Slideshows

ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার
ব্যানার

পরিচালনা পরিষদ 

সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি

ওসমান গনি
 

প্রধান সম্পাদক

হাকিকুল ইসলাম খোকন
 

সম্পাদক

সুহাস বড়ুয়া হাসু
 

সহযোগী সম্পাদক

আয়েশা আকতার রুবী

যুক্তরাষ্ট্রের খবর

এবারও শেখ হাসিনার জন্মদিন পালিত হবে ভার্জিনিয়ায়

বৃহস্পতিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:গত কয়েক বছরের ন্যায় এবারও যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ায় পালন করা হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ায় ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের বাসায় ঘনিষ্ঠজনদের সঙ্গে জন্মদিন পালন করবেন তিনি।

Picture

প্রধানমন্ত্রী তার জন্মদিন উপলক্ষে স্থানীয় সময় বুধবার সন্ধ্যায় ভার্জিনিয়ার স্প্রিংফিল্ডের একটি রেস্তোরাঁয় স্থানীয় দলীয় নেতাকর্মীদের এক যৌথ প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুন নবী বাকীর সঞ্চালনায় সভায় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন পালনের বিষয়টি বেশি গুরুত্ব পায়। ওইদিন সন্ধ্যায় স্থানীয় মেট্রো ওয়াশিংটন, ভার্জিনিয়া ও ম্যারিল্যান্ড স্টেট আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জাতিসংঘের ৭২তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিউ ইয়র্কে আসছেন। ১৪ দিনের যুক্তরাষ্ট্র সফরে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে দেবেন তিনি। ২১ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টায় তিনি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ভাষণ দেবেন। এর মধ্যে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। এ ছাড়া বিভিন্ন দেশের সরকার ও রাষ্ট্র প্রধানদের সঙ্গেও দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।


নিউইয়র্কে ফেঞ্চুগঞ্জ অর্গেনাইজেশন অব আমেরিকার বনভোজন ও ঈদ পূনর্মিলনী

বৃহস্পতিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭

Picture

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:নিউইয়র্ক (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে : নিউইয়র্কে আনন্দঘন ও উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ফেঞ্চুগঞ্জ অর্গেনাইজেশন অব আমেরিকার বার্ষিক বনভোজন ও ঈদ পূনর্মিলনী। গত ৩ সেপ্টেম্বর রোববার নিউইয়র্ক সিটির অদূরে লং আইল্যান্ডের সানকিন স্টেট পার্কে দারুণভাবে জমে উঠেছিল এ বনভোজন। বৈরী আবহাওয়াকে উপেক্ষা  করে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ফেঞ্চুগঞ্জ অর্গেনাইজেশন অব আমেরিকার সদস্য ও তাদের স্বজনরা পার্কের খোলা মাঠে খেলাধুলাসহ নানান আনন্দ উপভোগ করেন। পার্কটি হয়ে উঠে প্রবাসী ফেঞ্চুগঞ্জবাসীর মিলন কেন্দ্রে। সকালের বৃষ্টি

alt

উপেক্ষা করে নিউইয়র্ক, নিউজার্সি থেকে বাস ও প্রাইভেট কারযোগে বিপুলসংখ্যক প্রবাসী পার্কে সমবেত হন।সময়ের সাথে সাথে বনভোজনে বাড়তে থাকে প্রবাসীদের উপস্থিতি। ফিলাডেলফিয়া ও মিশিগান থেকেও বিপুল সংখ্যক ফেঞ্চুগঞ্জবাসী যোগদান করেন। দুপুরে বৃষ্টির পর মৃদু সূর্য্যরে তাপ আর নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক দৃশ্য

alt

সকলকে আনন্দে উদ্বেলিত করে। দিনব্যাপি কর্মসূচীর মধ্যে ছিল খেলাধুলা-আড্ডা, ভুরিভোজ, চা-নাস্তা, পুরস্কার বিতরনী ও আকর্ষনীয় র‌্যাফেল ড্র। এছাড়াও নাদির খানের সৌজন্যে সংগঠনের লগো সংযুক্ত টি-শার্ট উপস্থিত

alt

সকলের মধ্যে ফ্রি বিতরন করা হয়। দুপুরে বাংলা গার্ডেন রেষ্টুরেন্টের ব্যবস্থাপনায় মধ্যাহ্নভোজ পরিবেশন করা হয়। পড়ন্ত বিকেলে সকলকে চা নাস্তাও পরিবেশন করা হয়।alt

দিনের শেষে পুরস্কার বিতরনী ও র‌্যাফেল ড্র সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো: শামীম মিয়ার পরিচালনায় এবং সভাপতি আবদুস শহীদ দুদুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আবদুর রব দলা মিয়া, গোলাম মো: টেপন, মুক্তিযোদ্ধা আ: বাসিত চৌধুরী, আ: রউফ মছরু, মো. ইরা মিয়া, সালেহ আহমেদ, কবির alt

খান, জুনেদ আহমদ চৌধুরী, আবদুল হাসিম হাসনু, মাহবুব আলম, আবদুল মুছাব্বির, মুক্তাদির চৌধুরী, মনোহর আলী, আজমল আলী, আহবাব চৌধুরী খোকন, কাওসারুজ্জামান কয়েস, হুসেন আহমদ, মো: সেলিম আহমদ, সজল আলী, বাবুল মিয়া, জুবের আহমদ রিপন, সেলিম মিয়া, মো: মানিক মিয়া, আবুল লেইছ, রফিকুল ইসলাম, জাহেদ আহমদ চৌধুরী, আ: কাদির চৌধুরী ডিজু, টিপু সুলতান, হেলাল আহমদ, লোকমান হুসেন লুকু, শাহ বদরুজ্জামান রুহেল, সামাদ মিয়া জাকের, লুৎফুর হোসেন আজাদ প্রমুখ।alt

শেষে খেলাধুলায় অংশগ্রহণকারি এবং র‌্যাফেল ড্র বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরনের মধ্য দিয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় অনুষ্ঠান শেষ হয়। র‌্যাফল ড্র বিজয়ীরা পান আর্কষণীয় পুরস্কার। অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে সংগঠনের কর্মকর্তারা বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

alt

খেলাধুলার বিভিন্ন ইভেন্টে পুরস্কার বিজয়ীরা হলেন, ৫-৬ বছর বালক : নওয়াজ, আছিম, ফারহান, ৫-৬ বছর বালিকা: সিনহা, নাবিলা, তাসফিয়া, ৭-৯ বছর বালক : ফায়াদ, তাছিন, ইমান, ৭-৯ বছর বালিকা: সাদিয়া চৌধুরী, ফাতিমা জান্নাত, মাহিয়া, ১০-১২ বছর বালক : মুবিন, আইমান, তাসিন, ১০-১২ বছর বালিকা : তুলি বেগম, সামিহা, উম্মি ও সাদিয়া, ১৩-১৬ বছর বালক রাহাত, রাহিমুল, মাহিন, ১৩-১৭ বছর বালিকা : আফসানা, জেরিন, তাহেরা, যুবকদের দৌড়ে তুহিন, রোবেজ, মুহিন এবং যুবতীদের দৌড়ে নাজমুন নাহার, সালমা, সুলি ও জেলী। ছোট

alt

বাচ্চাদের মধ্যে স্পেসাল ইভেন্টে মুছা, হাছিন, ফাহাদ, ফাতিমা, তাহিয়া, আকিদা পুরস্কার লাভ করে। মহিলাদের মার্বেল দৌড়ে আফসানা, তানহা ও সালমা। দিনের কর্মসূচীর সবচেয়ে আকর্ষনীয় ইভেন্ট মহিলাদের পিলোতে সামিহা, মোছাম্মৎ বেগম ও সানতা পুরস্কার লাভ করেন।উল্লেখ্য, বার্ষিক বনভোজনে ফেঞ্চুগঞ্জের মুরব্বী আ: রব দলা মিয়া ২টি বাস স্পন্সার করেন। এছাড়াও সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক জুনেদ আহমদ চৌধুরী, সাবেক সভাপতি আবদুল হাসিম হাসনু, প্রতিষ্ঠাতা যুগ্ম আহ্বায়ক মাহবুব

alt

আলম, প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সচিব আহবাব হোসেন চৌধুরী খোকন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক হুসেন আহমদ, প্রতিষ্ঠাতা কর্মকর্তা রেহানুজ্জামান, কাওসারুজ্জামান কয়েস ও জয়নাল আবেদীন এবং বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আ: কাদির রাজন বনভোজন ও ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে বিশেষভাবে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেন।alt

র‌্যাফেল ড্র স্পন্সার করেন ১ম পুরস্কার ৪০ ইঞ্চি টিভি কবির খান, ২য় পুরস্কার ল্যাপটপ ষ্টারলিং ফার্মেসীর মো: আলী, ৩য় পুরস্কার (৪টি টেবলেট) টিপু সুলতান ১টি, এলুমিয়া ১টি, সোহেল আহমদ ১টি, সিপার এয়ার সার্ভিস এর সাবের চৌধুরী ও জাহেদ আহমদ ১টি এবং মাইক্রোওভেন আরওয়ার মুর্শেদ।alt

অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন বুরহান উদ্দিন, সেবুল মিয়া, সাহিদ আলী, মোহাম্মদ রানা, ইসকন্দর আলী, আ: মালিক দুলু, মো: আলী রাজা, মুশাহীদ, পটল, লিপন প্রমুখ।alt

সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বনভোজন সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনের জন্য স্পন্সার, আর্থিক সহযোগিতা প্রদানকারীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।


শেখ হাসিনার জাতিসংঘ সফরের সমর্থনে নিউইয়র্কে প্রবাসীদের ঐক্য

বৃহস্পতিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বাপ্ নিউজ : নিউইয়র্ক থেকে : শেখ হাসিনার জাতিসংঘ সফর সাফল্যমন্ডিত করার সংকল্প ব্যক্ত করলেন আওয়ামী পরিবার ছাড়াও নিউইয়র্কের বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক-পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। একইসাথে, এই সফরের সময়ে বিএনপি-জামাত-শিবিরের যে কোন অপতৎপরতাকে আইনী প্রক্রিয়ায় রুখে দেয়ারও প্রত্যয় ব্যক্ত করলেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত প্রবাসীরা। মতবিনিময় সমাবেশের নেতৃবৃন্দ বিশেষভাবে উল্লেখ করেন, ‘শেখ হাসিনা হচ্ছেন বাংলাদেশের নেতা। বিশেষ কোন দল বা গোষ্ঠির নেতা নন। তাই তাকে সম্মান জানানোর মধ্য দিয়ে মূলত: প্রিয় মাতৃভূমির ইমেজকেই মহিমান্বিত করা হবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে।’

১৭ সেপ্টেম্বর অপরাহ্ন সোয়া ৪টায় সফরসঙ্গিসহ ইত্তেহাদ এয়ারলাইন্সে জেএফকে এয়ারপোর্টে অবতরণ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ তথ্য জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘আগের মত এবারও শত শত প্রবাসীর সমাগম ঘটবে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে এয়ারপোর্টে প্রাণঢালা অভ্যর্থনা জ্ঞাপনের জন্যে। এজন্যে আমরা এয়ারপোর্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে রেখেছি।’

‘১৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বিশ্বখ্যাত টাইমস স্কোয়ারের মেরিয়ট মারকুইস হোটেলের সুপরিসর বলরুমে ৩ বারের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গণসংবর্ধনা প্রদান করা হবে। এই সংবর্ধনা সমাবেশকে এ যাবতকালের সেরা একটি সমাবেশে পরিণত করতে সকল প্রবাসীকে একযোগে কাজ করতে হবে’-আহবান ড. সিদ্দিকের।

Picture

৩ সেপ্টেম্বর রোববার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে মেজবান পার্টি হলে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ডাকে সর্বস্তরের প্রবাসীদের এ মতবিনিময় সমাবেশে স্বাগত বক্তব্যে ড. সিদ্দিকুর রহমান আরো বলেন, ‘২১ সেপ্টেম্বর অপরাহ্নে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলায় বক্তব্য উপস্থাপনের সময় বাইরে আমরা শান্তি সমাবেশ করবো। সারাবিশ্বকে জানিয়ে দেব যে, শেখ হাসিনা বিশ্বশান্তির ক্ষেত্রে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছেন, দারিদ্র-বিমোচন তথা উন্নয়নে সমগ্র জনগোষ্ঠিকে একিভ’ত করার ক্ষেত্রেও বিশ্বে অনেকের অনুসরনীয় হয়ে উঠেছেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা। এ শান্তি সমাবেশ সফল করার জন্যে এখন থেকে সকলকে টাউন হল মিটিং শুরু করতে হবে।’

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের সঞ্চালনায় এ সমাবেশে নেতৃবৃন্দের মধ্যে ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আকতার হোসেন, মাহবুবুর রহমান, সৈয়দ বসারত আলী, আবুল কাশেম এবং লুৎফুল করিম, যুগ্ম সম্পাদক আইরিন পারভিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ ফারুক আহমেদ, মহিউদ্দিন দেওয়ান, আব্দুর রহিম বাদশা, চন্দন দত্ত, প্রচার সম্পাদক হাজী এনাম, শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক ফরিদ আলম, মানবাধিকার সম্পাদক মিসবাহ আহমেদ, শিক্ষা সম্পাদক এম এ করিম জাহাঙ্গির, আন্তর্জাতিক সম্পাদক দেওয়ান বজলু, উপ-প্রচার সম্পাদক তৈয়বুর রহমান টনি, উপ-দপ্তর সম্পাদক এম এ মালেক, কোষাধ্যক্ষ মনসুর খান, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকারিয়া চৌধুরী এবং সাধারণ সম্পাদক ইমদাদ চৌধুরী, স্টেট আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি শাহীন আজমল, যুক্তরাষ্ট্র জাসদের সভাপতি আব্দুল মোসাব্বির, সেক্রেটারি নূরে আলম জিকু, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, উত্তর আমেরিকার সভাপতি মিথুন আহমেদ, বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ, যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা সংসদের আহবায়ক ড. এম এ বাতেন, বাংলাদেশী আমেরিকান ডেমক্র্যাটিক লীগের প্রেসিডেন্ট খোরশেদ খন্দকার, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের আহবায়ক তারেকুল হায়দার চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নুরুজ্জামান সর্দার, সেক্রেটারি সুবল দেবনাথ, মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী মমতাজ শাহানা, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা এম এ জলিল, ডা. মাসুদুল হাসান, ড. প্রদীপ রঞ্জন কর এবং হাকিকুল ইসলাম খোকন, আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য শাহানারা রহমান প্রমুখ।

শেখ হাসিনার আগমন উপলক্ষে এ প্রস্তুতি সভায় ব্যাপক উপস্থিতির মধ্য দিয়ে প্রকারান্তরে যুক্তরাষ্ট্রে আওয়ামী পরিবারের ঐক্য সুসংহত হলো বলে অনেকে মনে করছেন। ২২ সেপ্টেম্বর শেখ হাসিনা নিউইয়র্ক থেকে ওয়াশিংটন ডিসিতে যাবেন বলেও এই সমাবেশকে অবহিত করেন ড. সিদ্দিক। তিনি বলেন, ‘২৮ সেপ্টেম্বর বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার জন্মদিন। সে আলোকে ভার্জিনিয়ায় ব্যাপক আয়োজনে আরেকটি সমাবেশ হবে। সেটিকেও সফল করতে মেট্র ওয়াশিংটন এলাকার প্রবাসীদের পাশে থাকতে হবে আমাদের সকলকে।’

এদিকে, জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি (প্রেস) নূরএলাহি মিনা এ সংবাদদাতাকে জানান, ২১ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে বক্তব্য উপস্থাপনের পরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিউইয়র্কের মিডিয়া-কর্মীদের সাথে মিলিত হবেন। মিশনের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠান হবে। উল্লেখ্য, শেখ হাসিনা যতবারই জাতিসংঘে এসেছেন, প্রত্যেকবারই মিডিয়ার সাথে তার সফরের আলোকে মতবিনিময় করেছেন।


উই নেভার ফরগেট ৯/১১ ট্রাজেডি

বৃহস্পতিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:ঐতিহাসিক ৯/১১ ট্রাজেডিকে স্মরণ করার মধ্য দিয়ে হতাহত পরিবারের প্রতি সমাবেদনাসহ শ্রদ্ধা জানানোর মধ্যে আজ সারা বিশ্বে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, হেইট ক্রাইম, গণহত্যা, মায়ানমারে চলমান গণহত্যা বন্ধ করে গণ মানুসের অধিকার সুনিশ্চিত করার লক্ষ্যে আগামী ১১ই সেপ্টেম্বর রোজ সোমবার সময় বিকাল ৭ঃ৩০ মিনিটে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটস্থ খাবার বাড়ীর সম্মুখে প্রদীপ শিখা নিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাসহ বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করতে যাচ্ছি।
যুক্তরাষ্ট্রস্থ সকল ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ার সম্মানিত প্রতিনিধি, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকে উক্ত সমাবেশে অংশগ্রহণের জন্য উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।


প্যাটারসনে সুনামগঞ্জ জেলা জন কল্যাণ সমিতি শোকসভা ও দোয়া মাহফিল

বৃহস্পতিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বিশ্বজিৎ দে বাবলু , বাপসনিঊজ।। নিউজার্সির প্যাটারসনে সদ্য প্রয়াত সুনামগঞ্জ জেলা জন কল্যাণ সমিতির সাবেক উপদেষ্টা নিউজার্সি প্রবাসী মরহুম আহমদ আলী লাল মিয়া, মরহুম মহমুদ আলী, সাধারণ সম্পাদক  সাঈদুর রহমানের বড় বোন মরহুমা সালেহা খাতুন, সাবেক কোষাদক্ষ ইছহাক মিয়ার মাতা মরহুমা মনখুস বেগম, সমিতির সদস্য খালেদুল গনির দাদী মরহুমা আরিফা বেগম, সমিতির সদস্য এমদাদুল ইসলামের বড় ভাই মরহুম  তাজুল ইসলাম, ও মনপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়াম্যান ময়লুছ মিয়ার কন্যার স্বরনে সুনামগঞ্জ জেলা জন কল্যাণ সমিতির  শোকসভা ও দোয়া  মাহফিল অনুষ্ঠিত।  

গত ২৭ আগষ্ট ইউনিয়ন এভিনিউর বেঙ্গল ইন্সুরেন্স এজেন্সির হলরুমে অনুষ্ঠিত ওই  শোকসভা ও দোয়া মাহফিলটি পরিচালনা করেন মসজিদ আল-ফেরদৌসের খতিব   হাফেজ মাওলানা আব্দুল কুদ্দুছ মঞ্জলালী।এসময় অন্যানদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোশারফ আলম, গীয়াস উদ্দীন আহমেদ,ছমির উদ্দীন ,হোসেন পাঠান বাচ্ছু,  রেজাউল করিম চৌধুরী, সাঈদুর রহমান, রকিবুল হাসান রিপন, মশাহীদ আলী, হেলানা আলী, আব্দুল মুকিত, হাফিজুর রহমন, জাফরান কসুম, জামাল আহমেদ, লিমন মিয়া ,ইছহাক আলী, আব্দুল মালিক চুন্নু, শামীম আহমেদ, মিছবাহ, সৈয়দ আলী, এনায়েত করিম খোকাসহ সুনামগঞ্জ জেলা জন কল্যাণ সমিতির বর্তমান ও সাবেক কার্যকরী কমিটির সদস্যসহ নিউজার্সি প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিভিন্ন রাজনৈতিক ,সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয় ও  পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের পাশাপাশি মরহুম ও মরহুমাদের পরিবারর সদস্যরা।


আমেরিকায় হযরত বাবা ভান্ডারীর ওরশ অনুষ্ঠিত

বৃহস্পতিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:গত ১২ ই অক্টোবর ,শনিবার ব্রুকলীনের গাউছুল আজম হযরত মাওলানা গোলামুর রহমান মাইজভান্ডারী (কঃ) বাবা ভান্ডারী খোজরোশ শরীফ এবং বিশ্ব অলি শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভান্ডারী (কঃ) বার্ষিক ওরশ মোবারক অনুষ্ঠিত হয়।

 ছবি:বাপসনিঊজ
বিশ্ব অলি শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হকহ মাইজভান্ডারী (কঃ) এর আশেকানদের সংগঠন “মাইজভান্ডারী গাউছিয়া হক কমিটি” আমেরিকা শাখার উদ্যোগে ১২ অক্টোবর বাদ মাগরিব গাউছুল আজম হযরত শাহ্ ছুপি সৈয়দ মাওলানা গোলামুর রহমান মাইজাভান্ডারী (কঃ) বাবা ভান্ডারী খোজরোশ শরীফ এবং বিশ্ব অলি শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভান্ডারী (কঃ) এর বার্ষিক ওরশ মোবারক সংগঠন এর সভাপতি আলহাজ্ব সাইদুর রহমান দস্তগীর এর ব্রুকলীনে ১০৬ দাহিল রোডে উদ্যাপন করা হয়। অনুষ্ঠান মালার মধ্যে ছিল আলোচনা সভা, মিলাদ মাহফিল, হালকায়ে ঝিকির ও তবরুক বিতরণ।খবর বাপসনিঊজ.  মিলাদ মাহফিল পরিচালনা করেন গাউছিয়া মসজিদের খতিব মাওলানা জালাল সিদ্দিকী এবং তিনি  তফসিরে রুহুল বয়ান থেকে উদ্ধৃত করে বলেন, “নিশ্চয় আম্বিয়া এবং আউলিয়াগণের জীবন হাকিকতের মধ্যে (প্রকৃত পক্ষে) অবিনশ্বর এবং তাদের অমর জীবনকে জাহেরী মউত বিনষ্ট করতে পারে না। কেননা জাহেরী মাউত রুহের  বিচ্ছিন্নতার দ্বারা  শরীফের উপর সংগঠিত হয়ে থাকে। (প্রকৃত পক্ষে রহু দেহ হতে পৃথক করার নামই মউত) যেহেতু তাদের দেহকে মাটি ভক্ষন করেন না, সুতরাং তারা স্বশরীরে জীবিতদের ন্যায়। মাইজভান্ডারী দরবার শরীফের বাবা ভান্ডারী এমন এক মহান অলি যার হায়াত জীবনেও এং তার পরবর্তীতেও হাজারো মানুষ ছুটে আসতেন তার দরবারে তাদের জীবনে নানাবিধ সমস্যা সমাধান নিমিত্তে। সুতরাং হযরত বাবা ভান্ডারীর আদর্শে আমাদেরকে উজ্জীবিত হতে হবে। মিলাদ শেষে দেশের ও প্রবাসী ভাইবোনদের মঙ্গল কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।
অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ছিল আলোচনা সভা। অধ্যাপক সাইদুর রহমান দস্তগীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অংশগ্রহন করেন, প্রকৌশলী শামসুল আলম,  কাজী মুনির, মোঃ আকতার। বক্তাগণ বাবা ভান্ডারীর শান ও কেরামতের উপর এক হৃদয়গ্রাহী আলোচনা করেন। সভাপতির ভাষনে অধ্যাপক সাইদুর রহমান দস্তগীর বলেন, বাবাভান্ডারী  সর্বক্ষণ  নিমগ্ন থাকতেন সালাত ও সিয়ামের মধ্যে। নফল ইবাদত ও কঠোর রিয়াজতের মাধ্যমে তিনি নিজেকে গড়ে তুলেছেন একজন মহান অলি কুতুবুল আকতার রুপে। তিনি ছিলেন জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকল অসহায়ের সহায়, সকলের মঙ্গল সাধনাকারী ও হিতাকাঙ্খী। বিশ্ব অলী শাহেন শাহ সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভান্ডারী (কঃ) হলেন হযর গাউছুল আজম মাইজভান্ডারী (কঃ) কর্তৃক প্রবর্তিত প্রসিদ্ধ মুক্ত বেলায়তের মুক্তির সপ্তম পদ্ধতির অন্যতম ধারক ও বাহক। নির্যাতিত নিপিড়ীত লাঞ্চিত মানুষের জন্য ছিল তার সীমাহীন দরদ ও মমত্ববোধ। শুধু মানুষ নয় বিশাল সৃষ্টিরাজী, পশু পাখী কীট পতঙ্গ কুৎসিৎ পেচা সব কিছুর প্রতি ছিল তার অন্যন্য ভালবাসা।  তার পবিত্র কদম শরীফে তাজিমে সজিদা পেশের মাধ্যমে এই আরাধনা জানাই যেন বাবা জানের নজর করম আমাদের উপর বিদ্যমান থাকে।  
হালকায়ে জিকির অনুষ্ঠানে আধ্যত্মিক ও মাইজভান্ডারী সংগীত পরিবেশন করেন খাইরুল বশর, মোঃ ইদ্রীস ও মোঃ আইয়ুব। মিলাদ শেষে সবার মধ্যে তবরুক বিতরন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, অধ্যাপক আবুল কালাম চৌধুরী, কাজী শাখাওয়াত হোসেন আজম, অধ্যাপক জাফর ইকবাল খান, প্রকৌশলী মোঃ শেখ খালেদ, ইঞ্জিঃ শামসুর আলম খান, ইঞ্জি আবু তাহের, হাবীবুর রহমান চৌধুরী, মোঃ বাদল, মোঃ রফিক, মোহাম্মদ ইসমাইল, ইমরুল কায়ছার, মোঃ ইউছুপসহ আরও অনেকে। এছাড়া বহুসংখ্যক মহিলা উপস্থিত ছিলেন।


যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ৪০ হাজার বাংলাদেশী বহিষ্কারের ঝূঁকিতে

বৃহস্পতিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বাপ্ নিউজ : যুক্তরাষ্ট্রে অবৈধভাবে প্রবেশ করা শিশু কিশোরদের বৈধতার সুযোগ দেয়ার এক সিদ্ধান্ত বাতিলের কারণে যে আট থেকে নয় লাখ অভিবাসী বহিষ্কার হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে। তার মধ্যে হাজার হাজার বাংলাদেশীও রয়েছেন। অভিবাসীদের স্বার্থ রক্ষায় কাজ করে নিউইয়র্ক ভিত্তিক সংস্থা ডিআরইউএ বা ড্রাম। ড্রাম বলছে ওবামার দেয়া কর্মসূচি বাতিলের ফলে প্রায় ৪০ হাজার বাংলাদেশী ঝূঁকিতে পড়েছেন।

বাংলাদেশের নাইম ইসলাম, যিনি ৯ বছর বয়সে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন এরপর থেকে ১৬ বছর ধরে আছেন নিউইয়র্কে। ‘ডাকা’ কর্মসূচির সুযোগে ৫ বছর আগে বৈধতা পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এই কর্মসুচি বাতিলের পর বহিষ্কারের ঝুঁকিতে আছেন নাইম ইসলামও

নাইম ইসলাম বলেন, এই দেশে যাদের ডাটা আছে তারা এক বছর বা দুই বছর তার পরে তারা আর কাজ করতে পারবে না। আর আমার মতো যারা ছোট থাকতেই এ দেশে এসেছে তারা কাগজ পত্র ছাড়াই কাজ করতে পারবে। যাদের কাগজ পত্র নাই তাদের মালিকরা যাই দেয় তাদের সেটাই নিতে হয়। কারণ তাদের কোন বৈধতার কাগজ পত্র নাই।

বাংলাদেশে আসা সম্ভব নাকি সম্ভব না? এর জবাবে তিনি বলেন, আসা সম্ভব আবার সম্ভব না, কারণ আমি এখানে বড় হয়েছি এখানেই আমি পড়াশোনা করেছি এখানে আমার পরিবার আছে আর বাংলাদেশের যে সংস্কার সংস্কৃতি সেটাতে এখন মানিয়ে নিতে পারবো না। আর আমি যা জানি সব কিছুই এই দেশের সেটা বাংলাদেশের জন্যে মানানসই না। বাংলাদেশে যদি চলে যাই সেটা কোন অপশন না। আমাদের একমাত্র পথ হচ্ছে সবার সাথে মিলে কিভাবে কি করা যায়, কোন আইন পাওয়া যায় কিনা, আমাদের জন্যে কাগজ পত্র দেয়ার জন্যে।

আপনার মতো যারা আছেন তারা এখন কি করছে?

জবাবে তিনি বলেন, আমার মতো যারা এখানে আছে তারা কাজ করছে পরিবার চালাচ্ছে। তাদের মধ্যে অনেক দুচিন্তা কাজ করছে অনেক ভয়ে আছে। তারা কিভাবে থাকবে কিভাবে কাজ করবে সেগুলো নিয়ে। কিন্তু আমাদের ভয়ে থাকলে হবে না, আবার যদি বসে থাকি সেটাও হবে না। আমাদের আগে থেকেই কিছু করতে হবে। এদেশে রাজনিতিবিদের কাছে জানান দিতে হবে আমাদের পাওনা।

কমিনিউটির ভেতরে যে সব উকিলরা আছে তারা বলে আমাকে ১ হাজার ২ হাজার টাকা দাও আমি তোমাদের কাগজ পত্র সব ঠিক করে দিব কিন্তু তারা কিছুই করে না। আমরা যে সমস্যায় পরেছি তারা সেই সুযোগটা নিচ্ছে, সেটা ভুল তারা শুধূই টাকা নিতেছে তারা কিছুই করবে না এ বিষয়ে মানুষকে সচেতন হতে হবে। সূত্র : বিবিসি বাংলা


পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপন করেছেন জর্জিয়ার প্রবাসীরা

বৃহস্পতিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭

Picture

বাপ্ নিউজ : জর্জিয়া থেকে : যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্য আমেজে স্থানীয় সময় ১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার উদযাপিত হয় মুসলমানদের অন্যতম প্রধান এই ধর্মীয় উৎসব। চমৎকার আবহাওয়া থাকায় জর্জিয়ায় অনেক খোলা মাঠে এবারের ঈদুল আযহার জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

alt

সকালে হালকা ঠান্ডা থাকায় খোলা মাঠে মিষ্টি রোদ মুসল্লিদের বাড়তি সুবিধা দেয়। জর্জিয়ায় এবার অধিকাংশ ঈদ জামায়াত সকাল ৮ থেকে সাড়ে ১০ টার মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়। ঈদ জামায়াত গুলোতে নামে প্রবাসীদের ঢল। আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার, লা ইলাহা ইল্লাললাহু, আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার, ওয়া লিল্লাহিল হামদ ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠে মসজিদ ও ঈদগাহ প্রাঙ্গণ।

alt

সকাল বেলায় মুসলিম পরিবারের সদস্যরা নানা রঙের পাজামা পাঞ্জাবি শাড়ী সালওয়ার কামিজ পরে দল বেঁধে নিকটস্থ মসজিদ কিংবা খোলা মাঠে হাজির হয়ে ঈদের নামাজ আদায় করেন। উদযাপন করেন বিশেষ আনন্দের পবিত্র ঈদুল আযহা।

alt

বিশেষ পোষাক পরিধান করে একত্রে বিপুল সংখ্যক মুসল্লীর ঈদের নামাজ আদায়ের বিষয়টি ভীন দেশীদের বিশেষভাবে আকৃষ্ট করে। ঈদের জামায়াত গুলোতে স্থানীয় রাজনীতিক, সমাজসেবী, ব্যবসায়ী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বসহ প্রবাসের নানা শ্রেণী পেশার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন।

alt

দেশের মতো সবাই একসাথে ঈদের নামাজ পড়তে পেরে খুশি জর্জিয়ার প্রবাসীরা।নন ইসলামিক দেশ আমেরিকাতে স্থায়ী কোন ঈদের ময়দান না থাকায় ভাড়া করা বিভিন্ন কম্যুনিটি সেন্টার ও মসজিদে ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

alt

ঈদের নামাজে কমিউনিটি, দেশ, জাতি ও বিশ্ব মানবতার কল্যাণ সুখ শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ দোয়া মুনাজাত করা হয়। মুনাজাতে মিয়ানমারে নির্যাতিত রোহিঙ্গা এবং টেক্সাস ও বাংলাদেশে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্যে বিশেষ দোয়া করা হয়। পরে একে অন্যের সাথে আলিঙ্গনের মাধ্যমে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এসময় ভিন্ন এক আমেজ পরিলক্ষিত হয়।

alt

ঈদ মানে একে অপরের প্রতি ভালবাসা, ভাতৃত্ববোধ, সহমর্মিতা ও সহযোগিতার অপূর্ব বন্ধন । এই আনন্দ ও উৎসব মুসলিম উম্মাহর জীবনে বয়ে আনে খুশীর বন্যা , ভুলিয়ে দেয় সকল বিভেদ ।আবহাওয়া চমৎকার হওয়ায় নতুন পোষাকে ছেলে-মেয়েরা যেমন বন্ধু-বান্ধবের সাথে হৈচৈ করে বেরিয়েছে ।

alt

অনেকে স্বপরিবারে বা বন্ধু-বান্ধব নিয়ে ঘনিষ্টজনদের বাসা-বাড়ীতে গিয়ে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এছাড়া প্রবাসীরা ফোনে বাংলাদেশে ফোন করে স্বজনদের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

alt

শুরু হয় মোবাইলের মাধ্যমে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়ে ‘ঈদ মোবারক’ জানানোর আনুষ্ঠানিকতা। কেউ কেউ ভার্চুয়াল দুনিয়াকে বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক টুইটারে জানাচ্ছেন ঈদের শুভেচ্ছা।

alt

নামাজ শেষে কেউ কেউ চলে যান কোরবানির পশু জবাই করতে খামারে বা হালাল স্লটার হাউজে। অনেকে আবার ঈদের নামাজ আদায় করেই চলে যান কাজে। অধিকাংশ প্রবাসী অবশ্য আগে থেকেই স্থানীয় গ্রোসারী ও রেষ্টুরেন্টে কোরবানীর অর্ডার দিয়ে রাখেন। সুবিধামত সময়ে গ্রোসারী ও রেষ্টুরেন্ট থেকে প্রবাসীরা তাদের পশু কোরবানীর মাংস নিয়ে যান।

alt

প্রবাসীরা গরু, খাশী ও ভেড়া কুরবানি দেন। কিন্তু দেশের মতো পশু কিনে নিজ বাড়িতে নিয়ে কোরবানি করার সুযোগ না থাকায় উতসবের ঘাটতির কথা জানালেন কেউ কেউ। তারা জানালেন, দেশের মতো ঈদের কোন আনন্দই পাওয়া যায় না প্রবাসে। দেশে থাকা মা-বাবা, পরিবারকে খুব করে মনে পড়ার কথা জানালেন তারা।


জর্জ আইল্যান্ড পার্কে কক্সবাজারবাসীর আনন্দঘন ফ্যামেলী পিকনিক

বৃহস্পতিবার, ৩১ আগস্ট ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপ্‌স নিউজ : নিউইয়র্ক: প্রকৃতির অপরুপ সুন্দর্য্যঘেরা নিউইয়র্কের জর্জ আইল্যান্ড পার্কে বসেছিল কক্সবাজারবাসীর পারিবারিক পিকনিক। ২৭ আগষ্ট নিউইয়র্ক প্রবাসী কক্সবাজারবাসীর পক্ষ থেকে এ পিকনিকের আয়োজন করা হয়। ওই দিন দুপুরে নিজস্ব পরিবহনে করে অন্তত ২৫ টি পরিবার জর্জ অাইল্যান্ড পার্কের এ পিকনিকে অংশ নেয়। দুপুরের পর থেকে চলে জমিয়ে আড্ডা। নদী মোহনা আর পার্কের সবুজের সমারোহের মিতালিতে পিকনিকে অংশগ্রহণকারীরা পার করে একটি ভিন্ন রকম আনন্দের দিন।

Picture

পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ছুটির দিনে এ ধরনে আয়োজনে অংশ গ্রহণকারীরা ফিরে যায় দেশের স্মৃতিতে। প্রবাস জীবনের ধরাবাঁধা নিয়ম থেকে একটি দিন নিজেরা একত্রিত হতে পেরে সবার মাঝে যেন অানন্দের শেষ ছিল না। খাবারের অাগে দেশ ও বিশ্ববাসীর মঙ্গল কামানায় বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করা হয়। এতে বাংলাদেশের বন্যা দুর্গতরা যাতে দ্রুত ধকল কাটিয়ে উঠতে পারেন সে কামনাও করেন অংশ গ্রহণকারীরা। বিকেলে অংশ গ্রহণকারী পুরুষদের মধ্যে দু'দলে বিভক্ত হয়ে চলে প্রীতি ফুটবল।

alt

এক ঘণ্টারও বেশি সময়ের এ প্রীতি ফুটবল ম্যাচ কক্সবাজারবাসী ছাড়াও উপভোগ করেন পার্কে বেড়াতে আসা ভিন দেশী পর্যটকরা। বিকেল গড়িয়ে পূর্বাকাশের সূর্য্য যখন বিদায় নেয় তখনই একটি ভিন্ন রকম স্মৃতি নিয়ে ঘরে ফিরেন কক্সবাজারবাসী। পিকনিকে  কক্সাবাজার এসোসিয়েশন অব নর্থ আমেরিকার সাবেক সভাপতি সরওয়ার জামান সিপিএ, চট্টগ্রাম সমিতির সাবেক ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য হাসান চৌধুরী, সৈয়দুল হক, মহিবুল্লাহ, আক্তার হোসেন, জহিরুল ইসলাম, আবদুল জলিল, মনসুর আলম, শওকত উসমান, জিয়াউর রহমান, শফিউল অাজম, মিন্টু, আবরার, সাগর, এহেসান, রাজীব, নজরুল ইসলাম, কলিন্স, রফিক, মিজান, দিদার, আনোয়ার হােসেন, রিংকু চৌধুরী ও জসিমের পরিবার  অংশ নেয়।


টেষ্ট ম্যাচে অসাধারণ নৈপূন্যতায় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

বৃহস্পতিবার, ৩১ আগস্ট ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:টেষ্ট ম্যাচে অসাধারণ নৈপূন্য আর দুর্দান্ত বোলিং, ব্যাটিং এ শক্তিধর অষ্ট্রেলিয়াকে পরাজিত করায় এবং এই ঐতিহাসিক বিজয়ের জন্য যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ।


কিংবদন্তি শিল্পী আবদুল জব্বারের মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীগের শোক

বৃহস্পতিবার, ৩১ আগস্ট ২০১৭

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বাপসনিঊজ:স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কিংবদন্তি শিল্পী, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল জব্বার গত বুধবার ৩০ আগস্ট সকাল ৯টা ১০ মিনিটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাহি রাজেউন)। মৃত্যুকালে গুণী এই শিল্পীর বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর।খবর বাপসনিঊজ।
জাতির এই শ্রেষ্ঠ সন্তানের মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।