপনের সময় বাইরে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শান্তি সমাবেশসহ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রত্যেক কর্মসূচিতে তারা যোগদান করবেন।।


যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ায় দূর্বৃত্তের গুলিতে আহত রেজওয়ানও আর নেই

শুক্রবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বাপ্ নিউজ : জর্জিয়া থেকে : যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ায় সাইফুল ইসলাম ভূঁইয়া (৩৫) নামে এক বাংলাদেশি ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। তার সাথে থাকা গুলিবিদ্ধ আহত রেজোয়ানকে স্থানীয় গ্রেডি মেমোরিয়াল হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। গতকাল বিকালে স্থানীয় গ্রেডি মেমোরিয়াল হাসপাতেলে আহত রেজোয়ান শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন ( ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন ) । নিহত সাইফুল ইসলাম ভূঁইয়া এবং রেজোয়ানের বাড়ি  নোয়াখালীতে। এর আগে ঐ একই ঘটনায়  ঘটনাস্থলেই মারা যান মোহাম্মদ সাইফুল ভুঁইয়া । টলান্টার ডাউন টাউনের ওয়েস্ট ভিউ ড্রাইভে সাইফুলের গ্রোসারি স্টোরের সামনে এই হামলার ঘটনা ঘটে। তাদের এই জোড়া খুনের ঘটনায় আটলান্টার বাঙালি মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে । যারা ঐ ধরণের ফিলিং ষ্টেশন বা দোকানপাটের ব্যবসা করেন তাদের মধ্যেও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে ।

Picture

রেজোয়ান বাংলাদেশ থেকে আটলান্টায় আসে তিন মাস আগে। রেজোয়ানের মৃতদেহ দেশে পাঠানো হবে । এ ব্যপারে সকল প্রবাসীদের সহযোগীতা কামনা করা হয়েছে । সরাসরি যে কেউ তাদের এ্যাকাউন্টে ডোনেশান  পাঠাতে পারেন। Chase Bank A/C # 152292006 ।

এ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যের জন্যে ৬৭৮ - ৮৮৭ - ৮৭৫২ ( মোহাম্মদ আলী হোসেন ) ,  ৪০৪-৯০৯-১৩৮৮ ( মাহমুদ রহমান ) , ৪০৪- ৩৮৮-১১২২ ( হুমায়ুন কবির কাওসার ) , ৪০৪-৯৫৭-১৬৩৯ ( সাদমান সুমন ) , ৬৭৮-৯১৪-৪৯১৪ ( মোহাম্মদ জাহাঙ্গির হোসেন ) , ৭৭০-২৯২-০৪১১ ( বিসমিল্লাহ্‌ ক্যাফে  ) , ৪০৪-৫৭৯-৯৭২৩ ( তোফায়েল আহমেদ তপু ) প্রমুখ এই নম্বরে টেলিফোন করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে । 


বাংলাদেশকে একটি উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়তে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে হবে

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে :মিয়ানমার বাহিনীর নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা অসহায় রোহিঙ্গাদের মানবিক কারণে আশ্রয় দিচ্ছে সরকার। আন্তর্জাতিক মহলের কাছেও প্রশংসিত হয়েছে সরকারের এ ভূমিকা। এটি বাংলাদেশের জন্য গর্ব করার মত। সাময়িক এ পরিস্থিতি হয়তো বাংলাদেশের জন্য আশীর্বাদও বয়ে আনতে পারে। নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংবর্ধনা সফল করতে গত রোববার রাতে জ্যামাইকার একটি রেষ্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত টাউন হল মিটিংয়ে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান এ কথা বলেন।

Picture

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭২তম অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগদানের কথা উল্লেখ করে ড. সিদ্দিক বলেন এবার বঙ্গবন্ধু কন্যা বুক ফুলিয়ে কথা বলতে পারবেন বিশ্ব ফোরামে।মিটিংয়ে তিনি আবারও হুশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন সফরকালে তার অসম্মান হতে পারে এমন কোন কর্মকান্ড যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে হতে দেয়া হবে না। এজন্য জেলে যেতে হলেও তার জন্য প্রস্তুত রয়েছে আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীরা। দলের জন্য ভালো ল’ইয়ার রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, নো ব্ল্যাক ফ্ল্যাগ, নো শো।

alt
অন্যান্য বক্তারা বলেন, অতীতের যেকোন সময়ের তুলনায় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী। নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এবারের সংবর্ধনা হবে যুগান্তকারী। যেকোন মূল্যে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সকল কর্মসূচি নির্বিঘœ ও সফল করতে প্রস্তুত প্রবাসীরা। বিশৃঙ্খলাকারীদের প্রতিহত করা হবে শক্তহাতে। এব্যাপারে দলীয় কউিকেও ছাড় দেয়া হবে না।বক্তারা বলেন, বাংলাদেশকে একটি উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে ভোটের মাধ্যমে পুনরায় আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে হবে। বাংলাদেশে অসাম্প্রদায়িক-গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে সকল দ্বিধা-দ্বন্দ্ব ভুলে প্রবাসীদেরও ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। alt

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি আকতার হোসেন, সৈয়দ বসারত আলী, মাহাবুবুর রহমান ও আবুল কাসেম, উপদেষ্টা ডা. মাসুদুল হাসান, এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক নিজাম চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক আইরিন পারভিন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমেদ, মহিউদ্দিন দেওয়ান ও আব্দুর রহিম বাদশা, প্রচার সম্পাদক হাজি এনাম (দুলাল মিয়া), মুক্তিযোদ্ধা বিষযক সম্পাদক মোজাহিদুল ইসলাম চৌধুরী, ত্রাণ ও পূনর্বাসন সম্পাদক জাহাঙ্গির হোসেন, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুজ্জামান, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মিসবাহ আহমেদ, উপ দপ্তর সম্পাদক আবদুল মালেক, তৈয়বুর রহমান টনি, কার্যকরী সদস্য শাহানারা রহমান, সামছুল আবেদীন, আশরাফ মাসুক, খেরশেদ খন্দকার ও আবদুল হামিদ, সরাফ সরকার, যুক্তরাষ্ট্র জাসদের সভাপতি আবদুল মুসাব্বির, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকারিয়া চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক ইমদাদ চৌধুরী, উপদেষ্টা কফিল চৌধুরী, নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি একেএম আলমগীর ও শেখ আতিকুল ইসলাম, যুক্তরাষ্ট্র মহিলা লীগের সভাপতি মমতাজ শাহনাজ, সাংগঠনিক সম্পাদক নার্গিস আহমেদ বিউটি, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাখাওয়াত বিশ্বাস, যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি দুরুদ মিয়া রনেল, কুইন্স ব্যুরো আওয়ামী লীগের একেএম শফিকুল ইসলাম, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক শেখ জামাল হোসাইন, যুগ্ম আহবায়ক মো. সেবুল মিয়া, হুমায়ুন চৌধুরী প্রমুখ।

alt

সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, মহিলা লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ, শ্রমিক লীগ ও ছাত্রলীগের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী-সমর্থক উপস্থিত ছিলেন।উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের চলতি ৭২তম অধিবেশনে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতা হিসেবে ১৭ সেপ্টেম্বর রোববার অপরাহ্নে নিউইয়র্কে আসছেন। এদিন তাকে এয়ারপোর্টে অভ্যর্থনা জানানো হবে। ১৯ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কে টাইমস স্কোয়ারের মেরিয়ট মারকুইস হোটেলের বলরুমে প্রধানমন্ত্রীকে গণসংবর্ধনা দেওয়া হবে। ২১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার অপরাহ্নে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য উপস্থাপনের সময় বাইরে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শান্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।


বাংলাদেশকে একটি উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়তে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে হবে

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে :মিয়ানমার বাহিনীর নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা অসহায় রোহিঙ্গাদের মানবিক কারণে আশ্রয় দিচ্ছে সরকার। আন্তর্জাতিক মহলের কাছেও প্রশংসিত হয়েছে সরকারের এ ভূমিকা। এটি বাংলাদেশের জন্য গর্ব করার মত। সাময়িক এ পরিস্থিতি হয়তো বাংলাদেশের জন্য আশীর্বাদও বয়ে আনতে পারে। নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংবর্ধনা সফল করতে গত রোববার রাতে জ্যামাইকার একটি রেষ্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত টাউন হল মিটিংয়ে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান এ কথা বলেন।

Picture

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭২তম অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগদানের কথা উল্লেখ করে ড. সিদ্দিক বলেন এবার বঙ্গবন্ধু কন্যা বুক ফুলিয়ে কথা বলতে পারবেন বিশ্ব ফোরামে।মিটিংয়ে তিনি আবারও হুশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন সফরকালে তার অসম্মান হতে পারে এমন কোন কর্মকান্ড যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে হতে দেয়া হবে না। এজন্য জেলে যেতে হলেও তার জন্য প্রস্তুত রয়েছে আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীরা। দলের জন্য ভালো ল’ইয়ার রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, নো ব্ল্যাক ফ্ল্যাগ, নো শো।

alt
অন্যান্য বক্তারা বলেন, অতীতের যেকোন সময়ের তুলনায় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী। নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এবারের সংবর্ধনা হবে যুগান্তকারী। যেকোন মূল্যে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সকল কর্মসূচি নির্বিঘœ ও সফল করতে প্রস্তুত প্রবাসীরা। বিশৃঙ্খলাকারীদের প্রতিহত করা হবে শক্তহাতে। এব্যাপারে দলীয় কউিকেও ছাড় দেয়া হবে না।বক্তারা বলেন, বাংলাদেশকে একটি উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে ভোটের মাধ্যমে পুনরায় আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে হবে। বাংলাদেশে অসাম্প্রদায়িক-গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে সকল দ্বিধা-দ্বন্দ্ব ভুলে প্রবাসীদেরও ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। alt

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি আকতার হোসেন, সৈয়দ বসারত আলী, মাহাবুবুর রহমান ও আবুল কাসেম, উপদেষ্টা ডা. মাসুদুল হাসান, এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক নিজাম চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক আইরিন পারভিন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমেদ, মহিউদ্দিন দেওয়ান ও আব্দুর রহিম বাদশা, প্রচার সম্পাদক হাজি এনাম (দুলাল মিয়া), মুক্তিযোদ্ধা বিষযক সম্পাদক মোজাহিদুল ইসলাম চৌধুরী, ত্রাণ ও পূনর্বাসন সম্পাদক জাহাঙ্গির হোসেন, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুজ্জামান, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মিসবাহ আহমেদ, উপ দপ্তর সম্পাদক আবদুল মালেক, তৈয়বুর রহমান টনি, কার্যকরী সদস্য শাহানারা রহমান, সামছুল আবেদীন, আশরাফ মাসুক, খেরশেদ খন্দকার ও আবদুল হামিদ, সরাফ সরকার, যুক্তরাষ্ট্র জাসদের সভাপতি আবদুল মুসাব্বির, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকারিয়া চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক ইমদাদ চৌধুরী, উপদেষ্টা কফিল চৌধুরী, নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি একেএম আলমগীর ও শেখ আতিকুল ইসলাম, যুক্তরাষ্ট্র মহিলা লীগের সভাপতি মমতাজ শাহনাজ, সাংগঠনিক সম্পাদক নার্গিস আহমেদ বিউটি, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাখাওয়াত বিশ্বাস, যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি দুরুদ মিয়া রনেল, কুইন্স ব্যুরো আওয়ামী লীগের একেএম শফিকুল ইসলাম, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক শেখ জামাল হোসাইন, যুগ্ম আহবায়ক মো. সেবুল মিয়া, হুমায়ুন চৌধুরী প্রমুখ।

alt

সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, মহিলা লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ, শ্রমিক লীগ ও ছাত্রলীগের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী-সমর্থক উপস্থিত ছিলেন।উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের চলতি ৭২তম অধিবেশনে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতা হিসেবে ১৭ সেপ্টেম্বর রোববার অপরাহ্নে নিউইয়র্কে আসছেন। এদিন তাকে এয়ারপোর্টে অভ্যর্থনা জানানো হবে। ১৯ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কে টাইমস স্কোয়ারের মেরিয়ট মারকুইস হোটেলের বলরুমে প্রধানমন্ত্রীকে গণসংবর্ধনা দেওয়া হবে। ২১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার অপরাহ্নে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য উপস্থাপনের সময় বাইরে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শান্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।


কুমিল্লা সোসাইটি অব ইউএসএ নতুন কমিটি

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:গত ৯ সেপ্টেম্বর শনিবার নিউইয়কের বৈশাখী রেষ্টুরেন্ট পার্টি হলে কুমিল্লা সোসাইটি অব ইউএসএ -এর দ্বি-বার্ষিক সাধারন সভার আয়োজন করা হয়েছিল, সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি আবুল বাশার মিলন এবং সভাটি পরিচালনা করেন সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক জাকির হোসেন।

সভায় আলোচনার মাধ্যমে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি নির্বাচন কমিশনার গঠন করা হয়। ঐ নির্বাচন কমিশনের মাধমে সবার উপস্থিতে সভাপতি এবং সাধারন সম্পাদক নির্বাচন করেন।

সভাপতি হলেন আবুল খায়ের আকনদ এবং সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন সালাউদ্দিন চৌধরী। প্রধান নির্বাচন কমিশনার কুমিল্লা সোসাইটর প্রতিষ্টাতা সভাপতি হাজী পেয়ার আহমেদ এবং সহকারী নির্বাচন কমিশনার ডা:আলি আহমেদ ও কুমিল্লা সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদকআবদুল খালেক।

বিশেষ অতিথি ছিলেন কমিনিটি একটিবিস্ট আবুতালেব চৌধরী চান্দু, হাজি মাস্টার রেহান উদ্দিন আকনদ, মাস্টার সিরাজুল ইসলাম, মোফাজ্জল হোসেন এবং উপস্থিত ছিলেন আব্দুর রাহমান, ইঞ্জিনিয়ার শাহিন, শাহিন আলী, আবদুল খালেক, মিজানুর রহমান,শামসুল হক, রোমান সরকার, আসম খালেদুর রহমান, ছফিউল্লাহ খান,আ: আলীম মিয়া,এম,এ মোমেন, সালাউদ্দিন, আনোয়ার হোসেন ,মোফাজ্জল হোসেন,মোহাম্মদ জুয়েল,প্রবাসের সংগীত শিল্পি জিনাত রেহানা রতœা, উলফত আলি মোল্লা, এম আর সেলিম, সুভা বেগম, শিল্পি আকতার, রিপা বেগম, মায়িসা আকনদ, নিলুপা বেগম, অনিকা, জুঁই, তুষার, নয়ন, লাভলি, হেলাল, ফিরোজ সহ আরও অনেকে।


সেলিম আল দীন-এর নাটক কেরামত মঙ্গল ১৬ ও ১৭ সেপ্টেম্বর

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিউজ ঃ সৌখিন নাট্যগোষ্ঠী যুক্তরাষ্ট্রের আয়োজনে সেলিম আল দীন-এর জনপ্রিয় নাটক “কেরামতমঙ্গল” অনুষ্ঠিত হবে ১৬ ও ১৭ সেপ্টেম্বর,শনিবার ও রবিবার। দুদিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে এ নাটক নিউইয়র্কের বাঙ্গালী অধ্যষিত জ্যাকসন হাইটসের পিএস-৬৯ অডিটরিয়াম (৭৭-০২-৩৭ এ্যভিনিউ, জ্যাকসন হাইটস,নিউইয়র্ক, এনওয়াই-১১৩৭২)। খবর বাপসনিউজ।

নিউইয়র্ক প্রবাসী নাট্যকার মুজিব বিন হকের নির্দেশনায় অনুষ্ঠিত সকলের জন্য উন্মুক্ত জনপ্রিয় এ নাটকে সকল প্রবাসীদের স্বাদর আমন্ত্রণ জানিয়েছেনসৌখিন নাট্যগোষ্ঠী যুক্তরাষ্ট্র।


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিউইয়র্কে আগমনে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নিউইয়র্ক-এর প্রস্তুতি সভা

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:১৭ই সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের ৭২তম সাধারণ ৭২তম অধিবেশনে যোগদানে উদ্দেশ্যে নিউইয়র্কে এসে পৌঁছাবেন। এ উপলক্ষে গত ১০ই সেপ্টেম্বর জ্যাকসন হাইটসের ইত্যাদি রেস্টুরেন্টের   আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ নিউইয়র্ক স্টেট শাখা কর্তৃক বিভিন্ন করণীয় বিষয়াদি নিয়ে আলোচনার জন্য এক প্রস্তুতি সভার আয়োজন করে।


নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি  ওহিদুজ্জামান লিটনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক  ফখরুল আবেদীন আবেদের সঞ্চালনায় উক্ত সভায় প্রধান অতিথি   ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সংগ্রামী সভাপতি নুরুজ্জামান সর্দার ও প্রধান বক্তা যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবু সুবল দেবনাথ। সভায়  উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে  কবির আলী, সৈয়দ কিবরিয়া, নাফিউর রহমান তুরান, গোলাম মোস্তফা, রুবেল ভাট  ও শাহ সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।  উপস্থিত ছিলেন নিউইয়র্ক স্টেট স্বেচ্ছাসেবক লীগের আব্দুল হাদি রানা, ফারুক হোসেন, মোহাম্মদ আজিজ ইরান, এ গোফরান বিটন, আফরোজা রুমা, আপন, আজিজ, সুমনসহ আরো অনেকে।


সভায় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনার ভ্যান গার্ড হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি এবং কাজ করে যাব ইনশাআল্লাহ। প্রধান বক্তা তার বক্তব্যে বলেন, সবাই জননেত্রী শেখ হাসিনার সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সুশৃঙ্খলভাবে উপস্থিত থেকে সভাটিকে সাফল্যমন্ডিত করবেন।সভাপতি  ওহিদুজ্জামান লিটন তার ধন্যবাদ বক্তব্যের মাধ্যমে সভাটিকে সাফল্য মন্ডিত করার জন্য উপস্থিত সবাইকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।


কিশোরগঞ্জ ডিস্ট্রিক্ট এসোসিয়েশন ইউএসএ নির্বাচন ৫ই নভেম্বর

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম  খোকন,বাপ্‌স নিউজ : কিশোরগঞ্জ ডিস্ট্রিক্ট এসোসিয়েশনের সকল সম্মানীত সদস্যগণের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, এসোসিয়েশনের গঠনতন্ত্র অনুসারে দুই বছর মেয়াদী (২০১৮-২০১৯) এক্সিকিউটিভ কমিটি(Executive Committee) গঠনের লক্ষ্যে আগামী ৫ই নভেম্বর ২০১৭, রোজ রবিবার নি¤œলিখিত তফসিল মোতাবেক সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। উক্ত সাধারণ নির্বাচনে অংশগ্রহন সহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সকল কাজে সহযোগিতার জন্য আপনাদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা যাচ্ছে।


তফসিল

১. মনোনয়নপত্র বিতরণ- ২৩শে সেপ্টেম্বর, থেকে ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৭  (সকাল ৯:০০টা থেকে রাত ৯:০০টা)
২. মনোনয়নপত্র দাখিল- ২৬শে সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, ২০১৭  (সকাল ৯:০০টা থেকে রাত ৯:০০টা)
৩. মনোনয়নপত্র বাছাই- ২৭শ সেপ্টেম্বর, বুধবার, ২০১৭ (রাত ৮:০০টা)
৪. মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার- ৪ঠা অক্টোবর, বুধবার, ২০১৭   (সকাল ৯:০০টা থেকে রাত ৯:০০টা)
৫. চুড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ - ৫ই অক্টোবর, বৃহস্পতিবার, ২০১৭  (রাত ৮:০০টা)
৬. ভোট গ্রহনের তারিখ- ৫ই নভেম্বর, রবিবার, ২০১৭  (সকাল ৯:০০টা থেকে রাত ৯:০০টা)
৭. ভোট গ্রহনের স্থান    - পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ভোট গ্রহনের ১৫ দিন পূর্বে জানানো হবে।


বি: দ্র: এসোসিয়েশনের নিজস্ব অফিস না থাকায় নির্বাচন সংক্রান্ত সকল বিষয়ে যোগাযোগের জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশনারের সাথে যোগাযোগের জন্য অনুরোধ করা গেল।
ধন্যবাদান্তে
এ এস এম ফেরদৌস, প্রধান নির্বাচন কমিশনার, (৬৪৬) ৮২৯-৬৪৭৫
অধ্যক্ষ মোঃ নাজিম উদ্দিন, নির্বাচন কমিশনার, (৩৪৭) ২৮২-৭৯৩২
অধ্যক্ষ মোঃ মোক্তার হোসেন, নির্বাচন কমিশনার, (৩৪৭) ৪৭৫-৬১৮২
বাবু তারক চন্দ্র পন্ডিত, নির্বাচন কমিশনার, (৬৪৬) ৬০৬-৯০৩৯
হাবিব রহমান হারুন, নির্বাচন কমিশনার, (৬৪৬) ২৭০-৯৩৫৯


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুক্তরাষ্ট্রে আগমন উপলক্ষে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন, বাপসনিঊজ:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের ৭২তম সাধারন অধিবেশনে যোগদানের উদ্দেশে যুক্তরাষ্ট্রে আগমন উপলক্ষে  সংগঠনের প্রস্ততি নেওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ  ১১ই সেপ্টেম্বর  সোমবার  জ্যাকসন হাইটস এর খাবার বাড়ির পার্টি হলে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় ।  সভায় সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নুরুজ্জামান সরদার এবং সভা পরিচালনা করেন সাধারন সম্পাদক সুবল দেবনাথ। অনুষ্টানে যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের  নেতাবৃন্দ মধ্যে উপস্তিত ছিলেন  ও বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি আশরাফ উদ্দিন, দুরুদ মিয়া রণেল, কবির আলী,  গিয়াস উদ্দিন, হাসান জিলানী, এবাদুল হক, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক  এইচ এম  ইকবাল , সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া, আনিসুজ্জামান সবুজ, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুল এইচ মুরাদ, কে এইচ রাকিব, কামাল হোসেন, নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ওহিদুজ্জামান লিটন, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা আব্দুল আলিম খাঁন, শাহজালাল চৌধুরী ও আনোয়ার হোসেন সহ প্রমুখ । সভায় নেতাবৃন্দ নিজ নিজ বক্তব্যের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিউইয়র্কে অবস্থান কালে  নিরাপত্তা সহ সকল ধরনের সেবা দেওয়ার জন্য সর্বাত্মক ভাবে প্রস্তুত আছেন বলে ব্যক্ত করেন এবং সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করার জন্য করনীয় বিভিন্ন কর্মসুচীর সুপারিশ করে বক্তব্য রাখেন সকল নেতাবৃন্দ । সংগঠনের সভাপতি এবং সাধারন সম্পাদক সকল নেতা কর্মীর কথা ধর্য্য সহকারে শুনেন এবং সকল নেতা কর্মীর পরামর্শক্রমে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন।


নিউইয়র্কে ‘বঙ্গবন্ধু স্মারক বক্তৃতা’ : জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রকৃত বিচার এখনও হয়নি

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে : ‘জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রকৃত বিচার এখনও হয়নি। যেটি হয়েছে, সেটিকে বলা যায় শেখ লুৎফর রহমানের পুত্র ব্যক্তি শেখ মুজিবের বিচার। কিন্তু জাতীয় নেতা হিসেবে বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের বিচার এখনও হয়নি। এজন্যে বৃহৎ আকারে তদন্ত হওয়া দরকার। পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টের নৃশংসতার নেপথ্যে কারা ছিল, কারা ষড়যন্ত্রে মদদ দিয়েছে, তাদের সকলের বিচার হওয়া দরকার। তাহলেই এমন ভয়ংকর বিপর্যয় এড়ানো সম্ভব হবে’-এমন অভিমত পোষণ করা হয় নিউইয়র্কে ‘বঙ্গবন্ধু স্মারক বক্তৃতা’ সমাবেশে। জাতিসংঘের জ্যেষ্ঠ অর্থনীতিবিদ ড. নজরুল ইসলাম প্রদান করেন এই বক্তৃতা।যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে গত ৫ বছর যাবত এই ‘বঙ্গবন্ধু স্মারক বক্তৃতা’ হচ্ছে। এটি ছিল পঞ্চম বক্তৃতা। ৯ সেপ্টেম্বর শনিবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে ‘জুইশ সেন্টার’ মিলনায়তনে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার প্রবাসীদের সমাবেশের শুরুতেই জাতিরজনক ‘বঙ্গবন্ধুর দ্বিতীয় বিপ্লব’ আলোকে দীর্ঘ পর্যবেক্ষণ ও গবেষণামূলক বক্তব্য উপস্থাপনের জন্যে ফুলেল শুভেচ্ছার মধ্য দিয়ে আমন্ত্রণ জানানো হয় ড. নজরুলকে। শুভেচ্ছা জ্ঞাপনকারিদের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ড. নূরন্নবী, সেক্রেটারি শিতাংশু গুহের সাথে ছিলেন খ্যাতনামা লেখক আনিসুল হক। শহীদ সাংবাদিক সিরাজুদ্দিন হোসেনের পুত্র ফাহিম রেজা নূর এবং সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের যুক্তরাষ্ট্র শাখার সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য শুভ রায়ও ছিলেন সেখানে।

alt

ইউনিভার্সিটি অব মস্কো থেকে অর্থনীতিতে মাস্টার্স করার পর যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি থেকে পিএইচডি করেন ড. নজরুল। স্মারক বক্তব্যের প্রারম্ভে তিনি বলেন, ‘১৯৮০ সালে মস্কোর থেকে বাংলাদেশে ফিরেই ‘জাসদ রাজনীতির নিকট বিশ্লেষণ’ নামক একটি গ্রন্থ লিখি, যা প্রকাশিত হয় ১৯৮১ সালে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার নেপথ্যে জাসদের অবস্থান নিয়ে নানা গুঞ্জন রয়েছে, সে সব নিয়ে পর্যালোচনা, বিশ্লেষণ করেছি ঐ গ্রন্থে। অতি সম্প্রতি আমার আরেকটি বই প্রকাশিত হয়েছে বাংলাদেশের রাজনীতি ও সুশাসন নিয়ে। এর আগে ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও বাংলাদেশের গ্রাম’ নামক আরেকটি গবেষণামূলক বই লিখেছি। আজকের বক্তব্যে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের গ্রাম নিয়েই মূলত: আলোকপাত করবো।’ড. নজরুল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন বাস্তবায়িত করতে পারলেই সত্যিকার অর্থে তাঁর প্রতি সম্মান জানানো সম্ভব। বঙ্গবন্ধু সোনার বাংলা গড়তে চেয়েছিলেন। দুখী মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে চেয়েছিলেন।’ ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত জীবনী’ এবং ‘কারাগারের রোজনামচা’ পড়লে বাঙালি জাতির অবিস্মরণীয় এই নেতা সম্পর্কে অনেক কিছ্ইু জানা সম্ভব।’

Picture

বাঙালি জাতির মহান নেতার প্রতিটি কর্মে স্বচ্ছ্বতা ও জবাবদিহিতার আলোকে ড. নজরুল বলেন, ‘বিশ্বের অনেক বিখ্যাত মানুষই নিজের কাজে আর্থিক সোর্স প্রকাশ করেননি। বঙ্গবন্ধু ছিলেন তার ব্যতিক্রম। প্রতিটি আন্দোলনে কে কীভাবে সহায়তা দিয়েছেন, তা প্রকাশ করেছেন। সহকর্মীরাও যাতে তার মত স্বচ্ছ্ব থাকেন, সে জন্যেই তিনি এমন সরল ছিলেন।’
ড. নজরুল বলেন, ‘১৯৭৫ সালের জানুয়ারি মাসে বঙ্গবন্ধু ‘দ্বিতীয় বিপ্লব’র ডাক দিয়েছিলেন। এই কর্মসূচির রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক, দুটি দিকই ছিল। অর্থনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে মূল যে নতুন কর্মসূচি বঙ্গবন্ধু ঘোষণা করেন, তা হলো প্রতিগ্রামে বাধ্যতামূলক সমবায় প্রতিষ্ঠা করা। কিন্তু ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা এবং ক্ষমতার হাত বদল হওয়ায় দ্বিতীয় বিপ্লব আর অগ্রসর হতে পারেনি। ফলে সমবায়-গ্রাম প্রতিষ্ঠার যে স্বপ্ন বঙ্গবন্ধু দেখেছিলেন তা অবাস্তবায়িত থেকে যায়। তারপর চার দশকের বেশী সময় অতিবাহিত হয়েছে। পদ্মা, মেঘনা, যমুনায় বহু পানি প্রবাহিত হয়েছে। বিশ্ব পরিস্থিতির নাটকিয় পরিবর্তন ঘটেছে। এত পরিবর্তনের পর আজো কী বঙ্গবন্ধুর সমবায়ী গ্রামের স্বপ্নের কোন প্রাসঙ্গিকতা এবং উপযোগিতা আছে? তাহলে তা কী? কীভাবে গ্রাম বিষয়ক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে যুগোপযোগী করে বাস্তবায়িত করা যেতে পারে?’

alt
ড. নজরুল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর সমবায়ী গ্রামের প্রস্তাবে দুটি দিক ছিল। একটি হলো যৌথচাষ। বঙ্গবন্ধু প্রস্তাব করেছিলেন, গ্রামের সকল জমিতে যৌথ চাষ হবে। দ্বিতীয়টি ছিল, গ্রামের সকলকে অন্তর্ভুক্ত করে একটি স্বয়ম্ভও প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো গড়ে তোলা। ‘গ্রাম তহবিল’ গঠন সংক্রান্ত বঙ্গবন্ধুর প্রস্তাবের মধ্য দিয়ে এই দিকটি বিশেষভাবে প্রকাশিত হয়েছিল।’
ড. নজরুল উল্লেখ করেন, ‘সমাজতন্ত্রের প্রতি বঙ্গবন্ধু তার নিজস্ব বিশ্বাস ও সে সময়কার সমাজতন্ত্রের আন্তর্জাতিক মডেল দ্বারা প্রভাবিত হয়েছিলেন। যদিও বঙ্গবন্ধুর সমবায় পুরোপুরি সমাজতন্ত্রের সমবায় ছিল না। সমাজতন্ত্রের সমবায়ে সাধারণত: জমির ওপর ব্যক্তি মালিকানা থাকতো না, ফলে নীট উৎপাদনের প্রায় পুরোটাই শ্রমের ভিত্তিতে বিতরণ হতো। বিপরীতে, বঙ্গবন্ধুর সমবায়ে জমির ওপর ব্যক্তি মালিকানা অক্ষুন্ন ছিল। ফসলের ৩ ভাগ হওয়ার কথা ছিল। একভাগ জমির মালিকানা ভিত্তিতে, একভাগ শ্রমের ভিত্তিতে এবং আরেক ভাগ ‘গ্রাম তহবিল’র জন্যে। এই তহবিল দ্বারা গ্রামের কল্যাণমুখী বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালিত হবার কথা।’ড. নজরুল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জিয়াউর রহমান গ্রাম সরকার চালু করেছিলেন। কিন্তু সেটি বিলুপ্ত করেছেন আরেক সেনাশাসক এরশাদ। এরপর খালেদা জিয়া এসে শুধু বাগাড়ম্বর করেছেন। কাজের কাজ কিছুই করেননি।’
‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা রচনায় আজকের প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধ করতে দরকার বঙ্গবন্ধুর জীবনী পাঠ করা। তাহলেই আধুনিক চিন্তা-চেতনার মানুষেরা গরিবী হঠানোর চলমান কার্যক্রমে বঙ্গবন্ধুর উপস্থিতি অনুধাবনে সক্ষম হবেন’-মন্তব্য ড. নজরুলের। আগের ‘বঙ্গবন্ধু স্মারক বক্তৃতা’য় অংশ নেন সাংবাদিক ও মানবাধিকার নেতা শাহরিয়ার কবীর, অধ্যাপক ড. মুনতাসির মামুন, টিভি ব্যক্তিত্ব বেলাল বেগ, কাজী সাজ্জাদ জহীর বীর প্রতিক।


শেখ হাসিনা ৬৭ সদস্যের টিম নিয়ে আসছেন : জাতিসংঘের ৭২তম অধিবেশন শুরু

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন, বাপসনিউজ, নিউইয়র্ক থেকে : জাতিসংঘের চলতি ৭২তম সাধারণ অধিবেশনের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মিরোস্ল্যাভ ল্যাজকাকের (Miroslav Lajčák) হাতে হাতুড়ি (গ্যাভেল) হস্তান্তরের মাধ্যমে বিদায় নিলেন ৭১তম অধিবেশনের সভাপতি পিটার থমসন (Peter Thomson)। ১১ সেপ্টেম্বর সোমবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দফতরে অনাড়ম্বর এক অনুষ্ঠানে ‘টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য’ তথা এসডিজি (Sustainable Development Goals (SDG).) বাস্তবায়িত করতে যথাসাধ্য মনোযোগী হবার সংকল্প ব্যক্ত করার মধ্য দিয়ে দায়িত্ব হস্তান্তরের এ প্রক্রিয়ার সমন্বয় করেন মহাসচিব অ্যান্তোনিয়ো গুটিরেজ (Secretary-General António Guterres)। ১২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার শুরু হচ্ছে ৭২তম সাধারণ অধিবেশন। বিদায়ী ভাষণে পিটার থমসন তার এক বছর মেয়াদি দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনে কতটা সফল হয়েছেন, তার আলোকপাতকালে বলেন, ‘টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনের স্বার্থে পরিবর্তনশীল বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলার মানসিকতা রাখতে হবে। সকলকেই পরস্পরের সহযোগী হয়ে কাজ করতে হবে। বিশেষ করে জলবায়ু পরিবর্তনের যে আশংকা করা হচ্ছে, তা থেকে বিশ্বকে রক্ষায় সকলকে একযোগে কাজ করার বিকল্প নেই।’ ‘এসডিজি অর্জনের পথ সুগম করতেই উদ্ভাবনী মেধাকে গুরুত্ব দিতে হবে, তথ্য-প্রযুক্তির শতভাগ ব্যবহার নিশ্চিত করে জলবায়ুকে মানব-উপযোগী রাখতে হবে’-উল্লেখ করেন পিটার থমসন। পিটার বলেন, ‘এটা বলতে দ্বিধা নেই যে, প্রযুক্তির প্রসার ঘটছে প্রতিনিয়ত, তাই আমাদেরকে সচেতন থাকতে হবে এর ভয়াবহতা এবং অপব্যবহার সম্পর্কে। মানবতার কল্যাণকর সকল কাজে ব্যবহার করতে হবে প্রযুক্তিকে।’
পিটার থমসন আরো জানান, ‘এসডিজি কেন বাস্তবায়ন করা জরুরী সে ব্যাখ্যা দিয়ে বিশ্বের খ্যাতনামা ৪ হাজার বিশ্ববিদ্যালয়ে চিঠি দিয়েছি এসডিজিকে পাঠ্য করার অনুরোধ জানিয়ে।’
‘পরিবেশ সুরক্ষায় আমরা যদি যতœবান না হই, তাহলে আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মকেই ঠকিয়ে যাবো, ভয়ংকর বিপদের মধ্যে নিপতিত করবো নাতি-পুতিদের’-বলেন পিটার থমসন।
এ সময় প্রদত্ত বক্তব্যে মহাসচিব অ্যান্তোনিয়ো পিটার থমসনের প্রশংসা করে বলেন, ‘উদ্বাস্তু এবং অভিবাসন, স্বল্পোন্নত রাষ্ট্রে প্রযুক্তি ব্যাংক স্থাপন, সাগর-মহাসাগর রক্ষা ইত্যাদি প্রক্রিয়া অবলম্বনের মধ্য দিয়ে ৭১তম অধিবেশন স্মরণীয় হয়ে থাকবে মানবতার ইতিহাসে এবং এজন্যে বিশেষভাবে প্রশংসার দাবি রাখেন বিদায়ী সভাপতি।
৯/১১ এর সন্ত্রাসী হামলার দিন ছিল আজ, সেই জঘন্যতম হামলার ভিকটিমদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা প্রদর্শন করে মহাসচিব আরো বলেন, ‘ঐক্যের যে আকুতি, তা এখন সকলেই উপলব্ধি করতে পারি।’
হাতুড়ি গ্রহণের পরই ১২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার অপরাহ্ন থেকে ৭২তম অধিবেশন শুরু করছেন নতুন প্রেসিডেন্ট এবং এই অধিবেশনের স্লোগান হচ্ছে, ‘টেকসই বিশ্বে শান্তি ও মর্যাদার সাথে বসবাসের প্রত্যাশা পূরণে মনোযোগী হউন ((‘Focusing on People: Striving for Peace and a Decent Life for All on a Sustainable Planet’. )। এই অধিবেশনে বাংলায় বাংলাদেশের বক্তব্য উপস্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার অপরাহ্নে এ বক্তব্য প্রদানের পরই নিউইয়র্কে বাংলাদেশ মিশনের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে মিডিয়ার মুখোমুখী হবেন প্রধানমন্ত্রী।
৬৭ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতা হিসেবে শেখ হাসিনা নিউইয়র্কে আসছেন ১৭ সেপ্টেম্বর রোববার। প্রধানমন্ত্রীর একমাত্র পুত্র ও আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা তথা ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’র রূপকার সজীব ওয়াজেদ জয়, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, নারী ও শিশু প্রতিমন্ত্রীসহ বেশ ক’জন এমপি ও দলীয় নেতা রয়েছেন এ টিমে।
মিডিয়া ব্যক্তিত্ব হিসেবে রয়েছেন ডেইলি অবজার্ভারের অনলাইন এডিটর কাজী আব্দুল হান্নান, দৈনিক সমকালের সিটি এডিটর শাহেদ হোসাইন চৌধুরী এবং কুষ্টিয়ার দৈনিক আর্শিনগর সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম বিপ্লব। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে মিডিয়া টিমের সদস্য হিসেবে রয়েছেন প্রেস সেক্রেটারি ইহসানুল করিম, ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি নজরুল ইসলাম, সহকারি প্রেস সেক্রেটারি আশরাফ সিদ্দিকী, বাংলাদেশ বেতারের ডেপুটি কন্ট্রোলার সিরাজুল ইসলাম খান, বিটিভির নির্বাহী প্রযোজক (নিউজ) সাখাওয়াত মুন, বাসসের স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট অনুপ কুমার খাস্তগীর, ইউএনবির সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট ফাহাদ ফেরদৌস, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট রিয়াজুল বাশার, বাংলা নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের স্টাফ করেসপন্ডেন্ট মহিউদ্দিন মাহমুদ, বিটিভির সিনিয়র ক্যামেরাম্যান রকিবুল ইসলাম, বাসসের সিনিয়র ফটো-সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম কল্লোল, প্রেস ইনফরমেশন ডিপার্টমেন্টের অফিসিয়াল ফটোগ্রাফার এবিএম আকতারুজ্জামান এবং চলচ্চিত্র ও প্রকাশণা দফতরের অফিসিয়াল ক্যামেরাম্যান ইউসুফ হোসেন।